alt

আন্তর্জাতিক

পিকে হালদার কলকাতার আদালতে, আবার হাজিরা ২২ সেপ্টেম্বর

দীপক মুখর্জী, কলকাতা : বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২

বাংলাদেশে হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পশ্চিমবঙ্গে গ্রেপ্তার প্রশান্ত কুমার হালদারসহ ছয় অভিযুক্তকে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর ফের কলকাতার নগর দায়রা আদালতে তোলা হবে। বুধবার সকাল অভিযুক্ত সবাইকে আদালতে হাজির করা হলে ওই নির্দেশ দেন স্থানীয় সিবিআই স্পেশাল কোর্ট-৩-র বিচারক জীবন কুমার সাধু।

এদিন স্থানীয় সময় দুপুর ১১ টা নাগাদ তাদের আদালতে আনা হয়। তবে আদালতে উপস্থিত হতে দেরি হওয়ায় আধা ঘণ্টা আগেই দুইপক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

এদিন আদালতে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর পক্ষ থেকে অভিযুক্তদের কাছ থেকে পাওয়া সাড়ে ৪ হাজার পাতার তথ্যের মধ্যে ইডির কাছে ‘বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে হওয়া’ সমস্ত ডক্যুমেন্ট জমা দেওয়া হয়।

ইডির আইনজীবী অরিজিৎ চক্রবর্তী উপরিউক্ত তথ্য জানিয়ে সংবাদ-কে জানান, “আগামী ২২ সেপ্টেম্বর অভিযুক্তদের ফের আদালতে তোলা হবে। সেদিন অভিযুক্ত পিকে হালদারসহ অভিযুক্তদের কাছ থেকে প্রাপ্ত সমস্ত তথ্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তা অভিযুক্তদের হাতে তুলে দেওয়া হবে ।”

জেল হেফাজতে থাকাকালীন অবস্থায় অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করে নতুন কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি বা নতুন কোনও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়নি বলেও এদিন আদালতকে জানান ইডির আইনজীবী।

গত ১১ জুলাই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কলকাতার আদালতে চার্জশিট জমা দেয় ইডি। ওই ১০০ পাতার চার্জশিটে পিকে হালদার ও অন্য পাঁচ অভিযুক্তের নাম রয়েছে। এক্ষেত্রে কেবলমাত্র ‘প্রিভেনশন অব মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট-২০০২ (পিএমএলএ) মামলায় ওই ছয় অভিযুক্তের নামে চার্জ গঠন করা হয়েছে। চার্জশিটে উল্লেখ রয়েছে তাদের কয়েকটি সংস্থার নামও। এই মুহূর্তে অভিযুক্ত পিকে হালদারসহ পাঁচ পুরুষ অভিযুক্ত রয়েছেন প্রেসিডেন্সি কারাগারে। আর একমাত্র নারী অভিযুক্ত রয়েছেন আলিপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে।

এদিন আদালতে প্রবেশের সময় গণমাধ্যমের কর্মীরা এ ব্যাপারে বিভিন্ন প্রশ্ন করলেও কোনো উত্তর দেননি পিকে হালদার বা তার সহযোগীরা।

অশোকনগরসহ পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় অভিযান চালিয়ে গত ১৪ মে পি কে হালদার- এর সাথেই গ্রেফতার করা হয় তার ভাই প্রাণেশ হালদার, স্বপন মিস্ত্রি ওরফে স্বপন মৈত্র, উত্তম মিস্ত্রি ওরফে উত্তম মৈত্র, ইমাম হোসেন ওরফে ইমন হালদার এবং আমানা সুলতানা ওরফে শর্মী হালদারক।

ছবি

ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল মাঠে সংঘর্ষ, নিহত বেড়ে ১৭৪

ছবি

ভারতের কানপুরে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ৩১

ছবি

ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা, বাড়ি ঘিরে রেখেছে সমর্থকেরা

ছবি

ব্রাজিলের প্রথম রাউন্ডের ভোটেই প্রেসিডেন্ট হয়ে যেতে পারেন লুলা

ছবি

ফ্লোরিডায় ইয়ানের আঘাত; ৬৬ জনের মৃত্যু

ছবি

ই-গেমে ৩৭.৭ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের ঘোষণা সৌদি যুবরাজের

ছবি

লিমানে রুশ সেনাদের ঘিরে ফেলেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী

ছবি

বেপরোয়া পুতিনকে যুক্তরাষ্ট্র ভয় পায় না: বাইডেন

ছবি

জাতিসংঘে মস্কোবিরোধী নিন্দা প্রস্তাবে ভোট দিল না চীন-ভারত

ছবি

রাশিয়ার ওপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরও নিষেধাজ্ঞা

ছবি

ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রায় ভূমিকম্পে ১ জনের মৃত্যু

ছবি

হারিকেন ইয়ানের আঘাতে যুক্তরাষ্ট্রে ৪৫ জনের মৃত্যু

ছবি

ইউক্রেনের ৪ অঞ্চল রাশিয়ার, ঘোষণা পুতিনের

ছবি

ইউক্রেনের জাপোরিঝিয়ায় রুশ ক্ষেপণান্ত্র হামলায় নিহত ২৩

ছবি

হিজাব বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল ইরান, দুই সপ্তাহে নিহত ৮৩

ছবি

হাতিয়ায় দুই জলদস্যু বাহিনীর মধ্যে গোলাগুলি, নিহত ৩

ছবি

রাজধানীতে কিশোর খুন, গ্রেপ্তার ৪ প্রতিবেশী

ছবি

হারিকেন ইয়ানের আঘাতে ১২ জনের মৃত্যু

ছবি

ফ্লোরিডার ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক ঘূর্ণিঝড় হতে পারে ইয়ান: বাইডেন

ছবি

সৌদির ক্রাউন প্রিন্স সালমানকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ

মিয়ানমারে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প, প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশ-ভারতেও

ছবি

পুতিনের ঘোষণায় ইউক্রেনের ৪ অঞ্চল রাশিয়ার হচ্ছে আজ

ছবি

অবিবাহিত নারীদের গর্ভপাতের অধিকার দিলো ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

ছবি

কেবিন ক্রুদের শালীন পোশাক পড়তে পিআইএ’র নির্দেশনা

ছবি

ফেইসবুককে অবশ্যই রোহিঙ্গাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে বলে দাবি : অ্যামনেস্টি

ছবি

মার্কিন নাগরিকদের অবিলম্বে রাশিয়া ত্যাগের আহ্বান

ছবি

মৃত্যু দুঃখজনক, কিন্তু বিশৃঙ্খলা অগ্রহণযোগ্য : ইরানের প্রেসিডেন্ট

ছবি

ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর নতুন প্রধান অনিল চৌহান

ছবি

সু চির আরও ৩ বছরের কারাদণ্ড

ছবি

ইরাকের কুর্দি অঞ্চলে ইরানের হামলা, নিহত ১৩

ছবি

রোহিঙ্গাদের ক্ষতিপূরণ দিতে ফেইসবুক-এর প্রতি আহবান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি

ছবি

মেক্সিকোতে বন্দুক হামলায় ছয় পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ইয়ানের তাণ্ডব, ২০ লাখ মানুষ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন

ছবি

ইউরোপে গ্যাস সরবরাহের লাইনে ‘বিস্ফোরণ ঘটিয়ে’ ফাটানো হয়েছে

ছবি

ইউক্রেনের ৪ অঞ্চলে গণভোটে জয় দাবি রাশিয়ার

ছবি

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সে মাঝ আকাশে বোমা আতঙ্ক

tab

আন্তর্জাতিক

পিকে হালদার কলকাতার আদালতে, আবার হাজিরা ২২ সেপ্টেম্বর

দীপক মুখর্জী, কলকাতা

বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২

বাংলাদেশে হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পশ্চিমবঙ্গে গ্রেপ্তার প্রশান্ত কুমার হালদারসহ ছয় অভিযুক্তকে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর ফের কলকাতার নগর দায়রা আদালতে তোলা হবে। বুধবার সকাল অভিযুক্ত সবাইকে আদালতে হাজির করা হলে ওই নির্দেশ দেন স্থানীয় সিবিআই স্পেশাল কোর্ট-৩-র বিচারক জীবন কুমার সাধু।

এদিন স্থানীয় সময় দুপুর ১১ টা নাগাদ তাদের আদালতে আনা হয়। তবে আদালতে উপস্থিত হতে দেরি হওয়ায় আধা ঘণ্টা আগেই দুইপক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য শুনে বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

এদিন আদালতে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর পক্ষ থেকে অভিযুক্তদের কাছ থেকে পাওয়া সাড়ে ৪ হাজার পাতার তথ্যের মধ্যে ইডির কাছে ‘বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে হওয়া’ সমস্ত ডক্যুমেন্ট জমা দেওয়া হয়।

ইডির আইনজীবী অরিজিৎ চক্রবর্তী উপরিউক্ত তথ্য জানিয়ে সংবাদ-কে জানান, “আগামী ২২ সেপ্টেম্বর অভিযুক্তদের ফের আদালতে তোলা হবে। সেদিন অভিযুক্ত পিকে হালদারসহ অভিযুক্তদের কাছ থেকে প্রাপ্ত সমস্ত তথ্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তা অভিযুক্তদের হাতে তুলে দেওয়া হবে ।”

জেল হেফাজতে থাকাকালীন অবস্থায় অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করে নতুন কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি বা নতুন কোনও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়নি বলেও এদিন আদালতকে জানান ইডির আইনজীবী।

গত ১১ জুলাই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কলকাতার আদালতে চার্জশিট জমা দেয় ইডি। ওই ১০০ পাতার চার্জশিটে পিকে হালদার ও অন্য পাঁচ অভিযুক্তের নাম রয়েছে। এক্ষেত্রে কেবলমাত্র ‘প্রিভেনশন অব মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট-২০০২ (পিএমএলএ) মামলায় ওই ছয় অভিযুক্তের নামে চার্জ গঠন করা হয়েছে। চার্জশিটে উল্লেখ রয়েছে তাদের কয়েকটি সংস্থার নামও। এই মুহূর্তে অভিযুক্ত পিকে হালদারসহ পাঁচ পুরুষ অভিযুক্ত রয়েছেন প্রেসিডেন্সি কারাগারে। আর একমাত্র নারী অভিযুক্ত রয়েছেন আলিপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে।

এদিন আদালতে প্রবেশের সময় গণমাধ্যমের কর্মীরা এ ব্যাপারে বিভিন্ন প্রশ্ন করলেও কোনো উত্তর দেননি পিকে হালদার বা তার সহযোগীরা।

অশোকনগরসহ পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় অভিযান চালিয়ে গত ১৪ মে পি কে হালদার- এর সাথেই গ্রেফতার করা হয় তার ভাই প্রাণেশ হালদার, স্বপন মিস্ত্রি ওরফে স্বপন মৈত্র, উত্তম মিস্ত্রি ওরফে উত্তম মৈত্র, ইমাম হোসেন ওরফে ইমন হালদার এবং আমানা সুলতানা ওরফে শর্মী হালদারক।

back to top