alt

নগর-মহানগর

টিপু হত্যা : তদন্ত শেষ পর্যায়ে

চার্জশিটে একাধিক সন্ত্রাসী ও আ’লীগ নেতার নাম থাকতে পারে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

রাজধানীর মতিঝিলে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু হত্যাকান্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত এখন পর্যন্ত ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। কয়েকদিনের মধ্যে এ হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হবে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, এ হত্যাকান্ডের তদন্তকাজ শেষ করা হয়েছে। রাজধানীর মতিঝিলে যেসব হত্যাকান্ড ঘটেছে সেগুলো মূলত আধিপত্য বিস্তার ও চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে। দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী মুসাকে ওমান থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকেই হত্যাকান্ডের অনেক বিষয় সম্পর্কে আমরা জানতে পেরেছি।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান, ফ্রিডম মানিক, সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ারসহ ২০ থেকে ২২ জনের নাম থাকবে চার্জশিটে। ২০১৯ সালে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার হন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। এর পরপরই মতিঝিল এলাকার নিয়ন্ত্রণ চলে যায় জাহিদুল ইসলাম টিপুর হাতে। শুরুর দিকে টিপুর সঙ্গে বেশ সখ্য ছিল শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। কিন্তু বিভিন্ন কারণে তাদের মধ্যে দূরত্ব বেড়ে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। সম্পর্কের অবনতির জের ধরে টিপুকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী দায়িত্ব দেয়া হয় সুমন সিকদার ওরফে মুসাকে। যুবলীগ নেতা মিল্কি ও বাবু হত্যা নিয়ে টিপু-বিরোধীদের এই হত্যার পরিকল্পনায় যুক্ত করে মুসা। হত্যার পরিকল্পনায় অংশ নেয় আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার, দামাল, মানিক, ফারুক, পলাশ, সালেহসহ ১২ জন?। হত্যাকান্ডের জন্য অস্ত্র সরবরাহ এবং গুলি সরবরাহের দায়িত্ব পায় সাগর ইশতিয়াক জিতু রাকিব বাবু। মূল কিলিং মিশনে দায়িত্ব দেয়া হয় শুটার মাসুম মোহাম্মদ আকাশকে। আর হত্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর জন্য মোটরসাইকেলের সহায়তা করে মোল্লা শামীম। হত্যাকান্ড ঘটানোর সময় সহায়তায় ছিল মারুফ, একরাম, সৈকত ও সেকান্দার।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, হত্যাকান্ডের পর একটি মোবাইল নম্বরে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠানোর সূত্র ধরে তদন্তে উঠে আসে শুটার মাসুমের নাম। গ্রেপ্তার করা হয় মাসুম ওরফে আকাশকে। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসে মুসার নাম। ওমান থেকে গ্রেপ্তারের পর নিয়ে আসা হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় বিদেশে অবস্থানরত শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপুকে। মামলাটির সব বিষয় মাথায় রেখেই তদন্ত করা হয়েছে। তদন্তে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

প্রসঙ্গত ২০২১ সালের ২৪ মার্চ রাতে মতিঝিল থেকে শাহজাহানপুর বাসায় ফেরার পথে শাহজাহানপুর রেলগেট পার হওয়ার সময় যানজটে আটকে থাকা গাড়ি লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি চালানো হয়। এ সময় প্রাইভেটকারের চালকের পাশে বসে থাকা জাহিদুল ইসলাম টিপু গুলিবিদ্ধ হন। এলোপাতাড়ি গুলির আঘাতে প্রাইভেটকারের পাশে রিকশায় থাকা বদরুন্নেছা কলেজের শিক্ষার্থী সামিয়া জামাল প্রীতি গুলিবিদ্ধ হন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তাদের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মামলার বাদী জাহিদুল ইসলাম টিপুর স্ত্রী ফারহানা ইসলাম ডলি বলেন, এখন পর্যন্ত গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে সন্তুষ্ট। দ্রুত যেন চার্জশিট দেয়া হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন মোবাইল নম্বর থেকে প্রতিনিয়ত ফোন দিয়ে চার্জশিট থেকে সাগর, সোহেল শাহরিয়ার, মুনসুর ও আশরাফের নাম বাদ দেয়ার জন্য ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে। আমারা শঙ্কা নিয়েই দিন পার করছি। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। যারা এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত তারা যেন কোনভাবেই ছাড় না পায়।

ছবি

সদরঘাটে যাত্রীবাহী লঞ্চের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ছবি

সদরঘাটে যাত্রীবাহী লঞ্চে আগুন

ছবি

এবার এডিসের লার্ভা পেলেই জেল-জরিমানা: মেয়র আতিক

ছবি

রিহ্যাবের মতামত ছাড়া ইমারত নির্মাণ বিধিমালা চূড়ান্ত না করার দাবি

ছবি

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের স্ত্রী গ্রেপ্তার

নিত্যপণ্যের তুলনায় তামাকপণ্য সস্তা, দাম বাড়ানোর দাবি

ছবি

ট্রেনে পায়ের আঙুল কাটা পড়েছে আনু মুহাম্মদের

ছবি

রেকি করে ফাঁকা ঢাকায় চুরি করতেন তারা

ছবি

প্রচণ্ড তাপপ্রবাহে আইনজীবীদের গাউন পড়নে শিথিলতা

ছবি

হাতিরঝিলে ভাসছিল যুবকের মরদেহ

ছবি

শিশু হাসপাতালে পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না: ফায়ার সার্ভিস

ছবি

শিশু হাসপাতালে আগুন, ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

ছবি

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাইদা বাস থার্ড টার্মিনালে, প্রকৌশলী নিহত

ছবি

ঢাকা শিশু হাসপাতালের কার্ডিয়াক বিভাগে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৭ ইউনিট

ছবি

ভাষানটেকে বাবা-মা-দাদির পরে চলে গেল লামিয়াও

ছবি

যমুনা এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুত বগি উদ্ধার, ঢাকামুখী পথ সচল

ছবি

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

ছবি

ভাসানটেকে গ্যাসের আগুন: শাশুড়ি ও স্ত্রীর পর স্বামীও মারা গেছে

ছবি

পহেলা বৈশাখে জাহানারা জাদুঘরের বিশেষ প্রদর্শনী

ছবি

চট্টগ্রামে বস্তিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৯ ইউনিট

ছবি

ঢাকায় পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ৮

ঢাবি চারুকলার বকুলতলায় গান-নাচ-আবৃত্তিতে চৈত্রসংক্রান্তি উদ্‌যাপন

ছবি

ঢাকায় এসেছে ইসরায়েলের ফ্লাইট, বেবিচকের ব্যাখা

ছবি

বর্ষবরণের অপেক্ষায় রমনা

ছবি

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের ওপর গাড়িতে আগুন লাগে জানান পুলিশ

লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে ৫ জনের মৃত্যু : আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড

ছবি

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের ওপর প্রাইভেট কারে আগুন

রাজধানীর শাহজাদপুরে বুথের নিরাপত্তা প্রহরীকে হত্যা

ছবি

যাত্রীদের পিটুনিতে হয়নি চালক-সহকারীর মৃত্যু, হেলপার গল্প সাজিয়েছে বলছে পুলিশ

ছবি

ঈদের দিন বন্ধ থাকবে মেট্রোরেল

ছবি

মেট্রোরেলের পিলারে বাসের ধাক্কা

ছবি

কেএনএফের তৎপরতা নিয়ে ঢাকায় কোনো শঙ্কা নেই: ডিএমপি কমিশনার

ছবি

আবাসিক হোটেল থেকে নির্মাতা সোহানুর রহমানের মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

কেটলির শর্টসার্কিট থেকে লিকেজের গ্যাসে বিস্তার

ছবি

জনগণের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক করতে পুলিশের সব ইউনিট একযোগে কাজ করছে : আইজিপি

ছবি

কমলাপুর স্টেশনে বেড়েছে যাত্রীর চাপ, টিকেট ছাড়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

tab

নগর-মহানগর

টিপু হত্যা : তদন্ত শেষ পর্যায়ে

চার্জশিটে একাধিক সন্ত্রাসী ও আ’লীগ নেতার নাম থাকতে পারে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

রাজধানীর মতিঝিলে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু হত্যাকান্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত এখন পর্যন্ত ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। কয়েকদিনের মধ্যে এ হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হবে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, এ হত্যাকান্ডের তদন্তকাজ শেষ করা হয়েছে। রাজধানীর মতিঝিলে যেসব হত্যাকান্ড ঘটেছে সেগুলো মূলত আধিপত্য বিস্তার ও চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে। দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী মুসাকে ওমান থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকেই হত্যাকান্ডের অনেক বিষয় সম্পর্কে আমরা জানতে পেরেছি।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান, ফ্রিডম মানিক, সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ারসহ ২০ থেকে ২২ জনের নাম থাকবে চার্জশিটে। ২০১৯ সালে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার হন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। এর পরপরই মতিঝিল এলাকার নিয়ন্ত্রণ চলে যায় জাহিদুল ইসলাম টিপুর হাতে। শুরুর দিকে টিপুর সঙ্গে বেশ সখ্য ছিল শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। কিন্তু বিভিন্ন কারণে তাদের মধ্যে দূরত্ব বেড়ে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। সম্পর্কের অবনতির জের ধরে টিপুকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী দায়িত্ব দেয়া হয় সুমন সিকদার ওরফে মুসাকে। যুবলীগ নেতা মিল্কি ও বাবু হত্যা নিয়ে টিপু-বিরোধীদের এই হত্যার পরিকল্পনায় যুক্ত করে মুসা। হত্যার পরিকল্পনায় অংশ নেয় আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার, দামাল, মানিক, ফারুক, পলাশ, সালেহসহ ১২ জন?। হত্যাকান্ডের জন্য অস্ত্র সরবরাহ এবং গুলি সরবরাহের দায়িত্ব পায় সাগর ইশতিয়াক জিতু রাকিব বাবু। মূল কিলিং মিশনে দায়িত্ব দেয়া হয় শুটার মাসুম মোহাম্মদ আকাশকে। আর হত্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর জন্য মোটরসাইকেলের সহায়তা করে মোল্লা শামীম। হত্যাকান্ড ঘটানোর সময় সহায়তায় ছিল মারুফ, একরাম, সৈকত ও সেকান্দার।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, হত্যাকান্ডের পর একটি মোবাইল নম্বরে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠানোর সূত্র ধরে তদন্তে উঠে আসে শুটার মাসুমের নাম। গ্রেপ্তার করা হয় মাসুম ওরফে আকাশকে। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসে মুসার নাম। ওমান থেকে গ্রেপ্তারের পর নিয়ে আসা হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় বিদেশে অবস্থানরত শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপুকে। মামলাটির সব বিষয় মাথায় রেখেই তদন্ত করা হয়েছে। তদন্তে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

প্রসঙ্গত ২০২১ সালের ২৪ মার্চ রাতে মতিঝিল থেকে শাহজাহানপুর বাসায় ফেরার পথে শাহজাহানপুর রেলগেট পার হওয়ার সময় যানজটে আটকে থাকা গাড়ি লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি চালানো হয়। এ সময় প্রাইভেটকারের চালকের পাশে বসে থাকা জাহিদুল ইসলাম টিপু গুলিবিদ্ধ হন। এলোপাতাড়ি গুলির আঘাতে প্রাইভেটকারের পাশে রিকশায় থাকা বদরুন্নেছা কলেজের শিক্ষার্থী সামিয়া জামাল প্রীতি গুলিবিদ্ধ হন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তাদের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মামলার বাদী জাহিদুল ইসলাম টিপুর স্ত্রী ফারহানা ইসলাম ডলি বলেন, এখন পর্যন্ত গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে সন্তুষ্ট। দ্রুত যেন চার্জশিট দেয়া হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন মোবাইল নম্বর থেকে প্রতিনিয়ত ফোন দিয়ে চার্জশিট থেকে সাগর, সোহেল শাহরিয়ার, মুনসুর ও আশরাফের নাম বাদ দেয়ার জন্য ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে। আমারা শঙ্কা নিয়েই দিন পার করছি। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। যারা এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত তারা যেন কোনভাবেই ছাড় না পায়।

back to top