alt

নগর-মহানগর

জোড়া লাগানো মেরুদন্ডের দুই শিশুর শরীরে প্রথম অস্ত্রোপচার সফল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

মেরুদণ্ড জোড়া লাগানো শিশু নুহা ও নাবার শরীরে প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচার হয়েছে। এরপর কোনো জটিলতা দেখা দেয়নি বলে জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সোমবার রাত ৯টা থেকে ভোররাত ৩টা পর্যন্ত বিএসএমএমইউতে এই অস্ত্রোপচার হয়। এতে নেতৃত্ব দেন নিউরোসার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে নুহা ও নাবার শরীরে টিস্যু বর্ধনকারী যন্ত্র ‘এক্সপান্ডা’ প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।

প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচার শেষে ওই দুই শিশু সুস্থ আছে বলে মঙ্গলবার বিএসএমএমইউ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে। অস্ত্রোপচার পরবর্তী অবস্থায় সাবধানতার জন্য নুহা ও নাবাকে হাসপাতালের এইচডিইউতে রাখা হয়েছে।

অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন বলেন, “মূল অপারেশনের (আলাদা করা) জন্য তাদের প্রস্তুত করতে কতগুলো অপারেশন করতে হয়। এ ধরনের আরও তিনটি অপারেশন করতে হবে।

“দুটো বাচ্চা এখন একসঙ্গে লেগে আছে। আমরা যখন তাদের আলাদা করব, তখন ওখানটা চামড়া দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। চামড়া বাড়ানোর জন্য একটা পদ্ধতি আছে। সেটাই আজ আমরা করেছি।”

বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নুহা ও নাবার সার্বক্ষণিক খবর নিচ্ছেন। তাদের সুচিকিৎসার সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

“চিকিৎসার প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছেন। নুহা ও নাবা ভালো আছে। মেরুদণ্ডে জোড়া লাগানো এই দুই শিশুর অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হবে বলে আমি আশাবাদী।”

সোমবারের অস্ত্রোপচারে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিটিউটের তত্ত্বাধায়ক ডা. সামন্তলাল সেন, বিএসএমএমইউর নার্সিং অনুষদের ডিন ও অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বনিক, বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান অধ্যাপক ডা. আইয়ুব আলী, শিশু সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ কে এম জাহিদ হোসেন, অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. দেবাশীষ বনিকসহ ১০ জন চিকিৎসক অংশ নেন।

কুড়িগ্রাম জেলার কাঁঠালবাড়ী এলাকার এক পরিবহন শ্রমিকের মেয়ে নুহা ও নাবার জন্ম গত বছরের ২১ মার্চ। জন্মের কয়েকদিন পর এপ্রিল মাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জারি অনুষদের ডিন ও নিউরো স্পাইন সার্জন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেনের অধীনে নুহা ও নাবাকে ভর্তি করা হয়।

ছবি

প্রচণ্ড তাপপ্রবাহে আইনজীবীদের গাউন পড়নে শিথিলতা

ছবি

হাতিরঝিলে ভাসছিল যুবকের মরদেহ

ছবি

শিশু হাসপাতালে পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না: ফায়ার সার্ভিস

ছবি

শিশু হাসপাতালে আগুন, ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

ছবি

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাইদা বাস থার্ড টার্মিনালে, প্রকৌশলী নিহত

ছবি

ঢাকা শিশু হাসপাতালের কার্ডিয়াক বিভাগে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৭ ইউনিট

ছবি

ভাষানটেকে বাবা-মা-দাদির পরে চলে গেল লামিয়াও

ছবি

যমুনা এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুত বগি উদ্ধার, ঢাকামুখী পথ সচল

ছবি

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

ছবি

ভাসানটেকে গ্যাসের আগুন: শাশুড়ি ও স্ত্রীর পর স্বামীও মারা গেছে

ছবি

পহেলা বৈশাখে জাহানারা জাদুঘরের বিশেষ প্রদর্শনী

ছবি

চট্টগ্রামে বস্তিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৯ ইউনিট

ছবি

ঢাকায় পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ৮

ঢাবি চারুকলার বকুলতলায় গান-নাচ-আবৃত্তিতে চৈত্রসংক্রান্তি উদ্‌যাপন

ছবি

ঢাকায় এসেছে ইসরায়েলের ফ্লাইট, বেবিচকের ব্যাখা

ছবি

বর্ষবরণের অপেক্ষায় রমনা

ছবি

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের ওপর গাড়িতে আগুন লাগে জানান পুলিশ

লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে ৫ জনের মৃত্যু : আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড

ছবি

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের ওপর প্রাইভেট কারে আগুন

রাজধানীর শাহজাদপুরে বুথের নিরাপত্তা প্রহরীকে হত্যা

ছবি

যাত্রীদের পিটুনিতে হয়নি চালক-সহকারীর মৃত্যু, হেলপার গল্প সাজিয়েছে বলছে পুলিশ

ছবি

ঈদের দিন বন্ধ থাকবে মেট্রোরেল

ছবি

মেট্রোরেলের পিলারে বাসের ধাক্কা

ছবি

কেএনএফের তৎপরতা নিয়ে ঢাকায় কোনো শঙ্কা নেই: ডিএমপি কমিশনার

ছবি

আবাসিক হোটেল থেকে নির্মাতা সোহানুর রহমানের মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

কেটলির শর্টসার্কিট থেকে লিকেজের গ্যাসে বিস্তার

ছবি

জনগণের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক করতে পুলিশের সব ইউনিট একযোগে কাজ করছে : আইজিপি

ছবি

কমলাপুর স্টেশনে বেড়েছে যাত্রীর চাপ, টিকেট ছাড়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

ছবি

ঈদে ঢাকা ছাড়ার আগে নগরবাসীকে ডিএমপির ১৪ পরামর্শ

ছবি

আগামী দিনে সদরঘাট আরও ফিটফাট হবে : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

ছবি

মেট্রোরেলে ভ্যাট, ঘোষণা কে দিলো ‘জানেন না’ ওবায়দুল কাদের

ছবি

পর্নোগ্রাফির উদ্দেশ্যে ধর্ষণের ভিডিও করা হয় : পুলিশ

এডিস মশা : ডাবের খোসাসহ পরিত্যক্ত দ্রব্যাদি কিনবে ঢাকা উত্তর সিটি

ছবি

মেট্রোরেলের ভাড়া বাড়ছেে, ১৫% ভ্যাট বসানোর সিদ্ধান্ত

ঈদ যাত্রায় টার্মিনালের বাইরে যাত্রী ওঠানামা নয়: ট্রাফিক পুলিশ

ছবি

তেলবাহী লরি উল্টে আগুন : দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু

tab

নগর-মহানগর

জোড়া লাগানো মেরুদন্ডের দুই শিশুর শরীরে প্রথম অস্ত্রোপচার সফল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

মেরুদণ্ড জোড়া লাগানো শিশু নুহা ও নাবার শরীরে প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচার হয়েছে। এরপর কোনো জটিলতা দেখা দেয়নি বলে জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সোমবার রাত ৯টা থেকে ভোররাত ৩টা পর্যন্ত বিএসএমএমইউতে এই অস্ত্রোপচার হয়। এতে নেতৃত্ব দেন নিউরোসার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে নুহা ও নাবার শরীরে টিস্যু বর্ধনকারী যন্ত্র ‘এক্সপান্ডা’ প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।

প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচার শেষে ওই দুই শিশু সুস্থ আছে বলে মঙ্গলবার বিএসএমএমইউ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে। অস্ত্রোপচার পরবর্তী অবস্থায় সাবধানতার জন্য নুহা ও নাবাকে হাসপাতালের এইচডিইউতে রাখা হয়েছে।

অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন বলেন, “মূল অপারেশনের (আলাদা করা) জন্য তাদের প্রস্তুত করতে কতগুলো অপারেশন করতে হয়। এ ধরনের আরও তিনটি অপারেশন করতে হবে।

“দুটো বাচ্চা এখন একসঙ্গে লেগে আছে। আমরা যখন তাদের আলাদা করব, তখন ওখানটা চামড়া দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। চামড়া বাড়ানোর জন্য একটা পদ্ধতি আছে। সেটাই আজ আমরা করেছি।”

বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নুহা ও নাবার সার্বক্ষণিক খবর নিচ্ছেন। তাদের সুচিকিৎসার সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

“চিকিৎসার প্রথম ধাপের অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছেন। নুহা ও নাবা ভালো আছে। মেরুদণ্ডে জোড়া লাগানো এই দুই শিশুর অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হবে বলে আমি আশাবাদী।”

সোমবারের অস্ত্রোপচারে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিটিউটের তত্ত্বাধায়ক ডা. সামন্তলাল সেন, বিএসএমএমইউর নার্সিং অনুষদের ডিন ও অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বনিক, বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান অধ্যাপক ডা. আইয়ুব আলী, শিশু সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ কে এম জাহিদ হোসেন, অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. দেবাশীষ বনিকসহ ১০ জন চিকিৎসক অংশ নেন।

কুড়িগ্রাম জেলার কাঁঠালবাড়ী এলাকার এক পরিবহন শ্রমিকের মেয়ে নুহা ও নাবার জন্ম গত বছরের ২১ মার্চ। জন্মের কয়েকদিন পর এপ্রিল মাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জারি অনুষদের ডিন ও নিউরো স্পাইন সার্জন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেনের অধীনে নুহা ও নাবাকে ভর্তি করা হয়।

back to top