alt

জাতীয়

কৃষি ও শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখা হবে : আশ্বাস জ্বালানি উপদেষ্টার

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ০৪ আগস্ট ২০২২

বিশ্বব্যাপী জ্বালানি খাতের অস্থিরতার দিকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম বলেছেন, বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের সিদ্ধান্ত হচ্ছে কৃষি ও শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখা হবে। তিনি বলেন, ‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা বিশ্বে খারাপ অবস্থা। আমাদের দেশেও মুক্তিযুদ্ধের মতো সংকট চলছে। তাই সবাইকে এ দুঃসময়ে একটু ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। কষ্ট সহ্য করতে হবে। দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।’

এফবিসিসিআই-এর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রাজধানীর মতিঝিলে সংগঠনোর নিজস্ব ভবনে ‘টেকসই উন্নয়নে জ্বালানি নিরাপত্তা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে জ্বালানি উপদেষ্টা এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশের শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

ব্যবসায়ীদের পক্ষে এফবিসিসিআই সভাপতি দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর অস্তিত্ব রক্ষায় লো-কস্ট (স্বল্প ব্যয়ে) জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান। সেই সঙ্গে সরকারের লং-টার্ম (দীর্ঘমেয়াদি) কয়লাভিত্তিক জ্বালানিতে যাওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, ‘নর্থ বেঙ্গলে কয়লা খনি আছে। কিন্তু সেখানে কয়লা তুলতে গিয়ে কৃষি জমি নষ্ট হচ্ছে। তাই কয়লা আমদানি করতে হচ্ছে। মায়ানমার যে কোম্পানিকে গ্যাস উত্তোলনের কাজ দিয়েছে আমরা তাদের ডেকেছি গ্যাসের কূপ খনন করার জন্য।’

জ্বালানি উপদেষ্টা বলেন, ‘ইউরোপীয় ইউনিয়নের লোকেরা এসে নীতিবাক্য শুনায়। কিন্তু তারা যুদ্ধ থামাতে পারে না কেন। আমাদের অনেক কষ্ট হচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘কৃষি ও শিল্পকে অগ্রাধিকার দিচ্ছি। গ্যাসের চাপ সমাধান করতে চাই, বিদ্যুতের লোডশেডিং সমাধান করতে চাই। তবে প্রতিশ্রুতি দিতে পারছি না যে এই মুহূর্তে এসব সমস্যা সমাধান হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব বলেন, ‘কয়লা, গ্যাস, তেল এসব একই পণ্য; একটার দাম বাড়ল অন্যটার দাম বেড়ে যায়। আমরা এসব পণ্য আমদানি করে থাকি। বিশ্ব বাজারের কারণে একটু সমস্যা হয়েছে আমাদের। এই সংকট শুধু বাংলাদেশে নয়, বিশ্বব্যাপী মূল্যস্ফীতি বেড়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘শিল্প এলাকায় লোডশেডিং হওয়ার কথা নয়। তবে বাসাবাড়ির কাছাকাছি হওয়ায় হয়তো এটা হচ্ছে, এটা দেখা হবে।’

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘পরিবেশ ধ্বংস না করেও উচ্চ প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে কয়লাভিত্তিক জ্বালানি উৎপাদন করা যেতে পারে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত কয়লা বিদ্যুৎ থেকে জ্বালানির একটা বিরাট অংশের চাহিদা মেটাচ্ছে।’

টেকসই উন্নয়নের জন্য জ্বালানি নিরাপত্তাবিষয়ক এই সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক বুয়েটের অধ্যাপক ইজাজ হোসেন বলেন, দ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশে মোট বিদ্যুৎ কনজাম্পশন হয়েছে ৭১ হাজার ৪৭১ মিলিয়ন কিলোওয়াট। এর মধ্যে শিল্প-কারখানায় ২৮.৪০ শতাংশ, কৃষিতে ২.৪৩ শতাংশ, বাণিজ্যিকে ১০.৫৮ শতাংশ, বাসাবাড়িতে (ডোমেস্টিকস) ৫৬.৫৪ শতাংশ ও অন্যান্যতে ২.১৬ শতাংশ বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হয়েছে।’

আট বছর হাজত বাসে, কাশ্মির থেকে ৮ বাংলাদেশীকে হস্তান্তর

সাপ্তাহিক ছুটি কোন শিল্পাঞ্চলে কবে

ছবি

সুইস ব্যাংকের কাছে অর্থ পাচারকারীদের তথ্য চেয়েছে কিনা জানতে চায় হাইকোর্ট

ছবি

সুইস ব্যাংক নিয়ে রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য মিথ্যা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

নৌপথে পণ্য পরিবহনে ভাড়া বাড়ল ১৫-২২ শতাংশ

ছবি

শিল্পাঞ্চলে এলাকাভিত্তিক সাপ্তাহিক ছুটির প্রজ্ঞাপন জারি

ছবি

দুর্যোগে পড়ালেখায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত সুনামগঞ্জের শিশুরা

ছবি

করোনা: একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৪

ছবি

লঞ্চ ভাড়া বাড়াতে গঠিত ওয়ার্কিং কমিটির প্রস্তাব জমা

ছবি

সংসদের ১৯তম অধিবেশন শুরু ২৮ আগস্ট

ছবি

সরকারি ওষুধ চুরি করে বিক্রি করলে ১০ বছর জেল

ছবি

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে ৮০ শতাংশ পরিবার ‘ফ্যামিলি কার্ড’ থেকে বঞ্চিত হয়েছে: টিআইবির গবেষণা

ছবি

এক সপ্তাহের মধ্যে তেলের দাম সমন্বয় হবে

ছবি

সুইস ব্যাংকে অর্থপাচার : তথ্য না জানার কারণ জানতে চান হাইকোর্ট

ছবি

ফেইসবুক-গুগলে কত টাকার বিজ্ঞাপন, জানতে চায় সরকার

ছবি

বাংলাদেশ-ভারত প্রতিরক্ষা সংলাপ আজ

ছবি

এক কোটি পরিবারে কম দামে খাদ্য বিতরণের উদ্যোগ

ছবি

ডিএন‌সি‌সি ও রোটা‌রি ইন্টারন্যাশনাল যুব সমা‌জের জন্য কাজ কর‌বে

ছবি

প্রাথমিকের ১৬ শিক্ষার্থী পরীক্ষামূলক টিকা পাবে আজ

ছবি

দামবৃদ্ধি : সংকটে পাঠ্যবই মুদ্রণ কাজ

সবক্ষেত্রে ভুর্তকি দেয়া যায় না : মন্ত্রী তাজুল

ছবি

রাজধানীর গণপরিবহনে থাকছে না ওয়েবিল-চেকার

ছবি

আনারকলির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তির কথা ভাবছে মন্ত্রণালয়

ছবি

তেলের দাম বাড়লে সবকিছুর দামই বাড়ে: অর্থমন্ত্রী

ছবি

করোনা: একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৮

ছবি

সুইস ব্যাংকের কাছে তথ্য চায়নি বাংলাদেশ: রাষ্ট্রদূত নাথালি

ছবি

হঠাৎ সাগরে লঘুচাপ, জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা ১৫ জেলায়

ছবি

আদিবাসীদের বিলুপ্ত করার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে অভিযোগ সন্তু লারমার

ডেঙ্গুতে আরও ৫৩ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে

পরিকল্পনামন্ত্রী বললেন, অর্থের ঘাটতিতে কিছুটা অসুবিধায় আছি

ছবি

ঢামেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতির হুমকি

ছবি

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় আহত লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইসমাইল হোসেন মারা গেছেন

ছবি

সরকারের প্রতি টিআইবি : কর ফাঁকি ও অর্থপাচার রোধে ‘কমন রিপোর্টিং স্ট্যান্ডার্ড’ অবলম্বন করুন

ছবি

করোনায় ১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৯

ছবি

ফজিলাতুন নেছা মুজিব নারীদের জন্য অনুপ্রেরণা : স্পিকার

tab

জাতীয়

কৃষি ও শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখা হবে : আশ্বাস জ্বালানি উপদেষ্টার

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ০৪ আগস্ট ২০২২

বিশ্বব্যাপী জ্বালানি খাতের অস্থিরতার দিকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম বলেছেন, বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের সিদ্ধান্ত হচ্ছে কৃষি ও শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখা হবে। তিনি বলেন, ‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা বিশ্বে খারাপ অবস্থা। আমাদের দেশেও মুক্তিযুদ্ধের মতো সংকট চলছে। তাই সবাইকে এ দুঃসময়ে একটু ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। কষ্ট সহ্য করতে হবে। দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।’

এফবিসিসিআই-এর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রাজধানীর মতিঝিলে সংগঠনোর নিজস্ব ভবনে ‘টেকসই উন্নয়নে জ্বালানি নিরাপত্তা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে জ্বালানি উপদেষ্টা এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশের শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

ব্যবসায়ীদের পক্ষে এফবিসিসিআই সভাপতি দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোর অস্তিত্ব রক্ষায় লো-কস্ট (স্বল্প ব্যয়ে) জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান। সেই সঙ্গে সরকারের লং-টার্ম (দীর্ঘমেয়াদি) কয়লাভিত্তিক জ্বালানিতে যাওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, ‘নর্থ বেঙ্গলে কয়লা খনি আছে। কিন্তু সেখানে কয়লা তুলতে গিয়ে কৃষি জমি নষ্ট হচ্ছে। তাই কয়লা আমদানি করতে হচ্ছে। মায়ানমার যে কোম্পানিকে গ্যাস উত্তোলনের কাজ দিয়েছে আমরা তাদের ডেকেছি গ্যাসের কূপ খনন করার জন্য।’

জ্বালানি উপদেষ্টা বলেন, ‘ইউরোপীয় ইউনিয়নের লোকেরা এসে নীতিবাক্য শুনায়। কিন্তু তারা যুদ্ধ থামাতে পারে না কেন। আমাদের অনেক কষ্ট হচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘কৃষি ও শিল্পকে অগ্রাধিকার দিচ্ছি। গ্যাসের চাপ সমাধান করতে চাই, বিদ্যুতের লোডশেডিং সমাধান করতে চাই। তবে প্রতিশ্রুতি দিতে পারছি না যে এই মুহূর্তে এসব সমস্যা সমাধান হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব বলেন, ‘কয়লা, গ্যাস, তেল এসব একই পণ্য; একটার দাম বাড়ল অন্যটার দাম বেড়ে যায়। আমরা এসব পণ্য আমদানি করে থাকি। বিশ্ব বাজারের কারণে একটু সমস্যা হয়েছে আমাদের। এই সংকট শুধু বাংলাদেশে নয়, বিশ্বব্যাপী মূল্যস্ফীতি বেড়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘শিল্প এলাকায় লোডশেডিং হওয়ার কথা নয়। তবে বাসাবাড়ির কাছাকাছি হওয়ায় হয়তো এটা হচ্ছে, এটা দেখা হবে।’

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘পরিবেশ ধ্বংস না করেও উচ্চ প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে কয়লাভিত্তিক জ্বালানি উৎপাদন করা যেতে পারে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত কয়লা বিদ্যুৎ থেকে জ্বালানির একটা বিরাট অংশের চাহিদা মেটাচ্ছে।’

টেকসই উন্নয়নের জন্য জ্বালানি নিরাপত্তাবিষয়ক এই সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক বুয়েটের অধ্যাপক ইজাজ হোসেন বলেন, দ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশে মোট বিদ্যুৎ কনজাম্পশন হয়েছে ৭১ হাজার ৪৭১ মিলিয়ন কিলোওয়াট। এর মধ্যে শিল্প-কারখানায় ২৮.৪০ শতাংশ, কৃষিতে ২.৪৩ শতাংশ, বাণিজ্যিকে ১০.৫৮ শতাংশ, বাসাবাড়িতে (ডোমেস্টিকস) ৫৬.৫৪ শতাংশ ও অন্যান্যতে ২.১৬ শতাংশ বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হয়েছে।’

back to top