alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

আমিনবাজারে ৬ শিক্ষার্থী হত্যা : ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১

শবে বরাতের রাতে সাভারের আমিনবাজারে ছয় ছাত্রকে ডাকাত সন্দেহে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ে ১৩ জনকে আসামীকে মৃত্যুদণ্ড ও ১৩ জনকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টা ৩৬ মিনিটে ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইসমত জাহান এ রায় ঘোষণা করেন।

এর আগে ১০ বছর আগে শবে বরাতের রাতে সাভারের আমিনবাজারে ছয় ছাত্রকে ডাকাত সন্দেহে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় কারাগার থেকে ৪৪ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। এসময় তাদের রাখা হয় জেলা আদালতের হাজতখানায়। রায় ঘোষণার আগে আসামিদের আদালতের এজলাসে তোলা হবে। এ মামলার বাকী আসামিরা পলাতক।

আদালতে অ্যাডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর আনন্দ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি। আশা করছি আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।

তিনি জানান, সকাল ১১টার দিকে ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইসমত জাহান এ মামলার রায় ঘোষণা করবেন।

গত ২২ নভেম্বর ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইসমত জাহান রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য এ দিন ধার্য করেন। মামলায় ৯২ সাক্ষীর মধ্যে ৫৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।

২০১১ সালের ১৭ জুলাই শবে বরাতের রাতে আমিনবাজারের বড়দেশি গ্রামের কেবলার চরে ডাকাত সন্দেহে ছয় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

নিহতরা হলেন- বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ম্যাপললিফের এ লেভেলের ছাত্র শামস রহিম শামীম (১৮), মিরপুর বাংলা কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তৌহিদুর রহমান পলাশ (২০), একই কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইব্রাহিম খলিল (২১), উচ্চ মাধ্যমিক বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র কামরুজ্জামান কান্ত (১৬), তেজগাঁও কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র টিপু সুলতান (১৯) ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউবিটি) বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সিতাব জাবির মুনিব (২০)।

ঘটনার পর নিহতদের বিরুদ্ধেই ডাকাতির অভিযোগ এনে গ্রামবাসীর পক্ষে সাভার মডেল থানায় মামলা করেন আব্দুল মালেক নামে এক বালু ব্যবসায়ী। অন্যদিকে ছয় কলেজছাত্র হত্যাকাণ্ডে ৬০০ গ্রামবাসীকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন।

২০১৩ সালের ৭ জানুয়ারি র্যাব সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ উদ্দিন আহমেদ ৬০ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। ওই বছরের ৮ জুলাই মামলার ৬০ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) গঠন করেন ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. হেলালউদ্দিন।

চার্জশিটভুক্ত ৬০ আসামি হলেন— ডাকাতি মামলার বাদী আব্দুল মালেক, সাঈদ মেম্বর, আব্দুর রশিদ, ইসমাইল হোসেন রেফু, নিহর ওরফে জমশের আলী, মীর হোসেন, মজিবর রহমান, কবির হোসেন, আনোয়ার হোসেন, রজুর আলী সোহাগ, আলম, রানা, আ. হালিম, ছাব্বির আহম্মেদ, আলমগীর, আনোয়ার হোসেন আনু, মোবারক হোসেন, অখিল খন্দকার, বশির, রুবেল, নূর ইসলাম, আনিস, সালেহ আহমেদ, শাহাদাত হোসেন রুবেল, টুটুল, অখিল, মাসুদ, নিজামউদ্দিন, মোখলেছ, কালাম, আফজাল, বাদশা মিয়া, তোতন, সাইফুল, রহিম, শাহজাহান, সুলতান, সোহাগ, লেমন, সায়মন, এনায়েত, হায়দার, খালেদ, ইমান আলী, দুলাল , আলম, আসলাম মিয়া, শাহীন আহমেদ, ফরিদ খান, রাজীব হোসেন, হাতকাটা রহিম, মো. ওয়াসিম, সেলিম মোল্লা, সানোয়ার হোসেন, শামসুল হক ওরফে শামচু মেম্বার, রাশেদ, সাইফুল, সাত্তার, সেলিম ও মনির। আসামিদের মধ্যে কবির হোসেন ও রাশেদসহ তিনজন মারা গেছেন।

ছবি

‘সুতার বান্ডিল’ সূত্রে শিমু হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

ছবি

চিত্রনায়িকা শিমু হত্যা: স্বামী ও তার বন্ধু ৩ দিনের রিমান্ডে

ছবি

বুধবার থেকে সুপ্রিম কোর্ট চলবে ভার্চুয়ালি

ছবি

দাম্পত্য কলহের জেরে ‘স্বামীর হাতে খুন হন’ নায়িকা শিমু

ছবি

অরিত্রীর আত্মহত্যা: সাক্ষ্য দিলেন দুই শিক্ষিকা

গ্লাস সুমনসহ ৫ অভিযুক্ত গ্রেফতার

ছবি

অভিনেত্রী শিমু হত্যায় বন্ধুসহ স্বামী আটক

পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়ি-দোকান ভাঙচুর

৩ জেলায় দুই খুন, ১ জনের মৃত্যু রহস্যজনক

ছবি

অবাধে রেণু চিংড়ি আহরণ-বিকিকিনি, হুমকিতে দেশের মৎস্যসম্পদ

ছবি

কিশোরীকে আটক রেখে ধর্ষণের অভিযোগ গ্রেফতার ১

দক্ষিণখানে ২৪০ গ্রাম আইসসহ নারী মাদক কারবারি গ্রেপ্তার

ছবি

নববর্ষে আতশবাজি-ফানুস নিষিদ্ধ চেয়ে হাইকোর্টে রিট

ছবি

বাঁকখালী নদীর প্যারাবন কেটে বসতি নির্মাণ বন্ধে আইনি নোটিশ

পীরগাছায় জমি বিবাদে তিন দিন অবরুদ্ধ পরিবার আতঙ্কে

চট্টগ্রামে আট জুয়াড়ি গ্রেপ্তার

আ’লীগ নেতাকে হত্যা চেষ্টা : গ্রেপ্তার ২

ছবি

দুদকের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে শিল্পকলার মহাপরিচালক লাকী

মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্মম নির্যাতন

ভান্ডারিয়ায় জমি বিবাদে ছোট ভাই হত

ফরিদপুরে ইজিবাইক চোর গ্রেপ্তার তিন

আড়াইহাজারে জমি বিবাদে আহত ১০

ছবি

ঢাবির অধ্যাপক হত্যা: কন্ট্রাক্টর ৩ দিনের রিমান্ডে

যাত্রাবাড়ী থেকে অপহরণ, লাশ মিললো কালীগঞ্জে

ছবি

ফেরিতে স্থাপিত ফগলাইট কারসাজি

ছবি

ঢাবির অধ্যাপককে ‘টাকার জন্য’ হত্যা করেন কন্ট্রাক্টর

ছবি

মিতু হত্যা: বাবুলের দুই সন্তানের সঙ্গে কথা বলতে চায় পিবিআই

মাদক মামলায় ৩ জনের জেল

ছবি

কক্সবাজারে হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদন্ড, ৪ জনের যাবজ্জীবন

কলাপাড়ায় ১০ মণ জাটকা জব্দ

ছবি

চাঞ্চল্যকর জাকিয়া হত্যা মামলার রায় ২৭ জানুয়ারি

ছবি

একের পর এক খুন, ‘বাউল বেশে’ ঘুরতেন হেলাল

সরকারি সার প্যাকেটজাত, ডিলারকে জরিমানা

নওগাঁ পাসপোর্ট অফিসে মাসে কোটি টাকার ঘুষ বাণিজ্য

ছবি

শিক্ষকতার আড়ালে ‘জঙ্গি কার্যক্রম’ চালাতেন ওয়াহিদুল

ছবি

কন্ঠশিল্পী আসিফের বিচার শুরু

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

আমিনবাজারে ৬ শিক্ষার্থী হত্যা : ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১

শবে বরাতের রাতে সাভারের আমিনবাজারে ছয় ছাত্রকে ডাকাত সন্দেহে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ে ১৩ জনকে আসামীকে মৃত্যুদণ্ড ও ১৩ জনকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টা ৩৬ মিনিটে ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইসমত জাহান এ রায় ঘোষণা করেন।

এর আগে ১০ বছর আগে শবে বরাতের রাতে সাভারের আমিনবাজারে ছয় ছাত্রকে ডাকাত সন্দেহে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় কারাগার থেকে ৪৪ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তাদের আদালতে হাজির করা হয়। এসময় তাদের রাখা হয় জেলা আদালতের হাজতখানায়। রায় ঘোষণার আগে আসামিদের আদালতের এজলাসে তোলা হবে। এ মামলার বাকী আসামিরা পলাতক।

আদালতে অ্যাডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর আনন্দ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি। আশা করছি আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।

তিনি জানান, সকাল ১১টার দিকে ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইসমত জাহান এ মামলার রায় ঘোষণা করবেন।

গত ২২ নভেম্বর ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইসমত জাহান রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য এ দিন ধার্য করেন। মামলায় ৯২ সাক্ষীর মধ্যে ৫৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।

২০১১ সালের ১৭ জুলাই শবে বরাতের রাতে আমিনবাজারের বড়দেশি গ্রামের কেবলার চরে ডাকাত সন্দেহে ছয় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

নিহতরা হলেন- বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ম্যাপললিফের এ লেভেলের ছাত্র শামস রহিম শামীম (১৮), মিরপুর বাংলা কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তৌহিদুর রহমান পলাশ (২০), একই কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইব্রাহিম খলিল (২১), উচ্চ মাধ্যমিক বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র কামরুজ্জামান কান্ত (১৬), তেজগাঁও কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র টিপু সুলতান (১৯) ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউবিটি) বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সিতাব জাবির মুনিব (২০)।

ঘটনার পর নিহতদের বিরুদ্ধেই ডাকাতির অভিযোগ এনে গ্রামবাসীর পক্ষে সাভার মডেল থানায় মামলা করেন আব্দুল মালেক নামে এক বালু ব্যবসায়ী। অন্যদিকে ছয় কলেজছাত্র হত্যাকাণ্ডে ৬০০ গ্রামবাসীকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন।

২০১৩ সালের ৭ জানুয়ারি র্যাব সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ উদ্দিন আহমেদ ৬০ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। ওই বছরের ৮ জুলাই মামলার ৬০ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) গঠন করেন ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. হেলালউদ্দিন।

চার্জশিটভুক্ত ৬০ আসামি হলেন— ডাকাতি মামলার বাদী আব্দুল মালেক, সাঈদ মেম্বর, আব্দুর রশিদ, ইসমাইল হোসেন রেফু, নিহর ওরফে জমশের আলী, মীর হোসেন, মজিবর রহমান, কবির হোসেন, আনোয়ার হোসেন, রজুর আলী সোহাগ, আলম, রানা, আ. হালিম, ছাব্বির আহম্মেদ, আলমগীর, আনোয়ার হোসেন আনু, মোবারক হোসেন, অখিল খন্দকার, বশির, রুবেল, নূর ইসলাম, আনিস, সালেহ আহমেদ, শাহাদাত হোসেন রুবেল, টুটুল, অখিল, মাসুদ, নিজামউদ্দিন, মোখলেছ, কালাম, আফজাল, বাদশা মিয়া, তোতন, সাইফুল, রহিম, শাহজাহান, সুলতান, সোহাগ, লেমন, সায়মন, এনায়েত, হায়দার, খালেদ, ইমান আলী, দুলাল , আলম, আসলাম মিয়া, শাহীন আহমেদ, ফরিদ খান, রাজীব হোসেন, হাতকাটা রহিম, মো. ওয়াসিম, সেলিম মোল্লা, সানোয়ার হোসেন, শামসুল হক ওরফে শামচু মেম্বার, রাশেদ, সাইফুল, সাত্তার, সেলিম ও মনির। আসামিদের মধ্যে কবির হোসেন ও রাশেদসহ তিনজন মারা গেছেন।

back to top