alt

জাতীয়

যাত্রীদের চাপবৃদ্ধি

আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট চালুর সিদ্ধান্ত রেলওয়ের

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২

আন্তঃনগর ট্রেনে যাত্রীদের চাপবৃদ্ধির কারণে আবারও স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলওয়ে। করোনাভাইরাসের কারণে এতদিন বন্ধ ছিল স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি। বর্তমানে কিছু ট্রেনে ২০ শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি হয়। আগামী সপ্তাহ থেকে তা আরও বাড়ানো হবে বলে রেলওয়ে সূত্র জানায়।

এ বিষয়ে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সংবাদকে বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার রেলভবনে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে কত শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট দেয়া হবে তা এখনও ঠিক হয়নি। বর্তমানে কিছু ট্রেনে ২০ শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট দেয়া হয়। এর থেকে কিছু বাড়তে পারে বলে জানান তিনি।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে গত দুই বছর সব আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি বন্ধ রয়েছে। টিকেট বিক্রি বন্ধ থাকলেও অনেক যাত্রী দাঁড়িয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু তারা ভাড়া দিচ্ছেন না। যাত্রীদের চাপবৃদ্ধির কারণে এটা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। অনেক যাত্রী টিকেট ছাড়াই যাতায়াত করে। জরিমানা করতে গেলে বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়। তাই বৃহস্পতিবার (১২ মে) এক বৈঠকে সব আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কত শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট দেয়া হবে, তা আগামী সপ্তাহে নির্ধারণ করা হবে বলে রেলওয়ে কর্মকর্তারা জানান।

সারাদেশে আন্তঃনগর ট্রেন রয়েছে ১০৪টি- এর মধ্যে ৫০টি পূর্বাঞ্চলে আর পশ্চিমাঞ্চলে ৫৪টি। তাছাড়া মেইল ১২৭টি, লোকাল ১২০টি। সব মিলিয়ে ১৫৯টি ট্রেন রয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারীর প্রথম বছর ‘লকডাউনে’ ৬৭ দিন বন্ধ থাকে ট্রেন চলাচল। ওই বছর ৩১ মে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে ট্রেনে যাত্রীবহন শুরু হয়। সংক্রমণ কমে এলে ওই বছরের সেপ্টেম্বরেই সব আসনে যাত্রীবহন শুরু হয়। কিন্তু দাঁড়িয়ে যাত্রী তোলা বন্ধে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি বন্ধ রাখা হয়।

এখন সবকিছু আবার স্বাভাবিক হয়ে আসায় মানুষের যাতায়াতের প্রয়োজনও বেড়েছে। কিন্তু স্ট্যান্ডিং টিকেট বন্ধ রাখায় জরুরি প্রয়োজনে বৈধভাবে ট্রেনে যাত্রার সুযোগ হচ্ছে না। তাতে বিনা টিকেটের যাত্রী আবার বাড়ছে, আর তাতে ট্রেনের কিছু কর্মীর পকেট ভরছে।

ওই অনিয়ম বন্ধ করতে না পারার যুক্তি দেখিয়েই এখন আবার স্ট্যান্ডিং টিকেট ফিরিয়ে আনা হচ্ছে আন্তঃনগর ট্রেনে। তবে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামসহ অন্য গন্তব্যে সরাসরি চলাচল করে এমন আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি করা হবে না বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান।

ছবি

‘ইভিএমে কারচুপির সুযোগ নেই, তবে শতভাগ বিশ্বাস করা যাবে না’

ছবি

গাফফার চৌধুরীর মরদেহ দেশে আসছে শনিবার

ছবি

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

ছবি

সরকারি টাকায় শিক্ষাসফর, দেশে ফিরেই গেলেন অবসরে

ছবি

উন্নয়ন প্রকল্পে পরিবেশ রক্ষার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

৫ লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন হাদিসুরের পরিবার

ছবি

করোনা: শনাক্ত কমে ৩০, ঢাকায় ১৯

ছবি

ইভিএম ভার্চুয়ালি ম্যানুপুলেট করা অসম্ভব: জাফর ইকবাল

ছবি

জাতীয় কবির সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন

ছবি

ইভিএম বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে বৈঠকে ইসি

ছবি

জাতীয় কবির জন্মদিন আজ

জাতিসংঘ বাংলাদেশের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম অ্যাসেসমেন্ট রিপোর্ট প্রকাশ করেছে

ছবি

ইভিএম নিয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেয়নি ইসি

ছবি

পদ্মা সেতু : আলো জ্বলবে জুনের প্রথম সপ্তাহে

ছবি

প্রত্যাবাসনের অনিশ্চয়তায় রোহিঙ্গারা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়াচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

৫ জুন থেকে হজ ফ্লাইট শুরু

ছবি

করোনা: মৃত্যুশূন্য দেশ, শনাক্ত বেড়ে ৩৪

ছবি

ভোট রাতে হবে না, এটা স্পষ্ট করে বলতে চাই: সিইসি

ছবি

পদ্মা সেতুই থাকছে নাম, উদ্বোধন ২৫ জুন

ছবি

আমদানি কমাতে ৬৮ পণ্যে বাড়তি শুল্কারোপ

ছবি

প্রথম হজ ফ্লাইট ৫ জুন চায় ধর্ম মন্ত্রণালয়

রাশিয়ার তেল বিক্রির প্রস্তাব পর্যালোচনা করা হচ্ছে : জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

ছবি

হজ ব্যবস্থাপনা সফলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ৯ নির্দেশনা

ছবি

করোনা: ৩৪ দিন পর মৃত্যু ২, শনাক্ত ৩১

ছবি

বাংলাদেশের কাছে তেল বিক্রির প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া: প্রতিমন্ত্রী

ছবি

আঞ্চলিক সংকট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর ৫ প্রস্তাব

ছবি

হজের নিবন্ধনের সময় আরও বাড়ল

ছবি

১ জুন থেকে বিমানের ওয়েব চেক-ইন শুরু

লাভের মুখ দেখছে সরকারি ৫ বিদ্যুৎ উৎপাদন কোম্পানি

ছবি

ভবিষ্যৎ মহামারী মোকাবেলায় বৈশ্বিক চুক্তিতে পৌঁছার আহ্বান

ছবি

আফগানিস্তানকে ১ কোটি টাকা অনুদান দিচ্ছে বাংলাদেশ

ছবি

মুজিববর্ষের সকল প্রকাশনা বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে হস্তান্তর

ছবি

করোনা: শনাক্ত ২৯, ঢাকায় ২৬

বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ নিয়ে উদ্বেগ ইইউ’র

ছবি

এলাকার বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী উন্নয়ন পরিকল্পনা নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

অস্ট্রেলিয়ার নব নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন

tab

জাতীয়

যাত্রীদের চাপবৃদ্ধি

আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট চালুর সিদ্ধান্ত রেলওয়ের

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২

আন্তঃনগর ট্রেনে যাত্রীদের চাপবৃদ্ধির কারণে আবারও স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলওয়ে। করোনাভাইরাসের কারণে এতদিন বন্ধ ছিল স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি। বর্তমানে কিছু ট্রেনে ২০ শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি হয়। আগামী সপ্তাহ থেকে তা আরও বাড়ানো হবে বলে রেলওয়ে সূত্র জানায়।

এ বিষয়ে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সংবাদকে বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার রেলভবনে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে কত শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট দেয়া হবে তা এখনও ঠিক হয়নি। বর্তমানে কিছু ট্রেনে ২০ শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট দেয়া হয়। এর থেকে কিছু বাড়তে পারে বলে জানান তিনি।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে গত দুই বছর সব আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি বন্ধ রয়েছে। টিকেট বিক্রি বন্ধ থাকলেও অনেক যাত্রী দাঁড়িয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু তারা ভাড়া দিচ্ছেন না। যাত্রীদের চাপবৃদ্ধির কারণে এটা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। অনেক যাত্রী টিকেট ছাড়াই যাতায়াত করে। জরিমানা করতে গেলে বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়। তাই বৃহস্পতিবার (১২ মে) এক বৈঠকে সব আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কত শতাংশ স্ট্যান্ডিং টিকেট দেয়া হবে, তা আগামী সপ্তাহে নির্ধারণ করা হবে বলে রেলওয়ে কর্মকর্তারা জানান।

সারাদেশে আন্তঃনগর ট্রেন রয়েছে ১০৪টি- এর মধ্যে ৫০টি পূর্বাঞ্চলে আর পশ্চিমাঞ্চলে ৫৪টি। তাছাড়া মেইল ১২৭টি, লোকাল ১২০টি। সব মিলিয়ে ১৫৯টি ট্রেন রয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারীর প্রথম বছর ‘লকডাউনে’ ৬৭ দিন বন্ধ থাকে ট্রেন চলাচল। ওই বছর ৩১ মে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে ট্রেনে যাত্রীবহন শুরু হয়। সংক্রমণ কমে এলে ওই বছরের সেপ্টেম্বরেই সব আসনে যাত্রীবহন শুরু হয়। কিন্তু দাঁড়িয়ে যাত্রী তোলা বন্ধে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি বন্ধ রাখা হয়।

এখন সবকিছু আবার স্বাভাবিক হয়ে আসায় মানুষের যাতায়াতের প্রয়োজনও বেড়েছে। কিন্তু স্ট্যান্ডিং টিকেট বন্ধ রাখায় জরুরি প্রয়োজনে বৈধভাবে ট্রেনে যাত্রার সুযোগ হচ্ছে না। তাতে বিনা টিকেটের যাত্রী আবার বাড়ছে, আর তাতে ট্রেনের কিছু কর্মীর পকেট ভরছে।

ওই অনিয়ম বন্ধ করতে না পারার যুক্তি দেখিয়েই এখন আবার স্ট্যান্ডিং টিকেট ফিরিয়ে আনা হচ্ছে আন্তঃনগর ট্রেনে। তবে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামসহ অন্য গন্তব্যে সরাসরি চলাচল করে এমন আন্তঃনগর ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকেট বিক্রি করা হবে না বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান।

back to top