alt

জাতীয়

গণপরিবহনে শতকরা ৩৬ জন নারী নিয়মিত যৌন হয়রানির শিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২

‘আমাদের সমাজে ছেলেমেয়েরা নানা বৈষম্যমূলক অবস্থার মধ্য দিয়ে বড় হয়। এক্ষেত্রে দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তনের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন অব্যাহত রাখতে হবে; আমাদের সমাজ পরিবর্তন, দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন একদিনে আসবে না। আইন বাস্তবায়ন করতে হবে’ বলে মন্তব্য করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী।

গতকাল বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ঢাকা মহানগর শাখার উদ্যোগে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের আনোয়ারা বেগম মুনিরা খান মিলনায়তনে গণপরিসর ও গণপরিবহনে নারী ও কন্যাদের প্রতি সংঘটিত সহিংসতা, নির্যাতন ও নিপীড়ন বন্ধের প্রতিবাদ জানিয়ে ‘গণপরিসর ও গণপরিবহনে নারী ও কন্যার নিরাপত্তা চাই’- শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন সড়ক সচিব। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি মাহাতাবুন নেসা।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেন, গণপরিবহনে ও গণপরিসরে নারীর চলাফেরায় নানা সংকট আছে। যার জন্য পরিকল্পনাকারী ও নীতিনির্ধারকদের নিয়ে মতবিনিময় হওয়া প্রয়োজন। গনপরিবহনের সংকট নিরসনে আজকের আলোচনার মাধ্যমে গণপরিবহনে নারীবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার একটি পদক্ষেপ। গণপরিবহন সংবেদনশীল করে গড়ে তোলার জন্য প্রশাসনে, আইন বাস্তবায়নকারী, গণপরিবহন মালিকদের জন্য প্রশিক্ষণ চালুর আহ্বান জানান তিনি।

নিরাপদ সড়ক চাই চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘ড্রাইভারদের জন্য মানবিক দায়িত্ব, মানবিক আচরণ বিষয়ে প্রশিক্ষণের অভাব আছে। তারাও নানা বঞ্চনা ও নির্যাতনের শিকার। পরিস্থিতি উন্নয়নে শিশুদের মূল্যবোধ তৈরিতে পরিবার ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অধিক গুরুত্ব দিতে হবে’।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাস গুপ্ত বলেন, ‘সমস্যা সমাধানে জনবলের ঘাটতি আছে কথাটি প্রায়ই বলা হয়। দায়িত্ব পালনে তৎপরতা থাকলে জনঘাটতি কমতো। পরিবার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্মস্থলের কেন্দ্রে নির্যাতনের জন্য ধর্মকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়। গণপরিবহনে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধের জন্য থাকা আইন পরিবর্তনের জন্য সুপারিশ করা যেতে পারে।

বিআরটিএ-এর পরিচালক (অপারেশন) মো. লোকমান হোসেন বলেন, আগামীতে জেন্ডারগত বিষয়ে প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হবে। বিআরটিএ এর উদ্যোগে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হলে সেই প্রশিক্ষণে মহিলা পরিষদকে যুক্ত করা হবে।

শ্যামলী পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রমেশ চন্দ্র ঘোষ নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে মালিক সমিতির পক্ষ থেকে কাজ করার আশ্বাস দিয়ে বলেন, গণপরিবহনকে নারীবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার জন্য পরিবহন সেক্টর নিয়ে কাজ করতে চাই।

সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি মাহাতাবুন নেসা বলেন, দিন দিন নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা উদ্বিগ্ন। সহিংসতার বিরুদ্ধে নারী আন্দোলনকে গড়ে তোলার জন্য তরুণদের সম্পৃক্ত করা আজ প্রয়োজন। সহিংসতা প্রতিরোধের জন্য তরুণদের মধ্যে মানবিক মূল্যবোধ গড়ে তুলতে হবে, তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সমন্বিত কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে, পরিবারে ছেলেমেয়ের মধ্যে বৈষম্য দূর করতে হবে, শিক্ষানীতি জেন্ডার সংবেনশীল করতে হবে।

লিখিত বক্তব্যে ইউএনডিপি, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন ও সেন্টার ফর ইনফরমেশন -এর যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত জরিপের তথ্য উপস্থাপন করে বলা হয় বাস, লঞ্চ, ট্রেন এবং অন্যান্য যানবাহন ও টার্মিনালসহ গণপরিবহনে ৩৬% নারী নিয়মিত যৌন হয়রানির শিকার হন। এছাড়া গণপরিসরে ৮৭% নারী জীবনে অন্তত একবার যৌন সহিংসতার শিকার হন। আর ৬৬% নারী কয়েকবার এবং ৭% নারী বারবার নানা ধরনের যৌন হয়রানির শিকার হন। তবে হয়রানির শিকার ৩৬% নারী প্রতিবাদ করেছেন বলে অনলাইনে পরিচালিত জরিপে উঠে এসেছে। এ সময় গণপরিসরে ও গণপরিবহনে বিভিন্ন সময়ে যৌন হয়রানির ঘটনার উল্লেখ করে বলেন শতশত নারী ও কন্যা ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনার বিচারহীনতাই নারীকে আরও বেশি অনিরাপদ অবস্থানে নিয়ে গেছে। যার ফলশ্রুতিতে ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ ও যৌন সহিংসতার মামলায় মাত্র ৩% অভিযুক্ত ব্যক্তি শাস্তি পায় বাকিরা আইনের ফাঁকফোকর কিংবা প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপে পার পেয়ে যায়।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয় টেকসই উন্নয়নের অগ্রগতি নির্ধারণে যে ৩৯টি নির্দেশক তৈরি করা হয়েছে। গণপরিবহনে ২০টি আসনে নারী-শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের জন্য সংরক্ষণের কথা বলা হয়েছে, যা ২০৩০ সালের মধ্যে নিশ্চিত করতে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরা হয়।

ছবি

আবার বাড়লো বিদ্যুতের দাম

শিশু হাসপাতালের বনভোজন, ওষুধ কোম্পানির কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ

ছবি

দেশে অবৈধ ইটভাটা ৪ হাজার ৬৩৩: সংসদে পরিবেশ মন্ত্রী

ছবি

দুর্নীতি কমাতে রাজনৈতিক অঙ্গনে দরকার বৈপ্লবিক পরিবর্তন : টিআইবি

ছবি

সেব্রিনা ফ্লোরাসহ স্বাস্থ্যের চার পরিচালক বদলি

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ ‘আত্মগোপনে’ আছেন ধারণা ইসির

ছবি

বায়ুদূষণ রোধে কাল থেকে বিশেষ অভিযান

ছবি

দেশে কোভিডে আরও ১৩ জন আক্রান্ত

ছবি

দেশ দলমত নির্বিশেষে সবার জন্যই কাজ করেছি : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

তাপমাত্রা বাড়তে পারে, সাগরে নিম্নচাপ

ছবি

দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১২তম

ছবি

১৯১ নিউজ পোর্টালের ডোমেইন বাতিলে চিঠি দেয়া হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী

ছবি

অমর একুশের বইমেলা কাল শুরু

ছবি

পাঠ্যপুস্তকে ভুলত্রুটি শনাক্তে কমিটি গঠন

ছবি

হঠাৎ বেড়ে গেছে এলপি গ্যাসের দাম বিপাকে ভোক্তারা

ছবি

দেশবিরোধী ও বিভ্রান্তিকর প্রচারণা: ১৯১টি নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ

ছবি

বুধবার শুরু হচ্ছে একুশে বইমেলা, চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

ছবি

সাগরে লঘুচাপ, আরও ঘণীভূত হওয়ার শঙ্কা

ছবি

এই ফেব্রুয়ারিতে ঢাকায় দূতাবাস খুলছে আর্জেন্টিনা

ছবি

জমজমের পানি বিক্রি বন্ধ, কেনা-বেচার যৌক্তিকতা জানাবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন

ছবি

গত ২৪ ঘন্টায় ১১ জন করোনায় আক্রান্ত

ছবি

গণতন্ত্রর ধারাবাহিক না থাকলে দেশ উন্নয়ন হতো না: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

২৭ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় আর্জেন্টিনা দূতাবাস চালু হচ্ছে

ছবি

আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

দূষিত শহরের তালিকায় টানা ১০ দিন শীর্ষে ঢাকা

সরকারের হাতে ক্ষমতা দিয়ে সংসদে বিল পাস

ছবি

বিজিবির নতুন মহাপরিচালক নাজমুল হাসান

ছবি

দেশে করোনা পজেটিভ ১৬জন, সবাই ঢাকার

ছবি

দেশের রাজনীতি নিয়ে অন্যদের বাড়াবাড়ি করার সুযোগ নেই:পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

খেজুরের রস: নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত ৮ জনের মধ্যে ৫ মৃত্যু, অসতর্কতাকে দায়ী করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ছবি

প্রবাসী ইমরানের মামলা খারিজ, দুই শিশু থাকবে জাপানি মায়ের কাছে

ছবি

রাজশাহীতে ২৬ প্রকল্প উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

জনসভায় যোগ দিয়ে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

উন্নয়নকাজ হলে বায়ুদূষণ হবেই : পরিবেশমন্ত্রী

ছবি

সারদা পুলিশ একাডেমিতে প্রধানমন্ত্রী

ছবি

সারদায় প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

tab

জাতীয়

গণপরিবহনে শতকরা ৩৬ জন নারী নিয়মিত যৌন হয়রানির শিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২

‘আমাদের সমাজে ছেলেমেয়েরা নানা বৈষম্যমূলক অবস্থার মধ্য দিয়ে বড় হয়। এক্ষেত্রে দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তনের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন অব্যাহত রাখতে হবে; আমাদের সমাজ পরিবর্তন, দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন একদিনে আসবে না। আইন বাস্তবায়ন করতে হবে’ বলে মন্তব্য করেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী।

গতকাল বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ঢাকা মহানগর শাখার উদ্যোগে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের আনোয়ারা বেগম মুনিরা খান মিলনায়তনে গণপরিসর ও গণপরিবহনে নারী ও কন্যাদের প্রতি সংঘটিত সহিংসতা, নির্যাতন ও নিপীড়ন বন্ধের প্রতিবাদ জানিয়ে ‘গণপরিসর ও গণপরিবহনে নারী ও কন্যার নিরাপত্তা চাই’- শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন সড়ক সচিব। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি মাহাতাবুন নেসা।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেন, গণপরিবহনে ও গণপরিসরে নারীর চলাফেরায় নানা সংকট আছে। যার জন্য পরিকল্পনাকারী ও নীতিনির্ধারকদের নিয়ে মতবিনিময় হওয়া প্রয়োজন। গনপরিবহনের সংকট নিরসনে আজকের আলোচনার মাধ্যমে গণপরিবহনে নারীবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার একটি পদক্ষেপ। গণপরিবহন সংবেদনশীল করে গড়ে তোলার জন্য প্রশাসনে, আইন বাস্তবায়নকারী, গণপরিবহন মালিকদের জন্য প্রশিক্ষণ চালুর আহ্বান জানান তিনি।

নিরাপদ সড়ক চাই চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘ড্রাইভারদের জন্য মানবিক দায়িত্ব, মানবিক আচরণ বিষয়ে প্রশিক্ষণের অভাব আছে। তারাও নানা বঞ্চনা ও নির্যাতনের শিকার। পরিস্থিতি উন্নয়নে শিশুদের মূল্যবোধ তৈরিতে পরিবার ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অধিক গুরুত্ব দিতে হবে’।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাস গুপ্ত বলেন, ‘সমস্যা সমাধানে জনবলের ঘাটতি আছে কথাটি প্রায়ই বলা হয়। দায়িত্ব পালনে তৎপরতা থাকলে জনঘাটতি কমতো। পরিবার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্মস্থলের কেন্দ্রে নির্যাতনের জন্য ধর্মকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়। গণপরিবহনে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধের জন্য থাকা আইন পরিবর্তনের জন্য সুপারিশ করা যেতে পারে।

বিআরটিএ-এর পরিচালক (অপারেশন) মো. লোকমান হোসেন বলেন, আগামীতে জেন্ডারগত বিষয়ে প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হবে। বিআরটিএ এর উদ্যোগে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হলে সেই প্রশিক্ষণে মহিলা পরিষদকে যুক্ত করা হবে।

শ্যামলী পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রমেশ চন্দ্র ঘোষ নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে মালিক সমিতির পক্ষ থেকে কাজ করার আশ্বাস দিয়ে বলেন, গণপরিবহনকে নারীবান্ধব হিসেবে গড়ে তোলার জন্য পরিবহন সেক্টর নিয়ে কাজ করতে চাই।

সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি মাহাতাবুন নেসা বলেন, দিন দিন নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা উদ্বিগ্ন। সহিংসতার বিরুদ্ধে নারী আন্দোলনকে গড়ে তোলার জন্য তরুণদের সম্পৃক্ত করা আজ প্রয়োজন। সহিংসতা প্রতিরোধের জন্য তরুণদের মধ্যে মানবিক মূল্যবোধ গড়ে তুলতে হবে, তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সমন্বিত কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে, পরিবারে ছেলেমেয়ের মধ্যে বৈষম্য দূর করতে হবে, শিক্ষানীতি জেন্ডার সংবেনশীল করতে হবে।

লিখিত বক্তব্যে ইউএনডিপি, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন ও সেন্টার ফর ইনফরমেশন -এর যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত জরিপের তথ্য উপস্থাপন করে বলা হয় বাস, লঞ্চ, ট্রেন এবং অন্যান্য যানবাহন ও টার্মিনালসহ গণপরিবহনে ৩৬% নারী নিয়মিত যৌন হয়রানির শিকার হন। এছাড়া গণপরিসরে ৮৭% নারী জীবনে অন্তত একবার যৌন সহিংসতার শিকার হন। আর ৬৬% নারী কয়েকবার এবং ৭% নারী বারবার নানা ধরনের যৌন হয়রানির শিকার হন। তবে হয়রানির শিকার ৩৬% নারী প্রতিবাদ করেছেন বলে অনলাইনে পরিচালিত জরিপে উঠে এসেছে। এ সময় গণপরিসরে ও গণপরিবহনে বিভিন্ন সময়ে যৌন হয়রানির ঘটনার উল্লেখ করে বলেন শতশত নারী ও কন্যা ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনার বিচারহীনতাই নারীকে আরও বেশি অনিরাপদ অবস্থানে নিয়ে গেছে। যার ফলশ্রুতিতে ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ ও যৌন সহিংসতার মামলায় মাত্র ৩% অভিযুক্ত ব্যক্তি শাস্তি পায় বাকিরা আইনের ফাঁকফোকর কিংবা প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপে পার পেয়ে যায়।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয় টেকসই উন্নয়নের অগ্রগতি নির্ধারণে যে ৩৯টি নির্দেশক তৈরি করা হয়েছে। গণপরিবহনে ২০টি আসনে নারী-শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের জন্য সংরক্ষণের কথা বলা হয়েছে, যা ২০৩০ সালের মধ্যে নিশ্চিত করতে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরা হয়।

back to top