alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

লক্ষ্মীপুর আদালত ইভ্যালির রাসেলসহ চারজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০২২

লক্ষ্মীপুর আদালত ইভ্যালির সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনসহ চারজনের বিরুদ্ধে ১১ লাখ ৩৩ হাজার টাকার তিনটি চেক জালিয়াতির মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে। আজ মঙ্গলবার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লক্ষ্মীপুর সদর আদালতের বিচারক শামছুল আরেফিন এ আদেশ দেন।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত অন্যরা হলেন ইভ্যালির ব্যবস্থাপক (ফাইন্যান্স) জায়েদ হাসান ও জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক (ফাইন্যান্স) আবদুল্যা আল মাসুদ।

আইনজীবী ও ভুক্তভোগী মুহাম্মদ মাহমুদুল হক বাদী হয়ে গত ২৭ ও ২৮ মার্চ তিনি বাদী হয়ে ইভ্যালির সিইওসহ চারজনের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লক্ষ্মীপুর সদর আদালতে তিনটি মামলা করেন।

মাহমুদুল হক বলেন, মামলাগুলো আমলে নিয়ে বিচারক সমন জারি করেন। আজ আসামিদের আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন্য আদালত নোটিশ পাঠায়। কিন্তু তাঁরা আদালতে উপস্থিত হননি। এ কারণে আদালতের বিচারক তাঁদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আদেশ দিয়েছেন।

মামলার আরজি সূত্রে জানা যায়, মাহমুদুল হক এসি, টিভি, ফ্রিজ ও মোটরসাইকেল কেনার জন্য ইভ্যালিতে অগ্রিম টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু পণ্যগুলো দিতে ইভ্যালি ব্যর্থ হয়। পরে ইভ্যালির কর্মকর্তা জায়েদ হাসান ও আবদুল্যা আল মাসুদের যৌথ স্বাক্ষরে মিডল্যান্ড ব্যাংক হিসাবে ১১ লাখ ৩৩ হাজার টাকার তিনটি চেক কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে মাহমুদুল হকের কাছে পাঠানো হয়। তিনি চেকগুলো নগদায়নের জন্য ১৩ জানুয়ারি নিজের ওয়ান ব্যাংকের হিসাবে জমা দেন। এর মধ্যে ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা, ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা ও ৪ লাখ ৩৩ হাজার টাকার পৃথক চেক ছিল।

ওয়ান ব্যাংক থেকে চেকগুলো নগদায়নের জন্য মিডল্যান্ড ব্যাংকে পাঠালে জানা যায় ইভ্যালির হিসাব বন্ধ রয়েছে। এতে চেকগুলো ফেরত আসে। ১০ ফেব্রুয়ারি মাহমুদল হক আইনজীবীর মাধ্যমে পাওনা টাকার জন্য অভিযুক্তদের আইনি নোটিশ দেন। কিন্তু তারা পাওনা টাকা পরিশোধ করেনি ও চেকগুলোও ফেরত নেয়নি। এতে ইভ্যালির ব্যাংক হিসাবে পর্যাপ্ত টাকা না থাকা ও হিসাব বন্ধ থাকা সত্ত্বেও চেকগুলো দেওয়ায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

ছবি

পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা নিয়ে যা বলল সিআইডি

ছবি

পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীরা জাতির শত্রু, তাদের চিহ্নিত করা দরকার: হাইকোর্ট

সোনাইমুড়ীতে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত-৯

অর্থ আত্মসাৎ : গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গিরের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু

ছবি

ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি পিন্টু

ছবি

পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবের শিকার রেনুর পরিবার কেমন আছে

ছবি

মোবাইলের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে বেশি দামে বিক্রি করত তারা

হাতিয়ার মেঘনাপাড় থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

১৮ বছর পর গৃহবধূ গণধর্ষণ মামলার রায় : ২ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা হোসেন হত্যা: ৬ জেএমবির ফাঁসির রায়

ছবি

অর্থ আত্মসাৎ: ওয়াসার এমডিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

র‌্যাবকে ঘুষ দিতে গিয়ে মামলার আসামি

মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে সোয়াবিন ভর্তি ট্রাক ছিনতাই

ছবি

১৫ পর কৃষক হত্যার রায়, ৮ জনের যাবজ্জীবন

ময়মনসিংহের ছোট ভাইয়ের দায়ের কোপে বড় ভাই নিহত

ছবি

‘এমন আচরণ রাষ্ট্রের জন্য কলঙ্ক’

সিরাজগঞ্জে হেরোইন বহনের দায়ে দু’জনের যাবজ্জীবন

ছবি

সাতক্ষীরায় আ. লীগ নেতা মোশাররফ হোসেন গুলিবিদ্ঘধ, হাসপাতালে ভর্তি

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি!

ছবি

নন্দীগ্রামের জীবন কুমারের আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

হানিফের হেলপার নিহতের ঘটনায় শতাব্দীর বাসচালক গ্রেপ্তার

নোয়াখালীতে অটোরিকশা চোর চক্রের ৯সদস্য গ্রেপ্তার

পুলিশ পরিচয়ে বিদেশ ফেরত যাত্রীর গাড়িতে ডাকাতি সর্বস্ব লুট

ছবি

ড. কামালের কর ফাঁকি নিয়ে রিটের আদেশ ২১ জুন

ছবি

উত্তরা থেকে ‘ধর্ষক’ গ্রেপ্তার

সাইবার অপরাধ বাড়ছে, ৬ মাসে ৪ হাজার অভিযোগ

যুক্তরাস্ট্টে দোকানের সামনেই গুলি করে নোয়াখালীর মাহফুজ হত্যা

ছবি

ঋন নিয়ে আত্মসাত: পিকে সহ ২৩ জনের নামে চার্জশিট দিচ্ছে দুদক

ছবি

চিকিৎসক বুলবুল হত্যা: প্রধান আসামি রিপন গ্রেপ্তার

ছবি

দুই মামলায় স্থায়ী জামিন পেলেন খালেদা জিয়া

মহেশখালীতে হিন্দু পাড়ায় পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর হামলায় আহত - ৭

ছবি

জাজিরায় ভোটে পরাজিত প্রার্থীর হামলা; পুলিশের গুলিতে শিশু সহ আহত ৩

ছবি

দুদকের মামলায় ময়মনসিংহের সাবেক ওসি কারাগারে

বগুড়ার নন্দীগ্রামে স্ত্রী ও সম্বন্ধীর প্রতারণার শিকার হয়ে যুবকের আত্মহত্যা

ছবি

ভবন হস্তান্তর : তুরিন আফরোজকে শোকজ

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

লক্ষ্মীপুর আদালত ইভ্যালির রাসেলসহ চারজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০২২

লক্ষ্মীপুর আদালত ইভ্যালির সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনসহ চারজনের বিরুদ্ধে ১১ লাখ ৩৩ হাজার টাকার তিনটি চেক জালিয়াতির মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে। আজ মঙ্গলবার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লক্ষ্মীপুর সদর আদালতের বিচারক শামছুল আরেফিন এ আদেশ দেন।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত অন্যরা হলেন ইভ্যালির ব্যবস্থাপক (ফাইন্যান্স) জায়েদ হাসান ও জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক (ফাইন্যান্স) আবদুল্যা আল মাসুদ।

আইনজীবী ও ভুক্তভোগী মুহাম্মদ মাহমুদুল হক বাদী হয়ে গত ২৭ ও ২৮ মার্চ তিনি বাদী হয়ে ইভ্যালির সিইওসহ চারজনের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লক্ষ্মীপুর সদর আদালতে তিনটি মামলা করেন।

মাহমুদুল হক বলেন, মামলাগুলো আমলে নিয়ে বিচারক সমন জারি করেন। আজ আসামিদের আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন্য আদালত নোটিশ পাঠায়। কিন্তু তাঁরা আদালতে উপস্থিত হননি। এ কারণে আদালতের বিচারক তাঁদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আদেশ দিয়েছেন।

মামলার আরজি সূত্রে জানা যায়, মাহমুদুল হক এসি, টিভি, ফ্রিজ ও মোটরসাইকেল কেনার জন্য ইভ্যালিতে অগ্রিম টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু পণ্যগুলো দিতে ইভ্যালি ব্যর্থ হয়। পরে ইভ্যালির কর্মকর্তা জায়েদ হাসান ও আবদুল্যা আল মাসুদের যৌথ স্বাক্ষরে মিডল্যান্ড ব্যাংক হিসাবে ১১ লাখ ৩৩ হাজার টাকার তিনটি চেক কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে মাহমুদুল হকের কাছে পাঠানো হয়। তিনি চেকগুলো নগদায়নের জন্য ১৩ জানুয়ারি নিজের ওয়ান ব্যাংকের হিসাবে জমা দেন। এর মধ্যে ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা, ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা ও ৪ লাখ ৩৩ হাজার টাকার পৃথক চেক ছিল।

ওয়ান ব্যাংক থেকে চেকগুলো নগদায়নের জন্য মিডল্যান্ড ব্যাংকে পাঠালে জানা যায় ইভ্যালির হিসাব বন্ধ রয়েছে। এতে চেকগুলো ফেরত আসে। ১০ ফেব্রুয়ারি মাহমুদল হক আইনজীবীর মাধ্যমে পাওনা টাকার জন্য অভিযুক্তদের আইনি নোটিশ দেন। কিন্তু তারা পাওনা টাকা পরিশোধ করেনি ও চেকগুলোও ফেরত নেয়নি। এতে ইভ্যালির ব্যাংক হিসাবে পর্যাপ্ত টাকা না থাকা ও হিসাব বন্ধ থাকা সত্ত্বেও চেকগুলো দেওয়ায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

back to top