alt

আন্তর্জাতিক

১০০ বছরের মধ্যে প্রথম ঋণখেলাপি রাশিয়া

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : সোমবার, ২৭ জুন ২০২২

ইউক্রেনে চলছে রুশ সামরিক অভিযান। পশ্চিমা বাধা উপেক্ষা করে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালানোতে নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়েছে রাশিয়া। আর সেই ধাক্কায় এবার একশো বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো ঋণ খেলাপি হয়েছে রাশিয়া।

অর্থাৎ শত বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে এই প্রথম বিদেশি ঋণ সময়মতো পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয়েছে দেশটি। আর তাই বৈশ্বিক পরাশক্তি এই দেশটির ঋণ খেলাপি হওয়াকে ঐতিহাসিক ঘটনা বলেই আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের বরাত দিয়ে সোমবার (২৭ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। মার্কিন এই সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, রোববার রাশিয়ার ঋণ পরিশোধের সময়সীমা পার হয়ে যায় এবং এতে করে এক শতাব্দীরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো বৈদেশিক ঋণে খেলাপি হয়েছে মস্কো।

বিবিসি বলছে, রোববারের মধ্যে রাশিয়াকে ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পরিশোধ করার বাধ্যবাধকতা ছিল। রাশিয়ার হাতে এই অর্থ রয়েছে এবং নিয়ম মেনে যথা সময়েই বিপুল এই অর্থ পরিশোধে করতে দেশটি রাজিও ছিল। কিন্তু পশ্চিমা দেশগুলোর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার কারণে আন্তর্জাতিক ঋণদাতাদের অর্থ পরিশোধ মস্কোর জন্য কার্যত অসম্ভব করে তুলেছে।

ক্রেমলিন অবশ্য ঋণ খেলাপি হওয়া এড়াতে সংকল্পবদ্ধ ছিল। কারণ এটি একটি দেশের মর্যাদার জন্য বড় ধরনের আঘাত। অন্যদিকে রাশিয়ার অর্থমন্ত্রী উদ্ভূত এই পরিস্থিতিকে ‘প্রহসন’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শেষবার ১৯১৮ সালে বিদেশি ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে খেলাপি হয়েছিল রাশিয়া। বলশেভিক বিপ্লবের সময় তৎকালীন নতুন কমিউনিস্ট নেতা ভ্লাদিমির লেনিন রাশিয়ান সাম্রাজ্যের ঋণ পরিশোধ করতে অস্বীকার করেছিলেন।

এছাড়া ১৯৯৮ সালে যেকোনো ধরনের ঋণে শেষবার খেলাপি হয়েছিল মস্কো। মূলত বরিস ইয়েলৎসিনের শাসনামলের শেষের দিকে বিশৃঙ্খল সময়ে রুবেল সংকটের কারণে খেলাপি হয়েছিল রাশিয়া। সেই সময়ে মস্কো তার অভ্যন্তরীণ বন্ডগুলোতে অর্থপ্রদান করতে ব্যর্থ হলেও রাশিয়ার বৈদেশিক ঋণের পরিশোধ নির্ধারিত সময়েই করেছিল।

অবশ্য ইউক্রেন আক্রমণের পর যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রথম নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর থেকে রাশিয়ার ঋণ খেলাপি হওয়াটি অনিবার্য বলেই মনে হয়েছিল। কারণ নিষেধাজ্ঞার কারণে আন্তর্জাতিক ব্যাংকিং নেটওয়ার্কগুলোতে রাশিয়ার প্রবেশাধিকার সীমাবদ্ধ হয়ে গেছে। আর এর ফলে রাশিয়া থেকে বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগকারীদের কাছে অর্থ পরিশোধের প্রক্রিয়াও কার্যত থমকে গেছে।

রাশিয়ার সরকার বলছে, মস্কোর সকল ঋণ তারা সময়মতো পরিশোধ করতে চায় এবং এখন পর্যন্ত এই কাজে তারা সফল হয়েছে। রাশিয়ার প্রায় ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ঋণ ডলার বা ইউরোতে ধার্য রয়েছে এবং বিপুল এই ঋণের প্রায় অর্ধেকই দেশের বাইরে রাখা হয়েছে।

ছবি

বালিতে দেখা হতে পারে সি-পুতিনের

ছবি

রাজপথ দখলে বিএনপি কতটা সাহসী ভাবতে হবে: গয়েশ্বর

ছবি

ইরানে পালিয়ে যাওয়ার সময় তালেবানের বিক্ষুব্ধ কমান্ডার নিহত

ছবি

সুদানে বন্যায় ৭৭ জনের মৃত্যু, বহু ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

ঝড়-বৃষ্টিতে ইউরোপের তিন দেশে নিহত ১৩

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে গ্রিন কার্ডের আবেদন করলেন গোতাবায়া রাজাপাকসে

ছবি

সালমান রুশদি বেঁচে যাওয়ায় ‘বিস্মিত’ হামলাকারী

ছবি

শুধু গাঁজা খেতে থাইল্যান্ডে যাওয়া বারণ

ছবি

জার্মানির জটিল সরকারি প্রচারমাধ্যম ব্যবস্থা

ছবি

মাঙ্কিপক্সের টিকা শতভাগ কার্যকর নয়: ডব্লিউএইচও

ছবি

রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানি করবে মায়ানমার

ছবি

কাশ্মীরে ২৫ লাখ নতুন ভোটার যুক্ত করবে, স্থানীয়দের উদ্বেগ

ছবি

এ বছর রাশিয়ার জ্বালানি রপ্তানি আয় ৩৮ শতাংশ বাড়তে পারে

ছবি

গুজরাটে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ১১ ধর্ষকের মুক্তি, হতবাক বিলকিস

ছবি

আলজেরিয়ায় দাবানলে অন্তত ২৬ জনের মৃত্যু

ছবি

রাশিয়ায় সেনা পাঠাচ্ছে চীন

ছবি

রাশিয়ার হামলায় খারকিভে নিহত ৬,আহত ১৬

ছবি

টুইটার ব্যবহার: সৌদি নারীর ৩৪ বছরের কারাদণ্ড

ছবি

মায়ানমারের জান্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন জাতিসংঘ বিশেষ দূত

ছবি

শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থার মেয়াদ বাড়ছে না: বিক্রমাসিংহে

ছবি

সম্পদের হিসাব দিলেন ইমরান, নিজের আছে ৪টি ছাগল, স্ত্রীর গয়না নেই

ছবি

৭০০ বিলিয়ন ডলারের বিলে সই করলেন বাইডেন

ছবি

ইউক্রেন যাচ্ছেন এরদোয়ান ও গুতেরেস

ছবি

যে করণে রাশিয়ার তেল কেনার পক্ষে ভারত

ছবি

নিলামে কেনা স্যুটকেসে মিলল মানুষের দেহাবশেষ

ছবি

জিম্বাবুয়েতে হামের প্রাদুর্ভাব, ১৫৭ শিশুর মৃত্যু

ছবি

মায়ানমার সফরে যাচ্ছেন বিশেষ জাতিসংঘ দূত

ছবি

ট্রাম্পের বাড়িতে অভিযান: ওয়ারেন্ট প্রকাশের বিরোধিতায় বিচার বিভাগ

ছবি

আফগানিস্তানে তালেবান শাসনের বর্ষপূর্তিকে অন্ধকারাচ্ছন্ন বললেন মালালা

ছবি

কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর ৩৯ সদস্যকে নিয়ে বাস নদীতে, নিহত ৭

ছবি

প্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুলোর চেয়ে রাশিয়ার অস্ত্র অনেক উন্নত: পুতিন

ছবি

ভারতের আপত্তির পরও চীনা ‘গোয়েন্দা’ জাহাজ নোঙরের অনুমতি দিলো শ্রীলঙ্কা

ছবি

কেনিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম রুতো

ছবি

তুরস্কের ইতিহাসে প্রথম নারী জেনারেল ওজলেম ইলমাজ

ছবি

পাকিস্তানে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা, নিহত অন্তত ২০

ছবি

সেপ্টেম্বরে দেশে ফিরবেন নওয়াজ শরিফ

tab

আন্তর্জাতিক

১০০ বছরের মধ্যে প্রথম ঋণখেলাপি রাশিয়া

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

সোমবার, ২৭ জুন ২০২২

ইউক্রেনে চলছে রুশ সামরিক অভিযান। পশ্চিমা বাধা উপেক্ষা করে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালানোতে নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়েছে রাশিয়া। আর সেই ধাক্কায় এবার একশো বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো ঋণ খেলাপি হয়েছে রাশিয়া।

অর্থাৎ শত বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে এই প্রথম বিদেশি ঋণ সময়মতো পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয়েছে দেশটি। আর তাই বৈশ্বিক পরাশক্তি এই দেশটির ঋণ খেলাপি হওয়াকে ঐতিহাসিক ঘটনা বলেই আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের বরাত দিয়ে সোমবার (২৭ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। মার্কিন এই সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, রোববার রাশিয়ার ঋণ পরিশোধের সময়সীমা পার হয়ে যায় এবং এতে করে এক শতাব্দীরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো বৈদেশিক ঋণে খেলাপি হয়েছে মস্কো।

বিবিসি বলছে, রোববারের মধ্যে রাশিয়াকে ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পরিশোধ করার বাধ্যবাধকতা ছিল। রাশিয়ার হাতে এই অর্থ রয়েছে এবং নিয়ম মেনে যথা সময়েই বিপুল এই অর্থ পরিশোধে করতে দেশটি রাজিও ছিল। কিন্তু পশ্চিমা দেশগুলোর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার কারণে আন্তর্জাতিক ঋণদাতাদের অর্থ পরিশোধ মস্কোর জন্য কার্যত অসম্ভব করে তুলেছে।

ক্রেমলিন অবশ্য ঋণ খেলাপি হওয়া এড়াতে সংকল্পবদ্ধ ছিল। কারণ এটি একটি দেশের মর্যাদার জন্য বড় ধরনের আঘাত। অন্যদিকে রাশিয়ার অর্থমন্ত্রী উদ্ভূত এই পরিস্থিতিকে ‘প্রহসন’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শেষবার ১৯১৮ সালে বিদেশি ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে খেলাপি হয়েছিল রাশিয়া। বলশেভিক বিপ্লবের সময় তৎকালীন নতুন কমিউনিস্ট নেতা ভ্লাদিমির লেনিন রাশিয়ান সাম্রাজ্যের ঋণ পরিশোধ করতে অস্বীকার করেছিলেন।

এছাড়া ১৯৯৮ সালে যেকোনো ধরনের ঋণে শেষবার খেলাপি হয়েছিল মস্কো। মূলত বরিস ইয়েলৎসিনের শাসনামলের শেষের দিকে বিশৃঙ্খল সময়ে রুবেল সংকটের কারণে খেলাপি হয়েছিল রাশিয়া। সেই সময়ে মস্কো তার অভ্যন্তরীণ বন্ডগুলোতে অর্থপ্রদান করতে ব্যর্থ হলেও রাশিয়ার বৈদেশিক ঋণের পরিশোধ নির্ধারিত সময়েই করেছিল।

অবশ্য ইউক্রেন আক্রমণের পর যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রথম নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর থেকে রাশিয়ার ঋণ খেলাপি হওয়াটি অনিবার্য বলেই মনে হয়েছিল। কারণ নিষেধাজ্ঞার কারণে আন্তর্জাতিক ব্যাংকিং নেটওয়ার্কগুলোতে রাশিয়ার প্রবেশাধিকার সীমাবদ্ধ হয়ে গেছে। আর এর ফলে রাশিয়া থেকে বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগকারীদের কাছে অর্থ পরিশোধের প্রক্রিয়াও কার্যত থমকে গেছে।

রাশিয়ার সরকার বলছে, মস্কোর সকল ঋণ তারা সময়মতো পরিশোধ করতে চায় এবং এখন পর্যন্ত এই কাজে তারা সফল হয়েছে। রাশিয়ার প্রায় ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ঋণ ডলার বা ইউরোতে ধার্য রয়েছে এবং বিপুল এই ঋণের প্রায় অর্ধেকই দেশের বাইরে রাখা হয়েছে।

back to top