alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শিক্ষার্থীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের আজিমপুর শাখার গণিত বিষয়ের শিক্ষক মোহাম্মদ মুরাদ হোসেন সরকারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে মুরাদ হোসেনকে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা লালবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফাইয়াজ হোসেন।

মুরাদ হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তদন্ত কর্মকর্তা সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলেন আদালতে। অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলাম দীপুসহ অন্যরা রিমান্ড আবেদন বাতিল করে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক হাকিম জাকী আল ফারাবী দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষ বলে, বাবা-মার পরই শিক্ষকের অবস্থান। পরিবারে বাবা-মা আর সামাজিক জীবনে শিক্ষকই হলেন বাবা-মা। তারা যদি এ কাণ্ড করেন তাহলে তাকে কী বলা যায়? সে শিক্ষক নামের কলঙ্ক। রক্ষক এ ক্ষেত্রে ভক্ষকের ভূমিকায় নেমেছে।

অন্যদিকে আসামিপক্ষ থেকে বলা হয়, মুরাদ হোসেন শিক্ষক হিসেবে পুরস্কারপ্রাপ্ত। আজীবন মেধাবী ছাত্র ছিলেন। তিন ওই স্কুলের শিক্ষক রাজনীতির নোংরা শিকার মাত্র।

ঘটনার দিন অভিযোগকারী মেয়ের মা স্কুলের বাইরে প্রবেশপথে অবস্থান করছিলেন, কখন এ ঘটনা ঘটল- এমন প্রশ্ন তুলে আসামীপক্ষ বলে, কথিত ঘটনার তদন্ত হয়েছে। সেখানে অভিযোগের সত্যতা মেলেনি। গত ২২ তারিখে তিন সদস্যের কমিটি লিখিত প্রতিবেদন দেয়, যেখানে মুরাদকে নির্দোষ বলা হয়।

রিমান্ড শুনানিতে বলা হয়, ওই শিক্ষক কোচিং সেন্টারে প্রায়ই শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কুরুচিপূর্ণ, প্রাপ্তবয়স্কদের কৌতুক শোনাতো। দীর্ঘদিন থেকে তিনি ছাত্রীদের সঙ্গে এমন আচরণ করে আসছেন।

এরই এক পর্যায়ে২০২৩ সালের ১০ মার্চ প্রথম বাদীর ১৩ বছর বয়সী কন্যা তার যৌন নির্যাতনের শিকার হন। ভয় দেখিয়ে ও কৌশলে দিনের পর দিন ওই শিক্ষকের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ওই ছাত্রী বলে আদালতে অভিযোগ করা হয়।

অন্য কোনো ছাত্রী এ রকম ঘটনার শিকার হয়েছে কি না তা নিশ্চিত হতে এবং তথ্য যাচাই-বাছাইয়ে শিক্ষক মুরাদকে সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ জরুরি বলে শুনানিতে আবেদন করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের আসামির কাছ থেকে তার ঘটানো এ রকম আরও ঘটনার কথা জানা যায়। তিনি একেক সময়ে একেক কথা বলতে থাকেন, যে কারণে পুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ দরকার।

শুনানিতে বলা হয়, চলতি মাসের প্রথম দিকে শিক্ষার্থীদের যৌন নির্যাতনের ঘটনা প্রকাশ পেলে অভিযুক্ত শিক্ষক গত ৮ ফেব্রুয়ারি বাদীর বাসায় এসে তাকে ও তার ভুক্তভোগী মেয়েকে এ ঘটনা প্রকাশ না করার জন্য নিষেধ করে।

আরও ভুক্তভোগী ছাত্রী ও অভিভাবকদের মধ্যে এ ঘটনা জানাজানি হলে গত রোববার সংবাদ সম্মেলনে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয় বলে আদালতে তুলে ধরা হয়।

সোমবার মধ্যরাতে ঢাকার কলাবাগানের বাসা থেকে ভিকারুননিসার আজিমপুর শাখার গণিতের এ জ্যেষ্ঠ শিক্ষককে লালবাগ থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে বলে এ থানার ওসি খন্দকার মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন জানান।

এর আগে সোমবার রাতে কলেজের পরিচালনা কমিটির সভায় শিক্ষক মুরাদ হোসেনকে সাময়িক বরখাস্তের পাশাপাশি পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় থেকে তিন সদস্যের উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগে কোচিং সেন্টারে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠার পর শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা সোচ্চার হলে আজিমপুরের দিবা শাখার ওই জ্যেষ্ঠ শিক্ষককে শনিবার প্রত্যাহার করে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়।

সেদিন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কেকা রায় চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে অভিযোগের প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়ার পর শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল।

গণিতের শিক্ষক মুরাদ হোসেনের বিরুদ্ধে গত ৭ ফেব্রুয়ারি কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে কোচিংয়ে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ করা হয়।

তবে ওই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট না হয়ে রোববার অভিযুক্ত শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে ছাত্রীরা আজিমপুর ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে।

একই দিনে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও চাকুরিচ্যুতির দাবি করেন।

মতলবে ব্যাংকের নৈশপ্রহরী খুনের রহস্য উন্মোচন,মূল আসামী সহ ৩ জন গ্রেফতার

ছবি

লঞ্চে বোরকা পরে ছিনতাই করতেন তারা

বন্ধুর সহায়তায় প্রবাসীর স্ত্রীকে খুন করে ঘরের মালামাল লুট করে আপন ভাই

গাজীপুরে ৩জন ভুয়া ডিবি পুলিশ আটক

ছবি

আইন অমান্য করে ইটভাটা পরিচালনা, সংবাদ প্রকাশের পর অভিযান, ৩ লাখ টাকা জরিমানা

ছবি

দুদকের মামলায় সাবেক এমপি কাদের খানের চার বছরের দন্ড

গাজীপুরে পুত্রকে কুপিয়ে হত্যা, পিতা আটক

ছবি

এবার ভরদুপুরে থানচির দুই ব্যাংকে ডাকাতি

সিলেটে ‘ধর্ষক’ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে গ্রপ্তার করেছে র‌্যাব

ছবি

ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ

ছবি

শেকলে বেঁধে তরুণীকে গণধর্ষণ, রিমান্ডে ৪ আসামি

মুন্সীগঞ্জে ডালিম হ.ত্যা মামলার ৬ আসামি জেলহাজতে

ছবি

শিকলে বেঁধে ২৫ দিন ধরে তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

ছবি

গেন্ডারিয়ায় ৯৮৩ পিস ভয়াবহ মাদক বুপ্রেনরফিনসহ গ্রেপ্তার কারবারি

ছবি

সিলেটে তরুণীকে আটকে রেখে দিনের পর দিন ধর্ষণ অধরা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাসহ অভিযুক্তরা

নারায়ণগঞ্জে প্রেমিকাকে ধর্ষণ ও হত্যা, ৩ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

স্ত্রী-শাশুড়িসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ‘জল্লাদ’ শাহজাহানের প্রতারণার মামলা

ছবি

মিতু হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিচ্ছেন দুই ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ জন

ছবি

দুই বছরের দণ্ড ২৭ বছর পর বাতিল, রায়ের কপি যাচ্ছে সব আদালতে

ছবি

মানিকদির জমি দখল নাজিমের দৌরাত্ম্য থামছেই না, আতঙ্কে এলাকাবাসী

ছবি

পুলিশের সোর্স হত্যা মামলার পলাতক ২ আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

বড় মনিরের বিরুদ্ধে এবার ঢাকায় কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

ছবি

রামুর কচ্ছপিয়ায় ছুরিকাঘাতে ছায়া হত্যার ঘটনায় আটক দুই

ছবি

মহেশখালীর সিরিয়াল কিলার আজরাইল গ্রেফতার

ছবি

মুন্সীগঞ্জে পাইপগান-ফেন্সিডিলসহ দু’জন আটক

ছবি

দুদকের মামলায় ২০ কোটি ২২ লাখ টাকার আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক এমপি মান্নান কারাগারে

ছবি

আইএমইআই নম্বর পাল্টে মোবাইল বিক্রি, চক্রের ৩ সদস্য গ্রেপ্তার

চুনারুঘাটে স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা, স্বামী আটক

ছবি

সিরাজগঞ্জে ব্যাংকের ভল্ট থেকে ৫ কোটি টাকা গায়েব, ৩ কর্মকর্তা কারাগারে

শতাধিক শিক্ষা ভবন নির্মাণের নামে বিল ভাগ-বাটোয়ারা

নরসিংদীতে গাড়ী চালককে হত্যার অভিযোগে ৩ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

চালক ‘সেজে’ শিক্ষার্থী অপহরণ ১৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়, গ্রেপ্তার ৭

ছবি

সালাম মুর্শেদীর বাড়ি ছাড়তে হাইকোর্টের রায়ের ওপর স্থিতাবস্থা জারি

ফয়সালকে কুপিয়ে হত্যার পর পার্টি করে গালকাটা রাব্বির গ্যাং

ছবি

বঙ্গবন্ধু মেডিকেল ভার্সিটিতে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

ছবি

২০ বছর ধরে ট্রেনের টিকেট কালোবাজারিতে ‘মিজান সিন্ডিকেট’

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শিক্ষার্থীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের আজিমপুর শাখার গণিত বিষয়ের শিক্ষক মোহাম্মদ মুরাদ হোসেন সরকারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে মুরাদ হোসেনকে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা লালবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফাইয়াজ হোসেন।

মুরাদ হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তদন্ত কর্মকর্তা সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলেন আদালতে। অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলাম দীপুসহ অন্যরা রিমান্ড আবেদন বাতিল করে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক হাকিম জাকী আল ফারাবী দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষ বলে, বাবা-মার পরই শিক্ষকের অবস্থান। পরিবারে বাবা-মা আর সামাজিক জীবনে শিক্ষকই হলেন বাবা-মা। তারা যদি এ কাণ্ড করেন তাহলে তাকে কী বলা যায়? সে শিক্ষক নামের কলঙ্ক। রক্ষক এ ক্ষেত্রে ভক্ষকের ভূমিকায় নেমেছে।

অন্যদিকে আসামিপক্ষ থেকে বলা হয়, মুরাদ হোসেন শিক্ষক হিসেবে পুরস্কারপ্রাপ্ত। আজীবন মেধাবী ছাত্র ছিলেন। তিন ওই স্কুলের শিক্ষক রাজনীতির নোংরা শিকার মাত্র।

ঘটনার দিন অভিযোগকারী মেয়ের মা স্কুলের বাইরে প্রবেশপথে অবস্থান করছিলেন, কখন এ ঘটনা ঘটল- এমন প্রশ্ন তুলে আসামীপক্ষ বলে, কথিত ঘটনার তদন্ত হয়েছে। সেখানে অভিযোগের সত্যতা মেলেনি। গত ২২ তারিখে তিন সদস্যের কমিটি লিখিত প্রতিবেদন দেয়, যেখানে মুরাদকে নির্দোষ বলা হয়।

রিমান্ড শুনানিতে বলা হয়, ওই শিক্ষক কোচিং সেন্টারে প্রায়ই শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কুরুচিপূর্ণ, প্রাপ্তবয়স্কদের কৌতুক শোনাতো। দীর্ঘদিন থেকে তিনি ছাত্রীদের সঙ্গে এমন আচরণ করে আসছেন।

এরই এক পর্যায়ে২০২৩ সালের ১০ মার্চ প্রথম বাদীর ১৩ বছর বয়সী কন্যা তার যৌন নির্যাতনের শিকার হন। ভয় দেখিয়ে ও কৌশলে দিনের পর দিন ওই শিক্ষকের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ওই ছাত্রী বলে আদালতে অভিযোগ করা হয়।

অন্য কোনো ছাত্রী এ রকম ঘটনার শিকার হয়েছে কি না তা নিশ্চিত হতে এবং তথ্য যাচাই-বাছাইয়ে শিক্ষক মুরাদকে সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ জরুরি বলে শুনানিতে আবেদন করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের আসামির কাছ থেকে তার ঘটানো এ রকম আরও ঘটনার কথা জানা যায়। তিনি একেক সময়ে একেক কথা বলতে থাকেন, যে কারণে পুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ দরকার।

শুনানিতে বলা হয়, চলতি মাসের প্রথম দিকে শিক্ষার্থীদের যৌন নির্যাতনের ঘটনা প্রকাশ পেলে অভিযুক্ত শিক্ষক গত ৮ ফেব্রুয়ারি বাদীর বাসায় এসে তাকে ও তার ভুক্তভোগী মেয়েকে এ ঘটনা প্রকাশ না করার জন্য নিষেধ করে।

আরও ভুক্তভোগী ছাত্রী ও অভিভাবকদের মধ্যে এ ঘটনা জানাজানি হলে গত রোববার সংবাদ সম্মেলনে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয় বলে আদালতে তুলে ধরা হয়।

সোমবার মধ্যরাতে ঢাকার কলাবাগানের বাসা থেকে ভিকারুননিসার আজিমপুর শাখার গণিতের এ জ্যেষ্ঠ শিক্ষককে লালবাগ থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে বলে এ থানার ওসি খন্দকার মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন জানান।

এর আগে সোমবার রাতে কলেজের পরিচালনা কমিটির সভায় শিক্ষক মুরাদ হোসেনকে সাময়িক বরখাস্তের পাশাপাশি পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় থেকে তিন সদস্যের উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগে কোচিং সেন্টারে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠার পর শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা সোচ্চার হলে আজিমপুরের দিবা শাখার ওই জ্যেষ্ঠ শিক্ষককে শনিবার প্রত্যাহার করে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়।

সেদিন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কেকা রায় চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে অভিযোগের প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়ার পর শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল।

গণিতের শিক্ষক মুরাদ হোসেনের বিরুদ্ধে গত ৭ ফেব্রুয়ারি কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে কোচিংয়ে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগ করা হয়।

তবে ওই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট না হয়ে রোববার অভিযুক্ত শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে ছাত্রীরা আজিমপুর ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে।

একই দিনে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও চাকুরিচ্যুতির দাবি করেন।

back to top