alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

গোপনে গোসলের ভিডিও ধারণ, হুমিক দিয়ে ধর্ষণ, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

শাস্তির দাবিতে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

লিয়াকত আলী বাদল, রংপুর : শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার বিড়ি শিল্প নগরী হারাগাছে গৃহবধূর (৩৬) গোসলের ভিডিও গোপনে ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া (২৮)।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করার পর বুধবার গভীর রাতে ধর্ষক ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুলকে রংপুর নগরীর মুন্সিপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমান। ধর্ষক মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ ইউনিয়নের মৃত মহির উদ্দিন বসুনিয়ার ছেলে এবং হারাগাছ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক বলে পুলিশ জানিয়েছে। এদিকে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম গ্রেপ্তার হওয়ার খবর জানাজানি হলে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। তার কঠোর শাস্তি দাবি করে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।

পুলিশ জানায়, কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ ইউনিয়নের নাজিরদহ গ্রামের এক গৃহবধূর দুই সন্তানকে ৩-৪ বছর আগে প্রাইভেট পড়াতেন একই এলাকার ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া। গৃহশিক্ষক হিসেবে বাড়িতে গিয়ে প্রাইভেট পড়ানোর সুযোগে একদিন টিনের বেড়া দেয়া গোসলখানায় কৌশলে ওই গৃহবধূর গোসলের ভিডিও ও ছবি গোপনে ধারণ করে মাজেদুল। সেই ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নানাভাবে প্রচার করার ভয়ভীতিসহ তার ছেলেদের ক্ষতি করার হুমকি দিয়ে বেশ কয়েকবার গৃহবধূকে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের অশ্লীল ছবি তোলে মাজেদুল। সর্বশেষ গত বছরের ২৯ অক্টোবর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে মাজেদুল আবারও বাড়িতে গিয়ে গোসলের সেই ভিডিও ও অন্যান্য অশালীন ছবি তার স্বামী সন্তানদের দেখানোসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করার ভয়ভীতি দেখিয়ে গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ নিরুপায় হয়ে ছেলেদের নিয়ে ঢাকায় চলে যান। কিন্তু সেখানে গিয়েও রেহাই মেলেনি। ঢাকায় থাকা অবস্থায় ওই গৃহবধূকে শারীরিক সম্পর্কের কথা জানালে তিনি রাজি না হওয়ায় অন্য নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত ১২ মার্চ সকালে তার ছোট ছেলের (১৭) ম্যাসেঞ্জারে আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে দেয় মাজেদুল। এছাড়া ওইদিন বেলা ৩টার দিকে বড় ছেলের (১৮) এক বন্ধুর ম্যাসেঞ্জারেও পাঠিয়ে দেয় সেই আপত্তিকর ছবি। অবশেষে নিরুপায় হয়ে ধর্ষিতা গৃহবধূ ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে এসে গত ১১ এপ্রিল মাজেদুলকে অভিযুক্ত করে কাউনিয়া থানায় মামলা দায়ের করে। মামলার বিষয়টি জানতে পেরে ধর্ষক ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম গা ঢাকা দেয়।

কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমান জানান, তাকে গ্রেপ্তার করার জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো অব্যাহত ছিল। অবশেষে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কাউনিয়া থানা পুলিশ ও র‌্যাব ১৩ একটি দল যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে বুধবার (২৫ মে) ভোরে ধর্ষক মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়াকে রংপুর নগরীর মুন্সিপাড়া এলাকার একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদিকে মামলার তদন্তকারী অফিসার কাউনিয়া থানার এসআই সামিউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পরপরই অভিযুক্ত মাজেদুল গা ঢাকা দেয়। সে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করে এবং স্থান পরিবর্তন করে।

পরে তথ্য প্রযুক্তিতর সহায়তায় র‌্যাব ও পুলিশের যৌথ অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মাজেদুল ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। সেই সঙ্গে ভিডিও করার কথাও জানিয়েছে। তাকে বৃস্পতিবার সন্ধ্যায় ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চালান দেয়া হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে তাকে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। পুলিশ জানিয়েছে আসামিকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হবে। এদিকে ধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া গ্রেপ্তার হওয়ার বিষয়ে হারাগাছ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু বলেন, গত বছর হারাগাছ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় কমিটি। মাজেদুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটিতে শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে সেটা মাজদুলের ব্যক্তিগত চরিত্রের বিষয়। এর দায় ছাত্রলীগ নেবে না।

অর্থ আত্মসাৎ : গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গিরের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু

ছবি

ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি পিন্টু

ছবি

পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবের শিকার রেনুর পরিবার কেমন আছে

ছবি

মোবাইলের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে বেশি দামে বিক্রি করত তারা

হাতিয়ার মেঘনাপাড় থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

১৮ বছর পর গৃহবধূ গণধর্ষণ মামলার রায় : ২ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা হোসেন হত্যা: ৬ জেএমবির ফাঁসির রায়

ছবি

অর্থ আত্মসাৎ: ওয়াসার এমডিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

র‌্যাবকে ঘুষ দিতে গিয়ে মামলার আসামি

মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে সোয়াবিন ভর্তি ট্রাক ছিনতাই

ছবি

১৫ পর কৃষক হত্যার রায়, ৮ জনের যাবজ্জীবন

ময়মনসিংহের ছোট ভাইয়ের দায়ের কোপে বড় ভাই নিহত

ছবি

‘এমন আচরণ রাষ্ট্রের জন্য কলঙ্ক’

সিরাজগঞ্জে হেরোইন বহনের দায়ে দু’জনের যাবজ্জীবন

ছবি

সাতক্ষীরায় আ. লীগ নেতা মোশাররফ হোসেন গুলিবিদ্ঘধ, হাসপাতালে ভর্তি

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি!

ছবি

নন্দীগ্রামের জীবন কুমারের আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

হানিফের হেলপার নিহতের ঘটনায় শতাব্দীর বাসচালক গ্রেপ্তার

নোয়াখালীতে অটোরিকশা চোর চক্রের ৯সদস্য গ্রেপ্তার

পুলিশ পরিচয়ে বিদেশ ফেরত যাত্রীর গাড়িতে ডাকাতি সর্বস্ব লুট

ছবি

ড. কামালের কর ফাঁকি নিয়ে রিটের আদেশ ২১ জুন

ছবি

উত্তরা থেকে ‘ধর্ষক’ গ্রেপ্তার

সাইবার অপরাধ বাড়ছে, ৬ মাসে ৪ হাজার অভিযোগ

যুক্তরাস্ট্টে দোকানের সামনেই গুলি করে নোয়াখালীর মাহফুজ হত্যা

ছবি

ঋন নিয়ে আত্মসাত: পিকে সহ ২৩ জনের নামে চার্জশিট দিচ্ছে দুদক

ছবি

চিকিৎসক বুলবুল হত্যা: প্রধান আসামি রিপন গ্রেপ্তার

ছবি

দুই মামলায় স্থায়ী জামিন পেলেন খালেদা জিয়া

মহেশখালীতে হিন্দু পাড়ায় পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর হামলায় আহত - ৭

ছবি

জাজিরায় ভোটে পরাজিত প্রার্থীর হামলা; পুলিশের গুলিতে শিশু সহ আহত ৩

ছবি

দুদকের মামলায় ময়মনসিংহের সাবেক ওসি কারাগারে

বগুড়ার নন্দীগ্রামে স্ত্রী ও সম্বন্ধীর প্রতারণার শিকার হয়ে যুবকের আত্মহত্যা

ছবি

ভবন হস্তান্তর : তুরিন আফরোজকে শোকজ

ছবি

হাইকোর্ট বলছে, অর্থ পাচারের মাস্টারমাইন্ড খন্দকার মোহতেশাম

লালমনিরহাটে বিকাশ এজেন্ট হত্যাকান্ড : প্রধান আসামী গাজীপুর থেকে গ্রেফতার

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেডমাঝি হত্যার মূলহোতাসহ ২ জন গ্রেপ্তার

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

গোপনে গোসলের ভিডিও ধারণ, হুমিক দিয়ে ধর্ষণ, অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

শাস্তির দাবিতে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

লিয়াকত আলী বাদল, রংপুর

শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার বিড়ি শিল্প নগরী হারাগাছে গৃহবধূর (৩৬) গোসলের ভিডিও গোপনে ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া (২৮)।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করার পর বুধবার গভীর রাতে ধর্ষক ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুলকে রংপুর নগরীর মুন্সিপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমান। ধর্ষক মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ ইউনিয়নের মৃত মহির উদ্দিন বসুনিয়ার ছেলে এবং হারাগাছ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক বলে পুলিশ জানিয়েছে। এদিকে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম গ্রেপ্তার হওয়ার খবর জানাজানি হলে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। তার কঠোর শাস্তি দাবি করে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।

পুলিশ জানায়, কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ ইউনিয়নের নাজিরদহ গ্রামের এক গৃহবধূর দুই সন্তানকে ৩-৪ বছর আগে প্রাইভেট পড়াতেন একই এলাকার ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া। গৃহশিক্ষক হিসেবে বাড়িতে গিয়ে প্রাইভেট পড়ানোর সুযোগে একদিন টিনের বেড়া দেয়া গোসলখানায় কৌশলে ওই গৃহবধূর গোসলের ভিডিও ও ছবি গোপনে ধারণ করে মাজেদুল। সেই ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নানাভাবে প্রচার করার ভয়ভীতিসহ তার ছেলেদের ক্ষতি করার হুমকি দিয়ে বেশ কয়েকবার গৃহবধূকে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের অশ্লীল ছবি তোলে মাজেদুল। সর্বশেষ গত বছরের ২৯ অক্টোবর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে মাজেদুল আবারও বাড়িতে গিয়ে গোসলের সেই ভিডিও ও অন্যান্য অশালীন ছবি তার স্বামী সন্তানদের দেখানোসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করার ভয়ভীতি দেখিয়ে গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ নিরুপায় হয়ে ছেলেদের নিয়ে ঢাকায় চলে যান। কিন্তু সেখানে গিয়েও রেহাই মেলেনি। ঢাকায় থাকা অবস্থায় ওই গৃহবধূকে শারীরিক সম্পর্কের কথা জানালে তিনি রাজি না হওয়ায় অন্য নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত ১২ মার্চ সকালে তার ছোট ছেলের (১৭) ম্যাসেঞ্জারে আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে দেয় মাজেদুল। এছাড়া ওইদিন বেলা ৩টার দিকে বড় ছেলের (১৮) এক বন্ধুর ম্যাসেঞ্জারেও পাঠিয়ে দেয় সেই আপত্তিকর ছবি। অবশেষে নিরুপায় হয়ে ধর্ষিতা গৃহবধূ ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে এসে গত ১১ এপ্রিল মাজেদুলকে অভিযুক্ত করে কাউনিয়া থানায় মামলা দায়ের করে। মামলার বিষয়টি জানতে পেরে ধর্ষক ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম গা ঢাকা দেয়।

কাউনিয়া থানার ওসি মাসুমুর রহমান জানান, তাকে গ্রেপ্তার করার জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো অব্যাহত ছিল। অবশেষে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কাউনিয়া থানা পুলিশ ও র‌্যাব ১৩ একটি দল যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে বুধবার (২৫ মে) ভোরে ধর্ষক মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়াকে রংপুর নগরীর মুন্সিপাড়া এলাকার একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদিকে মামলার তদন্তকারী অফিসার কাউনিয়া থানার এসআই সামিউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পরপরই অভিযুক্ত মাজেদুল গা ঢাকা দেয়। সে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করে এবং স্থান পরিবর্তন করে।

পরে তথ্য প্রযুক্তিতর সহায়তায় র‌্যাব ও পুলিশের যৌথ অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মাজেদুল ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। সেই সঙ্গে ভিডিও করার কথাও জানিয়েছে। তাকে বৃস্পতিবার সন্ধ্যায় ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চালান দেয়া হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে তাকে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। পুলিশ জানিয়েছে আসামিকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হবে। এদিকে ধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুল ইসলাম বসুনিয়া গ্রেপ্তার হওয়ার বিষয়ে হারাগাছ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু বলেন, গত বছর হারাগাছ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় কমিটি। মাজেদুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটিতে শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে সেটা মাজদুলের ব্যক্তিগত চরিত্রের বিষয়। এর দায় ছাত্রলীগ নেবে না।

back to top