alt

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

রংপুরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক-এর ভিত্তিপ্রস্তর

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২

রংপুরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক-এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

রংপুর সদরের খলিশাকুড়িতে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর আওতাধীন জেলা পর্যায়ে আইটি /হাই-টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় "ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক" এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হলো।

আজ (বৃহস্পতিবার) রংপুর জেলা পরিষদ কমিউনিটি সেন্টারে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এই হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে এক অনাড়ম্বর আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ত অনুষ্ঠানে ঢাকা থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত আনন্দিত এ কারণে যে আজ রংপুরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হচ্ছে। এর মাধ্যমে আইটি ইন্ডাস্ট্রিতেও এখন রংপুরবাসীর অবদান রাখার ক্ষেত্র প্রস্তুত হলো। প্রতিযোগিতার এই যুগে আমাদের তরুণদের টিকে থাকতে হলে প্রযুক্তি শিক্ষার বিকল্প নাই। আর এজন্যই আমরা একটি প্রযুক্তিনির্ভর জাতি গড়ে তুলতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘রংপুর সবসময়ই অবহেলিত এলাকা ছিলো, এখানে কখনো শিল্পায়ন হয়নি। রংপুরবাসীর উন্নয়নে সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্কের মাধ্যমে এখানকার তরুণ-তরুণীদের নিজের পায়ে দাঁড়ানোর সুযোগ সৃষ্টি হলো। এই পার্কে তিন হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।’

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান গবেষণার পাশাপাশি জাতীয় রাজনীতিতে নীরবে-নিভৃতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে গিয়েছেন। শিক্ষা জীবনে তিনি ছাত্রলীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন ষাট এর দশকে। আইয়ুব খানের সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে ১৯৬২ সালে তিনি আটক হন, কিছু দিন জেলও খাটেন।

‘ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বাংলাদেশ আণবিক শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন পদে দক্ষতা ও সাফল্যের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। তাঁর গবেষণা কর্মের পরিধি ছিল ব্যাপক। ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া শুধু তার কাজের জন্য নয়, বিজ্ঞানমনস্ক জাতি গঠনে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে বেঁচে আছেন এবং থাকবেন।‘

স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ বলেন, এখন পর্যন্ত হাই-টেক পার্কসমূহে ১৯০টি প্রতিষ্ঠানকে স্পেস ও প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এর মধ্যে ১২৩টি প্রতিষ্ঠান ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে এবং ১৫১টি স্থানীয় স্টার্টআপ কোম্পানিকে বিনামূল্যে স্পেস/কো-ওয়ার্কিং স্পেস বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ আইটি ইন্ডাস্ট্রির জনবলের চাহিদার দিক বিবেচনা করে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের মধ্যমে আইসিটি খাতে দক্ষ জনবল তৈরি হয়েছে ৩৬০০০ জন। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আইসিটি খাতে প্রায় ২২০০০ জনের প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রায় ১৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে রংপুর সদরের খলিশাকুড়িতে ১০.৬৮ একর জমিতে এই হাই-টেক পার্ক স্থাপনের কাজ শেষ হলে এখানে প্রায় ৩০০০ জনের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রংপুরের পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ, রংপুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান , জেলা পর্যায়ে আইটি /হাই-টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক এ কে এ এম ফজলুল হক, এলএডিপি প্রকল্প পরিচালক হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এড. হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ , মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সফিউর রহমান সফি, ড. ওয়াজেদ মিয়া মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান একেএম ছায়াদত হোসেন বকুল, আইসিটি বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ।

ছবি

বাঙালি ছাত্র পেলেন ফেইসবুক চাকরি, বার্ষিক বেতন ২ কোটি ১৩ লাখ টাকা

ছবি

বাংলাদেশে চরমপন্থা ঠেকাতে ফেইসবুকে স্থানীয় বিশেষজ্ঞ নিয়োগ

ছবি

মোশন গ্রাফিক্স ল্যাব স্থাপন করা হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

ময়মনসিংহে হাইটেক পার্ক এর ভিত্তিপ্রস্তর

চতুর্থ শিপ্ল বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তরুণদের আইসিটিতে দক্ষ করে গড়ে তোলা হচ্ছে

ছবি

খুলনা হাইটেক পার্ক এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

ছবি

এখন থেকে টেলিগ্রাম ব্যবহারেও গুনতে হবে টাকা

আইএসপিএবি’র আয়োজনে কক্সবাজারে ৪ দিনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা

ছবি

হুয়াওয়ে ডিজিটাল ইনোভেশন কংগ্রেসঃ ডিজিটাল ইকোনমি ও ইনোভেশনে গুরুত্ব

ছবি

সাইবার সিকিউরিটি, ই-গভর্নেন্স, স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম: বাংলাদেশের সাথে কাজ করবে থাইল্যান্ড

ছবি

ওরাকল ‘ডিসেম্বরের মধ্যে’ বাংলাদেশে ‘কার্যক্রম’ শুরু করবে

ছবি

আইসিটি অবকাঠামো বিনির্মাণে বিশ্বব্যাংক ও আইসিটি বিভাগ ‘যৌথভাবে কাজ’ করবে

এপেক ডিজিটাল ইনোভেশন কংগ্রেসে যোগ দিতে সিঙ্গাপুরে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

ছবি

ডব্লিউডব্লিউডিসি সম্মেলন : অপারেটিং সিস্টেমের হালনাগাদ এবং নতুন পণ্য আনছে অ্যাপল

ছবি

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট থেকে আয় ৩০০ কোটি ছাড়িয়েছে: বিএসসিএল

ছবি

টুইটার কেনার চুক্তি স্থগিত করলেন ইলন মাস্ক

ছবি

হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ রিঅ্যাকশন ফিচার চালু

ছবি

টুইটারের সিইও পরাগের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত

ছবি

ভারতের প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠান আইআইটি ও ন্যাসকম পরিদর্শন করলেন পলক

ছবি

প্রস্তাব গ্রহণ, টুইটারের মালিক হচ্ছেন ইলন মাস্ক

নারায়ণগঞ্জে হাইটেক পার্ক প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

সিরাজগঞ্জে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার এর ভিত্তিপ্রস্তর

ছবি

স্টার্টআপদের নিয়ে আইডিয়া প্রকল্পের কর্মশালা

ছবি

কেরানীগঞ্জে ‘হাই-টেক পার্ক’-এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

ছবি

গবেষণা নীতিমালা তৈরি করবে আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প

ছবি

নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশে সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে আগ্রহী

ছবি

জয়পুরহাটে ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার’-এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

ছবি

দেশে সফট্ওয়্যার ডেলিভারি সেন্টার স্থাপন করবে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘এসভিএএম’

ছবি

আসছে ইনস্টাগ্রামের ৭ ফিচার

ছবি

এরিনা অফ ভ্যালর এর সাউথ এশিয়া কোয়ালিফায়ার্স অনুষ্ঠিত

ছবি

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে গুগলের বিশেষ ডুডল

ছবি

বুয়েটে অ্যাডভান্স কম্পিউটিং ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হবে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

গার্টনারের ফাইভজি নেটওয়ার্ক ইনফ্রাস্ট্রাকচার প্রতিবেদনে স্বীকৃতি পেয়েছে এরিকসন

ছবি

উদ্যোক্তা মহাসম্মেলন ২০২২ অনুষ্ঠিত

ছবি

দেশের বিভাগীয় পর্যায়ের স্টার্টআপদের উন্নয়নে স্বক্রিয় আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প

ছবি

আগামী বছরেই প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ব্রডব‌্যান্ড ইন্টারনেট: টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

tab

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

রংপুরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক-এর ভিত্তিপ্রস্তর

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২

রংপুরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক-এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

রংপুর সদরের খলিশাকুড়িতে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর আওতাধীন জেলা পর্যায়ে আইটি /হাই-টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় "ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক" এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হলো।

আজ (বৃহস্পতিবার) রংপুর জেলা পরিষদ কমিউনিটি সেন্টারে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এই হাই-টেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে এক অনাড়ম্বর আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ত অনুষ্ঠানে ঢাকা থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে বলেন, ‘আমরা অত্যন্ত আনন্দিত এ কারণে যে আজ রংপুরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্ক এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হচ্ছে। এর মাধ্যমে আইটি ইন্ডাস্ট্রিতেও এখন রংপুরবাসীর অবদান রাখার ক্ষেত্র প্রস্তুত হলো। প্রতিযোগিতার এই যুগে আমাদের তরুণদের টিকে থাকতে হলে প্রযুক্তি শিক্ষার বিকল্প নাই। আর এজন্যই আমরা একটি প্রযুক্তিনির্ভর জাতি গড়ে তুলতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘রংপুর সবসময়ই অবহেলিত এলাকা ছিলো, এখানে কখনো শিল্পায়ন হয়নি। রংপুরবাসীর উন্নয়নে সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া হাই-টেক পার্কের মাধ্যমে এখানকার তরুণ-তরুণীদের নিজের পায়ে দাঁড়ানোর সুযোগ সৃষ্টি হলো। এই পার্কে তিন হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।’

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান গবেষণার পাশাপাশি জাতীয় রাজনীতিতে নীরবে-নিভৃতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে গিয়েছেন। শিক্ষা জীবনে তিনি ছাত্রলীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন ষাট এর দশকে। আইয়ুব খানের সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে ১৯৬২ সালে তিনি আটক হন, কিছু দিন জেলও খাটেন।

‘ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বাংলাদেশ আণবিক শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন পদে দক্ষতা ও সাফল্যের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। তাঁর গবেষণা কর্মের পরিধি ছিল ব্যাপক। ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া শুধু তার কাজের জন্য নয়, বিজ্ঞানমনস্ক জাতি গঠনে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে বেঁচে আছেন এবং থাকবেন।‘

স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ বলেন, এখন পর্যন্ত হাই-টেক পার্কসমূহে ১৯০টি প্রতিষ্ঠানকে স্পেস ও প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এর মধ্যে ১২৩টি প্রতিষ্ঠান ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে এবং ১৫১টি স্থানীয় স্টার্টআপ কোম্পানিকে বিনামূল্যে স্পেস/কো-ওয়ার্কিং স্পেস বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ আইটি ইন্ডাস্ট্রির জনবলের চাহিদার দিক বিবেচনা করে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের মধ্যমে আইসিটি খাতে দক্ষ জনবল তৈরি হয়েছে ৩৬০০০ জন। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আইসিটি খাতে প্রায় ২২০০০ জনের প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রায় ১৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে রংপুর সদরের খলিশাকুড়িতে ১০.৬৮ একর জমিতে এই হাই-টেক পার্ক স্থাপনের কাজ শেষ হলে এখানে প্রায় ৩০০০ জনের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রংপুরের পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ, রংপুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান , জেলা পর্যায়ে আইটি /হাই-টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক এ কে এ এম ফজলুল হক, এলএডিপি প্রকল্প পরিচালক হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এড. হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ , মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সফিউর রহমান সফি, ড. ওয়াজেদ মিয়া মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান একেএম ছায়াদত হোসেন বকুল, আইসিটি বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ।

back to top