alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

হত্যার পর লাশ ড্রামভর্তি করে পুঁতে রাখা হয়

৬ বছর পর হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন এক অভিযুক্ত গ্রেপ্তার, স্বীকারোক্তি

বাকী বিল্লাহ : বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

খুনিরা পরিকল্পিতভাবে রাজিব নামে এক যুবককে হত্যা করেছে। হত্যার পর তার লাশ ড্রামে ভর্তি করে অভিযুক্তের অফিসের বাথরুমের কাছে পুতে রাখা হয়। ২০১৬ সালে মার্চ মাসে যশোরে এ নির্মম ঘটনা ঘটে।

অবশেষে ৬ বছর পর মাটি খোড়ার সময় ড্রামভর্তি কংকাল উদ্ধার করা হয়। ওই কংকাল ঢাকার মালিবাগে সিআইডি অফিসের ফরেনসিক বিভাগের ল্যাবে ডিএনএ টেস্ট করে কংকালের পরিচয় নিশ্চিত করা হয়। রাজীবের বাবা ও মায়ের আলামত নিয়ে পরিচয় শনাক্ত করার পর এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

অবশেষে হত্যাকা-ে জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে হত্যাকা-ের ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর যশোর জেলার পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন এ তথ্য জানিয়েছেন।

পিবিআইয়ের এসপি জানান, গত ৩০ মে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানাধীন পুরাতন কসবা নিরিবিল পাড়ার বজলুর রহমান নামে এক ব্যক্তি বাউন্ডারি দেয়াল ঘেরা জায়গায় ভবন নির্মাণের জন্য মাটি খোঁড়ার সময় পরিত্যক্ত পুরাতন টয়লেটের রিং সøাবের কুয়ার ভিতর একটি নীল রঙ্গের প্লাস্টিকের ড্রামের ভিতর মানুষের হাড়গোড় ও মাথার খুলি দেখতে পায়। এরপর পিবিআইয়ের যশোর জেলার টিম ঘটনাটির ছায়া তদন্ত শুরু করেন।

তদন্তকালে পিবিআই জানতে পারে, রাজীব হোসেন কাজি (৩২) তার চাচা হাসমতের যশোরের বাসায় থেকে শেখ সজিবুর রহমানের যশোর অফিসে ও বাসায় কাজ করত।

২০১৬ সালের ২৯ মার্চ রাত ৮টার দিকে রাজীব তার পিতাকে ফোন করে তাদের খুলনার বাড়িতে গেছে বলে জানান। কিন্তু রাজীব তাদের খুলনার বাড়িতে যায়নি। এরপর রাজীবের মোবাইল ফোন বন্ধ পায়। তাকে কোথায়ও খুজে না পেয়ে রাজিবের পিতা ফারুক হোসেন তার ভাই হাসমতের সঙ্গে যোগাযোগ করে। চাচা হাসমত জানায়, ২০১৬ সালের ২৯ মার্চ থেকে রাজীবকে পাওয়া যাচ্ছে না। এরপর পরিবারের পক্ষ থেকে ব্যাপক খোঁজ-খবর নিয়ে তার সন্ধান পায়নি।

দীর্ঘদিন পর ২০২২ সালের ৩০ মে রাত ৮টার দিকে রাজীবের চাচা হাসমত রাজীবের পিতা ফারুক হোসেনকে ফোনে জানান। যশোরের পরিত্যক্ত ড্রামে মানুষের হাড়গোড় ও মাথার খুলি পাওয়া গেছে। আরও জানায়, রাজিব যে বাড়িতে কাজ করত সেখানে টয়লেটের রিং সøাবের ভিতর ড্রামটি মাটি চাপা দেয়া ছিল। শেখ সজিবের যেখানে অফিস ছিল সেখানেই মানুষের কংকাল পাওয়া গেছে।

রাজীব নিখোঁজ হওয়ার কিছুদিন পর সজীব তার অফিস ভেঙ্গে ফেলেছিল। এরপর রাজীবের পিতা ফারুক হোসেন ভাইয়ের কথা শুনে যশোরে যান। যশোরে পিবিআইয়ের পুলিশ সুপারকে ঘটনা জানিয়ে ছেলেকে শনাক্ত করার জন্য অনুরোধ করেন।

পরিবারের পক্ষ থেকে গত ১২ সেপ্টম্বর একটি জিডি করেন। ওই জিডির সূত্র ধরে রাজীবের পিতা ফারুক হোসেন ও তার স্ত্রী মাবিয়া বেগমের ডিএনএন টেস্ট করতে আদালতের অনুমোদন নেয়। আদালতের নির্দেশে মালিবাগে সিআইডি অফিসে ডিএনএন নমুনা টেস্টের জন্য পাঠানো হয়। টেস্ট্রে ড্রামে পাওয়া কংকালের সঙ্গে ফারুক হোসেন ও তার স্ত্রী মাবিয়ার ডিএনএন মিল পাওয়া যায়। অর্থাৎ ড্রামের ভিতর পাওয়া কংকাল বাদীর ছেলের তা ডিএনএ টেস্টে নিশ্চিত করে।

বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর যশোর কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। উক্ত মামলার সূত্র ধরে গত সোমবার পিবিআইয়েরে টিম হত্যাকা-ে জড়িত আসামি মো. সালামকে যশোরের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেছে।

স্বীকারোক্তিতে অভিযুক্ত সালাম বলেছে, রাজিবকে হত্যা করে আসামি সালামের সহযোগীতায় মৃতদেহ গোপন করার জন্য ড্রামে ভরে তার ব্যবহৃত রিকশাযোগে লাশ নিরিবিলি পাড়ায় শেখ সজিবুর রহমানের অফিসের টয়লেটের কুয়ার মধ্যে ফেলে দেয়। অভিযুক্ত সালাম গতকাল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। মৃতদেহ বহনের কাজে ব্যবহৃত রিকশাটি জব্দ করা হয়েছে। হত্যাকান্ডে জড়িত অন্যদেরকে গ্রেপ্তারে পিবিআইয়ের অভিযান চলছে। কী কারণে রাজীবকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে তার আরও তথ্য বের করতে পিবিআই সজীবকে খুজছে। শেখ সজিব পলাতক। ধারণা করা হচ্ছে, সজিব মূল অভিযুক্ত।

ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ, নির্যাতন

ছবি

প্রশ্ন ফাঁস: বরখাস্ত ৫ কর্মীর বিষয়ে তদন্ত করতে দুদকে চিঠি দিলো পিএসসি

ছবি

স্ত্রীসহ ডিপিডিসির ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ছবি

প্রশ্নফাঁসের মাস্টারমাইন্ড নোমান সিদ্দিক

ছবি

প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় পিএসসির ২ উপপরিচালকসহ ১৭ জন গ্রেপ্তার

ছবি

অভিযোগ গঠন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে ড. ইউনূস

ছবি

জয়পুরহাটে তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

ছবি

মুন্সীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা

জাটকা নিধন রোধে অভিযান, গ্রেপ্তার ৮ হাজার জেলে

ছবি

ঘোড়াঘাটে টিকটকের আড়ালে সমকামী ভিডিও তৈরি, পুলিশের জালে দুই যুবক

ছবি

এনবিআরের সাবেক কর্মকর্তা মতিউরের পরিবারের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ

ছবি

ড. ইউনূসসহ ৪ জনের জামিনের মেয়াদ ফের বাড়লো

ছবি

"অবৈধ সম্পদ: চিত্রনায়ক শান্ত খানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা দায়ের"

ছবি

১৩ বছর পর সাভারে সাবেক এমপির স্ত্রী হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

ছবি

সাজা কখনও স্থগিত হয় না : ড. ইউনূসের মামলার পর্যবেক্ষণে হাইকোর্ট

ছবি

সাবেক ডিসি ও জজসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের অভিযোগপত্র দাখিল

ছবি

নকল কসমেটিকস উৎপাদন : ৭ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা সাড়ে ১৪ লাখ টাকা

চাঁদপুরে কোহিনুর হত্যা মামলায় ২ আসামীর মৃত্যুদণ্ড

ছবি

মাথাচাড়া দিচ্ছে নিত্য-নতুন সাইবার অপরাধ: সিক্যাফ’র গবেষণা

ছবি

কেন্দ্রে প্রভাষকসহ ১০ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ছাগলকাণ্ডে বেরিয়ে আসছে আরও দুর্নীতি

সোনারগাঁয়ে বিচার শালিসে সন্ত্রাসী হামলায় দলিল লেখক গুলিবিদ্ধ

ছবি

নরসিংদীতে ভূয়া পুলিশ আটক

সোনারগাঁয়ে সাবেক নারী সদস্যকে শ্লীলতাহানি করে পেটালেন ইউপি সদস্য

সিলেটে কাউন্সিলর আজাদের বাসভবনে হামলা, সিসিক মেয়র ও কাউন্সিলরদের নিন্দা

ছবি

জুড়ীতে জুয়াড়িদের অভ্যন্তরীণ লেনদেনের বলি আরমান

পীরগাছায় স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ

ছবি

মতিউর আসলে কোথায়?

ছবি

সৎ মেয়েকে ধর্ষণ, ফরিদপুরে সাবেক বিডিআর কর্মকর্তার যাবজ্জীবন কারাদন্ড

ছবি

এমপি আনার হত্যা: মোস্তাফিজ ও ফয়সাল ৬ দিনের রিমান্ডে

ছবি

রাবিতে পুলিশ ফাঁড়ির নিকটে ছিনতাই, গ্রেফতার ১

ছবি

মেডিকেল শিক্ষার্থীসহ চক্রের ৮ সদস্য গ্রেপ্তার

ছবি

বালতির হাতল দিয়ে কারাগারের ছাদ ফুটো করে পালালেন ৪ আসামি, ১৪ মিনিটেই আটক

ছবি

তরুণীদের দিয়ে অনলাইনে দেহ ব্যবসা, শত কোটি টাকা হাতিয়েছে চক্রটি

ছাগলকাণ্ড : এনবিআর কর্মকর্তা মতিউরের ৫শ’ কোটি টাকার বেশি স্থাবর সম্পদের তথ্য

ছবি

ব্যবসায়ী নাসিরের মামলায় পরীমনির জামিন

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

হত্যার পর লাশ ড্রামভর্তি করে পুঁতে রাখা হয়

৬ বছর পর হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন এক অভিযুক্ত গ্রেপ্তার, স্বীকারোক্তি

বাকী বিল্লাহ

বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

খুনিরা পরিকল্পিতভাবে রাজিব নামে এক যুবককে হত্যা করেছে। হত্যার পর তার লাশ ড্রামে ভর্তি করে অভিযুক্তের অফিসের বাথরুমের কাছে পুতে রাখা হয়। ২০১৬ সালে মার্চ মাসে যশোরে এ নির্মম ঘটনা ঘটে।

অবশেষে ৬ বছর পর মাটি খোড়ার সময় ড্রামভর্তি কংকাল উদ্ধার করা হয়। ওই কংকাল ঢাকার মালিবাগে সিআইডি অফিসের ফরেনসিক বিভাগের ল্যাবে ডিএনএ টেস্ট করে কংকালের পরিচয় নিশ্চিত করা হয়। রাজীবের বাবা ও মায়ের আলামত নিয়ে পরিচয় শনাক্ত করার পর এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

অবশেষে হত্যাকা-ে জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে হত্যাকা-ের ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর যশোর জেলার পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন এ তথ্য জানিয়েছেন।

পিবিআইয়ের এসপি জানান, গত ৩০ মে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানাধীন পুরাতন কসবা নিরিবিল পাড়ার বজলুর রহমান নামে এক ব্যক্তি বাউন্ডারি দেয়াল ঘেরা জায়গায় ভবন নির্মাণের জন্য মাটি খোঁড়ার সময় পরিত্যক্ত পুরাতন টয়লেটের রিং সøাবের কুয়ার ভিতর একটি নীল রঙ্গের প্লাস্টিকের ড্রামের ভিতর মানুষের হাড়গোড় ও মাথার খুলি দেখতে পায়। এরপর পিবিআইয়ের যশোর জেলার টিম ঘটনাটির ছায়া তদন্ত শুরু করেন।

তদন্তকালে পিবিআই জানতে পারে, রাজীব হোসেন কাজি (৩২) তার চাচা হাসমতের যশোরের বাসায় থেকে শেখ সজিবুর রহমানের যশোর অফিসে ও বাসায় কাজ করত।

২০১৬ সালের ২৯ মার্চ রাত ৮টার দিকে রাজীব তার পিতাকে ফোন করে তাদের খুলনার বাড়িতে গেছে বলে জানান। কিন্তু রাজীব তাদের খুলনার বাড়িতে যায়নি। এরপর রাজীবের মোবাইল ফোন বন্ধ পায়। তাকে কোথায়ও খুজে না পেয়ে রাজিবের পিতা ফারুক হোসেন তার ভাই হাসমতের সঙ্গে যোগাযোগ করে। চাচা হাসমত জানায়, ২০১৬ সালের ২৯ মার্চ থেকে রাজীবকে পাওয়া যাচ্ছে না। এরপর পরিবারের পক্ষ থেকে ব্যাপক খোঁজ-খবর নিয়ে তার সন্ধান পায়নি।

দীর্ঘদিন পর ২০২২ সালের ৩০ মে রাত ৮টার দিকে রাজীবের চাচা হাসমত রাজীবের পিতা ফারুক হোসেনকে ফোনে জানান। যশোরের পরিত্যক্ত ড্রামে মানুষের হাড়গোড় ও মাথার খুলি পাওয়া গেছে। আরও জানায়, রাজিব যে বাড়িতে কাজ করত সেখানে টয়লেটের রিং সøাবের ভিতর ড্রামটি মাটি চাপা দেয়া ছিল। শেখ সজিবের যেখানে অফিস ছিল সেখানেই মানুষের কংকাল পাওয়া গেছে।

রাজীব নিখোঁজ হওয়ার কিছুদিন পর সজীব তার অফিস ভেঙ্গে ফেলেছিল। এরপর রাজীবের পিতা ফারুক হোসেন ভাইয়ের কথা শুনে যশোরে যান। যশোরে পিবিআইয়ের পুলিশ সুপারকে ঘটনা জানিয়ে ছেলেকে শনাক্ত করার জন্য অনুরোধ করেন।

পরিবারের পক্ষ থেকে গত ১২ সেপ্টম্বর একটি জিডি করেন। ওই জিডির সূত্র ধরে রাজীবের পিতা ফারুক হোসেন ও তার স্ত্রী মাবিয়া বেগমের ডিএনএন টেস্ট করতে আদালতের অনুমোদন নেয়। আদালতের নির্দেশে মালিবাগে সিআইডি অফিসে ডিএনএন নমুনা টেস্টের জন্য পাঠানো হয়। টেস্ট্রে ড্রামে পাওয়া কংকালের সঙ্গে ফারুক হোসেন ও তার স্ত্রী মাবিয়ার ডিএনএন মিল পাওয়া যায়। অর্থাৎ ড্রামের ভিতর পাওয়া কংকাল বাদীর ছেলের তা ডিএনএ টেস্টে নিশ্চিত করে।

বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর যশোর কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। উক্ত মামলার সূত্র ধরে গত সোমবার পিবিআইয়েরে টিম হত্যাকা-ে জড়িত আসামি মো. সালামকে যশোরের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেছে।

স্বীকারোক্তিতে অভিযুক্ত সালাম বলেছে, রাজিবকে হত্যা করে আসামি সালামের সহযোগীতায় মৃতদেহ গোপন করার জন্য ড্রামে ভরে তার ব্যবহৃত রিকশাযোগে লাশ নিরিবিলি পাড়ায় শেখ সজিবুর রহমানের অফিসের টয়লেটের কুয়ার মধ্যে ফেলে দেয়। অভিযুক্ত সালাম গতকাল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। মৃতদেহ বহনের কাজে ব্যবহৃত রিকশাটি জব্দ করা হয়েছে। হত্যাকান্ডে জড়িত অন্যদেরকে গ্রেপ্তারে পিবিআইয়ের অভিযান চলছে। কী কারণে রাজীবকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে তার আরও তথ্য বের করতে পিবিআই সজীবকে খুজছে। শেখ সজিব পলাতক। ধারণা করা হচ্ছে, সজিব মূল অভিযুক্ত।

back to top