alt

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

নিউক্লিয়ার ফিউশনে শক্তি তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্রে সাফল্য

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা নিয়ন্ত্রিত নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ার মাধ্যমে প্রথমবারে মত গবেষণাগারে শক্তি উৎপাদনে সাফল্য পেয়েছেন বলে খবর দিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

সিএনএন জানিয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়ার লরেন্স লাইভমোর ন্যাশনাল ল্যাবরেটরির ন্যাশনাল ইগনিশন ফ্যাসিলিটিতে বিজ্ঞানীরা সফলভাবে নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়া ঘটাতে সক্ষম হয়েছেন, যেখানে ব্যবহার করা জ্বালানির চেয়ে বেশি মাত্রায় শক্তি তৈরি সম্ভব হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি বিভাগ মঙ্গলবার এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে বলে জানানো হয়েছে সিএনএন এর প্রতিবেদনে।

সূর্যের মত নক্ষত্রে নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ার মাধ্যমেই শক্তি তৈরি হয়। বিজ্ঞানীরা বহু বছর ধরে পৃথিবীতে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় সেই বিক্রিয়া ঘটানোর কৌশল উদ্ভাবনের চেষ্টা চালিয়ে আসছেন।

সত্যি সত্যি যদি পৃথিবীতে নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে নিউক্লিয়ার ফিউশন ঘটানো যায়, তার মধ্য দিয়ে দৃশ্যত অসীম পরিমাণ শক্তি উৎপাদন করা যাবে পরিবেশবান্ধব উপায়ে। এ প্রক্রিয়ায় কার্বন নির্গামন বা তিজস্ক্রিয় নিঃসরণের ঝুঁকিও তেমন বাড়বে না।

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীদের গবেষণা সফল হয়ে থাকলে জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর থেকে নির্ভরতা কমিয়ে আনার একটি নতুন পথ খুলতে যাচ্ছে বলে গবেষকরা আশাবাদী।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংস্থা জয়েন্ট ইউরোপিয়ান টোরাস (জেইটি) ল্যাবরেটরির গবেষকরা এ বছর ফেব্রুয়ারিতে হাইড্রোজেনের দুটি আইসোটপ ব্যবহার করে নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ার মাধ্যমে তাপ উৎপাদনের নতুন রেকর্ড গড়ার খবর দেন।

জেইটি ল্যাবের গবেষকরা তাদের গবেষণায় ৫ সেকেন্ডে ৫৯ মেগাজুল (১১ মেগাওয়াট) শক্তি তৈরি করতে পেরেছিলেন, যা ১৯৯৭ সালে তাদের একই ধরনের গবেষণায় উৎপাদিত শক্তির দ্বিগুণেরও বেশি।

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা যে প্রক্রিয়ায় কাজটি করেছেন, তাকে বলা হয় থার্মোনিউক্লিয়ার ইনারশিয়াল ফিউশন। তারা লেজারের মাধ্যমে নিউট্রনের গায়ে আইসোটপ ছুড়ে দিয়ে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ ঘটিয়েছেন, যার মাধ্যমে তৈরি হয়েছে তাপ।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, যে কাজটি তারা করেছেন, সেটি গবেষণাগারে যন্ত্রের মধ্যে নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে অতি ক্ষুদ্র একটি নক্ষত্রের জন্ম দেওয়ার মত। এখন সেই ফিউশন বিক্রিয়া ধরে রেখে আরও বড় পর্যায়ে শক্তি উৎপাদন এবং তা বিদ্যুৎ উৎপাদনে কাজে লাগানোর কৌশল তাদের উদ্ভাবন করতে হবে।

ভবিষ্যতে এ প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিদুৎকেন্দ্র তৈরি করলে তাতে গ্রিনহাউস গাস নির্গমণ হবে না। স্বল্পস্থায়ী তিজস্ক্রিয় বর্জ্য তৈরি হলেও তার পরিমাণ হবে খুবই সামান্য।

এই শতকের দ্বিতীয় ভাগেই নিউক্লিয়ার ফিউশন একটি নির্ভরযোগ্য জ্বালানি উৎস হয়ে উঠতে পারে বলে আশা করছেন গবেষকরা।

ছবি

ইউআইটিএস এ ভবিষ্যত ক্যারিয়ার বিষয়ক সেশন অনুষ্ঠিত

ছবি

বাংলাদেশ এআই অলিম্পিয়াডের পার্টনার হলো ইজেনারেশন

ছবি

শেষ হলো ন্যাশনাল আইডিয়া পিচিং কম্পিটিশন ক্রিয়েভেঞ্চার ৩.০

ছবি

ফ্রন্টেক লিমিটেড এবং অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটির মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত

ছবি

এআই দিয়ে তৈরি কনটেন্ট আলাদা করবে টিকটক

ছবি

বাংলাদেশ এআই অলিম্পিয়াডের জাতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত

ছবি

শেষ হল যুব প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জাতীয় আইটি প্রতিযোগিতা ২০২৪

ছবি

মিরপুর ও এলিফ্যান্ট রোডে ৯৭৭টি অবৈধ স্মার্ট টিভি বক্স ও সেট টপবক্স জব্দ

সেমিকন্ডাক্টর খাতে ১০ বিলিয়ন ডলার রপ্তানির সম্ভাবনা রয়েছে: তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

দুবাইভিত্তিক ভেঞ্চার ক্যাপিটালের উপদেষ্টা হলেন আশিকুল আলম খাঁন

ছবি

বাংলাদেশে র‌্যানসমওয়্যারের হুমকি প্রতিরোধ করছে ক্যাস্পারস্কি

ছবি

ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে জেএমসি মিডিয়া বাজের পঞ্চম আসর

ছবি

দেশের বাজারে ওয়ানপ্লাসের আনুষ্ঠানিক যাত্রা

লাইসেন্সবিহীন ও অনিরাপদ সফটওয়্যার ব্যবহার বন্ধের আহবান বিএসএর

ছবি

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ

ছবি

ময়মনসিংহ বিভাগে আইএসপিএবি-নিক্স উদ্বোধন

ছবি

ভবিষ্যৎ স্মার্ট নাগরিক এবং লিডারশিপ তৈরির ক্ষেত্র হবে ডিআরএমসি: প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

সিংড়ায় ডিজিটাল পল্লী: স্মার্ট ভিলেজ এক্সপো অনুষ্ঠিত

ছবি

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য জাতীয় আইটি প্রতিযোগিতা

ছবি

বেসিস নির্বাচনে বিজয়ী যারা

ছবি

টেলিযোগাযোগ সেবা : বিটিআরসির গণশুনানি অনুষ্ঠিত

ছবি

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নারীদের বিশেষ কোটা চালুর কথা বললেন প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

পরিবেশে সুরক্ষায় ইউনিলিভার ও গেইন এর পাইলট প্রকল্প চালু

কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি, নতুন আয়ের উৎস তৈরি এবং দক্ষতা বাড়াতে ভূমিকা রাখছে মোবাইল সংযোগ

ছবি

স্টার্টআপ উদ্যোক্তাদের জন্য আইডিয়া প্রকল্পের সার্টিফিকেট কোর্স চালু

ছবি

ফাইবার এট হোম-কে ১৫ বছরের জন্য লাইসেন্স নবায়ন করল বিটিআরসি

ছবি

বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় চলছে সিনেমা নির্মাণের পোস্টপ্রো ট্যালেন্টল্যাব কর্মশালা

প্লাস্টিক সার্কুলারিটি ও একাডেমিক উন্নয়নে ইউনিলিভার ও ঢাবির আইবিএ অনুষদের চুক্তি

ছবি

আবারও বিসিএস সভাপতি সুব্রত সরকার ও মহাসচিব কামরুজ্জামান

ছবি

২০৩১ পর্যন্ত কর অব্যাহতির দাবি তথ্যপ্রযুক্তি খাত সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংগঠনসমূহের

ছবি

স্মার্ট বেসিস গঠনের লক্ষ্য টিম স্মার্টের

ছবি

নিরাপদ ইন্টারনেট বিষয়ে কাজ করতে বিটিআরসি ও সিসিমপুর এর মধ্যে চুক্তি

ছবি

প্রকৌশল ও প্রযুক্তিতে নারীর ক্ষমতায়নের জোর আইইইই‘র

ছবি

৮ মে বেসিস নির্বাচন: মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৪২ প্রার্থী

ছবি

তরুনদের তথ্য প্রযুক্তির প্রশিক্ষন দিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার কারিগর হিসেবে তৈরি করা হচ্ছে : স্পীকার

ছবি

হোয়াটসঅ্যাপে ফাঁদে ফেলে ব্ল্যাকমেইলিং, সাবধান হবেন যেভাবে

tab

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

নিউক্লিয়ার ফিউশনে শক্তি তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্রে সাফল্য

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা নিয়ন্ত্রিত নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ার মাধ্যমে প্রথমবারে মত গবেষণাগারে শক্তি উৎপাদনে সাফল্য পেয়েছেন বলে খবর দিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

সিএনএন জানিয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়ার লরেন্স লাইভমোর ন্যাশনাল ল্যাবরেটরির ন্যাশনাল ইগনিশন ফ্যাসিলিটিতে বিজ্ঞানীরা সফলভাবে নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়া ঘটাতে সক্ষম হয়েছেন, যেখানে ব্যবহার করা জ্বালানির চেয়ে বেশি মাত্রায় শক্তি তৈরি সম্ভব হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি বিভাগ মঙ্গলবার এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে বলে জানানো হয়েছে সিএনএন এর প্রতিবেদনে।

সূর্যের মত নক্ষত্রে নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ার মাধ্যমেই শক্তি তৈরি হয়। বিজ্ঞানীরা বহু বছর ধরে পৃথিবীতে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় সেই বিক্রিয়া ঘটানোর কৌশল উদ্ভাবনের চেষ্টা চালিয়ে আসছেন।

সত্যি সত্যি যদি পৃথিবীতে নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে নিউক্লিয়ার ফিউশন ঘটানো যায়, তার মধ্য দিয়ে দৃশ্যত অসীম পরিমাণ শক্তি উৎপাদন করা যাবে পরিবেশবান্ধব উপায়ে। এ প্রক্রিয়ায় কার্বন নির্গামন বা তিজস্ক্রিয় নিঃসরণের ঝুঁকিও তেমন বাড়বে না।

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীদের গবেষণা সফল হয়ে থাকলে জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর থেকে নির্ভরতা কমিয়ে আনার একটি নতুন পথ খুলতে যাচ্ছে বলে গবেষকরা আশাবাদী।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংস্থা জয়েন্ট ইউরোপিয়ান টোরাস (জেইটি) ল্যাবরেটরির গবেষকরা এ বছর ফেব্রুয়ারিতে হাইড্রোজেনের দুটি আইসোটপ ব্যবহার করে নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ার মাধ্যমে তাপ উৎপাদনের নতুন রেকর্ড গড়ার খবর দেন।

জেইটি ল্যাবের গবেষকরা তাদের গবেষণায় ৫ সেকেন্ডে ৫৯ মেগাজুল (১১ মেগাওয়াট) শক্তি তৈরি করতে পেরেছিলেন, যা ১৯৯৭ সালে তাদের একই ধরনের গবেষণায় উৎপাদিত শক্তির দ্বিগুণেরও বেশি।

যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীরা যে প্রক্রিয়ায় কাজটি করেছেন, তাকে বলা হয় থার্মোনিউক্লিয়ার ইনারশিয়াল ফিউশন। তারা লেজারের মাধ্যমে নিউট্রনের গায়ে আইসোটপ ছুড়ে দিয়ে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ ঘটিয়েছেন, যার মাধ্যমে তৈরি হয়েছে তাপ।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, যে কাজটি তারা করেছেন, সেটি গবেষণাগারে যন্ত্রের মধ্যে নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে অতি ক্ষুদ্র একটি নক্ষত্রের জন্ম দেওয়ার মত। এখন সেই ফিউশন বিক্রিয়া ধরে রেখে আরও বড় পর্যায়ে শক্তি উৎপাদন এবং তা বিদ্যুৎ উৎপাদনে কাজে লাগানোর কৌশল তাদের উদ্ভাবন করতে হবে।

ভবিষ্যতে এ প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিদুৎকেন্দ্র তৈরি করলে তাতে গ্রিনহাউস গাস নির্গমণ হবে না। স্বল্পস্থায়ী তিজস্ক্রিয় বর্জ্য তৈরি হলেও তার পরিমাণ হবে খুবই সামান্য।

এই শতকের দ্বিতীয় ভাগেই নিউক্লিয়ার ফিউশন একটি নির্ভরযোগ্য জ্বালানি উৎস হয়ে উঠতে পারে বলে আশা করছেন গবেষকরা।

back to top