alt

জাতীয়

মালয়েশিয়ায় যাওয়ার খরচ কমানোর আশ্বাস

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

মালয়েশিয়ায় কর্মী হিসেবে যেতে চাওয়া বাংলাদেশিদের অভিবাসন খরচ কমানোর আশ্বাস দিয়েছেন পূর্ব এশিয়ার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দিন নাসুসন ইসমাইল।

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেয়া সহজ করতে প্রয়োজনে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সংশোধনে দেশটি রাজি আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদের সঙ্গে রোববার বৈঠক শেষে এসব কথা জানান মালয়েশিয়ার মন্ত্রী।

বিভিন্ন খাতে কর্মী নিতে ২০২১ সালের ১৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশের সঙ্গে এমওইউ সই করে মালয়েশিয়া।

এমওইউর আগে মালয়েশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, বৃক্ষরোপণ, কৃষি, শিল্প উৎপাদন, সেবা, খনিতে উত্তোলন, নির্মাণ এবং গৃহকর্মের মতো খাতগুলোতে বাংলাদেশি শ্রমিক নেয়া হবে।

ঢাকা সফররত মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অভিবাসন ব্যয় কমিয়ে আনতে চাচ্ছি। আগামী দিনে দুই দেশের প্রতিনিধিরা বসবেন। তারা রিভিউ করবেন যে, সমঝোতা চুক্তিতে পরিবর্তন আনার প্রয়োজন আছে কি না। তাদের সুপারিশ অনুযায়ী প্রয়োজনে এমওইউতে পরিবর্তন আনা হবে।’

রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসীকল্যাণ ভবনে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠক শেষে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আগের করা সমঝোতা চুক্তি নিয়ে কথা বলেছি। আজকের আলোচনার একটা বড় অংশজুড়েই ছিল এই চুক্তি।

‘মালয়েশিয়ার সরকার প্রক্রিয়াকে সহজতর করতে চায়, যেন মূল লক্ষ্যে পৌঁছানো যায়। মূল লক্ষ্য হচ্ছে চাহিদা পূরণ করা, ব্যয় কমানো ও বিদেশি কর্মীদের সম্মান রক্ষা করা। যদি বর্তমান প্রক্রিয়ায় সেই লক্ষ্যে পৌঁছানো না যায়, আমরা পরিবর্তন আনতে প্রস্তুত। সে জন্য আমরা আলোচনায় বসব।’

মালয়েশিয়ায় ১৫ লাখ বিদেশি কর্মীর মধ্যে সাড়ে ৪ লাখ বাংলাদেশি জানিয়ে সাইফুদ্দিন বলেন, ‘সেই কারণেই বাংলাদেশ ১৫টি সোর্স কান্ট্রির মধ্যে প্রথম স্থানে আছে। বাংলাদেশি কর্মীরা মালয়েশিয়ার অর্থনীতিতে ব্যাপক অবদান রাখছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের আজকে দুটি ইস্যুতে ফলপ্রসূ আলাপ হয়েছে। প্রথমত, রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম আরও দ্রুত করার বিষয়ে। দ্বিতীয়ত, মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো প্রক্রিয়া আরও সহজ করা। এ ক্ষেত্রে সরকার অভিবাসন ব্যয় কমাতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, ‘আমাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট যা যা আছে, আলোচনায় সব কথাই হয়েছে। এখানে খরচের ব্যাপার আছে, ওখানে যাওয়ার ব্যাপার আছে। সবকিছুই আলোচনা হয়েছে।’

ছবি

এখনো বিদ্যুৎহীন ৬০ লাখের বেশী গ্রাহক

ছবি

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত

ছবি

তৃতীয়-চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী নিয়োগও পিএসসির মাধ্যমে

ছবি

মরদেহ না পেলেও মামলা নিষ্পত্তি কষ্টকর হবে না: ডিবিপ্রধান

ছবি

ঢাকার ট্রাফিক সমস্যা দূর করতে কাজ করছে ডিএমপি-জাইকা

ছবি

ঈদে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ২ জুন

ছবি

বহুতল ভবনে সর্বোচ্চ ৪২.৩৩ শতাংশ এডিস মশার লার্ভা

ছবি

হজে গিয়ে আরও দুই বাংলাদেশির মৃত্যু

ছবি

রাজধানীতে বৃষ্টি-বাতাস, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তিন মৃত্যু

ছবি

তাপমাত্রা ছাড়িয়েছে ৫২ ডিগ্রি, গরমে নাভিশ্বাস পাকিস্তানে

ছবি

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবসে যোগ দেবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

ঢাকাসহ ২০ অঞ্চলে দুপুরের মধ্যে ৮০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস

ছবি

‘গণহত্যার স্বীকৃতি পেতে প্রয়োজন সমন্বিত প্রয়াস’

নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে পদোন্নতি পেলেন ইইডির ২৯ জন কর্মকর্তা

ছবি

পৌণে ৩ কোটি গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রেমাল: সারা দেশে নিহত ১০, ৩৭ লাখের বে‌শি মানুষ ক্ষ‌তিগ্রস্ত: প্রতিমন্ত্রী

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রিমাল: সারাদেশে ৯ মৃত্যু

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রিমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত

ছবি

ঢাকাসহ সারাদেশে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা

ছবি

দুর্বল হচ্ছে রিমাল, নামানো হলো মহাবিপৎসংকেত

ছবি

সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় রিমাল

সংসদ সদস্য আজীম হত্যা তদন্তে কলকাতায় ঢাকার গোয়েন্দা দল

ছবি

ঢাকা ডিবির থেকে একটি দল কলকাতায় গেলেন

ছবি

কোন দেশে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিক ঢুকতে পারেন, প্রশ্ন মন্ত্রীর

ছবি

ঘূর্ণিঝড় রেমাল : স্কুল বন্ধ থাকা নিয়ে যা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

মরদেহ উদ্ধারে কলকাতা পুলিশকে সহযোগিতা করব : ডিবি প্রধান

ছবি

ইউনূসের বিরুদ্ধে সাড়ে ৯ কোটি টাকা অবৈধ ঋণ দেওয়ার অভিযোগ দুদকে

ছবি

সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ছবি

উপকূলীয় এলাকায় লঞ্চসহ সব নৌযান চলাচল বন্ধের নির্দেশ

ছবি

ঘূর্ণিঝড় ‘রিমাল’, পায়রা ও মোংলায় ৭ নম্বর বিপদ সংকেত

ছবি

জবির আধুনিক ক্যাম্পাসের কাজ খুব তাড়াতাড়ি শুরু করব : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

হারুনের নেতৃত্বে এমপি আনারের খুনের তদন্তে ভারত যাবে ডিবি

ছবি

ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক শক্তি তৎপর: কাদের

ছবি

১০তলা বঙ্গবাজার মার্কেটসহ ৪ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

tab

জাতীয়

মালয়েশিয়ায় যাওয়ার খরচ কমানোর আশ্বাস

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

মালয়েশিয়ায় কর্মী হিসেবে যেতে চাওয়া বাংলাদেশিদের অভিবাসন খরচ কমানোর আশ্বাস দিয়েছেন পূর্ব এশিয়ার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দিন নাসুসন ইসমাইল।

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেয়া সহজ করতে প্রয়োজনে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সংশোধনে দেশটি রাজি আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদের সঙ্গে রোববার বৈঠক শেষে এসব কথা জানান মালয়েশিয়ার মন্ত্রী।

বিভিন্ন খাতে কর্মী নিতে ২০২১ সালের ১৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশের সঙ্গে এমওইউ সই করে মালয়েশিয়া।

এমওইউর আগে মালয়েশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, বৃক্ষরোপণ, কৃষি, শিল্প উৎপাদন, সেবা, খনিতে উত্তোলন, নির্মাণ এবং গৃহকর্মের মতো খাতগুলোতে বাংলাদেশি শ্রমিক নেয়া হবে।

ঢাকা সফররত মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অভিবাসন ব্যয় কমিয়ে আনতে চাচ্ছি। আগামী দিনে দুই দেশের প্রতিনিধিরা বসবেন। তারা রিভিউ করবেন যে, সমঝোতা চুক্তিতে পরিবর্তন আনার প্রয়োজন আছে কি না। তাদের সুপারিশ অনুযায়ী প্রয়োজনে এমওইউতে পরিবর্তন আনা হবে।’

রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসীকল্যাণ ভবনে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠক শেষে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আগের করা সমঝোতা চুক্তি নিয়ে কথা বলেছি। আজকের আলোচনার একটা বড় অংশজুড়েই ছিল এই চুক্তি।

‘মালয়েশিয়ার সরকার প্রক্রিয়াকে সহজতর করতে চায়, যেন মূল লক্ষ্যে পৌঁছানো যায়। মূল লক্ষ্য হচ্ছে চাহিদা পূরণ করা, ব্যয় কমানো ও বিদেশি কর্মীদের সম্মান রক্ষা করা। যদি বর্তমান প্রক্রিয়ায় সেই লক্ষ্যে পৌঁছানো না যায়, আমরা পরিবর্তন আনতে প্রস্তুত। সে জন্য আমরা আলোচনায় বসব।’

মালয়েশিয়ায় ১৫ লাখ বিদেশি কর্মীর মধ্যে সাড়ে ৪ লাখ বাংলাদেশি জানিয়ে সাইফুদ্দিন বলেন, ‘সেই কারণেই বাংলাদেশ ১৫টি সোর্স কান্ট্রির মধ্যে প্রথম স্থানে আছে। বাংলাদেশি কর্মীরা মালয়েশিয়ার অর্থনীতিতে ব্যাপক অবদান রাখছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের আজকে দুটি ইস্যুতে ফলপ্রসূ আলাপ হয়েছে। প্রথমত, রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম আরও দ্রুত করার বিষয়ে। দ্বিতীয়ত, মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো প্রক্রিয়া আরও সহজ করা। এ ক্ষেত্রে সরকার অভিবাসন ব্যয় কমাতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, ‘আমাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট যা যা আছে, আলোচনায় সব কথাই হয়েছে। এখানে খরচের ব্যাপার আছে, ওখানে যাওয়ার ব্যাপার আছে। সবকিছুই আলোচনা হয়েছে।’

back to top