alt

রাজনীতি

শাজাহান খান জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন : মাদারীপুর আ.লীগ সভাপতি

‌জেলা বার্তা পরি‌বেশক, মাদারীপুর : মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১
image

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাংসদ শাজাহান খান মাদারীপুরে জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা। সোমবার (৭ জুন) রাতে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা অভিযোগ করেন, ‘শাজাহান খান ঢাকায় গিয়ে খালেদা জিয়াকে গালাগালি করে বক্তব্য দেন। আবার রাতেই মাদারীপুরে এসে জামায়াত-শিবির ও বিএনপিকে নিয়ে মিটিং করেন। তাদের পুনর্বাসন করছেন। এসব কিন্তু ভালো লক্ষণ না। আওয়ামী লীগের লোক চিকিৎসার অভাবে ধুঁকে ধুঁকে মরে, আপনি তাদের সহযোগিতা করেন না। অথচ আপনি সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে গিয়ে বিএনপির লোকদের সহযোগিতা করেন। সেই প্রমাণও আমাদের কাছে আছে।’

রোববার (৬ জুন) বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছিলেন সাংসদ শাজাহান খান-সমর্থিত মুক্তিযোদ্ধারা। এই প্রসঙ্গ টেনে শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খানের নেতৃত্বে আমার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা হয়েছে। সেই প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান হাওলাদার। কী তাঁর পরিচয়? তিনি জাসদ ও বিএনপি করেছেন। বিএনপির এমন এক নেতা কী আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগ চাইতে পারেন? এটা যারা আমরা আওয়ামী লীগ করি, তাদের জন্য লজ্জার।’

সাংসদ শাজাহান খানের আগের ইতিহাস টেনে জেলা আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বুকে হাত রেখে বলেন, ১৫ বছর আগে আপনাদের কী ছিল? এখন কী হয়েছেন? এখন যা হয়েছেন, তা রাজৈরন্ডমাদারীপুর মানুষের ভোটে। আপনি এমপি-মন্ত্রী হয়েছেন, কিন্তু জনগণের কোনো উন্নয়ন হয়নি। সাধারণ কর্মীদের কোনো উন্নয়ন হয়নি।’ তিনি অভিযোগ করেন, ‘রাজৈরের ৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ মাদারীপুরের অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি শাজাহান খান নিজে, তাঁর স্ত্রী ও সন্তান।’

শাজাহান খানের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে শাহাবুদ্দিন মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খান যাঁদের দিয়ে আমার পদত্যাগ চান, এটা ভালো লক্ষণ না। জেলা আওয়ামী লীগের অফিসে আসার মতো সৎসাহস আপনার নেই। আমার বিরুদ্ধে কোনো কথা থাকলে তা আওয়ামী লীগের পরিবারের মধ্যে আলোচনা করুন। ফেসবুকে রাজাকার, আলবদরদের সন্তানদের দিয়ে আমাদের ও আওয়ামী লীগের কুৎসা রচনা করে যাচ্ছেন, এটা ভালো লক্ষণ না। আমি বলতে চাই, এসব বন্ধ করুন।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি জাহাঙ্গীর কবির, সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন, যুবলীগের সভাপতি আতাহার হোসেন ব্যাপারী, ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হো‌সেন অ‌নিকসহ অন্যরা।

ছবি

আওয়ামীলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বাষির্কী এবং ৬ দফা দিবস পালিত

ছবি

৫৪ দিন পর নিজ বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া

ছবি

বিএনপির রাজনীতি করোনার চেয়েও ভয়ঙ্কর:কাদের

ছবি

মুক্তি পেলেন বিএনপি নেত্রী নিপুণ রায়

ছবি

বিএনপিই এদেশে ধ্বংসাত্মক অপশক্তির পৃষ্ঠপোষক : কাদের

ছবি

‘আ.লীগ গণতন্ত্র যেভাবে ধ্বংস করেছে, সেভাবে পরিবেশও ধ্বংস করছে’

ছবি

মিটিংয়ে দাওয়াত না দেওয়ায় আ.লীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ২

ছবি

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সংসদীয় কমিটির প্রস্তাবের নিন্দা ঐক্য ন্যাপের

ছবি

জিয়াই স্বাধীনতাযুদ্ধের প্রথম নায়ক: মির্জা ফখরুল

ছবি

সরকার বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চলছে: মির্জা ফখরুল

ছবি

আ.লীগ এমনি এমনি ক্ষমতা দেবে না: ফখরুল

ছবি

ব্যাপক পরিবর্তনে হেফাজতের নতুন কমিটি ঘোষণা

ছবি

বিএনপির নেতা আসলাম চৌধুরীর জামিন স্থগিত

ছবি

এবারের বাজেট অবাস্তবায়নযোগ্য: ফখরুল

ছবি

বিএনপি ভালো কিছু দেখতে পায় না: কাদের

ছবি

সিসিইউ থেকে খালেদা জিয়াকে কেবিনে স্থানান্তর

ছবি

প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য আরো বেশী বরাদ্দ প্রয়োজন : তরিকত ফেডারেশন

ছবি

তিন আসনে উপনির্বাচন: শুক্রবার থেকে আ.লীগের মনোনয়ন বিতরণ শুরু

ছবি

ফিলিস্তিনের জনগণের পাশে থাকবে তরীকত ফেডারেশন

ছবি

ঢাবিতে ছাত্রদলের কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ২০

ছবি

বিএনপির দায়িত্বশীলতা শূন্যের কোটায় পৌঁছে গেছে: কাদের

ছবি

খালেদা জিয়া জ্বরে আক্রান্ত

ছবি

বড় আকার নয়, জীবন বাঁচানোর বাজেট চায় বিএনপি

ছবি

‘সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে বিএনপি’

ছবি

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন ওবায়দুল কাদের

ছবি

রোজিনার জামিনে প্রমাণিত আদালত সম্পূর্ণ স্বাধীন: কাদের

ছবি

ওবায়দুল কাদেরের বাসায় ফুল নিয়ে কাদের মির্জা

ছবি

গণমাধ্যমের শত্রুরা বন্ধু সেজে সরকারবিরোধী উস্কানি দিচ্ছে: কাদের

ছবি

বিএনপি গলাবাজি করলেই সরকার গণবিচ্ছিন্ন হবে না: কাদের

ছবি

এ সরকার রাজনৈতিক নয়, আমলাতান্ত্রিক: মির্জা ফখরুল

ছবি

সাংবাদিকদের ধৈর্য ধরতে বললেন ওবায়দুল কাদের

ছবি

সাংবাদিক রোজিনার সঙ্গে যা হয়েছে ন্যক্কারজনক: ফখরুল

ছবি

শেখ হাসিনা দেশে ফিরেছেন বলেই দেশ ডিজিটাল হয়েছে: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক

ছবি

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

ছবি

শেখ হাসিনার চলার পথ পুষ্প বিছানো ছিল না: কাদের

ছবি

রাজনৈতিক ব্লেম গেম থেকে বিরত থাকা সবার দায়িত্ব ও কর্তব্য: কাদের

tab

রাজনীতি

শাজাহান খান জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন : মাদারীপুর আ.লীগ সভাপতি

‌জেলা বার্তা পরি‌বেশক, মাদারীপুর
image

মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাংসদ শাজাহান খান মাদারীপুরে জামায়াত-বিএনপিকে পুনর্বাসিত করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা। সোমবার (৭ জুন) রাতে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা অভিযোগ করেন, ‘শাজাহান খান ঢাকায় গিয়ে খালেদা জিয়াকে গালাগালি করে বক্তব্য দেন। আবার রাতেই মাদারীপুরে এসে জামায়াত-শিবির ও বিএনপিকে নিয়ে মিটিং করেন। তাদের পুনর্বাসন করছেন। এসব কিন্তু ভালো লক্ষণ না। আওয়ামী লীগের লোক চিকিৎসার অভাবে ধুঁকে ধুঁকে মরে, আপনি তাদের সহযোগিতা করেন না। অথচ আপনি সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে গিয়ে বিএনপির লোকদের সহযোগিতা করেন। সেই প্রমাণও আমাদের কাছে আছে।’

রোববার (৬ জুন) বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা করেছিলেন সাংসদ শাজাহান খান-সমর্থিত মুক্তিযোদ্ধারা। এই প্রসঙ্গ টেনে শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খানের নেতৃত্বে আমার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা হয়েছে। সেই প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান হাওলাদার। কী তাঁর পরিচয়? তিনি জাসদ ও বিএনপি করেছেন। বিএনপির এমন এক নেতা কী আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগ চাইতে পারেন? এটা যারা আমরা আওয়ামী লীগ করি, তাদের জন্য লজ্জার।’

সাংসদ শাজাহান খানের আগের ইতিহাস টেনে জেলা আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বুকে হাত রেখে বলেন, ১৫ বছর আগে আপনাদের কী ছিল? এখন কী হয়েছেন? এখন যা হয়েছেন, তা রাজৈরন্ডমাদারীপুর মানুষের ভোটে। আপনি এমপি-মন্ত্রী হয়েছেন, কিন্তু জনগণের কোনো উন্নয়ন হয়নি। সাধারণ কর্মীদের কোনো উন্নয়ন হয়নি।’ তিনি অভিযোগ করেন, ‘রাজৈরের ৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ মাদারীপুরের অসংখ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি শাজাহান খান নিজে, তাঁর স্ত্রী ও সন্তান।’

শাজাহান খানের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে শাহাবুদ্দিন মোল্লা বলেন, ‘শাজাহান খান যাঁদের দিয়ে আমার পদত্যাগ চান, এটা ভালো লক্ষণ না। জেলা আওয়ামী লীগের অফিসে আসার মতো সৎসাহস আপনার নেই। আমার বিরুদ্ধে কোনো কথা থাকলে তা আওয়ামী লীগের পরিবারের মধ্যে আলোচনা করুন। ফেসবুকে রাজাকার, আলবদরদের সন্তানদের দিয়ে আমাদের ও আওয়ামী লীগের কুৎসা রচনা করে যাচ্ছেন, এটা ভালো লক্ষণ না। আমি বলতে চাই, এসব বন্ধ করুন।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি জাহাঙ্গীর কবির, সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন, যুবলীগের সভাপতি আতাহার হোসেন ব্যাপারী, ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হো‌সেন অ‌নিকসহ অন্যরা।

back to top