alt

জাতীয়

করোনা টিকা: সেরামের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ সংসদীয় কমিটির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : রোববার, ০৯ মে ২০২১
image

চুক্তি নির্ধারিত সময়ে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের টিকা পাঠাতে না পারায় ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। গতকাল রোববার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির ২০তম বৈঠকে এ পরামর্শ দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি লে. কর্ণেল মুহাম্মদ ফারুক খান (অব.) সংবাদকে বলেন, “ভারতের সেরাম ইন্সটিটিউট চুক্তি অনুযায়ি আমাদের টিকা দিতে পারেনি। তারা ইউরোপিও ইউনিয়নকেও (ইইউ) চুক্তি অনুযায়ি টিকা দিতে ব্যর্থ হয়েছে বলে আমি খবরে দেখেছি। ইইউ সেরামের বিরুদ্ধে আইন পদক্ষেপ নিচ্ছে। আমরাও মন্ত্রণালয়কে সেরামের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ দিয়েছি।”

চুক্তি অনুযায়ী, সেরামের কাছ থেকে প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে ছয় মাসে তিন কোটি ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা পাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। তবে সময় মত টিকার চালান না আসায় সঙ্কটে পড়েছে বাংলাদেশ। সেরাম ইন্সটিটিউটের প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ পাওয়ার পর গত ফেব্রুয়ারিতে দেশে গণটিকাদান শুরু হয়। তবে বিশ্বজুড়ে টিকা সরবরাহ সঙ্কট শুরু হলে ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় চালানে ২০ লাখ ডোজ টিকা পাঠায় প্রতিষ্ঠানটি। ভারত সরকারের উপহার হিসেবে দুই দফায় আসে আরও ৩২ লাখ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা। এর মধ্যে এপ্রিলে সারা দেশে টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু করে বাংলাদেশ। কিন্তু নিজেদের চাহিদা মেটাতে ভারত টিকা রপ্তানি নিষিদ্ধ করলে শুরু হয় নতুন সঙ্কট। এ অবস্থায় প্রথম ডোজের টিকাদান বন্ধ রাখতে হয় সরকারকে। সরকারের হাতে এখন যে মজুদ আছে, তা দিয়ে প্রথম ডোজের সবাইকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়াও সম্ভব হবে না।

লে. কর্ণেল মুহাম্মদ ফারুক খান (অব.) সংবাদকে আরো বলেন, “দেশে প্রথম ডোজে যারা এস্ট্রাজেনেকার টিকা নিয়েছেন, দ্বিতীয় ডোজেও তারা যেনো একই টিকা নিতে পারেন, সেজন্য বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত থেকে এস্ট্রাজেনেকার টিকা পাবার জন্য জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার সুপারিশ করা হয়েছে।” তিনি বলেন, “সংসদীয় কমিটির পক্ষ থেকে গত ফেব্রুয়ারি মাসেই একাধিক সোর্স থেকে টিকা আনার কথা বলা হয়েছিল। একটি সোর্স থেকে টিকা কেন নেয়া হল, এ বিষয়েও প্রশ্ন করা হয়েছে। পরারাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা হল- এটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিষয়। তবে তারা, এখন মাল্টিপল সোর্স থেকে টিকা আনার চেষ্টা করছে। ভারত থেকেও আশা করছে পাবে। আমেরিকা থেকে পাওয়ার চেষ্টা করছে। রাশিয়া ও চায়না থেকেও টিকা আনার প্রচেষ্টা অব্যহত আছে।”

কমিটির সভাপতি লে. কর্ণেল মুহম্মদ ফারুক খান (অব.) এর সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ. কে. আব্দুল মোমেন, নুরুল ইসলাম নাহিদ, মো. আব্দুল মজিদ খান, মো. হাবিবে মিল্লাত এবং কাজী নাবিল আহমেদ বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, ইরাকের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে চীনের সিনোফার্ম ভ্যাক্সিনের সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্যও প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়। এছাড়া, কাভিড-১৯ এর বর্তমান পরিস্থতির কারণে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বন্ধ রাখারও সুপারিশ করা হয় বৈঠকে।

বৈঠকে মে মাসের শেষ সপ্তাহের মধ্যে পররাষ্ট্র কমিটিকে ভাষানচরে রোহিঙ্গাদের অবস্থা সরেজমিনে পরিদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। ইরাকের সাথে বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদার করা এবং ইরাকে কর্মরত বাংলাদেশী মানবসম্পদকে সকল ধরনের সহযোগিতা প্রদানের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

ছবি

দেশে করোনায় ৪৮ দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু

ছবি

ঢাকায় বেড়েছে শনাক্তের হার মৃত্যু কমেছে

ছবি

আজ থেকে আবারও টিকাদান শুরু

ছবি

দেশে করোনায় দুই মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্তের হার, মৃত্যু ৫৪

ছবি

নিখোঁজের ৮ দিন পর খোঁজ মিলেছে আবু ত্ব-হার

ছবি

ঢাকায় পাতালরেল চলবে ২০২৬ সালে

ছবি

ঢাকায় করোনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ধরন

ছবি

পুলিশ ও ইসি কর্মকর্তাসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ছবি

মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্তদের বেশির ভাগ দরিদ্র, স্বল্পশিক্ষিত ও সুবিধাবঞ্চিত

ছবি

সাশ্রয়ী মূল্যে সবার জন্য টিকা নিশ্চিত করতে জাতিসংঘকে বাংলাদেশের আহ্বান

ছবি

ঢাকায় করোনার ৬৮ শতাংশ সংক্রমণই ভারতীয় ধরন

ছবি

দেশে করোনায় মৃত্যু আজও ঊর্ধ্বমুখী

ছবি

ক্লাব, মদ ও জুয়া নিয়ে জাতীয় সংসদে উত্তপ্ত বিতর্ক

ছবি

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের মৃত্যু

ছবি

দ্বিতীয় পর্যায়ে ভূমিসহ ঘর পাচ্ছে আরও ৫৩ হাজার পরিবার

ছবি

রোহিঙ্গা শরণার্থী প্রত্যাবর্তনে জাতিসংঘের স্পষ্ট রোডম্যাপ চায় বাংলাদেশ

ছবি

টিকা সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: চীনা রাষ্ট্রদূত

ছবি

গুলশানে অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ পরীমনির বিরুদ্ধে

ছবি

ট্রান্সফরমার আতঙ্কে জুরাইন এলাকাবাসী

ছবি

চীনের সিনোফার্মের টিকা: কারা পাবেন তার তালিকা বললেন মন্ত্রী

ছবি

‘ত্রাণ চাই না বাঁধ চাই’, গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে সংসদে

ছবি

দেশে করোনায় মৃত্যু-শনাক্ত আরও ঊর্ধ্বমুখী

ছবি

চলমান বিধি-নিষেধ আরও এক মাস বাড়লো

ছবি

দাম প্রকাশ করায় চীন থেকে টিকা পেতে দেরী হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ছবি

‘রিসোর্ট কিংবা বার হোক, আইন ভঙ্গ হলেই ব্যবস্থা’

ছবি

সুন্দরবনের আয়তন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘের জরুরি পদক্ষেপ চায় বাংলাদেশ

ছবি

সীমান্ত জেলা থেকে আম কিনে লক্ষ্মীপুরে সংক্রমণ ধরা পড়ল ব্যবসায়ীর

ছবি

রাজধানীর আশপাশে, বিভিন্ন জেলায় বাড়ছে সংক্রমণ

ছবি

জনসনের টিকার অনুমোদন দিল বাংলাদেশ

ছবি

দেশে করোনায় আরও ৫০ জনের মৃত্যু,শনাক্ত ৩৩১৯

ছবি

হজ ও ওমরা নিয়ে অনিয়ম করলে বিচারের বিধান রেখে বিল পাস

ছবি

‘গার্ড অব অনার’ নারী থাকা নিয়ে আপত্তির বিষয়ে সংসদে ক্ষোভ

ছবি

আজ বর্ষার প্রথম দিন

ছবি

ঢাকায় দুই সিটিতে বসবে ২৪টি পশুর হাট

ছবি

ফাইজার ও সিনোফার্মের টিকা দেয়া আগামী সপ্তাহ থেকে শুরু :স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

tab

জাতীয়

করোনা টিকা: সেরামের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ সংসদীয় কমিটির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

রোববার, ০৯ মে ২০২১

চুক্তি নির্ধারিত সময়ে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের টিকা পাঠাতে না পারায় ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। গতকাল রোববার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির ২০তম বৈঠকে এ পরামর্শ দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি লে. কর্ণেল মুহাম্মদ ফারুক খান (অব.) সংবাদকে বলেন, “ভারতের সেরাম ইন্সটিটিউট চুক্তি অনুযায়ি আমাদের টিকা দিতে পারেনি। তারা ইউরোপিও ইউনিয়নকেও (ইইউ) চুক্তি অনুযায়ি টিকা দিতে ব্যর্থ হয়েছে বলে আমি খবরে দেখেছি। ইইউ সেরামের বিরুদ্ধে আইন পদক্ষেপ নিচ্ছে। আমরাও মন্ত্রণালয়কে সেরামের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ দিয়েছি।”

চুক্তি অনুযায়ী, সেরামের কাছ থেকে প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে ছয় মাসে তিন কোটি ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা পাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। তবে সময় মত টিকার চালান না আসায় সঙ্কটে পড়েছে বাংলাদেশ। সেরাম ইন্সটিটিউটের প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ পাওয়ার পর গত ফেব্রুয়ারিতে দেশে গণটিকাদান শুরু হয়। তবে বিশ্বজুড়ে টিকা সরবরাহ সঙ্কট শুরু হলে ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় চালানে ২০ লাখ ডোজ টিকা পাঠায় প্রতিষ্ঠানটি। ভারত সরকারের উপহার হিসেবে দুই দফায় আসে আরও ৩২ লাখ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা। এর মধ্যে এপ্রিলে সারা দেশে টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু করে বাংলাদেশ। কিন্তু নিজেদের চাহিদা মেটাতে ভারত টিকা রপ্তানি নিষিদ্ধ করলে শুরু হয় নতুন সঙ্কট। এ অবস্থায় প্রথম ডোজের টিকাদান বন্ধ রাখতে হয় সরকারকে। সরকারের হাতে এখন যে মজুদ আছে, তা দিয়ে প্রথম ডোজের সবাইকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়াও সম্ভব হবে না।

লে. কর্ণেল মুহাম্মদ ফারুক খান (অব.) সংবাদকে আরো বলেন, “দেশে প্রথম ডোজে যারা এস্ট্রাজেনেকার টিকা নিয়েছেন, দ্বিতীয় ডোজেও তারা যেনো একই টিকা নিতে পারেন, সেজন্য বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত থেকে এস্ট্রাজেনেকার টিকা পাবার জন্য জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার সুপারিশ করা হয়েছে।” তিনি বলেন, “সংসদীয় কমিটির পক্ষ থেকে গত ফেব্রুয়ারি মাসেই একাধিক সোর্স থেকে টিকা আনার কথা বলা হয়েছিল। একটি সোর্স থেকে টিকা কেন নেয়া হল, এ বিষয়েও প্রশ্ন করা হয়েছে। পরারাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা হল- এটা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিষয়। তবে তারা, এখন মাল্টিপল সোর্স থেকে টিকা আনার চেষ্টা করছে। ভারত থেকেও আশা করছে পাবে। আমেরিকা থেকে পাওয়ার চেষ্টা করছে। রাশিয়া ও চায়না থেকেও টিকা আনার প্রচেষ্টা অব্যহত আছে।”

কমিটির সভাপতি লে. কর্ণেল মুহম্মদ ফারুক খান (অব.) এর সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ. কে. আব্দুল মোমেন, নুরুল ইসলাম নাহিদ, মো. আব্দুল মজিদ খান, মো. হাবিবে মিল্লাত এবং কাজী নাবিল আহমেদ বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, ইরাকের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে চীনের সিনোফার্ম ভ্যাক্সিনের সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্যও প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়। এছাড়া, কাভিড-১৯ এর বর্তমান পরিস্থতির কারণে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বন্ধ রাখারও সুপারিশ করা হয় বৈঠকে।

বৈঠকে মে মাসের শেষ সপ্তাহের মধ্যে পররাষ্ট্র কমিটিকে ভাষানচরে রোহিঙ্গাদের অবস্থা সরেজমিনে পরিদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। ইরাকের সাথে বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদার করা এবং ইরাকে কর্মরত বাংলাদেশী মানবসম্পদকে সকল ধরনের সহযোগিতা প্রদানের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

back to top