alt

প্রযুক্তি

ফ্রস্ট রাডারের প্রতিবেদন অনুসারে বৈশ্বিক ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামোতে শীর্ষে রয়েছে এরিকসন

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক : সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১
image

২০২০ সালে বৈশি^ক ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামোয় এরিকসন বাজারে শীর্ষ বলে মনোনীত করেছে শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভান। সারা বিশে^র যোগাযোগ সেবাদাতাদের সাথে ১৩০টিরও বেশি বাণিজ্যিক ফাইভজি চুক্তি এবং বিশ^জুড়ে ৮৩টি লাইভ ফাইভজি নেটওয়ার্ক রয়েছে এরিকসনের।

সর্বশেষ ফ্রস্ট রাডার এর তথ্য অনুযায়ী ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো বাজারে শীর্ষে আছে এরিকসন। এক্ষেত্রে, ফোরজি নেটওর্য়াক অবকাঠামো বাজারে তাদের বর্তমান নেতৃত্বকে কাজে লাগিয়েছে এরিকসন। ফ্রস্ট অ্যান্ড সুলিভানের তথ্য অনুযায়ী, ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো বাজারের মধ্যে রয়েছে রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্কস (আরএএন), ট্রান্সপোর্ট নেটওয়ার্ক এবং কোর নেটওয়ার্ক, যার মধ্যে এক বা একাধিক এজ নেটওয়ার্ক অন্তভূক্ত থাকতে পারে।

ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভান তাদের সর্বশেষ প্রতিবেদনে একশ’রও বেশি অংশগ্রহণকারী বৈশি^ক ইন্ডাস্ট্রির মধ্য থেকে শীর্ষ ২০টি প্রতিষ্ঠানকে বেছে নেয়। এই প্রতিষ্ঠানগুলো সামগ্রিকভাবে বাজারে নেতৃত্ব দেয়, বাজারের একটি বিভাগে নেতৃত্ব দেয় অথবা তাদেরকে নির্দিষ্ট বিভাগে শীর্ষস্থানীয় বলে গণ্য করা হয়। এক্ষেত্রে, তারা তাদের গবেষণা পদ্ধতিতে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রবৃদ্ধি ও উদ্ভাবন স্কোর ব্যবহার করে থাকে।

এরিকসন বাংলাদেশের প্রধান আবদুস সালাম বলেন, ‘ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভানের ফ্রস্ট রাডার দ্বারা শীর্ষস্থান স্বীকৃতি প্রাপ্তি আমাদের প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নেতৃত্ব, বাজার প্রতিযোগিতা, উদ্ভাবন এবং গ্রাহকদের প্রতি আমাদের প্রতিশ্রুতিকে তুলে ধরে। সেরা মানের পণ্য সমাধান দেয়ার লক্ষ্যে আমরা সব সময় গবেষণা ও উন্নয়নে (আরঅ্যান্ডডি) জোর দিয়েছি। আমরা গ্রাহকদের চাহিদা পূরণে আমাদের ফোরজি/ফাইভজি পোর্টফোলিও নির্মাণ চালিয়ে যাব।’

এরিকসন এবং গ্রোথ ইনডেক্সের ব্যাপারে ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভানের ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি গ্রুপের সিনিয়র ইন্ডাস্ট্রি অ্যানালিস্ট ট্রয় মর্লে বলেন, ‘ফোরজি অবকাঠামো বাজারে লিডার হিসেবে, এরিকসন একটি বিশাল গ্রাহক বেস নিয়ে ফাইভজি বাজারে প্রবেশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটি এর বর্তমান গ্রাহকদের ধরে রেখে নতুন গ্রাহক যুক্ত করার ক্ষেত্রে দুর্দান্ত কাজ করেছে। এরিকসন এমন গ্রাহকদের নিয়েও কাজ করছে, যারা এখন না হলেও আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ফাইভজিতে প্রবেশ করবে। এরিকসন আর্থিক কার্যকারিতা অর্জনের লক্ষ্যে বিগত কয়েক বছর ধরে তাদের সামগ্রিক কৌশলের সামঞ্জস্য করেছে। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি তাদের আর্থিক সফলতা, মুনাফা অর্জন ও আর্থিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছে।’

এরিকসন ও ইনোভেশন ইনডেক্সের ব্যাপারে মর্লে বলেন, ‘এরিকসন সারা বিশে^ টুজি, থ্রিজি, ফোরজি এবং এখন ফাইভজি দিয়ে তাদের উদ্ভাবন দক্ষতা প্রমাণ করেছে। ৩৭টি দেশে প্রতিষ্ঠানটির ৭২টি লাইভ ফাইভজি নেটওয়ার্ক আছে* (ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভানের প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী এটা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ)। প্রতিষ্ঠানটি আরঅ্যান্ডডিতে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বিনিয়োগ করে। সব সময় প্রযুক্তি উদ্ভাবিত হচ্ছে এমন একটি বাজারে এটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।’

ছবি

বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের উদ্যোগে “অনলাইন পরীক্ষাঃ সক্ষমতা ও গ্রহণযোগ্যতা” শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত

ছবি

স্মার্টফোনে ভিভো’র প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন

ছবি

হুয়াওয়ের আয়োজনে এশিয়া-প্যাসিফিক হায়ার এডুকেশন ইনোভেশন ফোরাম অনুষ্ঠিত

ছবি

জিফাইভ গ্লোবালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ওয়েব সিরিজ ‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টলমেন’

ছবি

চীনে গ্লোবাল সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড প্রাইভেসি প্রটেকশন ট্রান্সপারেন্সি সেন্টার উদ্বোধন করলো হুয়াওয়ে

ছবি

হাই-টেক পার্কগুলো ডিজিটাল ডিভাইস উৎপাদনের হাব হিসেবে গড়ে উঠবে: বিকর্ণ কুমার ঘোষ

ছবি

মুজিববর্ষ উপলক্ষে “মুজিব অলিম্পিয়াড” শুরু

ছবি

ন্যাশনাল হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ২০২১ এর জাতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত

ছবি

বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২১ এর নির্বাচিত স্টার্টআপদের নিয়ে অনলাইনে বুটক্যাম্প শুরু

ছবি

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অগ্রসৈনিক তরুণ উদ্যোক্তা এবং উদ্ভাবকগণ - পলক

ছবি

হারমোনিওএস ২ অপারেটিং সিস্টেমের সাতটি নতুন ডিভাইস আনল হুয়াওয়ে

ছবি

সরকারের তিনটি প্রকল্পের তথ্যপ্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট ৩৫৭ কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে বেক্সিমকো

ছবি

আইসিটি বিভাগের এডিপি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ছবি

ক্লাউড সেবায় সেরা রেটিং পেলো জেডটিই

ছবি

ই-ক্যাবের এফ-কমার্স এ্যালায়েন্স কমিটি গঠিত

ছবি

তরুণদের কর্মসংস্থানের জন্য দেশের ৬৪ জেলায় ৪৯২টি বিডিসেট স্থাপন করা হবে

ছবি

আগামী ৩ বছরে ১০ কোটি ব্যবহারকারীর জন্য ৫জি স্মার্টফোন নিয়ে আসবে রিয়েলমি

ছবি

“আত্মনির্ভরশীল ডিজিটাল বাংলাদেশ” বিনির্মাণের পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

রেসপনসিবল বিজনেস ২০২১ এর সাথে যুক্ত হলো হুয়াওয়ে

ছবি

ব্যবসা পরিচালনায় স্বয়ংক্রিয় রোবটিক্স প্রক্রিয়া শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

এডিসন এলাইন্সে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন জুনাইদ আহমেদ পলক

ছবি

অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ন্যাশনাল হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ২০২১

ছবি

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে যোগ দিলেন ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ

ছবি

ফোনে ভিডিও এডিট করার সহজ যত অ্যাপস

ছবি

স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করণে ব্লকচেইন সবচেয়ে কার্যকর প্রযুক্তি: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

কম্পিউটারের উপর এখনি ভ্যাট ট্যাক্স আরোপ না করার আহ্বান বিসিএস সভাপতির

ছবি

সিক্রেটস অব ইফেকটিভ কমিউনিকেশন ফর দ্য সাকসেস অব বিজনেস বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

জনপ্রিয় গেম ফ্রি ফায়ার ও পাবজি বন্ধের সুপারিশ

ছবি

নজরদারির সুযোগ চায় ভারত, সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করল হোয়াটসঅ্যাপ

ছবি

বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের কিশোর বিজ্ঞানীদের তৈরি রোবট প্রদর্শন করবে বিজ্ঞান জাদুঘর

ছবি

সানফ্লাওয়ার-এর আকর্ষণীয় টিজার প্রকাশ করেছে জিফাইভ গ্লোবাল

ছবি

বিসিএস এর উদ্যোগে ‘ডিজিটাল রুপান্তর এবং প্রযুক্তি বান্ধব প্রতিষ্ঠান’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

আইসিটি বিভাগের এডিপি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ছবি

আগামী ৫ দিন দেশে ইন্টারনেটের গতি কিছুটা ধীর থাকতে পারে

ছবি

টফি অ্যাপে সরাসরি দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ওয়ানডে সিরিজ

ছবি

আইটিতে দক্ষ মানুষের ট্যালেন্ট পুল তৈরি করবে সরকার: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

tab

প্রযুক্তি

ফ্রস্ট রাডারের প্রতিবেদন অনুসারে বৈশ্বিক ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামোতে শীর্ষে রয়েছে এরিকসন

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক
image

সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

২০২০ সালে বৈশি^ক ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামোয় এরিকসন বাজারে শীর্ষ বলে মনোনীত করেছে শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভান। সারা বিশে^র যোগাযোগ সেবাদাতাদের সাথে ১৩০টিরও বেশি বাণিজ্যিক ফাইভজি চুক্তি এবং বিশ^জুড়ে ৮৩টি লাইভ ফাইভজি নেটওয়ার্ক রয়েছে এরিকসনের।

সর্বশেষ ফ্রস্ট রাডার এর তথ্য অনুযায়ী ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো বাজারে শীর্ষে আছে এরিকসন। এক্ষেত্রে, ফোরজি নেটওর্য়াক অবকাঠামো বাজারে তাদের বর্তমান নেতৃত্বকে কাজে লাগিয়েছে এরিকসন। ফ্রস্ট অ্যান্ড সুলিভানের তথ্য অনুযায়ী, ফাইভজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো বাজারের মধ্যে রয়েছে রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্কস (আরএএন), ট্রান্সপোর্ট নেটওয়ার্ক এবং কোর নেটওয়ার্ক, যার মধ্যে এক বা একাধিক এজ নেটওয়ার্ক অন্তভূক্ত থাকতে পারে।

ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভান তাদের সর্বশেষ প্রতিবেদনে একশ’রও বেশি অংশগ্রহণকারী বৈশি^ক ইন্ডাস্ট্রির মধ্য থেকে শীর্ষ ২০টি প্রতিষ্ঠানকে বেছে নেয়। এই প্রতিষ্ঠানগুলো সামগ্রিকভাবে বাজারে নেতৃত্ব দেয়, বাজারের একটি বিভাগে নেতৃত্ব দেয় অথবা তাদেরকে নির্দিষ্ট বিভাগে শীর্ষস্থানীয় বলে গণ্য করা হয়। এক্ষেত্রে, তারা তাদের গবেষণা পদ্ধতিতে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রবৃদ্ধি ও উদ্ভাবন স্কোর ব্যবহার করে থাকে।

এরিকসন বাংলাদেশের প্রধান আবদুস সালাম বলেন, ‘ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভানের ফ্রস্ট রাডার দ্বারা শীর্ষস্থান স্বীকৃতি প্রাপ্তি আমাদের প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নেতৃত্ব, বাজার প্রতিযোগিতা, উদ্ভাবন এবং গ্রাহকদের প্রতি আমাদের প্রতিশ্রুতিকে তুলে ধরে। সেরা মানের পণ্য সমাধান দেয়ার লক্ষ্যে আমরা সব সময় গবেষণা ও উন্নয়নে (আরঅ্যান্ডডি) জোর দিয়েছি। আমরা গ্রাহকদের চাহিদা পূরণে আমাদের ফোরজি/ফাইভজি পোর্টফোলিও নির্মাণ চালিয়ে যাব।’

এরিকসন এবং গ্রোথ ইনডেক্সের ব্যাপারে ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভানের ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি গ্রুপের সিনিয়র ইন্ডাস্ট্রি অ্যানালিস্ট ট্রয় মর্লে বলেন, ‘ফোরজি অবকাঠামো বাজারে লিডার হিসেবে, এরিকসন একটি বিশাল গ্রাহক বেস নিয়ে ফাইভজি বাজারে প্রবেশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটি এর বর্তমান গ্রাহকদের ধরে রেখে নতুন গ্রাহক যুক্ত করার ক্ষেত্রে দুর্দান্ত কাজ করেছে। এরিকসন এমন গ্রাহকদের নিয়েও কাজ করছে, যারা এখন না হলেও আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ফাইভজিতে প্রবেশ করবে। এরিকসন আর্থিক কার্যকারিতা অর্জনের লক্ষ্যে বিগত কয়েক বছর ধরে তাদের সামগ্রিক কৌশলের সামঞ্জস্য করেছে। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি তাদের আর্থিক সফলতা, মুনাফা অর্জন ও আর্থিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছে।’

এরিকসন ও ইনোভেশন ইনডেক্সের ব্যাপারে মর্লে বলেন, ‘এরিকসন সারা বিশে^ টুজি, থ্রিজি, ফোরজি এবং এখন ফাইভজি দিয়ে তাদের উদ্ভাবন দক্ষতা প্রমাণ করেছে। ৩৭টি দেশে প্রতিষ্ঠানটির ৭২টি লাইভ ফাইভজি নেটওয়ার্ক আছে* (ফ্রস্ট অ্যান্ড সালিভানের প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী এটা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ)। প্রতিষ্ঠানটি আরঅ্যান্ডডিতে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বিনিয়োগ করে। সব সময় প্রযুক্তি উদ্ভাবিত হচ্ছে এমন একটি বাজারে এটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।’

back to top