alt

রাজনীতি

জোর-জবরদস্তি করে মানুষকে নৌকায় ওঠানো হচ্ছে : নুর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শুক্রবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুল হক নুর বলেছেন, অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল ও বীর উত্তম শাহজাহান ওমর আজীবন বিএনপি করেছেন, তিনি আওয়ামী লীগকে মন থেকে ঘৃণা করতেন। বীর উত্তম শাহজাহানকে ব্ল্যাকমেইল করে শেষ পর্যন্ত নৌকায় উঠিয়েছেন। এভাবে জোর-জবরদস্তি করে মানুষকে নৌকায় উঠিয়ে সেই নৌকা গন্তব্যে নিয়ে যেতে পারবেন?

তিনি বলেন, দুঃখজনক হচ্ছে, আজ যে নির্বাচনের নামে নাটক হচ্ছে, এই নাটক আওয়ামী লীগ করছে না। সরকার করছে না, বিদেশিরাও করছে না, বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার কিছু ব্যক্তি নিজেদের টাকা পয়সা অর্থ বিত্ত ক্ষমতাকে ভোগ করার জন্য আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক সাইনবোর্ডকে ব্যবহার করে এই সাজানো-পাতানো নির্বাচনের দিকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। ৩৮টি রাজনৈতিক দল নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে। আর বহির্বিশ্ব বলছে, নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু এবং অংশগ্রহণমূলক হতে হবে। নির্বাচন যদি অংশগ্রহণমূলক না হয় তাহলে এর ভুক্তভোগী হব আমরা জনগণ। সাধারণ শ্রমিকদের জন্য রাষ্ট্র সুচিকিৎসা দিতে পারেনি।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সম্মিলিত শ্রমিক পরিষদ (এসএসপি) আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন নুর। শ্রমিক হত্যার বিচার ও ক্ষতিপূরণ, আহতদের চিকিৎসা ও ক্ষতিপূরণ, কর্মচ্যুতদের পুনর্বহাল, গ্রেপ্তারদের মুক্তি, গার্মেন্টস শিল্প ঘোষিত মজুরি প্রস্তাব প্রত্যাহার এবং ন্যূনতম মজুরি ২৫ হাজার টাকা পুনর্নির্ধারণের দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

নুরুল হক নুর বলেন, যে আন্দোলন হয়েছে শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির, সেখানে গাড়ি পোড়ানোর মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একইভাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, জহির উদ্দিন স্বপন থেকে শুরু করে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা ২৮ অক্টোবর পুলিশের অনুমতি পেয়েছে, সরকারের সঙ্গে কথা হয়েছে, একটা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ পল্টনে করতে চেয়েছিল। সেখানে প্রশাসনের ব্লু প্রিন্টে গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীরের গুন্ডাপান্ডা দিয়ে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার নাটক করিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপির শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করেছে। এমনকি আমাদেরও ভয় দেখানো হয়েছিল– আমরা যদি নির্বাচনে না যাই ওই মামলায় আমাদেরকেও জেলে ঢুকানো হবে।

তিনি বলেন, আজ সারা দেশের কৃষক শ্রমিকদের রাজনৈতিক অধিকার কায়েম করার জন্য সবাইকে জেগে উঠতে হবে। আজ ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়ে আমাদেরকে আরবদের দাস-দাসীদের মতো বানানো হচ্ছে। যখন মন চাইবে আমাদেরকে জেলে ঢুকাবে, যখন মন চাইবে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে নাশকতার মামলা দিয়ে থানায় ঢুকাবে। এভাবে একটা রাষ্ট্র চলতে পারে না। আমরা অস্তিত্বের সংকটে দাঁড়িয়ে আছি। নিজেদের অস্তিত্ব বাঁচানোর জন্য জনগণকে রাজপথে যা করার করতে হবে। শেখ হাসিনার পতন ব্যতীত আমাদের মুক্তি নেই। আমাদের মুক্তির জন্য শেখ হাসিনার পতন ঘটাতেই হবে।

গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি বলেন, ছাত্রলীগ-যুবলীগের গুণ্ডারা অস্ত্র নিয়ে শ্রমিকদের ওপর হামলা করেছে। সব জায়গায় তাদের এজেন্টদের দিয়ে একটা উত্তেজিত পরিস্থিতি তৈরি করে আন্দোলনকারীদের ওপর দায় চাপানো হয়। আজ গার্মেন্টস শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির প্রতি আমরা সংহতি প্রকাশ করছি, সমর্থন জানাচ্ছি।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন সম্মিলিত শ্রমিক পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক এ এ এম ফয়েজ হোসেন, নির্বাহী সমন্বয়ক আব্দুর রহমান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও শ্রমিকনেতা নজরুল ইসলাম খান, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ুম, ভাসানী অনুসারী পরিষদের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বাবলু, জেএসডি সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন প্রমুখ।

ছবি

মনজুরুল আহসান খানকে উপদেষ্টা পদ থেকে স্থায়ী অব্যাহতি দিয়েছে সিপিবির

ছবি

বিডিআর বিদ্রোহের ষড়যন্ত্র করেছিল বিএনপি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচনে না আসার খেসারত বিএনপিকে অনেক দিন দিতে হবে : কাদের

পিলখানা হত্যাকাণ্ড: খালেদা জিয়া আগেই জানতেন দাবি আওয়ামী লীগ নেতার

ছবি

ডামি নির্বাচনের পর সরকার আরও বেপরোয়া: মির্জা ফখরুল

জাতীয় পার্টি যখনই জনগণের জন্য রাজনীতি করতে চায়, তখনই ক্ষমতাসীন সরকার দল ভাঙার চেষ্টা করে: জিএম কাদের

ছবি

বিদ্যুতের ভর্তুকি আমরা সমন্বয় করতে চাই : ওবায়দুল কাদের

ছবি

সংসদের বিরোধী দল গঠন হয়েছে আ.লীগের কার্যালয়ে : শমসের মবিন

ছবি

গণতন্ত্র ফেরানোর আন্দোলনে সরকার পরিবর্তন অবশ্যই হবে : নজরুল

ছবি

আ.লীগ কার্যালয়ে বিরোধী দল গঠন সুস্থ রাজনীতি নয় : তৃণমূল বিএনপি

ছবি

আন্দোলন সফল না ব্যর্থ, তা নিয়ে আ.লীগ কথা বলতে পারে না : নজরুল ইসলাম

ছবি

বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে : কাদের

ছবি

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি হবে ‘মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা’: রিজভী

ছবি

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফের জামিন, মুক্তি ‘এখনই না’

ছবি

জামিনে মুক্তি পেলেন বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল

ছবি

সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষকে সমূলে উৎপাটন করা হবে : কাদের

ছবি

আমরা গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও ভোটাধিকারহারা: রিজভী

ছবি

ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের গ্রাজুয়েট হলেন তিন দলের ২৫ তরুণ নেতা

ছবি

‘যত কঠোর হওয়া দরকার আমরা হবো’: কাদের

ছবি

বিএনপি নেতারা নিজেদের মুখ রক্ষায় অসংলগ্ন কথা বলছেন

ছবি

একুশের চেতনা গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন তীব্রতর করবে: মির্জা ফখরুল

ছবি

মিউনিখে সাহসী কূটনীতি দেখিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী: ওবায়দুল কাদের

ছবি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিএনপির কর্মসূচি ঘোষণা আওয়ামী লীগ এখন বন্দুকনির্ভর দলে পরিণত হয়েছে: রিজভী

ছবি

কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন মির্জা আব্বাস

ছবি

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের নারী আসন ৫০ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ

ছবি

সভ্যতার জন্য বৈরী সংগঠন ছাত্রলীগ : রিজভী

ছবি

বিএনপির শীর্ষ ৭ আইনজীবীর আদালত অবমাননার শুনানি দুই মাস পেছাল

ছবি

বিরোধী দল নিষিদ্ধ করতে চায় আওয়ামী লীগ: মঈন খান

ছবি

আরেক মামলায় মির্জা আব্বাসের জামিন

ছবি

জাতি ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর অবদান শ্রদ্ধাভরে স্মরণ রাখবে

ছবি

সংরক্ষিত ৪৮ আসনে আ. লীগের মনোনয়নপত্র জমা

ছবি

তারেক রহমান বিএনপিকে ধ্বংস করছে : নানক

ছবি

নির্বাচনে অংশ নিয়ে গণতন্ত্রকে বাঁচিয়েছি: চুন্নু

ছবি

স্বাধীনতার মূল আদর্শে আওয়ামী লীগ আঘাত করেছে : মঈন খান

ছবি

৯ মার্চ জাতীয় পার্টির কাউন্সিল ঘোষণা করলেন রওশন

ছবি

নারায়ণগঞ্জ আ. লীগ : আনোয়ারের কমিটি, অবাঞ্ছিত ঘোষণা আইভীর

tab

রাজনীতি

জোর-জবরদস্তি করে মানুষকে নৌকায় ওঠানো হচ্ছে : নুর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শুক্রবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুল হক নুর বলেছেন, অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল ও বীর উত্তম শাহজাহান ওমর আজীবন বিএনপি করেছেন, তিনি আওয়ামী লীগকে মন থেকে ঘৃণা করতেন। বীর উত্তম শাহজাহানকে ব্ল্যাকমেইল করে শেষ পর্যন্ত নৌকায় উঠিয়েছেন। এভাবে জোর-জবরদস্তি করে মানুষকে নৌকায় উঠিয়ে সেই নৌকা গন্তব্যে নিয়ে যেতে পারবেন?

তিনি বলেন, দুঃখজনক হচ্ছে, আজ যে নির্বাচনের নামে নাটক হচ্ছে, এই নাটক আওয়ামী লীগ করছে না। সরকার করছে না, বিদেশিরাও করছে না, বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার কিছু ব্যক্তি নিজেদের টাকা পয়সা অর্থ বিত্ত ক্ষমতাকে ভোগ করার জন্য আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক সাইনবোর্ডকে ব্যবহার করে এই সাজানো-পাতানো নির্বাচনের দিকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। ৩৮টি রাজনৈতিক দল নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে। আর বহির্বিশ্ব বলছে, নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু এবং অংশগ্রহণমূলক হতে হবে। নির্বাচন যদি অংশগ্রহণমূলক না হয় তাহলে এর ভুক্তভোগী হব আমরা জনগণ। সাধারণ শ্রমিকদের জন্য রাষ্ট্র সুচিকিৎসা দিতে পারেনি।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সম্মিলিত শ্রমিক পরিষদ (এসএসপি) আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন নুর। শ্রমিক হত্যার বিচার ও ক্ষতিপূরণ, আহতদের চিকিৎসা ও ক্ষতিপূরণ, কর্মচ্যুতদের পুনর্বহাল, গ্রেপ্তারদের মুক্তি, গার্মেন্টস শিল্প ঘোষিত মজুরি প্রস্তাব প্রত্যাহার এবং ন্যূনতম মজুরি ২৫ হাজার টাকা পুনর্নির্ধারণের দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

নুরুল হক নুর বলেন, যে আন্দোলন হয়েছে শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির, সেখানে গাড়ি পোড়ানোর মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একইভাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, জহির উদ্দিন স্বপন থেকে শুরু করে বিএনপির সিনিয়র নেতাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা ২৮ অক্টোবর পুলিশের অনুমতি পেয়েছে, সরকারের সঙ্গে কথা হয়েছে, একটা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ পল্টনে করতে চেয়েছিল। সেখানে প্রশাসনের ব্লু প্রিন্টে গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীরের গুন্ডাপান্ডা দিয়ে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার নাটক করিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপির শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করেছে। এমনকি আমাদেরও ভয় দেখানো হয়েছিল– আমরা যদি নির্বাচনে না যাই ওই মামলায় আমাদেরকেও জেলে ঢুকানো হবে।

তিনি বলেন, আজ সারা দেশের কৃষক শ্রমিকদের রাজনৈতিক অধিকার কায়েম করার জন্য সবাইকে জেগে উঠতে হবে। আজ ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়ে আমাদেরকে আরবদের দাস-দাসীদের মতো বানানো হচ্ছে। যখন মন চাইবে আমাদেরকে জেলে ঢুকাবে, যখন মন চাইবে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে নাশকতার মামলা দিয়ে থানায় ঢুকাবে। এভাবে একটা রাষ্ট্র চলতে পারে না। আমরা অস্তিত্বের সংকটে দাঁড়িয়ে আছি। নিজেদের অস্তিত্ব বাঁচানোর জন্য জনগণকে রাজপথে যা করার করতে হবে। শেখ হাসিনার পতন ব্যতীত আমাদের মুক্তি নেই। আমাদের মুক্তির জন্য শেখ হাসিনার পতন ঘটাতেই হবে।

গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি বলেন, ছাত্রলীগ-যুবলীগের গুণ্ডারা অস্ত্র নিয়ে শ্রমিকদের ওপর হামলা করেছে। সব জায়গায় তাদের এজেন্টদের দিয়ে একটা উত্তেজিত পরিস্থিতি তৈরি করে আন্দোলনকারীদের ওপর দায় চাপানো হয়। আজ গার্মেন্টস শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির প্রতি আমরা সংহতি প্রকাশ করছি, সমর্থন জানাচ্ছি।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন সম্মিলিত শ্রমিক পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক এ এ এম ফয়েজ হোসেন, নির্বাহী সমন্বয়ক আব্দুর রহমান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও শ্রমিকনেতা নজরুল ইসলাম খান, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দার, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ুম, ভাসানী অনুসারী পরিষদের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বাবলু, জেএসডি সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন প্রমুখ।

back to top