alt

খেলা

দুই সন্তান নিয়ে আদালতে আল আমিনের স্ত্রী

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক : বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২

ক্রিকেটার আল আমিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছিলেন তার স্ত্রী ইসরাত জাহান। সেই পদক্ষেপ হিসেবে মামলা করেন এই পেসারের বিরুদ্ধে।

আর এবার একসঙ্গে বসবাসের অধিকার, মাসিক ভরণপোষণ ও সন্তানদের খরচ দাবিতে দুই সন্তান নিয়ে আদালতে হাজির হয়েছেন ইসরাত জাহান।

এদিকে আল আমিন হোসেনও আদালতে উপস্থিত হয়েছেন। এ বিষয়ে ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে ক্রিকেটার আল আমিন আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় ৬ অক্টোবর পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে ৭ সেপ্টেম্বর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে মামলাটি করেন আল আমিনের স্ত্রী ইসরাত জাহান। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আল আমিনকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন।

মামলায় বলা হয়, ২০১২ সালের ২৬ ডিসেম্বর ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক ইসরাত জাহান ও আল আমিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের দুটি পুত্রসন্তান রয়েছে। বড় ছেলে মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে ইংরেজি ভার্সনে কেজিতে পড়াশোনা করছে। বেশ কিছুদিন ধরে আল আমিন তার স্ত্রী-সন্তানদের ভরণ-পোষণ দেন না এবং খোঁজ না রেখে এড়িয়ে চলেন। যোগাযোগও করেন না।

গত ২৫ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টার দিকে আল আমিন বাসায় এসে স্ত্রীর কাছে যৌতুকের জন্য ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। ইসরাত জাহান টাকা দিতে অস্বীকার করলে আল আমিন তাকে এলোপাতাড়ি কিলঘুসিসহ লাথি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেন। সংসার করবেন না বলে জানান। ইসরাত জাহান ৯৯৯-এ টেলিফোন করে সাহায্য চাইলে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করেন। পরে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন ইসরাত জাহান। এ ঘটনায় ১ সেপ্টেম্বর মিরপুর মডেল থানায় মামলাও হয়।

সর্বশেষ গত ৩ সেপ্টেম্বর আল-আমিন তার মায়ের মাধ্যমে জানান, ইসরাতের সঙ্গে সংসার করবেন না এবং সন্তানদের ভরণ-পোষণ দেবেন না। প্রয়োজনে স্ত্রীকে বাসা থেকে বের করে দেবেন, এমনকি তালাক দেবেন।

আল আমিন স্ত্রী-সন্তানদের বাসা থেকে বের করে অন্যত্র বিয়ে করবেন বলে জানান ইসরাত। দুই বছর ধরে আসামি বাদীর খোঁজখবর নেন না এবং বাসায় নিয়মিত থাকেন না। যার কারণে ইসরাত তার দুই সন্তানসহ বসতবাড়িতে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করার অধিকারসহ মাসিক ভরণ-পোষণ দাবি করে মামলাটি করেন।

ছবি

দ. কোরিয়া কোচের পদত্যাগ

ছবি

সাকিবকে যতদিন সম্ভব রাখতে চান ডমিঙ্গো

ছবি

রেকর্ড রানের নাটকীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের স্মরণীয় জয়

ছবি

গোল উদযাপন : ব্রাজিলিয়ানদের নাচ ঘিরে বিতর্ক ও কোচের জবাব

ছবি

দি মারিয়া ফেরেননি অনুশীলনে

ছবি

মরক্কোকে যে কারণে কঠিন প্রতিপক্ষ ভাবছে স্পেন

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

কোরিয়াকে এক হালি গোল দিয়ে শেষ আটে ব্রাজিল

ছবি

জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ক্রোয়েশিয়া কোয়ার্টার ফাইনালে

ছবি

এমবাপ্পের জোড়া গোলে শেষ আটে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা

ছবি

বিশ্বকাপের লড়াইয়ে সমান আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ডস

ছবি

ইংল্যান্ড দলের জন্য আর্থিক পুরস্কার ঘোষণা

ছবি

কো.ফাইনালে ফ্রান্সের মুখোমুখি ইংল্যান্ড

ছবি

মরক্কোর বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে স্পেনকে

ছবি

লন্ডনের বাড়িতে ডাকাতি, ফিরে গেলেন স্টার্লিং

ছবি

দল বিদায় নিতেই অবসরের ইঙ্গিত লিওনডস্কির

ছবি

বিশ্বকাপে কেন সংবাদমাধ্যম এড়িয়ে চলছিলেন, জানালেন এমবাপ্পে

ছবি

জাপানের কাছে হার, চোখ খুলেছে স্পেনের

ছবি

পথচারীকে বাঁচাতে গিয়ে শিক্ষক-কাউন্সিলর হাসপাতালে

ছবি

সেনেগালকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

কোরিয়ার স্বপ্নযাত্রা থামিয়ে এগিয়ে যেতে চায় ব্রাজিল

ছবি

মেসির হাজারতম ম্যাচে প্রত্যাশিত জয়ে শেষ আটে আর্জেন্টিনা

ছবি

আরও একটি অঘটনের আশায় জায়ান্ট কিলার জাপান

ছবি

আমরা যে ফুটবল খেলতে পারি, বিশ্ববাসীকে দেখানোর লক্ষ্য পূরণ হয়েছে : মার্কিন কোচ

ছবি

বিশ্বকাপে জার্মানিকে নিয়ে ফুটবল ওয়েব সিরিজ হচ্ছে

ছবি

তিনটি করে গোল মেসিসহ ছয় ফুটবলারের

ছবি

কোরিয়ার স্বপ্ন যাত্রা থামিয়ে এগিয়ে যেতে চায় ব্রাজিল

ছবি

পোল্যান্ডের বিপক্ষে সহজেই জিতে শেষ আটে ফ্রান্স

ছবি

চাপ সামলে দেশকে উল্লাসে ভাসালো টাইগাররা

ছবি

অর্ধশত রানের জুটি গড়ে ভারতের বিপক্ষে জয় এনে দিলো মিরাজ-মুস্তাফিজ

ছবি

রোহিত-কোহলিকে ফেরালেন সাকিব

ছবি

কোরিয়ার বিপক্ষেই ফিরছেন নেইমার ও দানিলো

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয়ে শেষ আটে আর্জেন্টিনা

ছবি

সেনেগালকে হারিয়ে এগিয়ে যাওয়া লক্ষ্য ইংল্যান্ডের

tab

খেলা

দুই সন্তান নিয়ে আদালতে আল আমিনের স্ত্রী

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক

বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২

ক্রিকেটার আল আমিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছিলেন তার স্ত্রী ইসরাত জাহান। সেই পদক্ষেপ হিসেবে মামলা করেন এই পেসারের বিরুদ্ধে।

আর এবার একসঙ্গে বসবাসের অধিকার, মাসিক ভরণপোষণ ও সন্তানদের খরচ দাবিতে দুই সন্তান নিয়ে আদালতে হাজির হয়েছেন ইসরাত জাহান।

এদিকে আল আমিন হোসেনও আদালতে উপস্থিত হয়েছেন। এ বিষয়ে ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে ক্রিকেটার আল আমিন আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় ৬ অক্টোবর পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে ৭ সেপ্টেম্বর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে মামলাটি করেন আল আমিনের স্ত্রী ইসরাত জাহান। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আল আমিনকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন।

মামলায় বলা হয়, ২০১২ সালের ২৬ ডিসেম্বর ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক ইসরাত জাহান ও আল আমিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের দুটি পুত্রসন্তান রয়েছে। বড় ছেলে মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে ইংরেজি ভার্সনে কেজিতে পড়াশোনা করছে। বেশ কিছুদিন ধরে আল আমিন তার স্ত্রী-সন্তানদের ভরণ-পোষণ দেন না এবং খোঁজ না রেখে এড়িয়ে চলেন। যোগাযোগও করেন না।

গত ২৫ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টার দিকে আল আমিন বাসায় এসে স্ত্রীর কাছে যৌতুকের জন্য ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। ইসরাত জাহান টাকা দিতে অস্বীকার করলে আল আমিন তাকে এলোপাতাড়ি কিলঘুসিসহ লাথি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেন। সংসার করবেন না বলে জানান। ইসরাত জাহান ৯৯৯-এ টেলিফোন করে সাহায্য চাইলে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করেন। পরে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন ইসরাত জাহান। এ ঘটনায় ১ সেপ্টেম্বর মিরপুর মডেল থানায় মামলাও হয়।

সর্বশেষ গত ৩ সেপ্টেম্বর আল-আমিন তার মায়ের মাধ্যমে জানান, ইসরাতের সঙ্গে সংসার করবেন না এবং সন্তানদের ভরণ-পোষণ দেবেন না। প্রয়োজনে স্ত্রীকে বাসা থেকে বের করে দেবেন, এমনকি তালাক দেবেন।

আল আমিন স্ত্রী-সন্তানদের বাসা থেকে বের করে অন্যত্র বিয়ে করবেন বলে জানান ইসরাত। দুই বছর ধরে আসামি বাদীর খোঁজখবর নেন না এবং বাসায় নিয়মিত থাকেন না। যার কারণে ইসরাত তার দুই সন্তানসহ বসতবাড়িতে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করার অধিকারসহ মাসিক ভরণ-পোষণ দাবি করে মামলাটি করেন।

back to top