alt

নগর-মহানগর

টিপু হত্যা : তদন্ত শেষ পর্যায়ে

চার্জশিটে একাধিক সন্ত্রাসী ও আ’লীগ নেতার নাম থাকতে পারে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

রাজধানীর মতিঝিলে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু হত্যাকান্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত এখন পর্যন্ত ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। কয়েকদিনের মধ্যে এ হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হবে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, এ হত্যাকান্ডের তদন্তকাজ শেষ করা হয়েছে। রাজধানীর মতিঝিলে যেসব হত্যাকান্ড ঘটেছে সেগুলো মূলত আধিপত্য বিস্তার ও চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে। দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী মুসাকে ওমান থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকেই হত্যাকান্ডের অনেক বিষয় সম্পর্কে আমরা জানতে পেরেছি।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান, ফ্রিডম মানিক, সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ারসহ ২০ থেকে ২২ জনের নাম থাকবে চার্জশিটে। ২০১৯ সালে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার হন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। এর পরপরই মতিঝিল এলাকার নিয়ন্ত্রণ চলে যায় জাহিদুল ইসলাম টিপুর হাতে। শুরুর দিকে টিপুর সঙ্গে বেশ সখ্য ছিল শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। কিন্তু বিভিন্ন কারণে তাদের মধ্যে দূরত্ব বেড়ে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। সম্পর্কের অবনতির জের ধরে টিপুকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী দায়িত্ব দেয়া হয় সুমন সিকদার ওরফে মুসাকে। যুবলীগ নেতা মিল্কি ও বাবু হত্যা নিয়ে টিপু-বিরোধীদের এই হত্যার পরিকল্পনায় যুক্ত করে মুসা। হত্যার পরিকল্পনায় অংশ নেয় আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার, দামাল, মানিক, ফারুক, পলাশ, সালেহসহ ১২ জন?। হত্যাকান্ডের জন্য অস্ত্র সরবরাহ এবং গুলি সরবরাহের দায়িত্ব পায় সাগর ইশতিয়াক জিতু রাকিব বাবু। মূল কিলিং মিশনে দায়িত্ব দেয়া হয় শুটার মাসুম মোহাম্মদ আকাশকে। আর হত্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর জন্য মোটরসাইকেলের সহায়তা করে মোল্লা শামীম। হত্যাকান্ড ঘটানোর সময় সহায়তায় ছিল মারুফ, একরাম, সৈকত ও সেকান্দার।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, হত্যাকান্ডের পর একটি মোবাইল নম্বরে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠানোর সূত্র ধরে তদন্তে উঠে আসে শুটার মাসুমের নাম। গ্রেপ্তার করা হয় মাসুম ওরফে আকাশকে। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসে মুসার নাম। ওমান থেকে গ্রেপ্তারের পর নিয়ে আসা হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় বিদেশে অবস্থানরত শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপুকে। মামলাটির সব বিষয় মাথায় রেখেই তদন্ত করা হয়েছে। তদন্তে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

প্রসঙ্গত ২০২১ সালের ২৪ মার্চ রাতে মতিঝিল থেকে শাহজাহানপুর বাসায় ফেরার পথে শাহজাহানপুর রেলগেট পার হওয়ার সময় যানজটে আটকে থাকা গাড়ি লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি চালানো হয়। এ সময় প্রাইভেটকারের চালকের পাশে বসে থাকা জাহিদুল ইসলাম টিপু গুলিবিদ্ধ হন। এলোপাতাড়ি গুলির আঘাতে প্রাইভেটকারের পাশে রিকশায় থাকা বদরুন্নেছা কলেজের শিক্ষার্থী সামিয়া জামাল প্রীতি গুলিবিদ্ধ হন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তাদের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মামলার বাদী জাহিদুল ইসলাম টিপুর স্ত্রী ফারহানা ইসলাম ডলি বলেন, এখন পর্যন্ত গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে সন্তুষ্ট। দ্রুত যেন চার্জশিট দেয়া হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন মোবাইল নম্বর থেকে প্রতিনিয়ত ফোন দিয়ে চার্জশিট থেকে সাগর, সোহেল শাহরিয়ার, মুনসুর ও আশরাফের নাম বাদ দেয়ার জন্য ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে। আমারা শঙ্কা নিয়েই দিন পার করছি। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। যারা এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত তারা যেন কোনভাবেই ছাড় না পায়।

ছবি

বিমানবন্দরের ডাস্টবিনে সাড়ে ৩ কেজি স্বর্ণ

করোনা আক্রান্ত ডিএনসিসির মেয়র আতিক

কামরাঙ্গীরচরে ভেজাল প্রসাধনীসহ গ্রেপ্তার ৭

রাজধানীতে পলিথিন ব্যবসায়ীকে অজ্ঞান করে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে

বাংলাদেশে সম্প্রীতির উজ্জ্বল নজির রয়েছে : আইজিপি

ছবি

তৃতীয়বার করোনায় আক্রান্ত মেয়র আতিক

ছবি

গুলিস্তানে দুই বাসের চাপায় নারীর মৃত্যু

ছবি

ভিকারুননিসার অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচনের কার্যক্রম বন্ধ রাখতে নোটিশ

১৫ বছর ধরে বিমানবন্দরে সক্রিয় এক ‘অজ্ঞান পার্টি’

ছবি

বাসায় পড়েছিল অর্ধগলিত লাশ, পুলিশ বলছে হত্যাকাণ্ড

ছবি

অনলাইনে কর পরিশোধে ১০ শতাংশ ছাড় দেবে ডিএনসিসি

ছবি

পরিবাগে ছুরিকাঘাতে তৃতীয় লিঙ্গের একজন নিহত

ছবি

বর্জ্য রিসাইকেল করার লক্ষ্যে কর্ডএইডকে তহবিল সহায়তা দিচ্ছে কোকা-কোলা ফাউন্ডেশন

ছবি

উত্তরায় হোটেল থেকে ব্রিটিশ নাগরিকের লাশ উদ্ধার

ছবি

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় তরুণী উদ্ধার, ধর্ষণের অভিযোগ

ছবি

শেখ হাসিনা নারী জাগরণে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন: আইভী

ছবি

রাজধানীতে ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

‘স্বাধীনতার পরাজিত শত্রুরা সাম্প্রাদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার অপচেষ্টায় লিপ্ত’

ছবি

সমাবেশের আগেই হাজারীবাগে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ

ছবি

মোহাম্মদপুরে স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

ছবি

দেশে বর্তমানে ১৩ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

বংশালে সাততলা থেকে পড়ে উদয়নের শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

বুয়েট এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১

ছবি

ডিএমপির ঊর্ধ্বতন ৯ কর্মকর্তাকে বদলি

ছবি

‘হিডেন হেরিটেজ: হোমস ইন ঢাকা’ প্রকল্পের উন্মোচন

ছবি

রাজধানীতে ঘুমের ওষুধ খেয়ে গৃহবধূর মৃত্যু!

ছবি

পুরান ঢাকায় আগুনে পুড়ল দুই দোকান

ছবি

সড়ক ও ফুটপাতে রাখা নির্মাণসামগ্রী নিলামে তুলে বিক্রি

ছবি

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৩৯

বিএনপির ২ শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

মুগদা ও আশপাশের এলাকায় গ্যাস সংকট চরমে

ছবি

সিআইডি পরিচয়ে তুলে নেয়া চিকিৎসক শাকির সিটিটিসি হেফাজতে

শাহজাহানপুরে কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু, আত্মহত্য বলে পুলিশের ধারণা

ছবি

শিক্ষার্থী নিহত, নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিক্ষোভ

ছবি

দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করতে না পারলে আগামী দিনে পিছিয়ে পড়তে হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

বিমানের সিটের নিচে দেড় কোটি টাকার স্বর্ণ

tab

নগর-মহানগর

টিপু হত্যা : তদন্ত শেষ পর্যায়ে

চার্জশিটে একাধিক সন্ত্রাসী ও আ’লীগ নেতার নাম থাকতে পারে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

রাজধানীর মতিঝিলে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু হত্যাকান্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত এখন পর্যন্ত ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। কয়েকদিনের মধ্যে এ হত্যা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হবে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, এ হত্যাকান্ডের তদন্তকাজ শেষ করা হয়েছে। রাজধানীর মতিঝিলে যেসব হত্যাকান্ড ঘটেছে সেগুলো মূলত আধিপত্য বিস্তার ও চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে। দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়া হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী মুসাকে ওমান থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকেই হত্যাকান্ডের অনেক বিষয় সম্পর্কে আমরা জানতে পেরেছি।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান, ফ্রিডম মানিক, সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ারসহ ২০ থেকে ২২ জনের নাম থাকবে চার্জশিটে। ২০১৯ সালে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার হন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। এর পরপরই মতিঝিল এলাকার নিয়ন্ত্রণ চলে যায় জাহিদুল ইসলাম টিপুর হাতে। শুরুর দিকে টিপুর সঙ্গে বেশ সখ্য ছিল শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। কিন্তু বিভিন্ন কারণে তাদের মধ্যে দূরত্ব বেড়ে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। সম্পর্কের অবনতির জের ধরে টিপুকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী দায়িত্ব দেয়া হয় সুমন সিকদার ওরফে মুসাকে। যুবলীগ নেতা মিল্কি ও বাবু হত্যা নিয়ে টিপু-বিরোধীদের এই হত্যার পরিকল্পনায় যুক্ত করে মুসা। হত্যার পরিকল্পনায় অংশ নেয় আওয়ামী লীগ নেতা সোহেল শাহরিয়ার, দামাল, মানিক, ফারুক, পলাশ, সালেহসহ ১২ জন?। হত্যাকান্ডের জন্য অস্ত্র সরবরাহ এবং গুলি সরবরাহের দায়িত্ব পায় সাগর ইশতিয়াক জিতু রাকিব বাবু। মূল কিলিং মিশনে দায়িত্ব দেয়া হয় শুটার মাসুম মোহাম্মদ আকাশকে। আর হত্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর জন্য মোটরসাইকেলের সহায়তা করে মোল্লা শামীম। হত্যাকান্ড ঘটানোর সময় সহায়তায় ছিল মারুফ, একরাম, সৈকত ও সেকান্দার।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, হত্যাকান্ডের পর একটি মোবাইল নম্বরে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠানোর সূত্র ধরে তদন্তে উঠে আসে শুটার মাসুমের নাম। গ্রেপ্তার করা হয় মাসুম ওরফে আকাশকে। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসে মুসার নাম। ওমান থেকে গ্রেপ্তারের পর নিয়ে আসা হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় বিদেশে অবস্থানরত শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান ও ফ্রিডম মানিকের। গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপুকে। মামলাটির সব বিষয় মাথায় রেখেই তদন্ত করা হয়েছে। তদন্তে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

প্রসঙ্গত ২০২১ সালের ২৪ মার্চ রাতে মতিঝিল থেকে শাহজাহানপুর বাসায় ফেরার পথে শাহজাহানপুর রেলগেট পার হওয়ার সময় যানজটে আটকে থাকা গাড়ি লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি চালানো হয়। এ সময় প্রাইভেটকারের চালকের পাশে বসে থাকা জাহিদুল ইসলাম টিপু গুলিবিদ্ধ হন। এলোপাতাড়ি গুলির আঘাতে প্রাইভেটকারের পাশে রিকশায় থাকা বদরুন্নেছা কলেজের শিক্ষার্থী সামিয়া জামাল প্রীতি গুলিবিদ্ধ হন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তাদের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মামলার বাদী জাহিদুল ইসলাম টিপুর স্ত্রী ফারহানা ইসলাম ডলি বলেন, এখন পর্যন্ত গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে সন্তুষ্ট। দ্রুত যেন চার্জশিট দেয়া হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন মোবাইল নম্বর থেকে প্রতিনিয়ত ফোন দিয়ে চার্জশিট থেকে সাগর, সোহেল শাহরিয়ার, মুনসুর ও আশরাফের নাম বাদ দেয়ার জন্য ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে। আমারা শঙ্কা নিয়েই দিন পার করছি। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। যারা এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত তারা যেন কোনভাবেই ছাড় না পায়।

back to top