alt

আন্তর্জাতিক

পুতিন সমালোচক নাভালনির স্মৃতিকথা প্রকাশিত হবে অক্টোবরে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের কট্টর সমালোচক ও বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সি নাভালনির কারাগারে যাওয়া এবং মৃত্যুবরণ করার আগে লিখে যাওয়া স্মৃতিকথা প্রকাশিত হতে চলেছে এবছর অক্টোবর মাসে।

নাভালনি নিজ হাতে এই স্মৃতিকথা লিখেছিলেন বলে বিবিসি-কে জানিয়েছে প্রকাশনা কোম্পানি ভিন্টেজ। ২০২০ সালে বিষপ্রয়োগের শিকার হওয়ার পর সেরে ওঠার সময় নাভালনি এই স্মৃতিগ্রন্থ লেখার কাজ শুরু করেছিলেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার কারাগারে মারা যান নাভালনি। উগ্রপন্থায় উস্কানি, অর্থায়ন এবং একটি উগ্রপন্থি সংগঠন প্রতিষ্ঠার অভিযোগে গতবছর অগাস্টে নাভালনিকে নতুন করে ১৯ বছরের জেল দেওয়া হয়েছিল।

সেই সাজাই খাটছিলেন তিনি। তার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলেই ব্যাপকভাবে মনে করা হয়ে থাকে।

প্রকাশনা কোম্পানি ভিন্টেজ বলেছে, প্যাট্রিয়ট’ শিরোনামে নাভালনির এই স্মৃতিগ্রন্থে থাকবে তার পুরো জীবনকাহিনী- তার যৌবনকাল, মানবাধিকারের জন্য তার আহ্বান, বিয়ে ও পরিবার এবং তাকে চুপ করিয়ে দিতে বিশ্বের এক সুপারপাওয়ারের দৃঢ়প্রতিজ্ঞার মুখেও রাশিয়ার গণতন্ত্র ও মুক্তির জন্য তার প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা- এ সবকিছুই থাকবে।

তাছাড়া, নাভালনির দৃঢ়বিশ্বাস ছিল যে, ‘পরিবর্তনকে রুখে দেওয়া যায় না, এটি আসবেই।” তার সেই প্রত্যয়েরও প্রতিফলন ঘটেছে স্মৃতিকথায়।

আগামী ২২ অক্টোবরে রাশিয়ান ভাষার পাশাপাশি অন্তত ১১ টি ভিন্ন ভাষায় বইটি প্রকাশ করা হবে।

নাভালনির বিধবা স্ত্রী ইউলিয়া বলেছেন, “এ বই কেবল নাভালনির জীবনেরই নয়, বরং স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে তার লড়াইয়ের অটুট অঙ্গীকারের সাক্ষ্য। যে লড়াইয়ের জন্য তিনি সবকিছু, এমনকী তার জীবনও হারিয়েছেন।”

এই স্মৃতিকথা নাভালনির স্মৃতির সম্মানার্থে প্রকাশ করা হচ্ছে। এতে অন্যরা সঠিক কিছু করার জন্য উঠে দাঁড়াতে উদ্বুদ্ধ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন ইউলিয়া।

অ্যালেক্সি নাভালনি কেবল প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচকই ছিলেন না। পুতিনের এক নম্বর প্রতিদ্বন্দ্বীও মনে করা হত তাকে। ২০২১ সাল থেকে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মুখ খোলার জন্য শাস্তি ভোগ করতে হয়েছে তাকে। সে সময় তাকে জেলে ঢোকানো হয়।

গত বছর ডিসেম্বরের দিকেও একবার তার রহস্যজনক মৃত্যুর গুজব ছড়িয়েছিল। আচমকাই তার কোনও হদিস পাওয়া যাচ্ছিল না। রুশ সরকার গোপনে নাভালনিকে অজ্ঞাত জায়গায় সরিয়ে নিয়েছে এবং অত্যাচার করে মেরে ফেলা হয়েছে বলে জল্পনা সৃষ্টি হয়। পরে জানা যায়, তিনি বন্দি ছিলেন সাইবেরিয়ার কারাগারে।

রাশিয়ার দুর্নীতি ও শাসনব্যবস্থার কড়া সমালোচক ছিলেন নাভালনি। রাশিয়ায় তিনি কয়েক যুগ ধরেই সরকার ও শাসনব্যবস্থার বিরুদ্ধে কথা বলে আসছিলেন। দেশজুড়ে এ নিয়ে তিনি বিভিন্ন সময় আন্দোলনও করেছিলেন। একারণে, কারাগারে তার মৃত্যুর পর তিনি হত্যার শিকার হয়ে থাকতে পারেন বলে জল্পনা সৃষ্টি হয়।

ছবি

পাপুয়া নিউ গিনির ভূমিধসে ‘চাপা: ২ হাজারেরও বেশি’

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে ঝড়ে নিহত অন্তত ১৮

ছবি

ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ইঙ্গিত আহমাদিনেজাদের

ছবি

রিমালের ছোবলে পশ্চিমবঙ্গে একজনের মৃত্যু, বৃষ্টিপাত অব্যাহত

ছবি

গাজায় বাস্তুচ্যুতদের শিবিরে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নিহত অন্তত ৩৫

ছবি

গাজায় ইসরায়েলি সেনা আটকের দাবি হামাসের

ছবি

গুজরাটে খেলাধুলার স্থানে ভয়াবহ আগুন, ২৪ জনের মৃত্যু

ছবি

জাতিসংঘ আদালতের রায় : আর ঘোষণা নয়,পদক্ষেপ চান ফিলিস্তিনিরা

ছবি

রাফায় অভিযান : জাতিসংঘ আদালতের রায় প্রত্যাখ্যান ইসরায়েলের

ছবি

মহড়ার মাধ্যমে তাইওয়ান দখলের সক্ষমতা যাচাই করছে চীন

ছবি

গাজাজুড়ে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা

ছবি

ইসরায়েলের আরও ৩ জিম্মির মরদেহ উদ্ধার

ছবি

জর্জিয়ার ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

ভিয়েতনামে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৪

ছবি

তীর্থে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের নিহত ৭

ছবি

মায়ানমারের রাখাইনে নতুন সংঘাত, উদ্বাস্তু হাজারো মানুষ

ছবি

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের সেই ফ্লাইটের ২০ আরোহী আইসিইউতে

ছবি

আমেরিকার কাছে সিরিজ হারের পর যা বললেন সাকিব

ছবি

গাজাজুড়ে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নিহত অন্তত ৫০

ছবি

তাইওয়ানের চারপাশে চীনের সামরিক মহড়া ‘উদ্বেগজনক’ : যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

প্যালেস্টাইন রাষ্ট্রকে ‘একতরফা স্বীকৃতি’ দেয়ার বিরোধিতা হোয়াইট হাউসের

ছবি

মেক্সিকোয় নির্বাচনী প্রচারণার মঞ্চ ভেঙে নিহত ৯

ছবি

গাজা যুদ্ধ : মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা থেকে সরে যাওয়ার হুমকি মিসরের

ছবি

গাজায় আরও হামলা চালানোর হুমকি ইসরায়েলের

ছবি

আগাম নির্বাচনের ঘোষণা যুক্তরাজ্যে

ছবি

দুবাই মেট্রো রেড লাইন পরিষেবা ২ ঘন্টা পর পুনরায় চালু

ছবি

ফিলিস্তিনকে আজই রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেবে আয়ারল্যান্ড: রয়টার্স

ছবি

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ৪০

ছবি

অনলাইনে প্রয়াত প্রেসিডেন্টকে ‘অপমানকারীদের’ গ্রেপ্তারের নির্দেশ

ছবি

ভারতের উত্তরে তীব্র তাপপ্রবাহ, দক্ষিণে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

ছবি

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে রাইসির মৃত্যু, যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা পায়নি ইরান

ছবি

ইসরায়েলি বাহিনী গাজায় গণহত্যা চালাচ্ছে না : বাইডেন

ছবি

রাইসির মৃত্যুতে ইরানে পাঁচ দিনের শোক

ছবি

রাইসির মৃত্যুতে বিশ্বনেতাদের শোক

ছবি

ইরানে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, প্রেসিডেন্ট রাইসির লাশ উদ্ধার

ছবি

ইরানের অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন মোহাম্মদ মোখবার

tab

আন্তর্জাতিক

পুতিন সমালোচক নাভালনির স্মৃতিকথা প্রকাশিত হবে অক্টোবরে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের কট্টর সমালোচক ও বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সি নাভালনির কারাগারে যাওয়া এবং মৃত্যুবরণ করার আগে লিখে যাওয়া স্মৃতিকথা প্রকাশিত হতে চলেছে এবছর অক্টোবর মাসে।

নাভালনি নিজ হাতে এই স্মৃতিকথা লিখেছিলেন বলে বিবিসি-কে জানিয়েছে প্রকাশনা কোম্পানি ভিন্টেজ। ২০২০ সালে বিষপ্রয়োগের শিকার হওয়ার পর সেরে ওঠার সময় নাভালনি এই স্মৃতিগ্রন্থ লেখার কাজ শুরু করেছিলেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার কারাগারে মারা যান নাভালনি। উগ্রপন্থায় উস্কানি, অর্থায়ন এবং একটি উগ্রপন্থি সংগঠন প্রতিষ্ঠার অভিযোগে গতবছর অগাস্টে নাভালনিকে নতুন করে ১৯ বছরের জেল দেওয়া হয়েছিল।

সেই সাজাই খাটছিলেন তিনি। তার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলেই ব্যাপকভাবে মনে করা হয়ে থাকে।

প্রকাশনা কোম্পানি ভিন্টেজ বলেছে, প্যাট্রিয়ট’ শিরোনামে নাভালনির এই স্মৃতিগ্রন্থে থাকবে তার পুরো জীবনকাহিনী- তার যৌবনকাল, মানবাধিকারের জন্য তার আহ্বান, বিয়ে ও পরিবার এবং তাকে চুপ করিয়ে দিতে বিশ্বের এক সুপারপাওয়ারের দৃঢ়প্রতিজ্ঞার মুখেও রাশিয়ার গণতন্ত্র ও মুক্তির জন্য তার প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা- এ সবকিছুই থাকবে।

তাছাড়া, নাভালনির দৃঢ়বিশ্বাস ছিল যে, ‘পরিবর্তনকে রুখে দেওয়া যায় না, এটি আসবেই।” তার সেই প্রত্যয়েরও প্রতিফলন ঘটেছে স্মৃতিকথায়।

আগামী ২২ অক্টোবরে রাশিয়ান ভাষার পাশাপাশি অন্তত ১১ টি ভিন্ন ভাষায় বইটি প্রকাশ করা হবে।

নাভালনির বিধবা স্ত্রী ইউলিয়া বলেছেন, “এ বই কেবল নাভালনির জীবনেরই নয়, বরং স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে তার লড়াইয়ের অটুট অঙ্গীকারের সাক্ষ্য। যে লড়াইয়ের জন্য তিনি সবকিছু, এমনকী তার জীবনও হারিয়েছেন।”

এই স্মৃতিকথা নাভালনির স্মৃতির সম্মানার্থে প্রকাশ করা হচ্ছে। এতে অন্যরা সঠিক কিছু করার জন্য উঠে দাঁড়াতে উদ্বুদ্ধ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন ইউলিয়া।

অ্যালেক্সি নাভালনি কেবল প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচকই ছিলেন না। পুতিনের এক নম্বর প্রতিদ্বন্দ্বীও মনে করা হত তাকে। ২০২১ সাল থেকে প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মুখ খোলার জন্য শাস্তি ভোগ করতে হয়েছে তাকে। সে সময় তাকে জেলে ঢোকানো হয়।

গত বছর ডিসেম্বরের দিকেও একবার তার রহস্যজনক মৃত্যুর গুজব ছড়িয়েছিল। আচমকাই তার কোনও হদিস পাওয়া যাচ্ছিল না। রুশ সরকার গোপনে নাভালনিকে অজ্ঞাত জায়গায় সরিয়ে নিয়েছে এবং অত্যাচার করে মেরে ফেলা হয়েছে বলে জল্পনা সৃষ্টি হয়। পরে জানা যায়, তিনি বন্দি ছিলেন সাইবেরিয়ার কারাগারে।

রাশিয়ার দুর্নীতি ও শাসনব্যবস্থার কড়া সমালোচক ছিলেন নাভালনি। রাশিয়ায় তিনি কয়েক যুগ ধরেই সরকার ও শাসনব্যবস্থার বিরুদ্ধে কথা বলে আসছিলেন। দেশজুড়ে এ নিয়ে তিনি বিভিন্ন সময় আন্দোলনও করেছিলেন। একারণে, কারাগারে তার মৃত্যুর পর তিনি হত্যার শিকার হয়ে থাকতে পারেন বলে জল্পনা সৃষ্টি হয়।

back to top