alt

রাজনীতি

আড়াইহাজার উপজেলা: হুইপ নজরুলের বিরুদ্ধে ইসিতে চেয়ারম্যান প্রার্থীর অভিযোগ

প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ : মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০২৪

জাতীয় সংসদের হুইপ ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের চারবারের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. শাহজালাল মিয়া। কমিশনে নজরুলের বিরুদ্ধে পছন্দের প্রার্থীর পক্ষ নিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সম্ভাব্য পোলিং এজেন্টদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করেছেন শাহজালাল।

আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দোয়াত-কলম প্রতীকে লড়ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শাহজালাল মিয়া। এর আগে দুইবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। এ নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন আনারস প্রতীকে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক কাজী সুজন ইকবাল এবং ঘোড়া প্রতীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

তফসিল ঘোষণার পর চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৯ জন নেতা-কর্মী প্রাথীতার ঘোষণা দিলেও শেষ পর্যন্ত তিনজন নির্বাচনের মাঠে আছেন। বাকিরা সরে দাঁড়িয়েছেন।

ভাইস-চেয়ারম্যান পদে রফিকুল ইসলাম ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে শাহিদা মোশারফ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। দু’জনই স্থানীয়ভাবে হুইপ নজরুল ইসলাম বাবুর ঘনিষ্ঠজন বলে পরিচিত।

চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজালালের অভিযোগ, এবার দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন না হলেও সাইফুল ইসলামকে প্রকাশ্যে সমর্থন দিচ্ছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী এই সংসদ সদস্য পছন্দের এই প্রার্থীর পক্ষে ভোটারদের প্রভাবিত করতে নিয়মিত সভা-সমাবেশে উপস্থিত থাকছেন এবং হুমকির সুরে বক্তব্য দিচ্ছেন।

গত সোমবার নির্বাচন কমিশনে দেওয়া অভিযোগে শাহজালাল বলেন, ‘নজরুল ইসলাম বাবু উপজেলা নির্বাচনের আচরণবিধির বিন্দুমাত্র তোায়াক্কা না করে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নিজেই একজন পছন্দের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে জনসাধারণকে হুকুম দিচ্ছে তার প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনকে যেকোন মূল্যে পাশ করাতে হবে। হুইপ বাবু ‘ক্ষমতা, অর্থসহ, সকল প্রশাসন আমি দেখবো’ বলে তার ক্ষমতা ব্যবহার করে প্রকাশ্যে তার পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা করে যাচ্ছে। আমার কর্মী-সমর্থককে বিরতিহীনভাবে হুমকি, ভয়ভীতি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। এতে করে আমার নির্বাচনী প্রচারণায় বাধার সৃষ্টি হচ্ছে।

‘হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু আমার সম্ভাব্য পোলিং এজেন্টদের হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন। অকথ্য ভাষায় আমাকে গালাগাল করছেন। প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনও আমার কর্মী-সমর্থক ও সম্ভাব্য পোলিং এজেন্টদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। এতে করে অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে’, বলে অভিযোগ করেন দোয়াত-কলম প্রতীকের এই চেয়ারম্যান প্রার্থী।

নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনের স্বার্থে নির্বাচন আচরণবিধি অনুযায়ী হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু ও চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তিনি।

কমিশনে দেওয়া অভিযোগের সাথে নজরুল ইসলাম বাবুর প্রচারণায় অংশ নেওয়া এবং সেখানে দেওয়া বক্তব্যের ভিডিও এবং সংবাদমাধ্যমের কপিও সংযুক্ত করেছেন।

মুঠোফোনে শাহজালাল মিয়া বলেন, ‘আমি ১৭ বছর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলাম। বর্তমানে সভাপতি সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। তার উপর তিনি জাতীয় সংসদের হুইপও হয়েছেন। উনি সববিষয়ে প্রভাব রাখেন। আমরা কখনও দ্বিমত করিনি। দলীয়ভাবে যে নৌকা পাইছে তার পক্ষে কাজ করছি। কিন্তু এইবার তো আমাদের দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাাসিনা নিজেই সবার অংশগ্রহণের জন্য কোন প্রতীক দেন নাই। তাই আমরাও নির্বাচনে দাঁড়াইছি। কিন্তু একজন সংসদ সদস্য এবং হুইপ হইয়া উনি এইভাবে একজন প্রার্থীর পক্ষ হইয়া হুমকি-ধমকি দেন তাহলে তো আর সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ থাকে না।’

এই প্রার্থী আরও বলেন, ‘প্রতিদিনই নজরুল ইসলাম বাবু বিভিন্ন এলাকায় স্বপনের পক্ষে নির্বাচনী সভা ও প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। অথচ নির্বাচন পরিচালনায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বা প্রশাসনের কেউ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। আজকেও (মঙ্গলবার) উপজেলার মারুয়াদি এলাকায় স্বপনের পক্ষে একটি সভা করেছেন নজরুল ইসলাম বাবু। আমি আশা করবো নেত্রী যেমন ফিল্ড ওপেন রাখছেন তেমনি এমপি সাহেবও যেন নিরব থাকেন। কারও পক্ষ না নিয়ে কে জিতে সেইটা উনি দেখুক।’

যদিও এই বিষয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ ও সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর মুঠোফোন নম্বরে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে আগামী ২১ মে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার ও সোনারগাঁয়ে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তিনটি উপজেলা নির্বাচনেরই রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাকিব আল রাব্বি।

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আড়াইহাজার উপজেলার দোয়াত-কলম প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচন কমিশন মো. আলমগীর স্যার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানতে পেরেছি। এক্ষেত্রে ব্যবস্থা নিবে কমিশন। তবে নির্বাচনী আচরণবিধি যাতে কেউ লঙ্ঘন না করে সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা নেবো।’

এদিকে, আজ মঙ্গলবার কমিশনে আরেকটি অভিযোগ দেন প্রার্থী শাহজালাল মিয়া। কমিশনকে তিনি জানিয়েছেন, আড়াইহাজার উপজেলার অন্তত ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু। নিরপেক্ষতার শঙ্কা প্রকাশ করে তিনি এসব প্রতিষ্ঠানের কাউকে ভোটগ্রহণের দিন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা বা পোলিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব না দিয়ে প্রয়োজনে পার্শ্ববর্তী উপজেলা থেকে কর্মকর্তাদের দায়িত্ব প্রদানের দাবি জানিয়েছেন।

ছবি

সাবেক আইজিপি বা সেনাপ্রধান দোষী হলে সরকার বাঁচাতে যাবে না: কাদের

ছবি

আজীম কী ছিল বড় কথা নয়, জনপ্রিয়তা দেখে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে : কাদের

বিএনপির বহিষ্কারের পাল্লা ভারি হচ্ছে

ছবি

মেয়াদোত্তীর্ণ জবি ছাত্রলীগের কমিটি, পূর্নাঙ্গ নিয়ে অনিশ্চয়তা

ছবি

আনোয়ারুল আজীম অপকর্মে জড়িত কি না তদন্তে বেরিয়ে আসবে: কাদের

সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের ওপর নিষেধাজ্ঞা জাতির জন্য লজ্জাকর: মির্জা ফখরুল

ছবি

সোনারগাঁয়ে নতুন চেয়ারম্যান কালাম

ছবি

বন্ধুরাষ্ট্রের কাছে ‘কথিত’ এমপিরাও নিরাপদ নয়: ফখরুল

ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার জন্য রাজনীতিকে দুষলেন সিইসি

ছবি

দ্বিতীয় ধাপেও ভোটের খরা

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ব্যালট বক্স ছিনতাইয়ের পর পুকুরে ফেলল যুবক

ছবি

দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন যারা

ছবি

উপজেলায় নির্বাচনে হারলেন সাবেক এমপি জাফর

ছবি

পেকুয়ায় চেয়ারম্যান পদে ‘বিএনপির’ রাজু বিজয়ী

ছবি

নোয়াখালীতে ৬ নির্বাচন কর্মকর্তা গ্রেপ্তার, যুবকের জরিমানা

ভোলায় ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কেন্দ্র দখলের চেষ্টা,পুলিশের দুই রউন্ড গুলিবর্ষণ

মিঠাপুকুরে জাল ভোট দেবার সময় এরমপির ভাই সহ ৩ জন আটক

ছবি

হবিগঞ্জে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের কারাদণ্ড, আটক ২

ছবি

অনিয়মের অভিযোগ তুলে দোয়াত কলম প্রার্থীর ভোট বর্জন

ছবি

আওয়ামী লীগ নেতাকে ৬ মাসের কারাদ, এক কেদ্রের প্রিজাইডিং অফিসার প্রত্যাহার

ছবি

আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচন: জাল ও প্রকাশ্যে ভোট, গোপন কক্ষে এজেন্ট

ছবি

প্রার্থিতা বর্জনের ঘোষণা দিলেন সালথা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী অহিদুজ্জামান

সখীপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

সোনারগাঁয়ে হুমকি ধামকি আর বিষোদগারে শেষ হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণা,কেন্দ্র দখলের শঙ্কা

রূপগঞ্জ উপজেলা: প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা ও আচরণবিধি লঙ্ঘনের ৩ অভিযোগ

ছবি

ভোটের হারেই চোখ

মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদেরনির্বাচন স্থগিত

সোনারগাঁয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট কিনছেন আওয়ামী লীগ নেতা,টাকাসহ যুবক আটক

হাজীগঞ্জ উপজেলা সেক্রেটারীসহ বিএনপির ২ নেতা আটক

ছবি

বিএনপি নেতারা মানসিক ট্রমায় ভুগছেন : ওবায়দুল কাদের

ছবি

শরীয়তপুরের জীবন্ত ঘোড়া নিয়ে মিছিল, চেয়ারম্যান প্রার্থীকে কারন দর্শানো নোটিশ

ছবি

আমরা একটা শূন্য গহ্বরের ভেতর বাস করছি: রিজভী

ছবি

আওয়ামী লীগ এখন পরগাছা হয়ে গেছে : জিএম কাদের

ছবি

পাবনায় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ

ছবি

ঝিনাইদহ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী আওয়ামী লীগের নায়েব

ছবি

কংগ্রেসম্যানদের সই জালকারী বিএনপি একটা জালিয়াত রাজনৈতিক দল : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

tab

রাজনীতি

আড়াইহাজার উপজেলা: হুইপ নজরুলের বিরুদ্ধে ইসিতে চেয়ারম্যান প্রার্থীর অভিযোগ

প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ

মঙ্গলবার, ১৪ মে ২০২৪

জাতীয় সংসদের হুইপ ও নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের চারবারের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. শাহজালাল মিয়া। কমিশনে নজরুলের বিরুদ্ধে পছন্দের প্রার্থীর পক্ষ নিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সম্ভাব্য পোলিং এজেন্টদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করেছেন শাহজালাল।

আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দোয়াত-কলম প্রতীকে লড়ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শাহজালাল মিয়া। এর আগে দুইবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। এ নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন আনারস প্রতীকে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক কাজী সুজন ইকবাল এবং ঘোড়া প্রতীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

তফসিল ঘোষণার পর চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৯ জন নেতা-কর্মী প্রাথীতার ঘোষণা দিলেও শেষ পর্যন্ত তিনজন নির্বাচনের মাঠে আছেন। বাকিরা সরে দাঁড়িয়েছেন।

ভাইস-চেয়ারম্যান পদে রফিকুল ইসলাম ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে শাহিদা মোশারফ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। দু’জনই স্থানীয়ভাবে হুইপ নজরুল ইসলাম বাবুর ঘনিষ্ঠজন বলে পরিচিত।

চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজালালের অভিযোগ, এবার দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন না হলেও সাইফুল ইসলামকে প্রকাশ্যে সমর্থন দিচ্ছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী এই সংসদ সদস্য পছন্দের এই প্রার্থীর পক্ষে ভোটারদের প্রভাবিত করতে নিয়মিত সভা-সমাবেশে উপস্থিত থাকছেন এবং হুমকির সুরে বক্তব্য দিচ্ছেন।

গত সোমবার নির্বাচন কমিশনে দেওয়া অভিযোগে শাহজালাল বলেন, ‘নজরুল ইসলাম বাবু উপজেলা নির্বাচনের আচরণবিধির বিন্দুমাত্র তোায়াক্কা না করে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নিজেই একজন পছন্দের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে জনসাধারণকে হুকুম দিচ্ছে তার প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনকে যেকোন মূল্যে পাশ করাতে হবে। হুইপ বাবু ‘ক্ষমতা, অর্থসহ, সকল প্রশাসন আমি দেখবো’ বলে তার ক্ষমতা ব্যবহার করে প্রকাশ্যে তার পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা করে যাচ্ছে। আমার কর্মী-সমর্থককে বিরতিহীনভাবে হুমকি, ভয়ভীতি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। এতে করে আমার নির্বাচনী প্রচারণায় বাধার সৃষ্টি হচ্ছে।

‘হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু আমার সম্ভাব্য পোলিং এজেন্টদের হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন। অকথ্য ভাষায় আমাকে গালাগাল করছেন। প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনও আমার কর্মী-সমর্থক ও সম্ভাব্য পোলিং এজেন্টদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। এতে করে অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে’, বলে অভিযোগ করেন দোয়াত-কলম প্রতীকের এই চেয়ারম্যান প্রার্থী।

নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনের স্বার্থে নির্বাচন আচরণবিধি অনুযায়ী হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু ও চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তিনি।

কমিশনে দেওয়া অভিযোগের সাথে নজরুল ইসলাম বাবুর প্রচারণায় অংশ নেওয়া এবং সেখানে দেওয়া বক্তব্যের ভিডিও এবং সংবাদমাধ্যমের কপিও সংযুক্ত করেছেন।

মুঠোফোনে শাহজালাল মিয়া বলেন, ‘আমি ১৭ বছর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলাম। বর্তমানে সভাপতি সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু। তার উপর তিনি জাতীয় সংসদের হুইপও হয়েছেন। উনি সববিষয়ে প্রভাব রাখেন। আমরা কখনও দ্বিমত করিনি। দলীয়ভাবে যে নৌকা পাইছে তার পক্ষে কাজ করছি। কিন্তু এইবার তো আমাদের দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাাসিনা নিজেই সবার অংশগ্রহণের জন্য কোন প্রতীক দেন নাই। তাই আমরাও নির্বাচনে দাঁড়াইছি। কিন্তু একজন সংসদ সদস্য এবং হুইপ হইয়া উনি এইভাবে একজন প্রার্থীর পক্ষ হইয়া হুমকি-ধমকি দেন তাহলে তো আর সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ থাকে না।’

এই প্রার্থী আরও বলেন, ‘প্রতিদিনই নজরুল ইসলাম বাবু বিভিন্ন এলাকায় স্বপনের পক্ষে নির্বাচনী সভা ও প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। অথচ নির্বাচন পরিচালনায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বা প্রশাসনের কেউ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। আজকেও (মঙ্গলবার) উপজেলার মারুয়াদি এলাকায় স্বপনের পক্ষে একটি সভা করেছেন নজরুল ইসলাম বাবু। আমি আশা করবো নেত্রী যেমন ফিল্ড ওপেন রাখছেন তেমনি এমপি সাহেবও যেন নিরব থাকেন। কারও পক্ষ না নিয়ে কে জিতে সেইটা উনি দেখুক।’

যদিও এই বিষয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ ও সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর মুঠোফোন নম্বরে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে আগামী ২১ মে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার ও সোনারগাঁয়ে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তিনটি উপজেলা নির্বাচনেরই রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাকিব আল রাব্বি।

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আড়াইহাজার উপজেলার দোয়াত-কলম প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচন কমিশন মো. আলমগীর স্যার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানতে পেরেছি। এক্ষেত্রে ব্যবস্থা নিবে কমিশন। তবে নির্বাচনী আচরণবিধি যাতে কেউ লঙ্ঘন না করে সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা নেবো।’

এদিকে, আজ মঙ্গলবার কমিশনে আরেকটি অভিযোগ দেন প্রার্থী শাহজালাল মিয়া। কমিশনকে তিনি জানিয়েছেন, আড়াইহাজার উপজেলার অন্তত ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু। নিরপেক্ষতার শঙ্কা প্রকাশ করে তিনি এসব প্রতিষ্ঠানের কাউকে ভোটগ্রহণের দিন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা বা পোলিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব না দিয়ে প্রয়োজনে পার্শ্ববর্তী উপজেলা থেকে কর্মকর্তাদের দায়িত্ব প্রদানের দাবি জানিয়েছেন।

back to top