alt

আন্তর্জাতিক

ফ্রান্সে পার্লামেন্টে ভোট ছাড়াই পেনশন সংস্কারের চেষ্টা, অসন্তোস

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

অজনপ্রিয় পেনশন সংস্কার বিলকে ভোট ছাড়াই পার্লামেন্টের বৈতরণী পার করাতে বিশেষ ব্যবস্থার দ্বারস্থ হতে হল ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এলিজাবেথ বোর্নকে।

বৃহস্পতিবার তিনি যখন নিম্নকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে ভোট ছাড়া বিল পাসে সংবিধানের ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদ বলবৎ করার ঘোষণা দেন, তখন অনেক সাংসদকেই দুয়ো দিতে এবং প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করতে দেখা গেছে।

ফ্রান্সের পার্লামেন্টে এ ধরনের দৃশ্য বিরল, বলছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

অবশ্য সংবিধানের এ বিশেষ অনুচ্ছেদ বলবৎ হওয়ায় অবসরের বয়স দুই বছর বাড়িয়ে ৬৪ করার বিলটি অনুমোদন পাওয়ার পথ অনেকটাই পরিষ্কার হল।

দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ও তার সরকারের ভাষ্য, পেনশন ব্যবস্থাপনাকে ধসে পড়ার হাত থেকে রক্ষায় এই সংস্কার জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

অপরপক্ষে দেশটির বড় বড় শ্রমিক-কর্মচারি ইউনিয়নগুলো শুরু থেকেই এই সংস্কারের বিরোধিতা করে আসছে; নতুন বিলের বিরুদ্ধে তাদের বড় বড় বিক্ষোভও দেখেছে ফ্রান্স।

এই সংস্কার নিয়ে দেশজুড়ে তুমুল বিতর্ক আর আলোচনা চললেও ম্যাক্রোঁ এবং তার সরকার যে তাদের যুক্তির সপক্ষে পার্লামেন্টের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যকে আনতে পারেনি ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদ বলবৎই তার প্রমাণ।

এটি মধ্যপন্থি প্রেসিডেন্টের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা বলেই বিবেচিত হবে। সামনে অন্যান্য সংস্কারের ক্ষেত্রে অন্য দলের সমর্থন লাভ তার জন্য আরও কঠিন হয়ে উঠবে।

বৃহস্পতিবার বোর্ন যখন অনুচ্ছেদ ৪৯ দশমিক ৩ কার্যকরে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে পৌঁছান, তখনও দুয়ো আর টিটকারিতে তাকে বরণ করে নেওয়া হয়।

বোর্নকে কথা বলতে না দিতে বামপন্থি আইনপ্রণেতারা জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া শুরু করলে অধিবেশন দুই মিনিট স্থগিত রাখা হয়। এসময় অনেক সাংসদের হাতে ধরা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ’৬৪ কে না বলুন’।

অধিবেশন শুরু হলে বোর্ন কথা বলার সুযোগ পান, কিন্তু তার বক্তৃতার বেশিরভাগ সময়ই নিম্নকক্ষজুড়ে দুয়ো আর স্লোগানই শোনা গেছে।

“আমাদের পেনশনের ভবিষ্যৎ নিয়ে জুয়া খেলতে পারি না আমরা। এই সংস্কার দরকার,” কেন ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদ ব্যবহার করতে যাচ্ছেন তার ব্যাখ্যায় এমনটাই বলেন ফরাসি প্রধানমন্ত্রী।

তাৎক্ষণিকভাবে কট্টর-ডানপন্থি নেতা মারিন লু পেন প্রধানমন্ত্রী বোর্নের পদত্যাগ দাবি করেন।

“শেষ মুহূর্তে ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদের আশ্রয় নেওয়া হচ্ছে দুর্বলতার অস্বাভাবিক লক্ষণ। তার (বোর্ন) পদত্যাগ করা উচিত “ বলেছেন তিনি।

পেনের এ দাবি প্রসঙ্গে পরে টিএফ ওয়ান টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বোর্ন বলেন, তার এখনও অনেক কাজ বাকি।

“জ্বালানি সংকট আছে, জলবায়ু সংকট আছে, ইউক্রেইন যুদ্ধ তো চলছেই,” বলেছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী যখন এসব বলছিলেন, তখনও পার্লামেন্টের দিক থেকে সেইন নদীর ওপারে প্লেইস দে লা কনকর্ডে প্রায় ৭ হাজার মানুষকে স্বতস্ফূর্তভাবে পেনশন সংস্কারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে।

বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশকে কাদুঁনে গ্যাস ছুড়তে হয়েছে, করতে হয়েছে লাঠিচার্জ। এর পাল্টায় বিক্ষোভকারীরাও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট, পাথর ছুড়েছে।

মার্শেইসহ ফ্রান্সের আরও কয়েকটি শহরে পেনশন সংস্কার বিলের বিরুদ্ধে স্বতস্ফূর্ত বিক্ষোভ হয়েছে। সংস্কারবিরোধী ইউনিয়নগুলো আগামী ২৩ মার্চ ফের ধর্মঘট ডেকেছে।

সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটারদের অবস্থানও যে বিলটির বিরুদ্ধে তা একাধিক জনমত জরিপে দেখা যাচ্ছে। ট্রেড ইউনিয়নগুলো বলছে, আর্থিক ভারসাম্য রক্ষায় পেনশন সংস্কার না করে ধনীদের ওপর আরও বেশি কর আরোপসহ আরও অনেক পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

দেশটির সরকার এখন ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদের মাধ্যমে পার্লামেন্টে ভোট ছাড়াই বিলটি অনুমোদনের চেষ্টা করায় ফ্রান্সজুড়ে ক্ষোভ আরও বাড়বে এবং বিক্ষোভের আকার ও সহিংসতা বাড়বে বলেই অনুমান করা হচ্ছে।

এই চেষ্টার বিরুদ্ধে সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার চিন্তা করছে বিরোধীরা। সেরকম কিছু হলেও ম্যাক্রোঁ সরকারের বিপদ কম, কেননা রক্ষণশীল আইনপ্রণেতাদের অনেকেই অনাস্থায় সমর্থন দেবেন না বলেই মনে হচ্ছে।

ছবি

রাফাহতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত ১০, বেশিরভাগই শিশু

ছবি

সোমালি দস্যুদের মুক্তিপণ দেওয়ায় ইইউর উদ্বেগ, হুঁশিয়ারি

ছবি

মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে যাত্রীবাহী ফেরিডুবি, নিহত অন্তত ৫৮

ছবি

সিরিয়ায় আইএসের হামলায় ২৮ সেনা নিহত

ছবি

মায়ানমার-থাই সীমান্তে আবারও বিদ্রোহীদের হামলা

ছবি

ইরাকে ইরানপন্থি মিলিশিয়া বাহিনীর ঘাঁটিতে বোমা হামলা

ছবি

মুখোমুখি ইরান-ইসরায়েল, পরীক্ষার মুখে মার্কিন সামরিক কৌশল

ছবি

কাতার ছাড়তে চায় হামাস!

ছবি

বিমান হামলায় ৮ জন নিহতের পর রাশিয়ার বোম্বার নামানোর দাবি কিইভের

আদালতের ভেতরে ট্রাম্প, বাইরে নিজ দেহে আগুন দিলেন যুবক

ছবি

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো

ছবি

হামলার পর ইসরায়েলকে যে হুমকি দিল ইরান

ছবি

ইরানের পারমাণবিক স্থাপনার কোনো ক্ষতি হয়নি : আইএইএ

ছবি

৩টি ড্রোন ধ্বংস করল ইরান, নিরাপদে আছে ইসফাহানের পারমাণবিক স্থাপনা

ছবি

ইরানে বড় শহরগুলোতে বিমান চলাচল বন্ধ, সিরিয়া-ইরাকে ব্যাপক বিস্ফোরণ

ছবি

কাল ভারতে লোকসভার প্রথম দফার ভোট

ছবি

বিরোধিতা করায় চাকরি গেল ২৮ কর্মীর

ছবি

পানির নিচে দুবাই বিমানবন্দর, ব্যাপক বিশৃঙ্খলা

ছবি

হিজবুল্লাহর হামলায় ১৪ ইসরায়েলি সেনা আহত

ছবি

ইউক্রেনে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ১৭

ছবি

ঈদ উদযাপনে এক সপ্তাহে সৌদিবাসীর ব্যয় ৩৩ হাজার কোটি টাকা

ছবি

‘ইউক্রেন হারলে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে যাবে’

ছবি

নতুন অনলাইন ভিসা পদ্ধতি চালু করেছে শ্রীলঙ্কা, দেওয়া হয়েছে নতুন লিঙ্ক

ছবি

ইরান-ইসরায়েল যুদ্ধের প্রভাব ভারতের সোনার বাজারে

ছবি

ইউক্রেনে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১৭

ছবি

হিজবুল্লাহ বা ইরান কেউই বর্তমানে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত নয় : ইইউ

ছবি

সময় এখন মাথা ঠান্ডা রাখার, নেতানিয়াহুকে বললেন সুনাক

ছবি

ইউক্রেইন যুদ্ধে রুশ সেনা নিহতের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে : বিবিসি

ছবি

ওমানে ভারী বর্ষণে নিহত ১৮, বৃষ্টি-বন্যায় বিপর্যস্ত আরব আমিরাত

ছবি

ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞার কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ

ছবি

ইরানের পাশে চীন, প্রতিশোধ পদক্ষেপে যুক্তরাষ্ট্রের ‘না’

ছবি

ডেনমার্কে স্টক এক্সচেঞ্জ ভবনে আগুন

ছবি

ইসরায়েল হামলা চালালে এবার সেকেন্ডের মধ্যে জবাব দেবে ইরান

ছবি

পাকিস্তানে বজ্রপাত ও ভারী বৃষ্টিতে ৩৯ জনের মৃত্যু

ছবি

হামলার সময় ইসরায়েলকে রক্ষায় সহযোগিতা করেছে সৌদি!

ছবি

পশ্চিমবঙ্গের ৭ জায়গায় তাপমাত্রা ছাড়াল ৪০ ডিগ্রি

tab

আন্তর্জাতিক

ফ্রান্সে পার্লামেন্টে ভোট ছাড়াই পেনশন সংস্কারের চেষ্টা, অসন্তোস

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

অজনপ্রিয় পেনশন সংস্কার বিলকে ভোট ছাড়াই পার্লামেন্টের বৈতরণী পার করাতে বিশেষ ব্যবস্থার দ্বারস্থ হতে হল ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এলিজাবেথ বোর্নকে।

বৃহস্পতিবার তিনি যখন নিম্নকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে ভোট ছাড়া বিল পাসে সংবিধানের ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদ বলবৎ করার ঘোষণা দেন, তখন অনেক সাংসদকেই দুয়ো দিতে এবং প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করতে দেখা গেছে।

ফ্রান্সের পার্লামেন্টে এ ধরনের দৃশ্য বিরল, বলছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

অবশ্য সংবিধানের এ বিশেষ অনুচ্ছেদ বলবৎ হওয়ায় অবসরের বয়স দুই বছর বাড়িয়ে ৬৪ করার বিলটি অনুমোদন পাওয়ার পথ অনেকটাই পরিষ্কার হল।

দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ও তার সরকারের ভাষ্য, পেনশন ব্যবস্থাপনাকে ধসে পড়ার হাত থেকে রক্ষায় এই সংস্কার জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

অপরপক্ষে দেশটির বড় বড় শ্রমিক-কর্মচারি ইউনিয়নগুলো শুরু থেকেই এই সংস্কারের বিরোধিতা করে আসছে; নতুন বিলের বিরুদ্ধে তাদের বড় বড় বিক্ষোভও দেখেছে ফ্রান্স।

এই সংস্কার নিয়ে দেশজুড়ে তুমুল বিতর্ক আর আলোচনা চললেও ম্যাক্রোঁ এবং তার সরকার যে তাদের যুক্তির সপক্ষে পার্লামেন্টের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যকে আনতে পারেনি ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদ বলবৎই তার প্রমাণ।

এটি মধ্যপন্থি প্রেসিডেন্টের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা বলেই বিবেচিত হবে। সামনে অন্যান্য সংস্কারের ক্ষেত্রে অন্য দলের সমর্থন লাভ তার জন্য আরও কঠিন হয়ে উঠবে।

বৃহস্পতিবার বোর্ন যখন অনুচ্ছেদ ৪৯ দশমিক ৩ কার্যকরে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে পৌঁছান, তখনও দুয়ো আর টিটকারিতে তাকে বরণ করে নেওয়া হয়।

বোর্নকে কথা বলতে না দিতে বামপন্থি আইনপ্রণেতারা জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া শুরু করলে অধিবেশন দুই মিনিট স্থগিত রাখা হয়। এসময় অনেক সাংসদের হাতে ধরা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ’৬৪ কে না বলুন’।

অধিবেশন শুরু হলে বোর্ন কথা বলার সুযোগ পান, কিন্তু তার বক্তৃতার বেশিরভাগ সময়ই নিম্নকক্ষজুড়ে দুয়ো আর স্লোগানই শোনা গেছে।

“আমাদের পেনশনের ভবিষ্যৎ নিয়ে জুয়া খেলতে পারি না আমরা। এই সংস্কার দরকার,” কেন ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদ ব্যবহার করতে যাচ্ছেন তার ব্যাখ্যায় এমনটাই বলেন ফরাসি প্রধানমন্ত্রী।

তাৎক্ষণিকভাবে কট্টর-ডানপন্থি নেতা মারিন লু পেন প্রধানমন্ত্রী বোর্নের পদত্যাগ দাবি করেন।

“শেষ মুহূর্তে ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদের আশ্রয় নেওয়া হচ্ছে দুর্বলতার অস্বাভাবিক লক্ষণ। তার (বোর্ন) পদত্যাগ করা উচিত “ বলেছেন তিনি।

পেনের এ দাবি প্রসঙ্গে পরে টিএফ ওয়ান টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বোর্ন বলেন, তার এখনও অনেক কাজ বাকি।

“জ্বালানি সংকট আছে, জলবায়ু সংকট আছে, ইউক্রেইন যুদ্ধ তো চলছেই,” বলেছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী যখন এসব বলছিলেন, তখনও পার্লামেন্টের দিক থেকে সেইন নদীর ওপারে প্লেইস দে লা কনকর্ডে প্রায় ৭ হাজার মানুষকে স্বতস্ফূর্তভাবে পেনশন সংস্কারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে।

বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশকে কাদুঁনে গ্যাস ছুড়তে হয়েছে, করতে হয়েছে লাঠিচার্জ। এর পাল্টায় বিক্ষোভকারীরাও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট, পাথর ছুড়েছে।

মার্শেইসহ ফ্রান্সের আরও কয়েকটি শহরে পেনশন সংস্কার বিলের বিরুদ্ধে স্বতস্ফূর্ত বিক্ষোভ হয়েছে। সংস্কারবিরোধী ইউনিয়নগুলো আগামী ২৩ মার্চ ফের ধর্মঘট ডেকেছে।

সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটারদের অবস্থানও যে বিলটির বিরুদ্ধে তা একাধিক জনমত জরিপে দেখা যাচ্ছে। ট্রেড ইউনিয়নগুলো বলছে, আর্থিক ভারসাম্য রক্ষায় পেনশন সংস্কার না করে ধনীদের ওপর আরও বেশি কর আরোপসহ আরও অনেক পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

দেশটির সরকার এখন ৪৯ দশমিক ৩ অনুচ্ছেদের মাধ্যমে পার্লামেন্টে ভোট ছাড়াই বিলটি অনুমোদনের চেষ্টা করায় ফ্রান্সজুড়ে ক্ষোভ আরও বাড়বে এবং বিক্ষোভের আকার ও সহিংসতা বাড়বে বলেই অনুমান করা হচ্ছে।

এই চেষ্টার বিরুদ্ধে সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার চিন্তা করছে বিরোধীরা। সেরকম কিছু হলেও ম্যাক্রোঁ সরকারের বিপদ কম, কেননা রক্ষণশীল আইনপ্রণেতাদের অনেকেই অনাস্থায় সমর্থন দেবেন না বলেই মনে হচ্ছে।

back to top