alt

নগর-মহানগর

কিছু করতে গেলেই ভূমিদস্যুরা টাকা ম্যানেজ করে নেয়: আতিক

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ২৬ মার্চ ২০২৩

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, আমাদের খেলার মাঠ দখল করা যাবে না, খাল দখল করা যাবে না। তিনি বলেন, শুধু দখল আর দূষণ, কিন্তু কিছু বলতে গেলে, কিছু করতে গেলেই ভূমিদস্যুরা কেইস করে দেয়। টাকা দিয়ে তারা সবকিছু ম্যানেজ করে নেয়।

আতিকুল ইসলাম আক্ষেপ করে বলেন, আমরা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কথা বলেছি দেশ স্বাধীন করেছি। কিন্তু ভূমিদস্যুরা তো আমাদের ভিটেমাটি দখল করে নিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে কে কথা বলবে? আজ রোববার ঢাকার মিরপুরে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

খেলার মাঠ উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এর একটি উদাহরণ কালশী বালুর মাঠ উদ্ধার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেদিন কালশী ব্রিজ উদ্বোধনে এসে বালুর মাঠে কোনো স্থাপনা না করার নির্দেশ দেন।

সেদিন আমি বলেছিলাম, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি যেখানে বসে আজ বক্তব্য দেবেন, সেই জায়গায়টিই আজ দখল হয়ে গেছে। ন্যাশনাল হাউজিং অথরিটি এখানে বড় বড় ভবন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে। এই ১৫বিঘা জমি আর দেখতে পারব না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেখানে ঘোষণা দিলেন, বালুরমাঠে কোনো ভবন হবে না, খেলার মাঠ হবে।

আতিক বলেন, প্রধানমন্ত্রী অনেক কিছু করতে চান, কিন্তু তার কাছে সঠিক তথ্য যায় না। আমরা যদি সঠিক তথ্য পৌঁছে দিই, আমার বিশ্বাস এমন আরও অনেক খেলার মাঠ ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য আমরা রেখে যেতে পারব।

“আমরা যদি তা করতে না পারি, পরবর্তী প্রজন্ম আমাদের কাছে প্রশ্ন করবে তুমি মেয়র ছিলা, তুমি কাউন্সিলর ছিলা তোমরা কী করেছ আমাদের জন্য।”

মিরপুর ১০ নম্বরের জল্লাদখানা বধ্যভূমিতে সিটি করপোরেশনের বর্জ্য সংগ্রহের সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশনে করা গ্রাফিতি চিত্রকর্ম এবং মুক্তির সবুজায়ন শীর্ষক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মেয়র আতিক।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ডিএনসিসির অঞ্চল-০২ এর নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউর রহমান, মেটলাইফ বাংলাদেশের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা আলা আহমেদ, শক্তি ফাউন্ডেশনের উপ-নির্বাহী পরিচালক ইমরান আহমেদ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কাজী জহুরুল ইসলামসহ অনুষ্ঠানে অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

ছবি

প্রবল বর্ষণে রাজধানীতে বিদ্যুতায়িত হয়ে চার শ্রমজীবীর মৃত্যু

৫ বছর পড়ে আছে ৩৮ কোটির সিজেএম ভবন

ছবি

কোটাবিরোধী আন্দোলন: শিক্ষার্থীদের নামে পুলিশের মামলা

ছবি

সকাল থেকে ঝুম বৃষ্টি, ভাসছে ঢাকা

ছবি

বেবিচক এর মাঠ পর্যায়ের কার্যালয়সমূহের সাথে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর অনু্ষ্ঠান

ছবি

‘ভুয়া ভুয়া’ স্লোগানে উত্তাল শাহবাগ, পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে দিল শিক্ষার্থীরা

ছবি

আত্মসাত মামলা: ইউনূসের আবেদনের রায় ২১ জুলাই

ছবি

এসি নষ্ট, আকাশে ৩৭ মিনিট উড়ে ঢাকায় ফিরল বিমান

ছবি

কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে হরিজনদের ওপর হামলার অভিযোগ

ছবি

বাংলাদেশ এগ্রিকালচার রিপোর্টার্স ফোরামের নেতৃত্বে সবুজ-কাওসার

ছবি

বিসিএস ও মেডিকেল প্রশ্নফাঁসকারীদের বিচার চায় জবি শিক্ষার্থীরা

ছবি

কোটা : ঢাবির পর এবার জবি শিক্ষার্থীদের জিরো পয়েন্ট অবরোধ

ছবি

বাংলা ব্লকেডে’ অচল সড়ক, মেট্রোতে উপচেপড়া ভিড়

ছবি

কোটা : স্থিতাবস্থা বজায় রাখার আদেশ আপিল বিভাগের

ছবি

আজও ‘বাংলা ব্লকেড’, তীব্র যানজটের মুখে পড়বে নগরবাসী

ছবি

সাহারা খাতুনের রাজনীতি অনুকরণীয়: মতিয়া চৌধুরী

ছবি

আড়াই ঘন্টা পর জিরো পয়েন্ট ছাড়লো জবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

ছবি

কোটা : পুলিশের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি, গুলিস্তান জিরো পয়েন্টে জবি শিক্ষার্থীদের অবস্থান

ছবি

‘বাংলা ব্লকেড’ আন্দোলনে নেমেছে জবি শিক্ষার্থীরা

ছবি

ভালো মানুষ হয়ে মানুষকে ভালোবাসুন: মেয়র আইভী

শাহবাগ মোড় অবরোধ কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের

ছবি

ঢাকাকে বিশ্বের উন্নত শহরগুলোর মতো নিরাপদ করতে চাই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

কেনাকাটায় লুটপাট : মাতৃসদনের ১৩ চিকিৎসকসহ আসামি ২১

ছবি

রাজধানীতে অটোরিকশার ধাক্কায় এক বৃদ্ধা নিহত

ছবি

‘বাংলা ব্লকেড’: ঢাকার সড়ক অচল প্রায়

ছবি

৩০ মিনিট বন্ধ ছিল মেট্রোরেল

ছবি

ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

ছবি

আড়াই ঘন্টা পর তাঁতিবাজার ছাড়ল জবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা

ছবি

হাতিরঝিল প্রকল্পে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে: শ্যামল দত্তের সমালোচনা

ছবি

পঞ্চমদিনের মতো আন্দোলন করছে জবি শিক্ষার্থীরা, তাঁতিবাজার অবরোধ

ছবি

পঞ্চমদিনের মতো আন্দোলনের জন্য জড়ো হচ্ছে জবি শিক্ষার্থীরা

ছবি

কেরানীগঞ্জে ট্রাংকের ভেতর থেকে লাশ উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেফতার ১

ছবি

সিলেটে রথযাত্রা উপলক্ষে অনুদান প্রদান ও মতবিনিময় সভা

ছবি

কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদ : এবার রায়সাহেববাজার মোড় অবরোধ করেছে জবি শিক্ষার্থীরা

ছবি

"আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ড. ইউনূসসহ চারজনই অপরাধী বলে গণ্য"

ছবি

"দুদক কর্তৃক সাদিক অ্যাগ্রো থেকে ৬টি নিষিদ্ধ ব্রাহমা গরু জব্দ"

tab

নগর-মহানগর

কিছু করতে গেলেই ভূমিদস্যুরা টাকা ম্যানেজ করে নেয়: আতিক

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ২৬ মার্চ ২০২৩

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, আমাদের খেলার মাঠ দখল করা যাবে না, খাল দখল করা যাবে না। তিনি বলেন, শুধু দখল আর দূষণ, কিন্তু কিছু বলতে গেলে, কিছু করতে গেলেই ভূমিদস্যুরা কেইস করে দেয়। টাকা দিয়ে তারা সবকিছু ম্যানেজ করে নেয়।

আতিকুল ইসলাম আক্ষেপ করে বলেন, আমরা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কথা বলেছি দেশ স্বাধীন করেছি। কিন্তু ভূমিদস্যুরা তো আমাদের ভিটেমাটি দখল করে নিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে কে কথা বলবে? আজ রোববার ঢাকার মিরপুরে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

খেলার মাঠ উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এর একটি উদাহরণ কালশী বালুর মাঠ উদ্ধার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেদিন কালশী ব্রিজ উদ্বোধনে এসে বালুর মাঠে কোনো স্থাপনা না করার নির্দেশ দেন।

সেদিন আমি বলেছিলাম, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি যেখানে বসে আজ বক্তব্য দেবেন, সেই জায়গায়টিই আজ দখল হয়ে গেছে। ন্যাশনাল হাউজিং অথরিটি এখানে বড় বড় ভবন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে। এই ১৫বিঘা জমি আর দেখতে পারব না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেখানে ঘোষণা দিলেন, বালুরমাঠে কোনো ভবন হবে না, খেলার মাঠ হবে।

আতিক বলেন, প্রধানমন্ত্রী অনেক কিছু করতে চান, কিন্তু তার কাছে সঠিক তথ্য যায় না। আমরা যদি সঠিক তথ্য পৌঁছে দিই, আমার বিশ্বাস এমন আরও অনেক খেলার মাঠ ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য আমরা রেখে যেতে পারব।

“আমরা যদি তা করতে না পারি, পরবর্তী প্রজন্ম আমাদের কাছে প্রশ্ন করবে তুমি মেয়র ছিলা, তুমি কাউন্সিলর ছিলা তোমরা কী করেছ আমাদের জন্য।”

মিরপুর ১০ নম্বরের জল্লাদখানা বধ্যভূমিতে সিটি করপোরেশনের বর্জ্য সংগ্রহের সেকেন্ডারি ট্রান্সফার স্টেশনে করা গ্রাফিতি চিত্রকর্ম এবং মুক্তির সবুজায়ন শীর্ষক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মেয়র আতিক।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ডিএনসিসির অঞ্চল-০২ এর নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউর রহমান, মেটলাইফ বাংলাদেশের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা আলা আহমেদ, শক্তি ফাউন্ডেশনের উপ-নির্বাহী পরিচালক ইমরান আহমেদ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কাজী জহুরুল ইসলামসহ অনুষ্ঠানে অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

back to top