alt

খেলা

স্পেনিশ লা লিগা

লেভান্তের সাথে ড্র করে শিরোপার আশা শেষ বার্সেলোনার

স্পোর্টস ডেস্ক : বুধবার, ১২ মে ২০২১
image

লেভান্তের সাথে ৩-৩ গোলে ড্র করায় বার্সেলোনার লা লিগার শিরোপা জেতার আশা কার্যত শেষ হয়ে গেছে। বিরতির আগে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকা বার্সেলোনা দ্বিতীয়ার্ধে হতাশাজনক খেলে ম্যাচটি ড্র করে। এমনকি লেভাৗেল্প ২-২ গোলে সমতা ফেরানোর পরও তারা এগিয়ে গিয়েছিল ৩-২ গোলে। কিন্তু সে অগ্রগামীতাও তারা ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। এ ম্যাচ ড্র করায় ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠেছে বার্সেলোনা। তাদের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলে ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। রিয়াল মাদ্রিদ ৩৫ ম্যাচ থেকে সংগ্রহ করেছে ৭৫ পয়েন্ট। অবিশ^াস্য কোন অঘটন না ঘটলে এ মৌসুমের লিগ শিরোপা আর জেতা হচ্ছে না বার্সেলোনার। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ এবং রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যে কোন একটি দলই জিতবে শিরোপা। এখন পর্যন্ত সুবিধাজনক অবস্থানে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

ম্যাচের শুরুটা দারুন করেছিল বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি এবং পেড্রির করা গোলে বিরতির আগেই তারা এগিয়ে যায় ২-০ গোলে। কিন্তু বিরতির পর অল্প ব্যবধানে দুই গোল করে সমতা ফেরায় স্বাগতিক লেভান্তে। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝি সময়ে ওসমানে ডেম্বেলের গোলে আবারও লিড নিতে সক্ষম হয় বার্সেলোনা। কিন্তু তারা সে লিডও ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়। লেভান্তের খেলোয়াড়দের দুরন্ত গতির সাথে তাল মেলাতে ব্যর্থ হয় বার্সেলোনার রক্ষণভাগ। খেলার সাত মিনিট বাকি থাকতে সার্জিও লেওন গোল করে সমতায় ফেরান বার্সেলোনাকে। বার্সেলোনার হাতে আছে দুই ম্যাচ। অ্যাটলেটিকো এবং রিয়ালের বাকি তিনটি করে ম্যাচ।

এ ম্যাচে আক্রমণাত্মক খেলার কৌশলই গ্রহণ করেন কোচ রোনাল্ড কোম্যান। তিনজন ডিফেন্ডার নিয়ে তিনি একাদশ গঠন করেন। শুরু থেকেই বার্সেলোনা দারুন খেলতে শুরু করে। লেভান্তের গোলরক্ষক আইতর ফার্নান্ডেজ অসাধারণ একটি সেভ না করলে শুরুর দিকেই গোল পেয়ে যাচ্ছিলেন পেড্রি। ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ংয়ের পাস থেকে তিনি ফাকায় বল পেয়ে গিয়েছিলেন। বার্সেলোনা ২৫ মিনিটে এগিয়ে যায় মেসির করা দুরন্ত এক গোলে। জর্দি অ্যালবার ক্রস থেকে বা পায়ের শটে গোলটি করেন মেসি। এর নয় মিনিট পরই দ্বিতীয় গোল করে বার্সেলোনা। মেসি বল নিয়ে বেশ খানিটা এগিয়ে গিয়ে পাস দেন ডেম্বেলেকে। তিনি কাট ব্যাক দেন পেড্রিকে এবং এবার আর পেড্রি ব্যর্থ হননি। বিরতি পর্যন্ত দুই গোলেই এগিয়ে থাকে বার্সেলোনা। বিরতির পরই কিছুটা আঘাতপ্রাপ্ত আরাওহোর জায়গায় নামানো হয় সার্জি রবার্তোকে। রবার্তোর ব্যর্থতায়ই প্রথম গোল পেয়ে যায় লেভান্তে। দ্রুত গতির একটি আক্রমণ থেকে গোলমুখে ক্রস করেন মিরামন। সার্জি রবার্তোর পাহারা এড়িয়ে সেটি হেড করে জালে পাঠান গঞ্জালো মেলেরো। ৫৭ মিনিটে প্রথম গোল করার তিন মিনিট পরই সমতা ফেরায় লেভান্তে। নিজেদের সীমায় মেসি ঠিক মতো বল নিয়ন্ত্রনে নিতে ব্যর্থ হলে সেটি পেয়ে যান হোসে লুইস মোরালেস এবং তিনি কিছুটা এগিয়ে গিয়ে বা পায়ের শটে ম্যাচের স্কোর করেন ২-২। সমতা ফেরার পর আবার আক্রমণে যাওয়ার চেষ্টা করে বার্সেলোনা। ৬৪ মিনিটে মিরামনের ব্যর্থতায় বল পেয়ে বার্সেলোনাকে আবারও এগিয়ে দেন ডেম্বেলে। বার্সেলোনা ৩-২ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর মনে হয়েছিল লেভান্তে সম্ভবত এবার আর সমতায় ফিরতে পারবে না। কোচ বার্সেলোনার রক্ষণভাগের শক্তি বৃদ্ধি করেন। পেড্রিকে তুলে মাঠে নামান ডিফেন্ডার অস্কার মিনগেজাকে। ডেম্বেলে এবং অ্যান্টনি গ্রিজম্যানকে তুলে নামানো হয় সার্জিনো ডেস্ট এবং মার্টিন ব্রেথওয়াইটকে। এ পরিবর্তন বার্সেলোনার খেলায় কোন প্রভাব ফেলতে পারেনি। ৮৩ মিনিটে টোনোর ক্রসে পা লাগিয়ে ম্যাচের স্কোর ৩-৩ করেন সার্জিও লেওন। অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকের সামনে দিয়ে বলে পা লাগান লেওন। এর পর সার্জি রবার্তোকে তুলে রিকি পুজকে নামিয়ে চেষ্টা করেন কোম্যান। কিন্তু তার কোন চেষ্টাই কাজে আসেনি। দুই পয়েন্ট হারিয়েই তাদের মাঠ ছাড়তে হয়। মনে করা হয় এ ম্যাচে দ্ইু পয়েন্ট হারানোর সাথে সাথে চাকুরী হারানোটাও নিশ্চিত হয়েছে কোচ কোম্যানের। বাকি দুই ম্যাচ পরই এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে বার্সেলোনা।

ছবি

মেসিকে নিয়ে নতুন জটিলতার কথা স্বীকার করলেন লাপোর্তা

ছবি

রিয়াল ছাড়ছেন রামোস

ছবি

টানা দ্বিতীয় জয়ে নক আউট পর্বে ইটালি

ছবি

তুরস্ককে হারিয়ে নক আউটের পথে ওয়েলস

ছবি

ফিনল্যান্ডকে হারিয়ে রাশিয়ার স্বস্তির জয়

ছবি

হামেলসের আত্মঘাতি গোলে জার্মানিকে হারালো ফ্রান্স

ছবি

রোনালদোর জোড়া গোলে জয়ে শুরু পর্তুগালের

ছবি

রোনালদোর বক্তব্যে কোকাকোলার ৪০০ কোটি ডলার ক্ষতি

ছবি

বলিভিয়াকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে প্যারাগুয়ে

ছবি

পোল্যান্ডকে হারিয়ে দিয়েছে স্লোভাকিয়া

ছবি

সুইডেন রুখে দিয়েছে স্পেনকে

ছবি

চিলির বিপক্ষে আবারও জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

ছবি

শিকের জোড়া গোলে চেক হারিয়েছে স্কটল্যান্ডকে

ছবি

আইসিসির সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত মুশফিক

ছবি

ইকুয়েডরকে হারিয়ে দিয়েছে কলম্বিয়া

ছবি

ইউক্রেনের সাথে নেদারল্যান্ডসের কষ্টার্জিত জয়

ছবি

সহজ জয়ে কোপা শুরু ব্রাজিলের

ছবি

ফরাসী ওপেন জিতে ৫২ বছর আগের রেকর্ড স্পর্শ করলেন জকোভিচ

ছবি

স্টার্লিংয়ের গোলে ইংল্যান্ডের শুভ সূচনা

ছবি

লুকাকুর জোড়া গোলে বেলজিয়ামের দারুন জয়

ছবি

এরিকসেনের অচেতন হওয়া ম্যাচে ডেনমার্কের হার

ছবি

ক্যারিবিয়ানদের ইনিংস ব্যবধানে হারালো প্রোটিয়ারা

ছবি

এজবাস্টনে জয় দেখছে নিউজিল্যান্ড

ছবি

সাকিব তিন ম্যাচে নিষিদ্ধ, জরিমানা ৫ লাখ টাকা

ছবি

ক্লে কিং নাদালকে হারিয়ে ফাইনালে জকোভিচ

ছবি

জয় দিয়ে ইউরো শুরু ইটালির

ডি ককের সেঞ্চুরিতে ব্যাকফুটে ক্যারিবিয়ানরা

এজবাস্টনে কিউই ব্যাটারদের দাপট

ছবি

ক্ষোভে লাথি মেরে স্ট্যাম্প উপড়ে ফেললেন সাকিব

ছবি

আর্জেন্টিনার সামনে শিরোপার খড়া কাটানোর সুযোগ

ছবি

অ্যান্ডারসনের ইতিহাসের দিনে নড়েবড়ে ইংল্যান্ড

ছবি

বার্মিংহামে সমানে সমান লড়াই

ছবি

কোপায় ব্রাজিলের অধিনায়ক নেইমার

ছবি

সুপার লিগ প্রশ্নে আপাতত পিছু হটলো ইউয়েফা

ছবি

এজবাস্টনে দ্বিতীয় টেস্টে মুখোমুখি ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড

ছবি

ব্রাজিল জিতলেও ড্র করেছে আর্জেন্টিনা

tab

খেলা

স্পেনিশ লা লিগা

লেভান্তের সাথে ড্র করে শিরোপার আশা শেষ বার্সেলোনার

স্পোর্টস ডেস্ক
image

বুধবার, ১২ মে ২০২১

লেভান্তের সাথে ৩-৩ গোলে ড্র করায় বার্সেলোনার লা লিগার শিরোপা জেতার আশা কার্যত শেষ হয়ে গেছে। বিরতির আগে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকা বার্সেলোনা দ্বিতীয়ার্ধে হতাশাজনক খেলে ম্যাচটি ড্র করে। এমনকি লেভাৗেল্প ২-২ গোলে সমতা ফেরানোর পরও তারা এগিয়ে গিয়েছিল ৩-২ গোলে। কিন্তু সে অগ্রগামীতাও তারা ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। এ ম্যাচ ড্র করায় ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠেছে বার্সেলোনা। তাদের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলে ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। রিয়াল মাদ্রিদ ৩৫ ম্যাচ থেকে সংগ্রহ করেছে ৭৫ পয়েন্ট। অবিশ^াস্য কোন অঘটন না ঘটলে এ মৌসুমের লিগ শিরোপা আর জেতা হচ্ছে না বার্সেলোনার। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ এবং রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যে কোন একটি দলই জিতবে শিরোপা। এখন পর্যন্ত সুবিধাজনক অবস্থানে আছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

ম্যাচের শুরুটা দারুন করেছিল বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি এবং পেড্রির করা গোলে বিরতির আগেই তারা এগিয়ে যায় ২-০ গোলে। কিন্তু বিরতির পর অল্প ব্যবধানে দুই গোল করে সমতা ফেরায় স্বাগতিক লেভান্তে। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝি সময়ে ওসমানে ডেম্বেলের গোলে আবারও লিড নিতে সক্ষম হয় বার্সেলোনা। কিন্তু তারা সে লিডও ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়। লেভান্তের খেলোয়াড়দের দুরন্ত গতির সাথে তাল মেলাতে ব্যর্থ হয় বার্সেলোনার রক্ষণভাগ। খেলার সাত মিনিট বাকি থাকতে সার্জিও লেওন গোল করে সমতায় ফেরান বার্সেলোনাকে। বার্সেলোনার হাতে আছে দুই ম্যাচ। অ্যাটলেটিকো এবং রিয়ালের বাকি তিনটি করে ম্যাচ।

এ ম্যাচে আক্রমণাত্মক খেলার কৌশলই গ্রহণ করেন কোচ রোনাল্ড কোম্যান। তিনজন ডিফেন্ডার নিয়ে তিনি একাদশ গঠন করেন। শুরু থেকেই বার্সেলোনা দারুন খেলতে শুরু করে। লেভান্তের গোলরক্ষক আইতর ফার্নান্ডেজ অসাধারণ একটি সেভ না করলে শুরুর দিকেই গোল পেয়ে যাচ্ছিলেন পেড্রি। ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ংয়ের পাস থেকে তিনি ফাকায় বল পেয়ে গিয়েছিলেন। বার্সেলোনা ২৫ মিনিটে এগিয়ে যায় মেসির করা দুরন্ত এক গোলে। জর্দি অ্যালবার ক্রস থেকে বা পায়ের শটে গোলটি করেন মেসি। এর নয় মিনিট পরই দ্বিতীয় গোল করে বার্সেলোনা। মেসি বল নিয়ে বেশ খানিটা এগিয়ে গিয়ে পাস দেন ডেম্বেলেকে। তিনি কাট ব্যাক দেন পেড্রিকে এবং এবার আর পেড্রি ব্যর্থ হননি। বিরতি পর্যন্ত দুই গোলেই এগিয়ে থাকে বার্সেলোনা। বিরতির পরই কিছুটা আঘাতপ্রাপ্ত আরাওহোর জায়গায় নামানো হয় সার্জি রবার্তোকে। রবার্তোর ব্যর্থতায়ই প্রথম গোল পেয়ে যায় লেভান্তে। দ্রুত গতির একটি আক্রমণ থেকে গোলমুখে ক্রস করেন মিরামন। সার্জি রবার্তোর পাহারা এড়িয়ে সেটি হেড করে জালে পাঠান গঞ্জালো মেলেরো। ৫৭ মিনিটে প্রথম গোল করার তিন মিনিট পরই সমতা ফেরায় লেভান্তে। নিজেদের সীমায় মেসি ঠিক মতো বল নিয়ন্ত্রনে নিতে ব্যর্থ হলে সেটি পেয়ে যান হোসে লুইস মোরালেস এবং তিনি কিছুটা এগিয়ে গিয়ে বা পায়ের শটে ম্যাচের স্কোর করেন ২-২। সমতা ফেরার পর আবার আক্রমণে যাওয়ার চেষ্টা করে বার্সেলোনা। ৬৪ মিনিটে মিরামনের ব্যর্থতায় বল পেয়ে বার্সেলোনাকে আবারও এগিয়ে দেন ডেম্বেলে। বার্সেলোনা ৩-২ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর মনে হয়েছিল লেভান্তে সম্ভবত এবার আর সমতায় ফিরতে পারবে না। কোচ বার্সেলোনার রক্ষণভাগের শক্তি বৃদ্ধি করেন। পেড্রিকে তুলে মাঠে নামান ডিফেন্ডার অস্কার মিনগেজাকে। ডেম্বেলে এবং অ্যান্টনি গ্রিজম্যানকে তুলে নামানো হয় সার্জিনো ডেস্ট এবং মার্টিন ব্রেথওয়াইটকে। এ পরিবর্তন বার্সেলোনার খেলায় কোন প্রভাব ফেলতে পারেনি। ৮৩ মিনিটে টোনোর ক্রসে পা লাগিয়ে ম্যাচের স্কোর ৩-৩ করেন সার্জিও লেওন। অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকের সামনে দিয়ে বলে পা লাগান লেওন। এর পর সার্জি রবার্তোকে তুলে রিকি পুজকে নামিয়ে চেষ্টা করেন কোম্যান। কিন্তু তার কোন চেষ্টাই কাজে আসেনি। দুই পয়েন্ট হারিয়েই তাদের মাঠ ছাড়তে হয়। মনে করা হয় এ ম্যাচে দ্ইু পয়েন্ট হারানোর সাথে সাথে চাকুরী হারানোটাও নিশ্চিত হয়েছে কোচ কোম্যানের। বাকি দুই ম্যাচ পরই এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে বার্সেলোনা।

back to top