alt

খেলা

চট্টগ্রামের টানা দ্বিতীয় জয়

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

পরাজয় দিয়ে বিপিএলের অষ্টম আসর শুরু করে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। প্রথম ম্যাচে হারার পর খুব ভালভাবেই ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে মেহেদী হাসান মিরাজের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। আজ দিনের দ্বিতীয় খেলায় খুলনা টাইগার্সকে ২৫ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিলো তারুণ্য নির্ভর চট্টগ্রাম।

জয়ের জন্য ১৯০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে চার ওভার না যেতেই তানজীদ হাসান তামিম (৯) ও রনি তালুকদারের (৭) উইকেট হারায় খুলনা। ফ্লেচার ও মেহেদি হাসানের ব্যাটে সেই ধাক্কা সামলেও ওঠার চেষ্টা করছিল দলটি। কিন্তু সপ্তম ওভারে রেজাউর রহমানের বাউন্সে কাঁধে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন ফ্লেচার। ১২ বলে ১৬ রান করেন তিনি। ফ্লেচারকে হাসপাতালে নেওয়া হলে তিনি স্বাভাবিক আছেন বলে জানা গেছে।

মাথায় বলের আঘাত পাওয়ায় কনকাশন প্রদ্ধতিতে ফ্লেচারের পরিবর্তে ব্যাটিংয়ে নামেন সিকান্দার রাজা। তার আগে থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে না পারার আক্ষেপে পোড়েন শেখ মেহেদী হাসান। মেহেদী ২৪ বলে ৩০ এবং মুশফিক ১৫ বলে ১১ রানে আউট হলে কার্যত শেষ হয়ে যায় খুলনার জয়ের আশা। তবে শেষদিকে ইয়াসির আলি রাব্বি ও সাব হয়ে নামা রাজা চেষ্টা চালান কিছুটা, লাভ হয়নি তাতে, এতে হারের ব্যবধান কমে শুধু।

নির্ধারীত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১৬৫ রানে থামে খুলনার ইনিংস। চট্টগ্রামের হয়ে সর্ব্বোচ্চ ৪০ রানের ইনিংস খেলেন ইয়াসির আলী রাব্বি। চট্টগ্রামের হয়ে শরীফুল, মিরাজ ও রাজা ২টি করে উইকেট শিকার করেন। ২৫ রানের জয় নিশ্চিত করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে গেল বন্দর নগরীর দলটি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে চট্টগ্রানের দুই ওপেনার শুভাগতর করা প্রথম ওভার থেকেই সংগ্রহ করেন ২৩ রান। মাত্র ৭ বলের ঝড়েই থেমে যান জ্যাকস। ১ চার ও ২ ছক্কায় ৭ বলে ১৭ রান করে কামরুল ইসলাম রাব্বির শিকার হন তিনি। আফিফ হোসেনের সাথে জুটিতে ২৩ রান যোগ করে বিদায় নেন লুইস। লুইস দুইটি করে চার ও ছক্কায় করেন ১৪ বলে ২৫ রান। রান-আউট হয়ে ১৩ বলে ১৫ রান করে আফিফ বিদায় নেন।

চতুর্থ উইকেটে বড় জুটি গড়েন সাব্বির ও মেহেদী হাসান মিরাজ। নাভিন উল হককে স্কুপ করতে গিয়ে ক্যাচ আউট হন মিরাজ। ২৩ বলে ৩০ রান করেন তিনি। মিরাজ আউট হোওয়ার পর বেশিক্ষন টিকতে পারেননি সাব্বিরও। ফিরে যাবার আগে ৩৩ বলে করেছেন ৩২ রান। শেষের দিকে ঝিমিয়ে আসা রানে গতি দেন হাওয়েল।

আগের দুই ম্যাচের মতো এ দিনও ব্যাট হাতে স্লগ ওভারে ছড়ি ঘোরান ইংলিশম্যান। ৪ চার আর ১ ছক্কায় ২০ বলে খেলেন ৩৪ রানের ঝলমলে ইনিংস। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন অভিজ্ঞ নাঈম ইসলাম।

রান আউটের ফাঁদে পড়ার আগে ৫ বলের দুটিকে ছক্কা বানিয়ে খেলেন ১৫ রানের ক্যামিও। তাতেই চট্টগ্রামের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৮৯ রানের। খুলনার পক্ষে ৩ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন কামরুল রাব্বি। নবীন উল হক ৪ ওভারে ৪৮ রান খরচায় নেন ১ উইকেট। ফরহাদ রেজা ৪ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে শিকার করেন ১ উইকেট।

ছবি

চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেই বিদায়ের ঘোষণা মার্সেলোর

ছবি

আমি রেকর্ডমানব: আনচেলত্তি

ছবি

সাকিবদের মানসিকতা নিয়ে কাজ করবে সামরিক বাহিনী

ছবি

ইন্দোনেশিয়াকে হারিয়ে পঞ্চমের দৌড়ে বাংলাদেশ

ছবি

নিজের সম্মান রক্ষা করতেই ৯ সেভের রেকর্ড কোর্তোয়ার!

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

রিয়াল মাদ্রিদের ১৪তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়

ছবি

মধ্য রাতে মহারণে রিয়াল মাদ্রিদ-লিভারপুল: কোন দলের শক্তি কেমন?

ছবি

এক মাস পর রাইফেল ধরবেন বাকি

ছবি

রিয়াল মাদ্রিদ ফাইনাল খেললেই জিতে যায়

ছবি

আইপিএলের রোজগারেই স্বপ্নপূরণ উমরান মালিকের

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

রিয়াল মাদ্রিদ-লিভারপুল ফাইনালে মুখোমুখি শনিবার

ছবি

বাংলাদেশকে ১০ উইকেটে হারিয়ে সিরিজ জয় শ্রীলঙ্কার

ছবি

ব্যাটিং ব্যর্থতায় গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কার টার্গেট ২৯ রান

ছবি

সাকিব-লিটনের ব্যাটে ইনিংস হারের শঙ্কা কাটিয়ে লাঞ্চে বাংলাদেশ

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

আমরা ফিটেস্ট টিম, কারণ আমরাই বেশি ফিল্ডিং করি: সাকিব

ছবি

ব্যাটিং বিপর্যয়ে বিপাকে বাংলাদেশ, ইনিংস হারের শঙ্কা

ছবি

ফাইনাল নিয়ে মানসিক চাপে আছেন রিয়াল কোচ

ছবি

শ্রীলঙ্কার লিড, বাংলাদেশের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ

ছবি

অনায়াসেই প্রথম দেড় ঘণ্টা পার ম্যাথিউজ-চান্দিমালের

ছবি

কনফারেন্স লিগ জিতে মরিনিয়োর অনন্য রেকর্ড

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

বৃষ্টিবিঘ্নিত দিনে শ্রীলঙ্কার তিন উইকেট পতন

ছবি

মিরপুরে ঝুম বৃষ্টি, বন্ধ রয়েছে খেলা

ছবি

মিরপুরে বৃষ্টি, ম্যাথুজ-ধনাঞ্জয়ের ব্যাটে লড়ছে শ্রীলঙ্কা

ছবি

সেরা কোচের পুরস্কার পেলেন ক্লপ

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

ব্যর্থতা থেকেই সফলতার রসদ খুঁজে নিতে শিখেছেন লিটন

ছবি

‘২২২’ রানে পিছিয়ে থেকে দিন শেষ করল শ্রীলঙ্কা

ছবি

মুশফিকের ১৭৫, বাংলাদেশ থামল ৩৬৫ রানে

ছবি

ফ্রান্সে থাকতেই পিএসজির সাথে চুক্তি নবায়ন করেছেন এমবাপ্পে!

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

সকালে মাঠে থাকলে হার্ট অ্যাটাক করতাম: পাপন

ছবি

মুশফিক-লিটনের সেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে বাংলাদেশ

tab

খেলা

চট্টগ্রামের টানা দ্বিতীয় জয়

ক্রীড়া বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২

পরাজয় দিয়ে বিপিএলের অষ্টম আসর শুরু করে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। প্রথম ম্যাচে হারার পর খুব ভালভাবেই ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে মেহেদী হাসান মিরাজের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। আজ দিনের দ্বিতীয় খেলায় খুলনা টাইগার্সকে ২৫ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিলো তারুণ্য নির্ভর চট্টগ্রাম।

জয়ের জন্য ১৯০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে চার ওভার না যেতেই তানজীদ হাসান তামিম (৯) ও রনি তালুকদারের (৭) উইকেট হারায় খুলনা। ফ্লেচার ও মেহেদি হাসানের ব্যাটে সেই ধাক্কা সামলেও ওঠার চেষ্টা করছিল দলটি। কিন্তু সপ্তম ওভারে রেজাউর রহমানের বাউন্সে কাঁধে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন ফ্লেচার। ১২ বলে ১৬ রান করেন তিনি। ফ্লেচারকে হাসপাতালে নেওয়া হলে তিনি স্বাভাবিক আছেন বলে জানা গেছে।

মাথায় বলের আঘাত পাওয়ায় কনকাশন প্রদ্ধতিতে ফ্লেচারের পরিবর্তে ব্যাটিংয়ে নামেন সিকান্দার রাজা। তার আগে থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে না পারার আক্ষেপে পোড়েন শেখ মেহেদী হাসান। মেহেদী ২৪ বলে ৩০ এবং মুশফিক ১৫ বলে ১১ রানে আউট হলে কার্যত শেষ হয়ে যায় খুলনার জয়ের আশা। তবে শেষদিকে ইয়াসির আলি রাব্বি ও সাব হয়ে নামা রাজা চেষ্টা চালান কিছুটা, লাভ হয়নি তাতে, এতে হারের ব্যবধান কমে শুধু।

নির্ধারীত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১৬৫ রানে থামে খুলনার ইনিংস। চট্টগ্রামের হয়ে সর্ব্বোচ্চ ৪০ রানের ইনিংস খেলেন ইয়াসির আলী রাব্বি। চট্টগ্রামের হয়ে শরীফুল, মিরাজ ও রাজা ২টি করে উইকেট শিকার করেন। ২৫ রানের জয় নিশ্চিত করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে গেল বন্দর নগরীর দলটি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে চট্টগ্রানের দুই ওপেনার শুভাগতর করা প্রথম ওভার থেকেই সংগ্রহ করেন ২৩ রান। মাত্র ৭ বলের ঝড়েই থেমে যান জ্যাকস। ১ চার ও ২ ছক্কায় ৭ বলে ১৭ রান করে কামরুল ইসলাম রাব্বির শিকার হন তিনি। আফিফ হোসেনের সাথে জুটিতে ২৩ রান যোগ করে বিদায় নেন লুইস। লুইস দুইটি করে চার ও ছক্কায় করেন ১৪ বলে ২৫ রান। রান-আউট হয়ে ১৩ বলে ১৫ রান করে আফিফ বিদায় নেন।

চতুর্থ উইকেটে বড় জুটি গড়েন সাব্বির ও মেহেদী হাসান মিরাজ। নাভিন উল হককে স্কুপ করতে গিয়ে ক্যাচ আউট হন মিরাজ। ২৩ বলে ৩০ রান করেন তিনি। মিরাজ আউট হোওয়ার পর বেশিক্ষন টিকতে পারেননি সাব্বিরও। ফিরে যাবার আগে ৩৩ বলে করেছেন ৩২ রান। শেষের দিকে ঝিমিয়ে আসা রানে গতি দেন হাওয়েল।

আগের দুই ম্যাচের মতো এ দিনও ব্যাট হাতে স্লগ ওভারে ছড়ি ঘোরান ইংলিশম্যান। ৪ চার আর ১ ছক্কায় ২০ বলে খেলেন ৩৪ রানের ঝলমলে ইনিংস। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন অভিজ্ঞ নাঈম ইসলাম।

রান আউটের ফাঁদে পড়ার আগে ৫ বলের দুটিকে ছক্কা বানিয়ে খেলেন ১৫ রানের ক্যামিও। তাতেই চট্টগ্রামের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৮৯ রানের। খুলনার পক্ষে ৩ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন কামরুল রাব্বি। নবীন উল হক ৪ ওভারে ৪৮ রান খরচায় নেন ১ উইকেট। ফরহাদ রেজা ৪ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে শিকার করেন ১ উইকেট।

back to top