alt

আন্তর্জাতিক

বিপজ্জনক পথে ইউরোপ যাত্রা : ভূমধ্যসাগর থেকে ৩২ বাংলাদেশি উদ্ধার

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ১৫ মে ২০২২

বিপজ্জনক পথে ইউরোপ যাচ্ছিল ৩২ বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন দেশের ৮১ন অভিবাসন প্রত্যাশী। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ধরা পড়েছেন তিউনিসিয়ার নৌবাহিনীর হাতে। ধরা পড়ার কারনে তারা প্রায় নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন। রয়টার্স এ খবর জানিয়ে এক প্রতিবেদনে বলেছে, তিউনিসিয়া হয়ে ইউরোপ যাত্রা পৃথিবীর সবচেয়ে বিপজ্জনক অভিবাসন পথগুলোর একটি। এ পথে ইউরোপ যাওয়ার মধ্যে অনেকটা মৃত্যুর মুখে এগিয়ে যাওয়া। কিন্তু উন্নত দেশে অভিবাসী হয়ে নতুন জীবন লাভের আশায় এই পথে মানুষের যাওয়া থামছেনা। বরং বেড়েই চলেছে।

এভাবে অবৈধ পথে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার যাওয়ার সময় শনিবার ৩২ বাংলাদেশিসহ ৮১ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী। তাদের উদ্ধারের পর তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী জানিয়েছে, বাংলাদেশি ছাড়া উদ্ধারকৃত ৮১ জনের মধ্যে ৩৮ জন মিসরের, ৩২জন বাংলাদেশী, ১০ জন সুদানের ও ১ জন মরক্কোর নাগরিক।

এদিকে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, অবৈধ পথে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার সময় যাদের আটক করা হয়েছে তাদের বয়স ২০ থেকে ৩৮ বছরের মধ্যে। একজন নারীও রয়েছেন তাঁদের মধ্যে । উদ্ধার করা ব্যক্তিরা লিবিয়ার আবু কামাশ গ্রাম থেকে যাত্রা করেন, যা তিউনিসিয়ার উত্তর–পূর্ব উপকূল থেকে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে। তাঁরা সমুদ্র যাত্রার জন্য উপযুক্ত নয় এমন একটি নৌকায় করে সাগর পথে ইউরোপ যাত্রা করেছিলেন। এর ফলে সমুদ্রযাত্রার সময় নৌকাটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জানা গেছে, তিউনিসিয়ার উপকূল থেকে ইতালির লাম্পেদুসা দ্বীপ ১৩০ কিলোমিটার দূরে। এজন্য ইউরোপে অবৈধ ভাবে যাওয়ার জন্য এই পথ বেশী লোক ব্যবহার করে। একই কারনে মানব পাচারের জন্য এ পথ বহুল ব্যবহৃত এবং বেশ জনপ্রিয়ও।

জানা গেছে, গত মাসে লিবিয়া থেকে ইউরোপে পাড়ি জমানোর সময় ৫৪২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এএফপির আলোকচিত্রী জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের বেশির ভাগই বাংলাদেশি।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২১ সালে ভূমধ্যসাগরে প্রায় ২ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী মারা গেছেন বা নিখোঁজ হয়েছেন। ২০২০ সালে এই সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪০১।

ছবি

ভারতীয় অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর বিভাজনের রাজনীতি : কৌশিক বসু

ছবি

সময় বাড়ল মার্কিন ফুলব্রাইট বৃত্তির আবেদনের

ছবি

টেক্সাসে হামলা : গায়ে রক্ত মেখে মৃতের ভান করে শুয়ে ছিল ১১ বছরের সেরিলো

ছবি

মানুষের চেয়ে অস্ত্রের সংখ্যা বেশি যুক্তরাষ্ট্রে

ছবি

‘যুক্তরাষ্ট্রের উচিত আগে নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা’

ছবি

ইউক্রেনের আরেক শহরের দখল নিল রাশিয়া

ছবি

মাঙ্কিপক্সের গণটিকা দরকার নেই: ডব্লিউএইচও

ছবি

পিকে হালদারের জিজ্ঞাসাবাদে বাংলাদেশী এক প্রভাবশালী ব্যবসায়ীর নাম

ছবি

ভারতে পি কে হালদারসহ ৬ জনের বিচার বিভাগীয় রিমান্ড

ছবি

বাংলাদেশে ৬ লাখ টন গম পাঠাবে ভারত

ছবি

পাকিস্তানে নির্বাচনে ইভিএম বাতিল করে পার্লামেন্টে বিল পাশ

ছবি

রাশিয়া কৃষ্ণ সাগরে ৫০০ মাইন পেতে রেখেছে: ইউক্রেইন

ছবি

প্রথম ভারতীয় হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পেলেন গীতাঞ্জলী শ্রী

ছবি

সেভেরোদোনেৎস্কে ১,৫০০ মানুষ নিহত হয়েছেন: মেয়র

ছবি

টেক্সাসে স্কুলে হামলায় নিহত স্ত্রীর শোকে চলে গেলেন স্বামীও

একদিনে মৃত্যুতে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র, সংক্রমণ বেশি উ. কোরিয়ায়

ছবি

সাংবাদিক শিরিনকে ‘ঠান্ডা মাথায়’ গুলি করে ইসরায়েলি বাহিনী

ছবি

পাকিস্তানে পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়ার রেকর্ড

ছবি

ভারতের সর্বোচ্চ আদালত স্বীকৃতি দিলো যৌন পেশাকে

ছবি

আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল

ছবি

এবার চাল রফতানিতে লাগাম টানছে ভারত

ছবি

ফোর্বসের তালিকায় স্থান পেলেন ৭ বাংলাদেশি

ছবি

আসামে বন্যায় ২৮ জনের মৃত্যু, ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ১০ লাখ

ছবি

ভারতীয় এয়ারলাইনে সাইবার হামলা

ছবি

সেনেগালের হাসপাতালে আগুনে প্রাণ গেলে ১১ নবজাতকের

ছবি

কাবুলে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ৫

ছবি

চলন্ত বাসে পোশাককর্মীকে ধর্ষণচেষ্টা মামলায় চালক ও সহকারী গ্রেপ্তার

ছবি

গ্রে’র রিপোর্ট: এবার স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ছবি

বিশ্বব্যাপী মাঙ্কিপক্স আক্রান্তের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে

ছবি

২২ বারের চেষ্টায় মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় পাস!

ছবি

লিবিয়ার বন্দিশালা থেকে দেশে ফিরলো ১৬০ বাংলাদেশি

ছবি

ফেসবুকে একের পর এক বার্তায় হামলার পরিকল্পনা জানান বন্দুকধারী

ছবি

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বাবার নামে বিদ্যুৎ বিল আসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়

ছবি

রেড জোনে বিক্ষোভকারীরা, শেহবাজ সরকারকে ইমরানের আল্টিমেটাম

ছবি

অবরুদ্ধ ইসলামাবাদ, আটক হতে পারেন ইমরান খান

ছবি

টেক্সাসে স্কুলে হামলা: সহপাঠীকে অস্ত্রের ছবি পাঠান বন্দুকধারী

tab

আন্তর্জাতিক

বিপজ্জনক পথে ইউরোপ যাত্রা : ভূমধ্যসাগর থেকে ৩২ বাংলাদেশি উদ্ধার

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ১৫ মে ২০২২

বিপজ্জনক পথে ইউরোপ যাচ্ছিল ৩২ বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন দেশের ৮১ন অভিবাসন প্রত্যাশী। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ধরা পড়েছেন তিউনিসিয়ার নৌবাহিনীর হাতে। ধরা পড়ার কারনে তারা প্রায় নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন। রয়টার্স এ খবর জানিয়ে এক প্রতিবেদনে বলেছে, তিউনিসিয়া হয়ে ইউরোপ যাত্রা পৃথিবীর সবচেয়ে বিপজ্জনক অভিবাসন পথগুলোর একটি। এ পথে ইউরোপ যাওয়ার মধ্যে অনেকটা মৃত্যুর মুখে এগিয়ে যাওয়া। কিন্তু উন্নত দেশে অভিবাসী হয়ে নতুন জীবন লাভের আশায় এই পথে মানুষের যাওয়া থামছেনা। বরং বেড়েই চলেছে।

এভাবে অবৈধ পথে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার যাওয়ার সময় শনিবার ৩২ বাংলাদেশিসহ ৮১ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী। তাদের উদ্ধারের পর তিউনিসিয়ার নৌবাহিনী জানিয়েছে, বাংলাদেশি ছাড়া উদ্ধারকৃত ৮১ জনের মধ্যে ৩৮ জন মিসরের, ৩২জন বাংলাদেশী, ১০ জন সুদানের ও ১ জন মরক্কোর নাগরিক।

এদিকে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, অবৈধ পথে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার সময় যাদের আটক করা হয়েছে তাদের বয়স ২০ থেকে ৩৮ বছরের মধ্যে। একজন নারীও রয়েছেন তাঁদের মধ্যে । উদ্ধার করা ব্যক্তিরা লিবিয়ার আবু কামাশ গ্রাম থেকে যাত্রা করেন, যা তিউনিসিয়ার উত্তর–পূর্ব উপকূল থেকে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে। তাঁরা সমুদ্র যাত্রার জন্য উপযুক্ত নয় এমন একটি নৌকায় করে সাগর পথে ইউরোপ যাত্রা করেছিলেন। এর ফলে সমুদ্রযাত্রার সময় নৌকাটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জানা গেছে, তিউনিসিয়ার উপকূল থেকে ইতালির লাম্পেদুসা দ্বীপ ১৩০ কিলোমিটার দূরে। এজন্য ইউরোপে অবৈধ ভাবে যাওয়ার জন্য এই পথ বেশী লোক ব্যবহার করে। একই কারনে মানব পাচারের জন্য এ পথ বহুল ব্যবহৃত এবং বেশ জনপ্রিয়ও।

জানা গেছে, গত মাসে লিবিয়া থেকে ইউরোপে পাড়ি জমানোর সময় ৫৪২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এএফপির আলোকচিত্রী জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের বেশির ভাগই বাংলাদেশি।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২১ সালে ভূমধ্যসাগরে প্রায় ২ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী মারা গেছেন বা নিখোঁজ হয়েছেন। ২০২০ সালে এই সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪০১।

back to top