alt

নগর-মহানগর

আলোয় ঝলমল পুরো পদ্মা সেতু

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০২২

স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে একসঙ্গে জ্বলে উঠলো সবগুলো বাতি, আলোতিক হলো পুরো সেতু -সংবাদ

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আর মাত্র ১০ দিন বাকি। এর মধ্যে মঙ্গলবার (১৪ জুন) আলোকিত হয়েছে পুরো পদ্মা সেতু। সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে এক সঙ্গে বাতি জ্বালানো হয়েছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায়। এর আগে ভাগ ভাগ করে সেতুর ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। এর আগে সোমবার (১৩ জুন) মাওয়া প্রান্তে ২০৭টি বাতি জ্বালানো হয়েছিল। সর্বশেষ মঙ্গলবার পুরো সেতুর ৪১৫টি বাতি একসঙ্গে ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষা শেষ করা হয়েছে বলে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান।

এ বিষয়ে পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম সংবাদকে বলেন, ‘মঙ্গলবার পুরো সেতুর বাতিগুলো জ্বালানি পরীক্ষার কাজ শেষ করা হয়েছে। এর আগে ভাগ ভাগ করে জ্বালানো হয়েছিল।’

প্রকল্প সূত্র জানায়, ২০২১ সালের ২৫ নভেম্বর মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে সেতুর ভায়াডাক্টে প্রথম ল্যাম্পপোস্ট বসানোর কাজ শুরু হয়েছিল। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার সেতুতে মোট ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্ট স্থাপন করা হয়। এর মধ্যে মূল সেতুতে ৩২৮টি, জাজিরা প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪৬টি, মাওয়া প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪১টি ল্যাম্পপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। মূল সেতুতে ল্যাম্পপোস্ট বসানোর কাজ শেষ হয় গত ১৮ এপ্রিল।

এর আগে গত ৪ জুন বিকেলে পদ্মা সেতুতে পরীক্ষামূলকভাবে প্রথম বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালানো হয়। ওইদিন সেতুর ১৪ থেকে ১৯ নম্বর পিয়ারের মাঝামাঝিতে ২৪টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। গত ২৪ মে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তের ৪২ নম্বর পিয়ারে সেতুর সাবস্টেশনে বিদ্যুৎ-সংযোগ দেয়া হয়।

শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি থেকে ৮০ কিলোওয়াট ও মুন্সীগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি থেকে দেয়া আরও ৮০ কিলোওয়াট বিদ্যুতে সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হবে। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে ভোর পর্যন্ত এই বাতিগুলো জ্বালানো হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

এ বিষয়ে পদ্মা সেতুর প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল কাদের সংবাদকে বলেন, ‘মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৯ দশমিক ৮৩ কিলোমিটার সেতুপথের দুই পাশের সব ল্যাম্পপোস্টের আলো জ্বালিয়ে দেন প্রকৌশলীরা। মুন্সীগঞ্জ ও জাজিরা পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির দেয়া বৈদ্যুতিক সংযোগের মাধ্যমে এই প্রথম সম্পূর্ণ সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষামূলকভাবে বাতি জ্বালানো হয়েছে। এর আগে সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে ভাগ ভাগ করে বিদ্যুৎ ও জেনেরেটর দিয়ে বাতি জ্বালানো পরীক্ষা করা হয়। সেতু চালু হলে প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে ভোর এই বাতিগুলো জ্বালানো থাকবে। বিদ্যুৎ চলে গেলে জেনেরেটরের ব্যবস্থা থাকবে।’

শরীয়তপুর (জাজিরা) প্রতিনিধি জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তের সেতুর সব ল্যাম্পপোস্টে একসঙ্গে বাতি জ্বালানো হয়। এতে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্ত থেকে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা প্রান্ত পর্যন্ত পুরো পদ্মা সেতুতে ঝলমল করে আলো জ্বলে উঠে।

শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি সূত্র জানায়, শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির দেয়া বৈদ্যুতিক সংযোগের মাধ্যমে এই প্রথম জাজিরা প্রান্তের ২১০টি ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষামূলকভাবে বাতি জ্বালানো হয়েছে। বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর প্রথম পিয়ার থেকে ৩ দশমিক সাড়ে ৭ কিলোমিটার বিদ্যুতের লাইন সংযুক্ত করে দিয়েছে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি জোনাল অফিস। আর শরীয়তপুরে জাজিরা নাওডোবা প্রান্ত থেকে ৩ দশমিক সাড়ে ৭ কিলোমিটার সেতুতে অর্ধেক বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছে শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। এ নিয়ে গত ৭ দিনে পর্যায়ক্রমে ৪১৫টি বাতি জ্বালানোর মাধ্যমে স্ট্রিট লাইটের পরীক্ষামূলক কার্যক্রম শেষ হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান।

আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ যাত্রী ও বাসিন্দাদের

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরো সেতুতে বাতি জ্বালানো ফলে পদ্মা নদীর দুই পাড়ে স্থানীয় বাসিন্দা ও ফেরিঘাটের যাত্রীদের আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

আলম নামের বরিশালের এক যাত্রী বলেন, ‘আমি ঢাকায় কাজ করি। এক আত্মীয়ের বিয়েতে গ্রামে গিয়েছিলাম। সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরছিলাম। ফেরিতে উঠেই জানতে পারি, সেতুতে আলো জ্বালানো হবে। ফেরিতে চড়ে যেতে যেতে পুরো পদ্মা সেতুতে প্রথমবারের মতো জ্বলে ওঠা আলোকচ্ছটা দেখেছি। এটা আমাদের জীবনে স্মরণীয় ঘটনা হয়ে থাকবে।’

জাজিরার নাওডোবার আশরাফুল নামের এক বাসিন্দা বলেন, ‘২০০৮ সালে যখন আমাদের জমি পদ্মা সেতুর জন্য অধিগ্রহণের নোটিশ করা হয়, সেদিন থেকেই স্বপ্নের সেতুর জন্য অপেক্ষা করছি। অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। আজ নদীর পাড়ে দাঁড়িয়ে আলোকিত পদ্মা সেতু দেখে গর্বে বুকটা ভরে গেছে।’

ছবি

নারায়ণগঞ্জে ট্রাক চাপায় কলেজছাত্র নিহত

ছবি

বড় ভাইয়ের মৃত্যু: প্যারোলে মুক্ত হাজী সেলিম

ছবি

অধ্যাপক রতন সিদ্দিকীর বাসায় ‘হামলা’

ছবি

বিক্রি শুরুর আড়াই ঘণ্টায় শেষ টিকিট

ছবি

নারায়ণগঞ্জে জাপা নেতার অনুমোদনহীন ভবন ভেঙে দিয়েছে রাজউক, জরিমানা ২ লাখ

ছবি

ড্রোন দিয়ে ডেঙ্গু মশা খুঁজবে ডিএনসিসি

ছবি

ডিএনসিসির ৬ গরুর হাটে হবে ডিজিটাল লেনদেন

রাজধানীতে ৪৩ চোরাই মোবাইল উদ্ধার, মালিক খুঁজছে পুলিশ

এবার ঢাকা দক্ষিণে ৬টি ‘কৃষকের বাজার’ হচ্ছে

রাজধানীতে মলম পার্টি ও ছনতাইকারী চক্রের ২৬ গ্রেপ্তার

ছবি

শাহবাগে ট্রাকের ধাক্কায় কলেজশিক্ষার্থী নিহত

ছবি

দক্ষিণ সিটির উপ-কর কর্মকর্তাসহ চাকরি হারালেন ৩২ জন

রাজধানীতে মলম পার্টি ও ছিনতাইকারী চক্রের ২৬ সদস্য গ্রেপ্তার

ছবি

মতিঝিলে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার মাদক কারবারি

ছবি

মাদকবিরোধী অভিযান: রাজধানীতে আটক ৪২

রাজধানীতে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

রাষ্ট্রপতির ছেলের গাড়িচালককে মারধর, মামলা ছাত্রলীগকর্মীর নামে

গাড়ীর ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত

ছবি

বংশালে বিস্ফোরণে একই পরিবারের দগ্ধ ৪

ছবি

পদ্মা সেতু উদ্বোধন: বর্ণিল সাজে সেজেছে ঢাকা উত্তর সিটি

ছবি

রামপুরায় গৃহকর্মীর মৃত্যুর রহস্য খুঁজছে পুলিশ

ছবি

রাজধানীতে মদ-হেরোইনসহ গ্রেপ্তার ৬৮

বন্যা, খরা ও লবণাক্ততা সহিষ্ণু জাতের উদ্ভাবনের দিকে জোর কৃষিমন্ত্রীর

ছবি

তিন দিনব্যাপী ‘ঢাকা মোটর শো-২০২২’ শুরু কাল

১ সেপ্টেম্বর তিন রুটে ২০০ বাস দিয়ে চালু হবে ঢাকা নগর পরিবহন

ছবি

ইউনিলিভার ও সার্কুলার এর যৌথ অংশীদারিত্বে প্লাস্টিক সংগ্রহের উদ্যোগ

ছবি

আর্টিকেল নাইনটিনের আয়োজনে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য প্রতিরোধ বিষয়ক ওয়েবিনার

ছবি

‘১ সেপ্টেম্বর থেকে আরও তিন রুটে ঢাকা নগর পরিবহনের ২০০ বাস নামবে’

ছবি

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযান, ৫৪ মামলায় গ্রেফতার ৭৪

ছবি

বাংলাদেশ ব্যাংকের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ছবি

রন্ধন শিল্পী তৈরির কারিগরদের সম্মাননা দিলো বেকিং এন্ড কুকিং এন্টারপ্রেনারস বিডি

ছবি

আজ রন্ধন শিল্পীদের সম্মাননা

ছবি

‘গৃহ সুখন’ এর রিমা জুলফিকার, দিন বদলের পালাকার

ছবি

মুনিরা সুলতানার ‘আপন ঘর’, চলছে আপন গতিতে

ছবি

রাজধানীতে হেরোইন-ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার ৫২

ছবি

আন্তর্জাতিক জলবায়ু তহবিল সংগ্রহে স্থানীয় সরকার কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

tab

নগর-মহানগর

আলোয় ঝলমল পুরো পদ্মা সেতু

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে একসঙ্গে জ্বলে উঠলো সবগুলো বাতি, আলোতিক হলো পুরো সেতু -সংবাদ

মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০২২

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আর মাত্র ১০ দিন বাকি। এর মধ্যে মঙ্গলবার (১৪ জুন) আলোকিত হয়েছে পুরো পদ্মা সেতু। সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে এক সঙ্গে বাতি জ্বালানো হয়েছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায়। এর আগে ভাগ ভাগ করে সেতুর ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। এর আগে সোমবার (১৩ জুন) মাওয়া প্রান্তে ২০৭টি বাতি জ্বালানো হয়েছিল। সর্বশেষ মঙ্গলবার পুরো সেতুর ৪১৫টি বাতি একসঙ্গে ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষা শেষ করা হয়েছে বলে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান।

এ বিষয়ে পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম সংবাদকে বলেন, ‘মঙ্গলবার পুরো সেতুর বাতিগুলো জ্বালানি পরীক্ষার কাজ শেষ করা হয়েছে। এর আগে ভাগ ভাগ করে জ্বালানো হয়েছিল।’

প্রকল্প সূত্র জানায়, ২০২১ সালের ২৫ নভেম্বর মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে সেতুর ভায়াডাক্টে প্রথম ল্যাম্পপোস্ট বসানোর কাজ শুরু হয়েছিল। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার সেতুতে মোট ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্ট স্থাপন করা হয়। এর মধ্যে মূল সেতুতে ৩২৮টি, জাজিরা প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪৬টি, মাওয়া প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪১টি ল্যাম্পপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। মূল সেতুতে ল্যাম্পপোস্ট বসানোর কাজ শেষ হয় গত ১৮ এপ্রিল।

এর আগে গত ৪ জুন বিকেলে পদ্মা সেতুতে পরীক্ষামূলকভাবে প্রথম বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালানো হয়। ওইদিন সেতুর ১৪ থেকে ১৯ নম্বর পিয়ারের মাঝামাঝিতে ২৪টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। গত ২৪ মে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তের ৪২ নম্বর পিয়ারে সেতুর সাবস্টেশনে বিদ্যুৎ-সংযোগ দেয়া হয়।

শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি থেকে ৮০ কিলোওয়াট ও মুন্সীগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি থেকে দেয়া আরও ৮০ কিলোওয়াট বিদ্যুতে সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হবে। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে ভোর পর্যন্ত এই বাতিগুলো জ্বালানো হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

এ বিষয়ে পদ্মা সেতুর প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল কাদের সংবাদকে বলেন, ‘মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৯ দশমিক ৮৩ কিলোমিটার সেতুপথের দুই পাশের সব ল্যাম্পপোস্টের আলো জ্বালিয়ে দেন প্রকৌশলীরা। মুন্সীগঞ্জ ও জাজিরা পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির দেয়া বৈদ্যুতিক সংযোগের মাধ্যমে এই প্রথম সম্পূর্ণ সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষামূলকভাবে বাতি জ্বালানো হয়েছে। এর আগে সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে ভাগ ভাগ করে বিদ্যুৎ ও জেনেরেটর দিয়ে বাতি জ্বালানো পরীক্ষা করা হয়। সেতু চালু হলে প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে ভোর এই বাতিগুলো জ্বালানো থাকবে। বিদ্যুৎ চলে গেলে জেনেরেটরের ব্যবস্থা থাকবে।’

শরীয়তপুর (জাজিরা) প্রতিনিধি জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তের সেতুর সব ল্যাম্পপোস্টে একসঙ্গে বাতি জ্বালানো হয়। এতে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্ত থেকে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা প্রান্ত পর্যন্ত পুরো পদ্মা সেতুতে ঝলমল করে আলো জ্বলে উঠে।

শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি সূত্র জানায়, শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির দেয়া বৈদ্যুতিক সংযোগের মাধ্যমে এই প্রথম জাজিরা প্রান্তের ২১০টি ল্যাম্পপোস্টে পরীক্ষামূলকভাবে বাতি জ্বালানো হয়েছে। বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর প্রথম পিয়ার থেকে ৩ দশমিক সাড়ে ৭ কিলোমিটার বিদ্যুতের লাইন সংযুক্ত করে দিয়েছে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি জোনাল অফিস। আর শরীয়তপুরে জাজিরা নাওডোবা প্রান্ত থেকে ৩ দশমিক সাড়ে ৭ কিলোমিটার সেতুতে অর্ধেক বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছে শরীয়তপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। এ নিয়ে গত ৭ দিনে পর্যায়ক্রমে ৪১৫টি বাতি জ্বালানোর মাধ্যমে স্ট্রিট লাইটের পরীক্ষামূলক কার্যক্রম শেষ হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান।

আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ যাত্রী ও বাসিন্দাদের

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরো সেতুতে বাতি জ্বালানো ফলে পদ্মা নদীর দুই পাড়ে স্থানীয় বাসিন্দা ও ফেরিঘাটের যাত্রীদের আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

আলম নামের বরিশালের এক যাত্রী বলেন, ‘আমি ঢাকায় কাজ করি। এক আত্মীয়ের বিয়েতে গ্রামে গিয়েছিলাম। সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরছিলাম। ফেরিতে উঠেই জানতে পারি, সেতুতে আলো জ্বালানো হবে। ফেরিতে চড়ে যেতে যেতে পুরো পদ্মা সেতুতে প্রথমবারের মতো জ্বলে ওঠা আলোকচ্ছটা দেখেছি। এটা আমাদের জীবনে স্মরণীয় ঘটনা হয়ে থাকবে।’

জাজিরার নাওডোবার আশরাফুল নামের এক বাসিন্দা বলেন, ‘২০০৮ সালে যখন আমাদের জমি পদ্মা সেতুর জন্য অধিগ্রহণের নোটিশ করা হয়, সেদিন থেকেই স্বপ্নের সেতুর জন্য অপেক্ষা করছি। অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। আজ নদীর পাড়ে দাঁড়িয়ে আলোকিত পদ্মা সেতু দেখে গর্বে বুকটা ভরে গেছে।’

back to top