alt

জাতীয়

ফিরলো সোনার মেয়েরা, জনস্রোতে বরণ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/21Sep22/news/pic-1%20%281%29.jpg

চ্যাম্পিয়নরা রাজপথে ছাদখোলা বাসে জয়-যাত্রায়, জনতার উষ্ণ সংবর্ধনা, ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত। বুধবার দেশবাসী বিজয়ীদের এভাবে বরণ করে নেয় -সোহরাব আলম

নেপালে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নের ট্রফি নিয়ে বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছে ইতিহাস গড়া বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। বিমান থেকে নামার পর তাদের গলায় ফুলের মালা ও উত্তরীয় দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন সাবিনা-সানজিদারা। সেই সঙ্গে ছাদখোলা বাসে চড়ে সংবর্ধনা পাওয়ার ইচ্ছেও পূরণ হয়।

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/21Sep22/news/pic-2%20%281%29.jpg

বিমানবন্দরে তাদের ফুলেল সংবর্ধনা জানান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্তাসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা। আর বিমানবন্দরের বাইরে থেকে বাফুফে পর্যন্ত রাস্তায় রাস্তায় দল-মত নির্বিশেষে হাজারো মানুষ উষ্ণ স্বাগত জানায় এই সোনার মেয়েদের ।

বুধবার দুপুরের বেশ আগে থেকে বিমানবন্দরের বাইরে সমর্থকরা ভিড় করতে শুরু করে। জনস্রোত রূপ নেয় জনজোয়ারে। মানুষের হাতে হাতে জাতীয় পতাকা ও ব্যানার, কণ্ঠে ছিল স্লোগান। সুসজ্জিত ব্যান্ড দল বাজাতে থাকে ‘জয় বাংলা, বাংলার জয়।’ বিমানবন্দরের ভেতরে তখন জয়ের গৌরব নিয়ে দেশে ফেরা নারী ফুটবল দলের প্রত্যেককে স্বাগত জানানো হয় ফুলের মালায়।

‘নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে’ ইতিহাস গড়া সাফল্য নিয়ে বাংলাদেশ দল কাঠমান্ডু থেকে ঢাকায় পা রাখে দুপুর দেড়টার দিকে। এ সময় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বাফুফের সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ ও অন্য কর্মকর্তারা ফুল দিয়ে বরণ করে নেন সাফ শিরোপা বিজয়ী সাবিনা-মারিয়া-কৃষ্ণাদের।

বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিজয়ীদের সৌজন্যে কেক কাটা হয়। প্রতিমন্ত্রী কেক তুলে দেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের মুখে। সাবিনা শুধু শিরোপাজয়ী অধিনায়কই নন, তিনি টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় ও সর্বোচ্চ গোল স্কোরারও। বিজয়ী নারীদের কারিগর কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনকেও কেক খাইয়ে দেয়া হয়। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলে বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা।

এরপর ক্রীড়ামন্ত্রী একে একে দলের প্রত্যেক খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফের গলায় পরিয়ে দেন ফুলের মালা। এরপর দু’হাতে ট্রফি উঁচিয়ে বিজয়ের হাসিতে এগিয়ে যান অধিনায়ক সাবিনা। তাকে অনুসরণ করেন পুরো দল।

বিমানবন্দরের বাইরে তখন অপেক্ষমাণ হাজারো জনতা। বিকেএসপির একটি বড় দলও দেখা যায় সেখানে লাইন ধরে অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে মেয়েদের বরণ করতে প্রস্তুত।

বিমানবন্দরের বাইরে অপেক্ষায় মেয়েদের সেই স্বপ্নযাত্রার বাহন, ‘ছাদখোলা বাস।’ সেই বাসে উঠার সময়ও মেয়েদের আবার ফুল ছিটিয়ে বরণ করা হয়। স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত ছিল পুরো বিমানবন্দর এলাকা।

সাফ জয়ীদের নিয়ে বিকেল সাড়ে ৩টায় ছাদখোলা বাসে শোভাযাত্রা শুরু হয়। এ সময় সাবিনাদের ঘিরে রাখেন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। রাস্তার দুই পাশে সাফ বিজয়ীদের দেখে জনগণ হাত নেড়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে থাকেন। সাবিনারাও হাসিমুখে হাত নেড়ে তাদের প্রতিক্রিয়া দেখান। খোলা ছাদের বাসে সামনে ট্রফি হাতে ছিলেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। তার পাশে সানজিদা, মাসুরা পারভীনরা।

‘ছাদখোলা বাস’টি শহরের বিভিন্ন প্রান্ত প্রদক্ষিণ করে পৌঁছে মতিঝিলে বাফুফে (বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন) ভবনে। বিমানবন্দর থেকে বাসটি কাকলী, জাহাঙ্গীর গেট, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বিজয় সরণি, তেজগাঁও, মৌচাক, কাকরাইল, আরামবাগ, মতিঝিল শাপলা চত্বর হয়ে বাফুফে ভবনে পৌঁছে। সেখানে ইতিহাস গড়া মেয়েদের বরণ করে নেয়ার আনুষ্ঠানিকতা ছিল আগে থেকেই। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন অভ্যর্থনা জানান সাবিনাদের।

এর আগে নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ফেরার পথে ফ্লাইটেও এক দফায় উদ্যাপন হয়। সেখানে দলকে অভিনন্দন জানানো হয় বাংলাদেশ বিমানের পক্ষ থেকে। সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার ও বিমানের ক্রু সানোয়ার হোসেন মিষ্টিমুখ করান বিজয়ীদের। বিমানেও কেক কাটার পর্ব ছিল।

জনতার স্রোতে বিমানবন্দরে নির্ধারিত সংবাদ সম্মেলন করতে পারেনি চ্যাম্পিয়ন দল। তবে বের হওয়ার সময় সংবাদমাধ্যমে অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন দলের অধিনায়ক সাবিনা।

তিনি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আমাদের জন্য দোয়া করবেন। বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষ বলুন বা ১৮ কোটি কিংবা ২০ কোটি এই ট্রফি বাংলাদেশের সব মানুষের। আমাদের এত সুন্দর করে বরণ করে নেয়ার জন্য আমরা অনেক কৃতজ্ঞ।’

সাবিনা আরও বলেন, ‘মন্ত্রী মহোদয় ও ফেডারেশনের যারা এসেছেন, সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশের মেয়েদের, বাংলাদেশের ফুটবল যে আপনারা এত ভালোবাসেন, এসব দেখে আমরা অনেক অনেক গর্বিত।’

দামাল মেয়েদের স্বাগত জানাতে বনানী কাকলী ওভারব্রিজের কাছে দাঁড়িয়েছেন শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল। তিনি বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে। বিশেষত মেয়েদের জন্য।’ অনেকক্ষণ অপেক্ষা করতে হচ্ছে দেখে তিনি একজনকে বললেন, ‘ওরা ওখান থেকে (বিমানবন্দর) ভিড়ে বেরিয়ে আসতে পারছে না হয়তো। বনানীর রাস্তায় ফুট ওভারব্রিজ ছাড়িয়ে রাস্তার মাঝখান পর্যন্ত অপেক্ষমাণ মানুষ।’

মামাকে সঙ্গে নিয়ে মিরপুর থেকে বরণ করতে এসেছে দুই জমজ ভাই সিয়াম খন্দকার আর নিয়াম খন্দকার। দুজনই ৯ম শ্রেণীর ছাত্র। নিয়াম সিয়ামের মামা মেঘদীপ বলেন, ওদের জেদেই তিনি এসেছেন। এসে এত লোক দেখে খুব ভালো লাগছে। না আসলে মানুষের মধ্যে এমন আবেগ জানতে পারতাম না।’

গত ১৯ সেপ্টেম্বর নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা জেতে বাংলাদেশ। স্মরণীয় ও ঐতিহাসিক এই জয়ে শামসুন্নাহার করেন একটি গোল। আর দুটি গোল করেন কৃষ্ণা রানী সরকার।

তোয়াব খানের দাফন আজ

যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী

ছবি

মায়ানমার সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে রোহিঙ্গা শরণার্থীর মৃত্যু

জাতিসংঘের ই-গভর্নমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্সে ৮ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ

ছবি

গরমে মানুষ হারাচ্ছে কর্মক্ষমতা, বছরে ঢাকায় ক্ষতি ৬শ’ কোটি ডলার

জেনোসাইডের স্বীকৃতির জন্য ‘এগ্রেসিভ ডিপ্লোমেসি’ প্রয়োজন

ছবি

একদিন ছুটি নিলেই মিলবে টানা ৫ দিনের ছুটি

ছবি

করোনা: একজনের মৃত্যু, নতুন রোগী ৫৩৫

ছবি

র‌্যাব সবসময়ই সংস্কারের মধ্যেই আছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

উৎপাদনশীলতা বাড়াতে পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

জাতীয় পথশিশু দিবস আজ

ছবি

নামজারির দুই ফি শুধু অনলাইনে

ছবি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার, বেশি অভিযোগ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে

ছবি

করোনা: একদিনে মৃত্যু ৫, নতুন রোগী ৪৮০

ছবি

বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা চলছে

ছবি

সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশের দেয়া তথ্য সঠিক নয়: ইলিয়াস কাঞ্চন

ছবি

তোয়াব খানর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ছবি

র‍্যাব সংস্কারের প্রশ্নই ওঠে না: র‍্যাব ডিজি

আজ থেকে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু

ছবি

আট মাসে ধর্ষণের শিকার ৫৭৪ কন্যাশিশু

৯ মাসে রাজনৈতিক সহিংসতায় নিহত ৫৮

ছবি

সেপ্টেম্বরে অর্ধশতাধিক রাজনৈতিক সহিংসতা

ছবি

৮ মাসে ৫৭৪ শিশু ধর্ষণ, বাল্যবিয়ে ২৩০১ জনের: প্রতিবেদন

ছবি

আইজিপির দায়িত্ব নিলেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন

ছবি

করোনা: দৈনিক শনাক্ত ফের ৭০০ ছাড়াল, মৃত্যু ১

ছবি

৮০ ভাগ রোগী বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাচ্ছে: পরিকল্পনা মন্ত্রী

ছবি

দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো বিএনপির প্রধান কাজ : প্রধানমন্ত্রী

বৈশ্বিক উষ্ণতায় উপকূল অঞ্চল বিলীন হচ্ছে

ছবি

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বই পড়ার অধিকার নিশ্চিতে মারাকেশ চুক্তিতে অনুস্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ

ছবি

নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের মূল্যায়নে প্রথম বিআইডব্লিউটিএ

ছবি

দুর্গাপূজায় জঙ্গি হামলার আশঙ্কা রয়েছে: ডিএমপি কমিশনার

ছবি

র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান পরিবর্তন হয়নি: রাষ্ট্রদূত

ছবি

করোনা: শনাক্ত বেড়ে ৬৭৯, মৃত্যু ২

ছবি

দেশে নষ্ট রাজনীতির দুষ্টচর্চা ছিল, এখনো আছে: বিদায়ী আইজিপি

ছবি

পাঁচ দিনের সফরে ঢাকা আসছেন কসোভোর উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

রোহিঙ্গাদের অবশ্যই নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

tab

জাতীয়

ফিরলো সোনার মেয়েরা, জনস্রোতে বরণ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/21Sep22/news/pic-1%20%281%29.jpg

চ্যাম্পিয়নরা রাজপথে ছাদখোলা বাসে জয়-যাত্রায়, জনতার উষ্ণ সংবর্ধনা, ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত। বুধবার দেশবাসী বিজয়ীদের এভাবে বরণ করে নেয় -সোহরাব আলম

নেপালে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নের ট্রফি নিয়ে বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছে ইতিহাস গড়া বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। বিমান থেকে নামার পর তাদের গলায় ফুলের মালা ও উত্তরীয় দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন সাবিনা-সানজিদারা। সেই সঙ্গে ছাদখোলা বাসে চড়ে সংবর্ধনা পাওয়ার ইচ্ছেও পূরণ হয়।

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/21Sep22/news/pic-2%20%281%29.jpg

বিমানবন্দরে তাদের ফুলেল সংবর্ধনা জানান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্তাসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা। আর বিমানবন্দরের বাইরে থেকে বাফুফে পর্যন্ত রাস্তায় রাস্তায় দল-মত নির্বিশেষে হাজারো মানুষ উষ্ণ স্বাগত জানায় এই সোনার মেয়েদের ।

বুধবার দুপুরের বেশ আগে থেকে বিমানবন্দরের বাইরে সমর্থকরা ভিড় করতে শুরু করে। জনস্রোত রূপ নেয় জনজোয়ারে। মানুষের হাতে হাতে জাতীয় পতাকা ও ব্যানার, কণ্ঠে ছিল স্লোগান। সুসজ্জিত ব্যান্ড দল বাজাতে থাকে ‘জয় বাংলা, বাংলার জয়।’ বিমানবন্দরের ভেতরে তখন জয়ের গৌরব নিয়ে দেশে ফেরা নারী ফুটবল দলের প্রত্যেককে স্বাগত জানানো হয় ফুলের মালায়।

‘নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে’ ইতিহাস গড়া সাফল্য নিয়ে বাংলাদেশ দল কাঠমান্ডু থেকে ঢাকায় পা রাখে দুপুর দেড়টার দিকে। এ সময় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বাফুফের সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ ও অন্য কর্মকর্তারা ফুল দিয়ে বরণ করে নেন সাফ শিরোপা বিজয়ী সাবিনা-মারিয়া-কৃষ্ণাদের।

বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিজয়ীদের সৌজন্যে কেক কাটা হয়। প্রতিমন্ত্রী কেক তুলে দেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের মুখে। সাবিনা শুধু শিরোপাজয়ী অধিনায়কই নন, তিনি টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় ও সর্বোচ্চ গোল স্কোরারও। বিজয়ী নারীদের কারিগর কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনকেও কেক খাইয়ে দেয়া হয়। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলে বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা।

এরপর ক্রীড়ামন্ত্রী একে একে দলের প্রত্যেক খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফের গলায় পরিয়ে দেন ফুলের মালা। এরপর দু’হাতে ট্রফি উঁচিয়ে বিজয়ের হাসিতে এগিয়ে যান অধিনায়ক সাবিনা। তাকে অনুসরণ করেন পুরো দল।

বিমানবন্দরের বাইরে তখন অপেক্ষমাণ হাজারো জনতা। বিকেএসপির একটি বড় দলও দেখা যায় সেখানে লাইন ধরে অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে মেয়েদের বরণ করতে প্রস্তুত।

বিমানবন্দরের বাইরে অপেক্ষায় মেয়েদের সেই স্বপ্নযাত্রার বাহন, ‘ছাদখোলা বাস।’ সেই বাসে উঠার সময়ও মেয়েদের আবার ফুল ছিটিয়ে বরণ করা হয়। স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত ছিল পুরো বিমানবন্দর এলাকা।

সাফ জয়ীদের নিয়ে বিকেল সাড়ে ৩টায় ছাদখোলা বাসে শোভাযাত্রা শুরু হয়। এ সময় সাবিনাদের ঘিরে রাখেন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। রাস্তার দুই পাশে সাফ বিজয়ীদের দেখে জনগণ হাত নেড়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে থাকেন। সাবিনারাও হাসিমুখে হাত নেড়ে তাদের প্রতিক্রিয়া দেখান। খোলা ছাদের বাসে সামনে ট্রফি হাতে ছিলেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। তার পাশে সানজিদা, মাসুরা পারভীনরা।

‘ছাদখোলা বাস’টি শহরের বিভিন্ন প্রান্ত প্রদক্ষিণ করে পৌঁছে মতিঝিলে বাফুফে (বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন) ভবনে। বিমানবন্দর থেকে বাসটি কাকলী, জাহাঙ্গীর গেট, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বিজয় সরণি, তেজগাঁও, মৌচাক, কাকরাইল, আরামবাগ, মতিঝিল শাপলা চত্বর হয়ে বাফুফে ভবনে পৌঁছে। সেখানে ইতিহাস গড়া মেয়েদের বরণ করে নেয়ার আনুষ্ঠানিকতা ছিল আগে থেকেই। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন অভ্যর্থনা জানান সাবিনাদের।

এর আগে নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ফেরার পথে ফ্লাইটেও এক দফায় উদ্যাপন হয়। সেখানে দলকে অভিনন্দন জানানো হয় বাংলাদেশ বিমানের পক্ষ থেকে। সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার ও বিমানের ক্রু সানোয়ার হোসেন মিষ্টিমুখ করান বিজয়ীদের। বিমানেও কেক কাটার পর্ব ছিল।

জনতার স্রোতে বিমানবন্দরে নির্ধারিত সংবাদ সম্মেলন করতে পারেনি চ্যাম্পিয়ন দল। তবে বের হওয়ার সময় সংবাদমাধ্যমে অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন দলের অধিনায়ক সাবিনা।

তিনি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আমাদের জন্য দোয়া করবেন। বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষ বলুন বা ১৮ কোটি কিংবা ২০ কোটি এই ট্রফি বাংলাদেশের সব মানুষের। আমাদের এত সুন্দর করে বরণ করে নেয়ার জন্য আমরা অনেক কৃতজ্ঞ।’

সাবিনা আরও বলেন, ‘মন্ত্রী মহোদয় ও ফেডারেশনের যারা এসেছেন, সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশের মেয়েদের, বাংলাদেশের ফুটবল যে আপনারা এত ভালোবাসেন, এসব দেখে আমরা অনেক অনেক গর্বিত।’

দামাল মেয়েদের স্বাগত জানাতে বনানী কাকলী ওভারব্রিজের কাছে দাঁড়িয়েছেন শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল। তিনি বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে। বিশেষত মেয়েদের জন্য।’ অনেকক্ষণ অপেক্ষা করতে হচ্ছে দেখে তিনি একজনকে বললেন, ‘ওরা ওখান থেকে (বিমানবন্দর) ভিড়ে বেরিয়ে আসতে পারছে না হয়তো। বনানীর রাস্তায় ফুট ওভারব্রিজ ছাড়িয়ে রাস্তার মাঝখান পর্যন্ত অপেক্ষমাণ মানুষ।’

মামাকে সঙ্গে নিয়ে মিরপুর থেকে বরণ করতে এসেছে দুই জমজ ভাই সিয়াম খন্দকার আর নিয়াম খন্দকার। দুজনই ৯ম শ্রেণীর ছাত্র। নিয়াম সিয়ামের মামা মেঘদীপ বলেন, ওদের জেদেই তিনি এসেছেন। এসে এত লোক দেখে খুব ভালো লাগছে। না আসলে মানুষের মধ্যে এমন আবেগ জানতে পারতাম না।’

গত ১৯ সেপ্টেম্বর নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা জেতে বাংলাদেশ। স্মরণীয় ও ঐতিহাসিক এই জয়ে শামসুন্নাহার করেন একটি গোল। আর দুটি গোল করেন কৃষ্ণা রানী সরকার।

back to top