alt

জাতীয়

সংকটময় পরিস্থিতির মধ্যে নেই বাংলাদেশ : আইএমএফ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২

‘বাংলাদেশ কোনো সংকটময় পরিস্থিতির মধ্যে নেই। দেশটির বাহ্যিক অবস্থান এ অঞ্চলের বিভিন্ন দেশের থেকে খুব আলাদা, যার সুফল পায় বাংলাদেশ।’ এমন মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিভাগের বিভাগীয় প্রধান রাহুল আনান্দ।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) এক অনলাইন সম্মেলনে আইএমএফের এ কর্মকর্তা বাংলাদেশের বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিফ করতে গিয়ে এসব কথা বলেন।

রাহুল আনান্দ বলেন, ‘বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণ তুলনামূলক কম। সেটা জিডিপির ১৪ শতাংশের কাছাকাছি। বাংলাদেশের ঋণ সংকটের ঝুঁকিও কম। দেশটির এ সংক্রান্ত পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কার থেকে অনেক আলাদা। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশকে কোনোভাবেই মেলানো যাবে না।’

আইএমএফের কাছে বাংলাদেশ সরকারের ঋণ আবেদনের বিষয়টি ‘প্রাক-অনুরোধমূলক’ বলেও জানিয়েছেন আইএমএফের এ কর্মকর্তা।

এ প্রসঙ্গে রাহুল আনান্দ বলেন, ‘বাংলাদেশের ঋণের অনুরোধটি প্রাক-অনুরোধমূলক (প্রি-এমপেটিভ)। রিজার্ভ কমে যাওয়ার প্রেক্ষিতে দেশটি সম্প্রতি কয়েক দফা মুদ্রার অবমূল্যায়নের সম্মুখীন হয়েছে। তবে রিজার্ভ কমে গেলেও চার থেকে পাঁচ মাসের সম্ভাব্য আমদানি কভার করার মতো মজুত এখনো দেশটির রয়েছে, যা যথেষ্ট বেশি।’

ছবি

টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা

ছবি

র‌্যাবে নিষেধাজ্ঞা : যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

ইলিশ রপ্তানিতে আয় ১৪১ কোটি টাকা : মৎস্যমন্ত্রী

ছবি

মাইজিপি অ্যাপের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানার সুযোগ

ছবি

বাংলাদেশ সন্ত্রাস দমন করায় যুক্তরাষ্ট্র নাখোশ? প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

বেসরকারি হাসপাতালের ফি নির্ধারণ করছে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ছবি

আন্ডার ফ্রিকোয়েন্সির কারণে বিদ্যুৎ বিপর্যয়: নসরুল হামিদ

ছবি

করোনা: শনাক্ত কমে ৪১০, ঢাকায় ২৮৪

ছবি

বিদায় নেওয়ার জন্য আমি প্রস্তুত: শেখ হাসিনা

ছবি

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী

ছবি

হজের প্রাক-নিবন্ধনে মানতে হবে যে নিয়ম

ছবি

ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞায় বিমান বাহিনীও দায়িত্ব পালন করবে

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন বিকেলে

ছবি

বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঠেকাতে প্রয়োজন স্মার্ট গ্রিড

জাতিসংঘে একাত্তরে গণহত্যার স্বীকৃতি দাবি

ছবি

বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহতের তদন্ত চান জাতিসংঘ মহাসচিব

ছবি

পদ্মা সেতু হয়ে শুক্রবার টুঙ্গিপাড়া যাবেন রাষ্ট্রপতি

ছবি

মিনিকেট নামে চাল বিক্রি করা যাবে না: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

ছবি

করোনা: একদিনে শনাক্ত ৫৪৯, মৃত্যু ২

ছবি

দেশে বুস্টার ডোজ পেলেন সাড়ে পাঁচ কোটির বেশি মানুষ

ছবি

বিশ্ব শিক্ষক দিবস আজ

ছবি

বিজয়া দশমী আজ

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আগামীকাল

গ্রিড বিপর্যয়ের কারণ খুজতে তদন্ত কমিটি : বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ

ছবি

বিদ্যুৎবিহীন ঢাকাসহ দেশের বড় অংশ

সমতা নিশ্চিতে কন্যাশিশুর অধিকার রক্ষা করতে হবে: ফজিলাতুন নেসা

জাপান সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

দুই বাসের রেষারেষি: প্রাণ হারান যুবলীগ নেতা ফারুক

ছবি

‘এই নারী প্রকৃতই একজন শক্তি’

বিশ্ব শিক্ষক দিবস কাল

এ মাসে ঢাকা আসবেন ব্রুনাইয়ের সুলতান

সরকারি সফরে সুইজারল্যান্ড গেলেন সেনাবাহিনী প্রধান

বাংলাদেশী ৩ শান্তিরক্ষী নিহত, আহত ১

ছবি

করোনা: নতুন শনাক্ত ৬৫৭, মৃত্যু ১

ছবি

বিদ্যুৎ বিপর্যয়: এটিএম সেবা বিঘ্নে ভোগান্তি

ছবি

বিদ্যুৎ বিপর্যয়: ডিজেলের জন্য ফিলিং স্টেশনগুলোতে দীর্ঘ লাইন

tab

জাতীয়

সংকটময় পরিস্থিতির মধ্যে নেই বাংলাদেশ : আইএমএফ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২

‘বাংলাদেশ কোনো সংকটময় পরিস্থিতির মধ্যে নেই। দেশটির বাহ্যিক অবস্থান এ অঞ্চলের বিভিন্ন দেশের থেকে খুব আলাদা, যার সুফল পায় বাংলাদেশ।’ এমন মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিভাগের বিভাগীয় প্রধান রাহুল আনান্দ।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) এক অনলাইন সম্মেলনে আইএমএফের এ কর্মকর্তা বাংলাদেশের বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিফ করতে গিয়ে এসব কথা বলেন।

রাহুল আনান্দ বলেন, ‘বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণ তুলনামূলক কম। সেটা জিডিপির ১৪ শতাংশের কাছাকাছি। বাংলাদেশের ঋণ সংকটের ঝুঁকিও কম। দেশটির এ সংক্রান্ত পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কার থেকে অনেক আলাদা। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশকে কোনোভাবেই মেলানো যাবে না।’

আইএমএফের কাছে বাংলাদেশ সরকারের ঋণ আবেদনের বিষয়টি ‘প্রাক-অনুরোধমূলক’ বলেও জানিয়েছেন আইএমএফের এ কর্মকর্তা।

এ প্রসঙ্গে রাহুল আনান্দ বলেন, ‘বাংলাদেশের ঋণের অনুরোধটি প্রাক-অনুরোধমূলক (প্রি-এমপেটিভ)। রিজার্ভ কমে যাওয়ার প্রেক্ষিতে দেশটি সম্প্রতি কয়েক দফা মুদ্রার অবমূল্যায়নের সম্মুখীন হয়েছে। তবে রিজার্ভ কমে গেলেও চার থেকে পাঁচ মাসের সম্ভাব্য আমদানি কভার করার মতো মজুত এখনো দেশটির রয়েছে, যা যথেষ্ট বেশি।’

back to top