alt

রাজনীতি

পরাজয়ের পর মনিরুল হক সাক্কুর প্রতিক্রিয়া:

“ আমাকে পরিকল্পিতভাবে হারানো হয়েছে, আইনের আশ্রয় নেবো ”

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন ২০২২

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের স্বতন্ত্রপ্রার্থী মনিরুল হক (সাক্কু) নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, ‘আমি এই ফলাফলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেব।’ ।

মনিরুল হক (সাক্কু) বলেন, পরিকল্পিতভাবে আমাকে এই নির্বাচনে হারানো হয়েছে।

বুধবার রাতে কুমিল্লা জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ভোটের ফল ঘোষণার পর তিনি সাংবাদিকদের কাছে তার প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন।

নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনার শেষ পর্যায়ে এসে ফল ঘোষনা কেন্দ্রে তুমুল হট্টগোল হয়। রিটার্নিং কর্মকর্তা ফল ঘোষণায় বিরতির কথা বললে প্রতিবাদ করেন মনিরুল হকের সমর্থকেরা। ফল ঘোষণার দাবিতে ভোটের ফল ঘোষণা কেন্দ্রে অবস্থান নেন মনিরুল হক। পরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আরফানুল হকের (রিফাত) একদল অনুসারী সেখানে গিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেন। এতে ফল ঘোষণা কিছুক্ষণ বন্ধ রাখার পর আরফানুলকে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী। মনিরুলের চেয়ে ৩৪৩ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী দেখানো হয়েছে আরফানুলকে।

এই ফল ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মনিরুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন তার প্রথম পরীক্ষায় বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছে। ফলাফল ঘোষণা দেরি করে সরকারের সঙ্গে আঁতাত করে পরিকল্পিতভাবে আমাকে হারানো হয়েছে। আমি এই ফলাফলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেব।’

২০০৫ সাল থেকে কুমিল্লা নগরের উন্নয়নে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন মনিরুল হক। ওই বছর প্রথম কুমিল্লা পৌরসভা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হন তিনি। এরপর কুমিল্লা সিটি করপোরেশন গঠিত হওয়ার ২০১২ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

এবার বিএনপি স্থানীয় সরকার নির্বাচন বর্জন করায় মনিরুলের সামনে দল ও নির্বাচন—দুটির একটিকে বেছে নেওয়ার সুযোগ ছিল। নগরের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে মেয়র প্রার্থী হন তিনি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনিরুল লড়ছিলেন টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে।

এই নির্বাচনেও জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী মনিরুল হক সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। আমার ফুফাতো ভাই কর্নেল (অব.) আকবর হোসেন বীর প্রতীক কুমিল্লা-৬ (সদর) আসনে পাঁচবার ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে জয়ী হন। আমি ওনার সব নির্বাচন করেছি। ১৯৭৯ সাল থেকে আমাদের পরিবার কোনো নির্বাচনে পরাজিত হয়নি।’

বিএনপি থেকে আরেকজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এই নির্বাচনে মেয়র পদে লড়েছেন। কুমিল্লা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মো. নিজামউদ্দিন কায়সার ঘোড়া প্রতীকে ২৯ হাজার ৯৯টি ভোট পেয়েছেন।

ছবি

ভালো আছেন খালেদা জিয়া ও মির্জা ফখরুল

ছবি

বিকালে বসছে আ’লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে ফিরলেন আবুল হোসেন

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে এসে নিজেকে ‘সৌভাগ্যবান’ মনে করছেন জাফরুল্লাহ

ছবি

হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ছবি

বিএনপি দুর্গতদের নিয়ে রাজনীতি করে, পাশে দাঁড়ায় না

ছবি

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন খালেদা জিয়া

রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের এক নেতার বিরুদ্ধে দলের আরেক নেতাকে মারধরের অভিযোগ

ছবি

বাঙালি জাতির সব অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী: বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যাবে না বিএনপি

ছবি

অভিযোগ পাওয়ায় চাঁদপুরে ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত তিন কমিটি স্থগিত

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে আমন্ত্রণ পেলেন বিএনপির ৭ নেতা

ছবি

সরকারের তামাকমুক্ত দেশ গড়ার রোডম্যাপ নেই : হারুন

ছবি

মির্জা ফখরুলসহ ৫১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ২৮ আগস্ট

বাহার প্রসঙ্গ : সিইসির ‘ভিন্ন সুর’

ছবি

যেখানে আর্তমানবতা সেখানেই আওয়ামীলীগ-মতিয়া চৌধুরী

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ: বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে যুবলীগ

ছবি

চলতি মাসেই দেশে ফিরতে পারেন রওশন এরশাদ

ছবি

নির্বাচন কমিশনের ব্যাখ্যা প্রত্যাখ্যান করলেন মনিরুল হক

ছবি

বিকেলে বিএনপির ত্রাণ কমিটির যৌথসভা

ছবি

সরকারের ব্যর্থতায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে : রিজভী

ছবি

সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের জন্য ৬০০ আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

বিদেশে আমাদের কোন প্রভু নেই : আমু

আ’লীগ-বিএনপি কোন জোটে যাবে না বাম গণতান্ত্রিক জোট : কমরেড শাহ আলম

ছবি

জনগণের কষ্টের সময় সরকার উৎসব নিয়ে ব্যস্ত: ফখরুল

কুমিল্লা নির্বাচনের ফল কি হবে আগেই জানতাম : ফখরুল

ফল নিয়ে বিতর্ক এবং ভোটের সমীকরণ

মনোহরদীর ৩ ইউপিতেই নৌকার ভরাডুবি বিদ্রোহীদের জয় জয়কার

নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতা দুই কাউন্সিলর কারাগারে

৭ম ধাপের ইউপি নির্বাচনে জাজিরা উপজেলার ৬ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

নির্বাচন শেষ, সংসদ সদস্য বাহারের বিষয়ে কোন মন্তব্য করবেন না সিইসি

ছবি

কুমিল্লা সিটির নতুন মেয়র আরফানুল হক রিফাত

ছবি

কুমিল্লা সিটি ভোট: ১০১ কেন্দ্রের ফলাফলে এগিয়ে সাক্কু

ছবি

আঙুলের ছাপ না মেলায় ফিরে গেছেন ভোটাররা

ছবি

কুমিল্লার নির্বাচন সুষ্ঠু, ভোট পড়েছে ৬০ শতাংশ: সিইসি

tab

রাজনীতি

পরাজয়ের পর মনিরুল হক সাক্কুর প্রতিক্রিয়া:

“ আমাকে পরিকল্পিতভাবে হারানো হয়েছে, আইনের আশ্রয় নেবো ”

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন ২০২২

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের স্বতন্ত্রপ্রার্থী মনিরুল হক (সাক্কু) নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, ‘আমি এই ফলাফলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেব।’ ।

মনিরুল হক (সাক্কু) বলেন, পরিকল্পিতভাবে আমাকে এই নির্বাচনে হারানো হয়েছে।

বুধবার রাতে কুমিল্লা জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ভোটের ফল ঘোষণার পর তিনি সাংবাদিকদের কাছে তার প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন।

নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনার শেষ পর্যায়ে এসে ফল ঘোষনা কেন্দ্রে তুমুল হট্টগোল হয়। রিটার্নিং কর্মকর্তা ফল ঘোষণায় বিরতির কথা বললে প্রতিবাদ করেন মনিরুল হকের সমর্থকেরা। ফল ঘোষণার দাবিতে ভোটের ফল ঘোষণা কেন্দ্রে অবস্থান নেন মনিরুল হক। পরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আরফানুল হকের (রিফাত) একদল অনুসারী সেখানে গিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেন। এতে ফল ঘোষণা কিছুক্ষণ বন্ধ রাখার পর আরফানুলকে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী। মনিরুলের চেয়ে ৩৪৩ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী দেখানো হয়েছে আরফানুলকে।

এই ফল ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মনিরুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন তার প্রথম পরীক্ষায় বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছে। ফলাফল ঘোষণা দেরি করে সরকারের সঙ্গে আঁতাত করে পরিকল্পিতভাবে আমাকে হারানো হয়েছে। আমি এই ফলাফলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেব।’

২০০৫ সাল থেকে কুমিল্লা নগরের উন্নয়নে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন মনিরুল হক। ওই বছর প্রথম কুমিল্লা পৌরসভা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হন তিনি। এরপর কুমিল্লা সিটি করপোরেশন গঠিত হওয়ার ২০১২ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

এবার বিএনপি স্থানীয় সরকার নির্বাচন বর্জন করায় মনিরুলের সামনে দল ও নির্বাচন—দুটির একটিকে বেছে নেওয়ার সুযোগ ছিল। নগরের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে মেয়র প্রার্থী হন তিনি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনিরুল লড়ছিলেন টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে।

এই নির্বাচনেও জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী মনিরুল হক সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। আমার ফুফাতো ভাই কর্নেল (অব.) আকবর হোসেন বীর প্রতীক কুমিল্লা-৬ (সদর) আসনে পাঁচবার ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে জয়ী হন। আমি ওনার সব নির্বাচন করেছি। ১৯৭৯ সাল থেকে আমাদের পরিবার কোনো নির্বাচনে পরাজিত হয়নি।’

বিএনপি থেকে আরেকজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এই নির্বাচনে মেয়র পদে লড়েছেন। কুমিল্লা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মো. নিজামউদ্দিন কায়সার ঘোড়া প্রতীকে ২৯ হাজার ৯৯টি ভোট পেয়েছেন।

back to top