alt

আন্তর্জাতিক

খাদের কিনারে যুক্তরাষ্ট্রের আরেক ব্যাংক, উদ্ধার করতে এগিয়ে এলো অন্যরা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

আঞ্চলিক ছোট ব্যাংক ফার্স্ট রিপাবলিককে বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে তাদেরকে ৩০ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক বড় ব্যাংকের একটি গ্রুপ।

দেশটিতে একের পর এক ব্যাংক পতনের পর ব্যাংকিং খাতের স্বাস্থ্য নিয়ে ছড়িয়ে পড়া আতঙ্ক দূর করতে মার্কিন কর্তৃপক্ষের তোড়জোড়ের মধ্যে বড় ব্যাংকের ওই গ্রুপের পক্ষ থেকে এ পদক্ষেপের ঘোষণা এলো।

বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকিং খাতে সংকট সৃষ্টি হতে পারে শঙ্কায় বিশ্বজুড়েই উদ্বেগ ছড়াচ্ছে।

তার মধ্যে ফার্স্ট রিপাবলিককে উদ্ধারে ব্যাংকগুলোর এ পদক্ষেপকে ‘স্বাগত’ জানিয়েছে মার্কিন নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ।

আর বড় ব্যাংকগুলো বলছে, তারা যে ব্যাংকিং খাত নিয়ে প্রবল ‘আত্মবিশ্বাসী’ এই পদক্ষেপ তারই প্রতিফলন।

ব্যাংকগুলোর হাতে প্রচুর নগদ অর্থ আছে এবং তারা ব্যাপক লাভও করছে, ভাষ্য তাদের।

“সাম্প্রতিক ঘটনাগুলোতেও এই অবস্থার নড়চড় হবে না। আমেরিকার সবচেয়ে বড় ব্যাংকগুলোর এই পদক্ষেপ দেশের ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনা নিয়ে তাদের আত্মবিশ্বাসেরই প্রতিফলন,” বলেছে ওই ১১টি ব্যাংক।

জেপি মরগান ও সিটিগ্রুপের নেতৃত্বে একদল ব্যাংকের সহায়তার খবর মার্কিন শেয়ারবাজাকেও চাঙ্গা করে দেয়, এক পর্যায়ে ফার্স্ট রিপাবলিকের শেয়ারের দাম ২০ শতাংশের বেশি বেড়ে যায়, যার ফলে লেনদেন সাময়িক স্থগিতও হয়ে যায়।

শেষবেলায় ফের ব্যাংকটির শেয়ার কম দামে বিক্রি শুরু হয়, যা উদ্বেগ জিইয়ে রেখেছে।

গ্রাহকরা তাদের জমা তুলে নিতে ভিড় করার পর এই ব্যাংকটিই ঝুঁকিতে পড়া পরবর্তী ব্যাংক হতে যাচ্ছে, বিনিয়োগকারীদের এমন উদ্বেগ গত সপ্তাহজুড়ে সান ফ্রান্সিসকোভিত্তিক ব্যাংকটির শেয়ারের দাম প্রায় ৭০ শতাংশ পড়ে যায়।

“একদল বড় ব্যাংকের এই ধরনের সহায়তাকে স্বাগত জানাচ্ছি, এটা (যুক্তরাষ্ট্রের) ব্যাংকিং খাতের দৃঢ়তাকেই দেখাচ্ছে,” বলছেন মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের ১৬ নম্বর বৃহত্তম ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান সিলিকন ভ্যালি ব্যাংকের পতনের পর যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকিং খাতের সমস্যাগুলো দৃশ্যমান হতে থাকে।

দুইদিন যেতে না যেতেই পতন ঘটে নিউ ইয়র্কের সিগনেচার ব্যাংকের।

আর কোনো ব্যাংক যেন বিপদে না পড়ে, তা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষ সাধারণ সীমা ছাড়িয়ে গ্রাহকদের আমানতের গ্যারান্টি দিতে পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করলেও শেয়ার বাজারের টালমাটাল পরিস্থিতি থামাতে পারেনি।

রুয়ান্ডা বিল পাস: কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ইংলিশ চ্যানেলে ডুবে নিহত ৫

ছবি

পাকিস্তানকে নিষেধাজ্ঞার হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের

ছবি

বাংলাদেশে মানবাধিকার পরিস্থিতির উল্লেখযোগ্য কোনো পরিবর্তন হয়নি

ছবি

মালয়েশিয়ায় সামরিক মহড়ার সময় ২ হেলিকপ্টারের সংঘর্ষ, নিহত ১০

ছবি

দফায় দফায় ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো তাইওয়ান

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে সড়ক দুর্ঘটনায় ভারতীয় ২ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

পাকিস্তান সফরে ইরানি প্রেসিডেন্ট

ছবি

ফের শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপল তাইওয়ান

ছবি

ইসরায়েলের সামরিক গোয়েন্দা প্রধানের পদত্যাগ

ছবি

সরিয়ে নেওয়া হলো হাজার হাজার মানুষকে

ছবি

ফের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে উত্তর কোরিয়া

ছবি

মালদ্বীপের পার্লামেন্ট নির্বাচনে মইজ্জুর দলের বড় জয়

ছবি

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই করবেন নেতানিয়াহু

ছবি

রাফাহতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত ১০, বেশিরভাগই শিশু

ছবি

সোমালি দস্যুদের মুক্তিপণ দেওয়ায় ইইউর উদ্বেগ, হুঁশিয়ারি

ছবি

মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে যাত্রীবাহী ফেরিডুবি, নিহত অন্তত ৫৮

ছবি

সিরিয়ায় আইএসের হামলায় ২৮ সেনা নিহত

ছবি

মায়ানমার-থাই সীমান্তে আবারও বিদ্রোহীদের হামলা

ছবি

ইরাকে ইরানপন্থি মিলিশিয়া বাহিনীর ঘাঁটিতে বোমা হামলা

ছবি

মুখোমুখি ইরান-ইসরায়েল, পরীক্ষার মুখে মার্কিন সামরিক কৌশল

ছবি

কাতার ছাড়তে চায় হামাস!

ছবি

বিমান হামলায় ৮ জন নিহতের পর রাশিয়ার বোম্বার নামানোর দাবি কিইভের

আদালতের ভেতরে ট্রাম্প, বাইরে নিজ দেহে আগুন দিলেন যুবক

ছবি

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো

ছবি

হামলার পর ইসরায়েলকে যে হুমকি দিল ইরান

ছবি

ইরানের পারমাণবিক স্থাপনার কোনো ক্ষতি হয়নি : আইএইএ

ছবি

৩টি ড্রোন ধ্বংস করল ইরান, নিরাপদে আছে ইসফাহানের পারমাণবিক স্থাপনা

ছবি

ইরানে বড় শহরগুলোতে বিমান চলাচল বন্ধ, সিরিয়া-ইরাকে ব্যাপক বিস্ফোরণ

ছবি

কাল ভারতে লোকসভার প্রথম দফার ভোট

ছবি

বিরোধিতা করায় চাকরি গেল ২৮ কর্মীর

ছবি

পানির নিচে দুবাই বিমানবন্দর, ব্যাপক বিশৃঙ্খলা

ছবি

হিজবুল্লাহর হামলায় ১৪ ইসরায়েলি সেনা আহত

ছবি

ইউক্রেনে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ১৭

ছবি

ঈদ উদযাপনে এক সপ্তাহে সৌদিবাসীর ব্যয় ৩৩ হাজার কোটি টাকা

ছবি

‘ইউক্রেন হারলে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে যাবে’

ছবি

নতুন অনলাইন ভিসা পদ্ধতি চালু করেছে শ্রীলঙ্কা, দেওয়া হয়েছে নতুন লিঙ্ক

tab

আন্তর্জাতিক

খাদের কিনারে যুক্তরাষ্ট্রের আরেক ব্যাংক, উদ্ধার করতে এগিয়ে এলো অন্যরা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

আঞ্চলিক ছোট ব্যাংক ফার্স্ট রিপাবলিককে বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে তাদেরকে ৩০ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক বড় ব্যাংকের একটি গ্রুপ।

দেশটিতে একের পর এক ব্যাংক পতনের পর ব্যাংকিং খাতের স্বাস্থ্য নিয়ে ছড়িয়ে পড়া আতঙ্ক দূর করতে মার্কিন কর্তৃপক্ষের তোড়জোড়ের মধ্যে বড় ব্যাংকের ওই গ্রুপের পক্ষ থেকে এ পদক্ষেপের ঘোষণা এলো।

বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকিং খাতে সংকট সৃষ্টি হতে পারে শঙ্কায় বিশ্বজুড়েই উদ্বেগ ছড়াচ্ছে।

তার মধ্যে ফার্স্ট রিপাবলিককে উদ্ধারে ব্যাংকগুলোর এ পদক্ষেপকে ‘স্বাগত’ জানিয়েছে মার্কিন নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ।

আর বড় ব্যাংকগুলো বলছে, তারা যে ব্যাংকিং খাত নিয়ে প্রবল ‘আত্মবিশ্বাসী’ এই পদক্ষেপ তারই প্রতিফলন।

ব্যাংকগুলোর হাতে প্রচুর নগদ অর্থ আছে এবং তারা ব্যাপক লাভও করছে, ভাষ্য তাদের।

“সাম্প্রতিক ঘটনাগুলোতেও এই অবস্থার নড়চড় হবে না। আমেরিকার সবচেয়ে বড় ব্যাংকগুলোর এই পদক্ষেপ দেশের ব্যাংকিং ব্যবস্থাপনা নিয়ে তাদের আত্মবিশ্বাসেরই প্রতিফলন,” বলেছে ওই ১১টি ব্যাংক।

জেপি মরগান ও সিটিগ্রুপের নেতৃত্বে একদল ব্যাংকের সহায়তার খবর মার্কিন শেয়ারবাজাকেও চাঙ্গা করে দেয়, এক পর্যায়ে ফার্স্ট রিপাবলিকের শেয়ারের দাম ২০ শতাংশের বেশি বেড়ে যায়, যার ফলে লেনদেন সাময়িক স্থগিতও হয়ে যায়।

শেষবেলায় ফের ব্যাংকটির শেয়ার কম দামে বিক্রি শুরু হয়, যা উদ্বেগ জিইয়ে রেখেছে।

গ্রাহকরা তাদের জমা তুলে নিতে ভিড় করার পর এই ব্যাংকটিই ঝুঁকিতে পড়া পরবর্তী ব্যাংক হতে যাচ্ছে, বিনিয়োগকারীদের এমন উদ্বেগ গত সপ্তাহজুড়ে সান ফ্রান্সিসকোভিত্তিক ব্যাংকটির শেয়ারের দাম প্রায় ৭০ শতাংশ পড়ে যায়।

“একদল বড় ব্যাংকের এই ধরনের সহায়তাকে স্বাগত জানাচ্ছি, এটা (যুক্তরাষ্ট্রের) ব্যাংকিং খাতের দৃঢ়তাকেই দেখাচ্ছে,” বলছেন মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের ১৬ নম্বর বৃহত্তম ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান সিলিকন ভ্যালি ব্যাংকের পতনের পর যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকিং খাতের সমস্যাগুলো দৃশ্যমান হতে থাকে।

দুইদিন যেতে না যেতেই পতন ঘটে নিউ ইয়র্কের সিগনেচার ব্যাংকের।

আর কোনো ব্যাংক যেন বিপদে না পড়ে, তা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষ সাধারণ সীমা ছাড়িয়ে গ্রাহকদের আমানতের গ্যারান্টি দিতে পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করলেও শেয়ার বাজারের টালমাটাল পরিস্থিতি থামাতে পারেনি।

back to top