alt

জাতীয়

রোহিঙ্গাদের জন্য ১৭০ মিলিয়ন ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/23Sep22/news/%E0%A7%A7%E0%A7%A8.PNG

ছবি: সংগৃহীত

মায়ানমারের অভ্যন্তরে ও বাইরের রোহিঙ্গাদের এবং বাংলাদেশে আশ্রয়দানকারী গোষ্ঠীর জন্য ১৭০ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি মানবিক সহায়তা ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) এক বিবৃতিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি জে. ব্লিঙ্কেন বলেছেন, ‘বিশেষ করে বাংলাদেশে কর্মসূচিগুলোর জন্য প্রায় ১৩৮ মিলিয়ন ডলার প্রদান করা হবে। এ কর্মসূচির অধীনে মিয়ানমারে গণহত্যা, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও জাতিগত নির্মূল অভিযান থেকে বেঁচে যাওয়া ৯ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গাদের জীবনরক্ষামূলক উদ্যোগ এবং বাংলাদেশে তাদেরকে আশ্রয়দানকারী গোষ্ঠীর ৫ লাখ ৪০ হাজার সদসস্যের জন্য এ সহায়তা দেয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, নতুন এ সহায়তা খাদ্য, নিরাপদ পানি, স্বাস্থ্যসেবা, সুরক্ষা, শিক্ষা, আশ্রয় এবং মানসিক-সামাজিক সহায়তার ব্যবস্থা করতে সক্ষম হবে।

ব্লিঙ্কেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সরকার ও জনগণসহ এই অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দানকারী অন্যান্য দেশের উদারতারও প্রশংসা করেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, এই নতুন অর্থায়নের মাধ্যমে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মোট সহায়তা ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে প্রায় ১.৯ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। ২০১৭ সালে ৭ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশের কক্সবাজারে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছিল।

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/23Sep22/news/%E0%A7%AF.PNG

অতিরিক্ত মানবিক সহায়তার মধ্যে, স্টেট ডিপার্টমেন্ট কর্তৃক ৯৩ মিলিয়ন ডলারের বেশি এবং ইউএসএআইডি’র মাধ্যমে ৭৭ মিলিয়ন ডলারের বেশি বরাদ্দ করা হয়েছে।

ব্লিঙ্কেন বলেন, স্বীকার করছি যে, বার্মার (মিয়ানমার) পরিস্থিতি বর্তমানে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, স্বেচ্ছায়, মর্যাদাপূর্ণ এবং টেকসই প্রত্যাবর্তন এবং প্রত্যাবাসনের জন্য সহায়ক নয়। আমরা এই সমস্যার সমাধান খোঁজার জন্য বাংলাদেশ সরকার, রোহিঙ্গা এবং বার্মার অভ্যন্তরের জনগণের সাথে কাজ করছি।

তিনি মিয়ানমারে সহিংসতার কারণে বিতাড়িত ও ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য মানবিক সহায়তা প্রদান ও সমর্থন বৃদ্ধির লক্ষ্যে অবদান রাখার জন্য অন্যান্য দাতাদের প্রতি আহ্বান জানান।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতিনিয়ত রোহিঙ্গাদের জীবনরক্ষামূলক কাজ করার জন্য মানবিক সহায়তাকারী মার্কিন অংশীদারদেরও প্রশংসা করেছেন।

ছবি

বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচারের সমুচিত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

করোনা: একদিনে ২ জনের মৃত্যু, নতুন রোগী ৫৭২

ছবি

সরকারি চাকরিতে বাড়ল আবেদন ফি

ছবি

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেবে মলদোভা

ছবি

অ্যাফিডেভিট ছাড়াই সংশোধন করা যাবে পাসপোর্ট

ছবি

ওয়াশিংটন ডিসি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

একতরফা নিষেধাজ্ঞাকে আমরা প্রত্যাখ্যান করি : রাষ্ট্রদূত জিমিং

ছবি

৪ অক্টোবর থেকে টিকার প্রথম ডোজ বন্ধ

ছবি

আজ বিশ্ব নদী দিবস

ছবি

যুদ্ধ, নিষেধাজ্ঞার পাল্টাপাল্টি বন্ধের আহ্বান

ছবি

করোনা: ৪ জনের মৃত্যু, দুই মাসে সর্বোচ্চ

ছবি

দুর্গাপূজা এবার ৩২ হাজারেরও বেশি মণ্ডপে

ছবি

জাপানে শিক্ষা সফরে যাচ্ছেন ওয়াসার এমডি

ছবি

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ রাতে, সংবর্ধনা শনিবার

ছবি

জাতিসংঘে কী বলবেন প্রধানমন্ত্রী, ধারণা দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

করোনা: শনাক্তের হার ছাড়াল ১৫ শতাংশ

ছবি

বাংলাদেশ-কম্বোডিয়ার মধ্যে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির আশা

ছবি

‘কৃত্রিম সংকট, অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি’ : ৪৫ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা

ঋতুপর্ণা-রুপনার সাফল্যে এলাকাবাসী পাচ্ছে সড়ক আর সেতু

ছবি

বদলে যাচ্ছে বিজয়ী নারীদের জীবন চিত্র

সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের জন্য আর্থিক পুরস্কার ও বাড়িঘর দেয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রধানমন্ত্রীর ৫ প্রস্তাব

ছবি

অপসংস্কৃতির সবকিছু বর্জন করতে হবে: রাষ্ট্রপতি

ছবি

এন্টি মাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্স প্রতিরোধের ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

নতুন আইজিপি আব্দুল্লাহ আল মামুন, র‌্যাব ডিজি খুরশীদ

ছবি

করোনা: শনাক্ত বেড়ে ৬৭৮, ঢাকায় ৫২৬

ছবি

ভারতীয় নতুন হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা

ছবি

ডিম আমদানি হবে না : কৃষিমন্ত্রী

ছবি

অক্টোবরে অবসরে যাচ্ছেন আইজিপি বেনজীর

ছবি

গ্যাসের চাপ কম : সিলিন্ডার ভরছে না সিএনজি চালকদের ক্ষোভ

ছবি

আজ বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস

ছবি

বাইডেনের অভ্যর্থনায় প্রধানমন্ত্রী, বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ

ছবি

করোনা : সরকারি চাকরিতে ৩৯ মাস ছাড়

ছবি

জাতিসংঘে পদ্মা সেতুর আলোকচিত্র প্রদর্শনী পরিদর্শন প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

ফিরলো সোনার মেয়েরা, জনস্রোতে বরণ

প্রধানমন্ত্রী খোঁজ রাখছেন সাবিনাদের

tab

জাতীয়

রোহিঙ্গাদের জন্য ১৭০ মিলিয়ন ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/23Sep22/news/%E0%A7%A7%E0%A7%A8.PNG

ছবি: সংগৃহীত

মায়ানমারের অভ্যন্তরে ও বাইরের রোহিঙ্গাদের এবং বাংলাদেশে আশ্রয়দানকারী গোষ্ঠীর জন্য ১৭০ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি মানবিক সহায়তা ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) এক বিবৃতিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি জে. ব্লিঙ্কেন বলেছেন, ‘বিশেষ করে বাংলাদেশে কর্মসূচিগুলোর জন্য প্রায় ১৩৮ মিলিয়ন ডলার প্রদান করা হবে। এ কর্মসূচির অধীনে মিয়ানমারে গণহত্যা, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও জাতিগত নির্মূল অভিযান থেকে বেঁচে যাওয়া ৯ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গাদের জীবনরক্ষামূলক উদ্যোগ এবং বাংলাদেশে তাদেরকে আশ্রয়দানকারী গোষ্ঠীর ৫ লাখ ৪০ হাজার সদসস্যের জন্য এ সহায়তা দেয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, নতুন এ সহায়তা খাদ্য, নিরাপদ পানি, স্বাস্থ্যসেবা, সুরক্ষা, শিক্ষা, আশ্রয় এবং মানসিক-সামাজিক সহায়তার ব্যবস্থা করতে সক্ষম হবে।

ব্লিঙ্কেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সরকার ও জনগণসহ এই অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দানকারী অন্যান্য দেশের উদারতারও প্রশংসা করেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, এই নতুন অর্থায়নের মাধ্যমে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মোট সহায়তা ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে প্রায় ১.৯ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। ২০১৭ সালে ৭ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশের কক্সবাজারে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছিল।

https://sangbad.net.bd/images/2022/September/23Sep22/news/%E0%A7%AF.PNG

অতিরিক্ত মানবিক সহায়তার মধ্যে, স্টেট ডিপার্টমেন্ট কর্তৃক ৯৩ মিলিয়ন ডলারের বেশি এবং ইউএসএআইডি’র মাধ্যমে ৭৭ মিলিয়ন ডলারের বেশি বরাদ্দ করা হয়েছে।

ব্লিঙ্কেন বলেন, স্বীকার করছি যে, বার্মার (মিয়ানমার) পরিস্থিতি বর্তমানে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, স্বেচ্ছায়, মর্যাদাপূর্ণ এবং টেকসই প্রত্যাবর্তন এবং প্রত্যাবাসনের জন্য সহায়ক নয়। আমরা এই সমস্যার সমাধান খোঁজার জন্য বাংলাদেশ সরকার, রোহিঙ্গা এবং বার্মার অভ্যন্তরের জনগণের সাথে কাজ করছি।

তিনি মিয়ানমারে সহিংসতার কারণে বিতাড়িত ও ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য মানবিক সহায়তা প্রদান ও সমর্থন বৃদ্ধির লক্ষ্যে অবদান রাখার জন্য অন্যান্য দাতাদের প্রতি আহ্বান জানান।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতিনিয়ত রোহিঙ্গাদের জীবনরক্ষামূলক কাজ করার জন্য মানবিক সহায়তাকারী মার্কিন অংশীদারদেরও প্রশংসা করেছেন।

back to top