alt

আন্তর্জাতিক

হিনডেনবার্গ প্রতিবেদেন : মুখ থুবড়ে পড়েছে আদানি এন্টারপ্রাইজের এফপিও

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩

চারদিক থেকে বিপদ ঘিরে ধরেছে ভারতের শীর্ষ ধনী গৌতম আদানিকে। এমন এক সময়ে তাঁর মালিকানধীন গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে স্টক জালিয়াতির অভিযোগ উঠল, যখন তার দুই দিন পরই ছিল আদানি এন্টারপ্রাইজের এফপিও (ফলো অন পাবলিক অফার–তালিকাভুক্ত কোম্পানির নতুন শেয়ার ইস্যু) বাজারে আসার কথা। কিন্তু তার মধ্যেই পরিস্থিতির এত অবনতি হয়েছে যে এই এফপিও ইস্যুকারী ব্যাংকগুলো এখন এই এফপিওর দাম কমানো বা শিডিউল পরিবর্তনের কথা ভাবছেন।

তবে আদানি গোষ্ঠী যেভাবে হিনডেনবার্গ রিসার্চের প্রতিবেদনকে ভিত্তিহীন আখ্যা দিয়েছে, একইভাবে বলেছে, এই এফপিওর দাম বা শিডিউল পরিবর্তনের কথা ভাবছে না তারা। আরও বলেছে, আমাদের সব অংশীদার, যেমন ব্যাংকার ও বিনিয়োগকারীরা আমাদের ওপর আস্থা রাখে। এই এফপিওর সফলতার বিষয়ে আমরা অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী।

রয়টার্সের সংবাদে বলা হয়েছে, বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী গৌতম আদানি গোষ্ঠীর সাতটি কোম্পানি তালিকাভুক্ত। গত দুই-তিন বছরে তাদের ব্যবসা রীতিমতো ফুলে–ফেঁপে উঠেছে। বিশেষ করে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর জ্বালানির দাম বাড়লে আদানি তরতর করে ধনীর তালিকায় চতুর্থ স্থানে চলে আসেন। কিন্তু গত বুধবার হিনডেনবার্গ রিসার্চের প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর গতকাল পর্যন্ত আদানি গোষ্ঠীর সাতটি তালিকাভুক্ত কোম্পানির বাজার মূলধন ৪৮ বিলিয়ন বা ৪ হাজার ৮০০ কোটি ডলার কমেছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে আদানি এন্টারপ্রাইজের এফপিও ইস্যুকারীদের মধ্যে স্বাভাবিকভাবেই শঙ্কা তৈরি হয়েছে। তারা মনে করছে, এর কাটতি তেমন একটা তৈরি হবে না। আগামী মঙ্গলবার এই এফিপও কেনার শেষ দিন। ইস্যুকারীরা এই সময় চার দিন পর্যন্ত সম্প্রসারণ করতে চায়। শুক্রবার এই এফপিওর দাম ২০ শতাংশ কমেছে। ফলে সেকেন্ডারি বাজারে ন্যূনতম দামের চেয়ে ১১ শতাংশ নিচে নেমে গেছে এর দাম। সেদিন লক্ষ্যমাত্রার মাত্র ১ শতাংশ বিক্রি হয়েছে এই এফপিও। সে কারণে এই এফপিওর ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

এই এফপিওর মূল্যস্তর ৩ হাজার ১১২ রুপি নির্ধারণ করেছিল আদানি গোষ্ঠী। অথচ শুক্রবার বাজারে তার দাম নেমে আসে ২ হাজার ৭৬১ রুপি। এই এফপিওতে শেয়ার ছাড়া হয়েছিল সাড়ে চার কোটি। কিন্তু বিনিয়োগকারীরা এখন পর্যন্ত মাত্র ৪ লাখ ৭০ হাজার ১৬০টি শেয়ার কেনার বায়না দিয়েছেন। এ ঘটনায় রীতিমতো স্তম্ভিত।

এদিকে আদানি গোষ্ঠীর কোম্পানিগুলোতে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বিনিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালা। তিনি বলেন, হিনডেনবার্গ আদানিদের সম্পর্কে এত গুরুতর অভিযোগ প্রকাশ্যে আনার পরেও এলআইসি ও এসবিআইয়ের মতো রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলো আদানির কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগ বহাল রেখেছে কেন।

এদিকে বিএসপি নেত্রী মায়াবতী বলেছেন, হিনডেনবার্গের নেতিবাচক প্রতিবেদনে শেয়ারবাজার ধাক্কা খাচ্ছে। জড়িয়ে পড়েছে ভারতের কোটি কোটি মানুষের অতি কষ্টে উপার্জিত অর্থ। অথচ সরকার এ বিষয়ে স্পিকটি নট। অবিলম্বে সরকারি বিবৃতি দিয়ে বিষয়টির ব্যাখ্যা দাবি করেছেন তিনি।

ছবি

একমাত্র দেশ হিসেবে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো

ছবি

ঐকমত্যে দুই দল, পাকিস্তানে ফের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন শেহবাজ শরিফ

ছবি

গাজা পরিস্থিতিতে অস্থায়ী যুদ্ধবিরতির পক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব

ছবি

আসামেও চালু হচ্ছে বাংলাদেশ ভিসা কেন্দ্র

ছবি

সংঘাতের মধ্যেই মায়ানমারে নির্বাচনের তোড়জোড় জান্তার

ছবি

পাকিস্তান : এখনও সমঝোতায় পৌঁছাতে পারেনি পিএমএলএন-পিপিপি

ছবি

নাভালনির সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় স্ত্রীর

ছবি

প্রেসিডেন্ট পদে পিপিপির প্রার্থী জারদারি : বিলাওয়াল

ছবি

পাপুয়া নিউ গিনিতে উপজাতীয় গোষ্ঠীর লড়াইয়ে অন্তত ৫৩ জন নিহত

ছবি

রোহিঙ্গা সংকট ভারতেও নিরাপত্তা সমস্যা তৈরি করতে পারে: ডনাল্ড লু

ছবি

নাভালনির সহযোগীদের দাবি ‘লাশ লুকিয়ে রেখেছে কারা কর্তৃপক্ষ’

ছবি

গাজায় যুদ্ধবিরতির সম্ভাবনা নিয়ে মধ্যস্থতাকারীই হতাশ

ছবি

পাকিস্তানে কারচুপির দায় স্বীকার করে পদত্যাগ করা সেই নির্বাচনী কর্মকর্তা আটক

ছবি

নাভালনির মৃত্যু নিয়ে কী বললেন স্ত্রী ইউলিয়া

ছবি

ইসরায়েলি হামলায় গাজায় নিহতের সংখ্যা ২৯০০০ ছুঁই ছুঁই

ছবি

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড: রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৩৬

ছবি

নাভালনির মৃত্যু: রাশিয়াকে দায়ী করছে পশ্চিম

ছবি

নাভালনির মৃত্যু, রাশিয়াকে দায়ী করছে বাইডেন

ছবি

বিশ্বজুড়ে গণতন্ত্র সূচকের পতন

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ছে অবৈধ অভিবাসী, এক বছরে গ্রেফতার ১২ হাজার

ছবি

প্রতারণা মামলায় ট্রাম্পের ৩৫ কোটি ৪৯ লাখ ডলার জরিমানা

ছবি

মৃত্যু সংবাদ নিয়ে সংশয়, পুতিনের শাস্তি দাবি নাভালনির স্ত্রীর

ছবি

বহু নাটকীয়তার পর বিরোধী দল হওয়ার সিদ্ধান্ত পিটিআইয়ের

পুতিনের কট্টর সমালোচক নাভালনি মারা গেছেন

ছবি

ভারত:কংগ্রেসের চার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের ১১৫ কোটি রুপি জব্দ

ছবি

রাশিয়ার বিরোধী দলীয় নেতা নাভালনির কারাগারে মৃত্যু

ছবি

ভারতে কৃষকদের ‘ভারত বন্ধ’ ও ‘চাক্কা জ্যাম’ কর্মসূচি

ছবি

হাতে গোলাবারুদ নেই, জার্মানি সফরে জেলেনস্কি

ছবি

ইউনূসে উদ্বিগ্ন জাতিসংঘ

ছবি

গাজায় নিহত আরও ৮৭, প্রাণহানি বেড়ে প্রায় ২৮ হাজার ৭০০

ছবি

গাজার অবরুদ্ধ নাসের হাসপতালে ইসরায়েলের বিশেষ বাহিনী

ছবি

লেবাননে ইসরায়েলের ব্যাপক হামলা, শিশুসহ নিহত ৯

ছবি

রাশিয়া ক্যান্সারের ভ্যাকসিন তৈরির দ্বারপ্রান্তে : পুতিন

লেবাননে ব্যাপক বিমান হামলা শুরু করেছে ইসরায়েল

ছবি

কে হবেন ইন্দোনেশিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট, জানা যাবে আজ

ছবি

ধর্মীয় দলগুলোর সঙ্গে যোগ দিচ্ছে পিটিআই

tab

আন্তর্জাতিক

হিনডেনবার্গ প্রতিবেদেন : মুখ থুবড়ে পড়েছে আদানি এন্টারপ্রাইজের এফপিও

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩

চারদিক থেকে বিপদ ঘিরে ধরেছে ভারতের শীর্ষ ধনী গৌতম আদানিকে। এমন এক সময়ে তাঁর মালিকানধীন গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে স্টক জালিয়াতির অভিযোগ উঠল, যখন তার দুই দিন পরই ছিল আদানি এন্টারপ্রাইজের এফপিও (ফলো অন পাবলিক অফার–তালিকাভুক্ত কোম্পানির নতুন শেয়ার ইস্যু) বাজারে আসার কথা। কিন্তু তার মধ্যেই পরিস্থিতির এত অবনতি হয়েছে যে এই এফপিও ইস্যুকারী ব্যাংকগুলো এখন এই এফপিওর দাম কমানো বা শিডিউল পরিবর্তনের কথা ভাবছেন।

তবে আদানি গোষ্ঠী যেভাবে হিনডেনবার্গ রিসার্চের প্রতিবেদনকে ভিত্তিহীন আখ্যা দিয়েছে, একইভাবে বলেছে, এই এফপিওর দাম বা শিডিউল পরিবর্তনের কথা ভাবছে না তারা। আরও বলেছে, আমাদের সব অংশীদার, যেমন ব্যাংকার ও বিনিয়োগকারীরা আমাদের ওপর আস্থা রাখে। এই এফপিওর সফলতার বিষয়ে আমরা অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী।

রয়টার্সের সংবাদে বলা হয়েছে, বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী গৌতম আদানি গোষ্ঠীর সাতটি কোম্পানি তালিকাভুক্ত। গত দুই-তিন বছরে তাদের ব্যবসা রীতিমতো ফুলে–ফেঁপে উঠেছে। বিশেষ করে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর জ্বালানির দাম বাড়লে আদানি তরতর করে ধনীর তালিকায় চতুর্থ স্থানে চলে আসেন। কিন্তু গত বুধবার হিনডেনবার্গ রিসার্চের প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর গতকাল পর্যন্ত আদানি গোষ্ঠীর সাতটি তালিকাভুক্ত কোম্পানির বাজার মূলধন ৪৮ বিলিয়ন বা ৪ হাজার ৮০০ কোটি ডলার কমেছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে আদানি এন্টারপ্রাইজের এফপিও ইস্যুকারীদের মধ্যে স্বাভাবিকভাবেই শঙ্কা তৈরি হয়েছে। তারা মনে করছে, এর কাটতি তেমন একটা তৈরি হবে না। আগামী মঙ্গলবার এই এফিপও কেনার শেষ দিন। ইস্যুকারীরা এই সময় চার দিন পর্যন্ত সম্প্রসারণ করতে চায়। শুক্রবার এই এফপিওর দাম ২০ শতাংশ কমেছে। ফলে সেকেন্ডারি বাজারে ন্যূনতম দামের চেয়ে ১১ শতাংশ নিচে নেমে গেছে এর দাম। সেদিন লক্ষ্যমাত্রার মাত্র ১ শতাংশ বিক্রি হয়েছে এই এফপিও। সে কারণে এই এফপিওর ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

এই এফপিওর মূল্যস্তর ৩ হাজার ১১২ রুপি নির্ধারণ করেছিল আদানি গোষ্ঠী। অথচ শুক্রবার বাজারে তার দাম নেমে আসে ২ হাজার ৭৬১ রুপি। এই এফপিওতে শেয়ার ছাড়া হয়েছিল সাড়ে চার কোটি। কিন্তু বিনিয়োগকারীরা এখন পর্যন্ত মাত্র ৪ লাখ ৭০ হাজার ১৬০টি শেয়ার কেনার বায়না দিয়েছেন। এ ঘটনায় রীতিমতো স্তম্ভিত।

এদিকে আদানি গোষ্ঠীর কোম্পানিগুলোতে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বিনিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালা। তিনি বলেন, হিনডেনবার্গ আদানিদের সম্পর্কে এত গুরুতর অভিযোগ প্রকাশ্যে আনার পরেও এলআইসি ও এসবিআইয়ের মতো রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলো আদানির কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগ বহাল রেখেছে কেন।

এদিকে বিএসপি নেত্রী মায়াবতী বলেছেন, হিনডেনবার্গের নেতিবাচক প্রতিবেদনে শেয়ারবাজার ধাক্কা খাচ্ছে। জড়িয়ে পড়েছে ভারতের কোটি কোটি মানুষের অতি কষ্টে উপার্জিত অর্থ। অথচ সরকার এ বিষয়ে স্পিকটি নট। অবিলম্বে সরকারি বিবৃতি দিয়ে বিষয়টির ব্যাখ্যা দাবি করেছেন তিনি।

back to top