alt

জাতীয়

রোববার সংসদে উঠছে ইসি নিয়োগের আইন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২

প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে বহুল আলোচিত খসড়া আইনটি সংসদে চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসেই উঠছে। সংসদের রোববারের দিনের কর্সসূচি থেকে এ তথ্য জানা গেছে। শনিবার এই সূচিটি প্রকাশ করেছে সংসদ সচিবালয়।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ বিল-২০২২’ রোববার সংসদে তুলে সেটি পরীক্ষার জন্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব করবেন।

সংবিধানের ১১৮ (১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য বিলটি আনা হচ্ছে। গত সোমবার প্রস্তাবিত আইনটি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেওয়া হয়।

কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি। তার আগেই নতুন কমিশন গঠন করতে হবে রাষ্ট্রপতিকে।

সেক্ষেত্রে আইনটি সংসদে তোলা থেকে পাস করে গেজেট প্রকাশের জন্য হাতে সময় রয়েছে চার সপ্তাহ।

বাংলাদেশের সংবিধানে বলা আছে, সাংবিধানিক সংস্থা ইসিতে কমিশনার নিয়োগের এখতিয়ার রাষ্ট্রপতির। আর তা একটি আইনের অধীনে হবে।

কিন্তু সেই আইন না হওয়ায় প্রতিবারই ইসি গঠনের সময় শুরু হয় বিতর্ক। তা এড়াতে ২০১২ সালে নিয়োগের সময় তৎকালীন রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান সার্চ কমিটি নামে একটি মধ্যস্থ ফোরাম তৈরি করেন।

এই পদ্ধতিতে রাষ্ট্রপতি রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে একজন বিচারপতির নেতৃত্বে বিশিষ্ট কয়েকজন নাগরিকদের নিয়ে সার্চ কমিটি গঠন করেন। ওই সার্চ কমিটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এবং নির্বাচন কমিশনার হতে যোগ্যদের নামের একটি তালিকা তৈরি করেন। সেই তালিকা থেকে একজন সিইসিসহ অনধিক পাঁচজন কমিশনার নিয়োগ দেন।

মো. আবদুল হামিদ রাষ্ট্রপতির পদে আসার পর ২০১৭ সালে জিল্লুর রহমানের সেই পদ্ধতিই অনুসরণ করেছিলেন। এবারও একই পদ্ধতিতে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি।

কিন্তু সংলাপে অংশ নেওয়া ২৫টি দলের প্রায় সবই ইসি গঠন নিয়ে সমস্যার স্থায়ী সমাধানে আইন প্রণয়নের উপরই জোর দেয়। আলোচনায় রাষ্ট্রপতিও এবিষয়ে সম্মত হন বলে দলগুলোর নেতারা জানান। বিএনপিসহ সাতটি দল অবশ্য সংলাপে অংশ নেয়নি।

ছবি

মাঝারি থেকে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা

ছবি

১৬৫ যাত্রী নিয়ে ঢাকা ছাড়ল মৈত্রী এক্সপ্রেস

ছবি

ক্ষমতাসীন দল চায় তারা যা বলবে পুলিশ তাই করবে : সাবেক আইজিপি

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয়ে সময়োপযোগী কারিকুলাম প্রণয়নের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির

ছবি

দায়িত্বে চাপ ছিল, বিদেশে চাকরির প্রলোভনও ছিল: দাবি মসিউরের

ছবি

করোনা: শনাক্ত ২৮ রোগী, ২০ জনই ঢাকার

ছবি

ক্ষমতাসীনরা চায় তারা যা বলবে পুলিশ তাই করবে: সাবেক আইজিপি

ছবি

বর্ষার আগে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগী বাড়ছে

ছবি

রাজধানীকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

মানুষ চাইলে তিন বেলা মাংস খেতে পারে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

ছবি

স্ত্রীর পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত গাফ্‌ফার চৌধুরী

ছবি

অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক রোববারের মধ্যে বন্ধ না হলে ব্যবস্থা

ছবি

কর্মমুখী শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে

ছবি

লাল সবুজের পতাকায় আবৃত গাফফার চৌধুরীর কফিনে ফুলেল শ্রদ্ধা

ছবি

শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধায় সিক্ত গাফ্‌ফার চৌধুরী

ছবি

বাংলাদেশ-ভারত জেসিসি পিছিয়েছে

ছবি

বাংলাদেশি দুই শান্তিরক্ষী পেলেন দ্যাগ হ্যামারশোল্ড পদক

ছবি

ঢাকায় পৌঁছেছে আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ

ছবি

হজের নিবন্ধন শেষ হচ্ছে আজ, খোলা থাকবে ব্যাংক

ছবি

আজ দুপুরে শহীদ মিনারে গাফফার চৌধুরীকে শেষ শ্রদ্ধা

আউয়াল কমিশনের প্রথম নির্বাচন : মাঠ পর্যায়ে যাচ্ছেন কমিশনাররা

ছবি

পদ্মা সেতু চালু হলেও বন্ধ হবে না ফেরি সার্ভিস

ছবি

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে এশীয় নেতাদের সহযোগিতা চান প্রধানমন্ত্রী

ছবি

গাফ্‌ফার চৌধুরীর মরদেহ আসছে শনিবার, দুপুরে রাখা হবে শহীদ মিনারে

ছবি

করোনা: টানা ৪ দিন মৃত্যু নেই, শনাক্ত ২৩

ছবি

৪৪তম বিসিএস প্রিলি: আসনপ্রতি লড়ছেন ২০৫ জন

ছবি

ভারত-বাংলাদেশের নতুন দরজা ‘স্বাধীনতা সড়ক’ শীঘ্রই খোলছে

সারাদেশে ৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা চলছে

ছবি

নতুন দল নিবন্ধনের জন্য আবেদন আহ্বান ইসির

ছবি

করোনা: শনাক্ত ২৮ রোগীর ১৭ জন ঢাকার

শিক্ষাক্ষেত্রে লক্ষ্য অর্জনে সমন্বিত উদ্যোগ জরুরি : শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

‘টাকা পাচারকারীরা সাধারণ ক্ষমার আওতায় আসছে’

ছবি

হজের খরচ বাড়লো আরও ৫৯ হাজার টাকা

ছবি

৭২ ঘণ্টার মধ্যে অনিবন্ধিত ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধের নির্দেশ

ছবি

‘বাংলাদেশের সভাপতিত্বে ‘সিভিএফ’ ন্যায্য কণ্ঠস্বর হিসেবে আবির্ভূত হয়’

ছবি

বাংলাদেশ থেকে দক্ষ কর্মী নিতে আগ্রহী সার্বিয়া

tab

জাতীয়

রোববার সংসদে উঠছে ইসি নিয়োগের আইন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২

প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে বহুল আলোচিত খসড়া আইনটি সংসদে চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসেই উঠছে। সংসদের রোববারের দিনের কর্সসূচি থেকে এ তথ্য জানা গেছে। শনিবার এই সূচিটি প্রকাশ করেছে সংসদ সচিবালয়।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ বিল-২০২২’ রোববার সংসদে তুলে সেটি পরীক্ষার জন্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব করবেন।

সংবিধানের ১১৮ (১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের জন্য বিলটি আনা হচ্ছে। গত সোমবার প্রস্তাবিত আইনটি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেওয়া হয়।

কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি। তার আগেই নতুন কমিশন গঠন করতে হবে রাষ্ট্রপতিকে।

সেক্ষেত্রে আইনটি সংসদে তোলা থেকে পাস করে গেজেট প্রকাশের জন্য হাতে সময় রয়েছে চার সপ্তাহ।

বাংলাদেশের সংবিধানে বলা আছে, সাংবিধানিক সংস্থা ইসিতে কমিশনার নিয়োগের এখতিয়ার রাষ্ট্রপতির। আর তা একটি আইনের অধীনে হবে।

কিন্তু সেই আইন না হওয়ায় প্রতিবারই ইসি গঠনের সময় শুরু হয় বিতর্ক। তা এড়াতে ২০১২ সালে নিয়োগের সময় তৎকালীন রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান সার্চ কমিটি নামে একটি মধ্যস্থ ফোরাম তৈরি করেন।

এই পদ্ধতিতে রাষ্ট্রপতি রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে একজন বিচারপতির নেতৃত্বে বিশিষ্ট কয়েকজন নাগরিকদের নিয়ে সার্চ কমিটি গঠন করেন। ওই সার্চ কমিটি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এবং নির্বাচন কমিশনার হতে যোগ্যদের নামের একটি তালিকা তৈরি করেন। সেই তালিকা থেকে একজন সিইসিসহ অনধিক পাঁচজন কমিশনার নিয়োগ দেন।

মো. আবদুল হামিদ রাষ্ট্রপতির পদে আসার পর ২০১৭ সালে জিল্লুর রহমানের সেই পদ্ধতিই অনুসরণ করেছিলেন। এবারও একই পদ্ধতিতে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি।

কিন্তু সংলাপে অংশ নেওয়া ২৫টি দলের প্রায় সবই ইসি গঠন নিয়ে সমস্যার স্থায়ী সমাধানে আইন প্রণয়নের উপরই জোর দেয়। আলোচনায় রাষ্ট্রপতিও এবিষয়ে সম্মত হন বলে দলগুলোর নেতারা জানান। বিএনপিসহ সাতটি দল অবশ্য সংলাপে অংশ নেয়নি।

back to top