alt

খেলা

তারকা কোচদের কেউই পিএসজিতে যেতে চাচ্ছেন না!

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২

ক্লাব ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত কোচদের কেউই প্যারিস সেন্ট জার্মেইর দায়িত্ব নিতে রাজী না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ফরাসী ক্লাবটি সম্ভবত ক্রিস্টোফ গ্যাল্টিয়েরকেই তাদের প্রধান কোচের দায়িত্ব দিতে যাচ্ছে। নাইসের বর্তমান কোচ গ্যাল্টিয়েরের সাথে পিএসজির ডাইরেক্টর লুইস ক্যাম্পোস ইতোমধ্যেই যোগাযোগ করেছেন এবং তাদের মধ্যেকার আলোচনা অনেকদূর এগিয়েছে। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে বড় প্রকল্পের দায়িত্ব তার হাতেই দেয়ার ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্যাম্পোস। যদিও বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি।

গ্যাল্টিয়ের বড় কোন দলের দায়িত্ব পালন না করলেও লিলে এবং নাইসের কোচ হিসেবে সফল ছিলেন। সে সাফল্যের উপর ভিত্তি করেই গ্যাল্টিয়েরকে দায়িত্ব দিতে চায় পিএসজি। তাঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব দেয়ার আগে অন্তত দুটি কাজ করতে হবে পিএসজিকে। প্রথমত নাইসের সাথে একটি চুক্তি করে ছাড় করাতে হবে গ্যাল্টিয়েরকে এবং মরিসিও পচেত্তিনোকে লিখিতভাবে পদ থেকে সরিয়ে দিতে হবে। পচেত্তিনোকে লিখিতভাবে অব্যাহতি না দেয়া পর্যন্ত অন্য কাউকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতে পারবে না।

পিএসজি চেষ্টা করেছিল জিনেদিন জিদানকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতে। দুই পক্ষের মধ্যে এ নিয়ে অনেক আলোচনাও হয়েছে। জিদান কাতার পর্যন্ত গিয়েছিলেন আলোচনা করতে। কোচ হিসেবে আবার টাচ লাইনে ফেরার ইচ্ছাও ব্যক্ত করেছেন জিদান। তখন মনে হয়েছিল জিদানই হতে যাচ্ছেন পিএসজির কোচ। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে কোন ঘোষণা না এলেও বোঝা যাচ্ছে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা সফল হয়নি। জিদান চাইছেন ফ্রান্স জাতীয় দলের কোচ হতে। সে জন্য অবশ্য তাকে আসন্ন বিশ^কাপ শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। জাতীয় দলের বর্তমান কোচ দিদিয়ের দেশ্যম বিশ^কাপেও দলের দায়িত্বে থাকবেন।

জিদান ছাড়াও ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি, মার্সেলো গায়ার্দো এবং অ্যান্টনিও কোন্টের নাম শোনা গিয়েছিল কোচ হিসেবে। কিন্তু কেউই পিএসজির দায়িত্ব নিতে রাজী হননি। জানা গেছেন কোচ হিসেবে তারা যে স্বাধীনতা চান ক্লাব কর্তৃপক্ষ তা দিতে রাজী নয়। তাছাড়া দলের তারকা খেলোয়াড়রা কোচের নির্দেশনা খুব একটা মানেন না। খেলোয়াড়দের মধ্যে সুসম্পর্কও তেমন নেই, আছে গ্রুপিং। তাছাড়া এমবাপ্পের সাথে চুক্তির সময়ে দল গঠনে তার ভুমিকা থাকবে বলেও মেনে নিয়েছে পিএসজির মালিক। ফলে কোচকে মানতে হবে এমবাপ্পের নির্দেশনাও। এমন পরিস্থিতিতে কোচকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দিলে হয়তো দেখা যাবে অনেক তারকাই একাদশ থেকে ছিটকে যাবেন শৃঙ্খলা জনিত কারণে। কিন্তু পিএসজি কর্তৃপক্ষ তা মানতে রাজী নন। এ সব কারণেই ক্লাব ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত কোচরা দলের দায়িত্ব নিতে রাজী হচ্ছেন না। তাই গ্যাল্টিয়েরের মতো খুব স্বল্প পরিচিত কোচের উপরই নির্ভর করতে যাচ্ছে পিএসজি।

ছবি

রোনালদোকে ছাড়বে না ম্যানইউ

ছবি

বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়ছেন দি মারিয়া!

ছবি

মেসির ‘প্রিয় কোচ’ ফিরছেন স্প্যানিশ লিগে

ছবি

হতাশার দিন টাইগারদের, বড় লিডের পথে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

মানুষের আর্থসামাজিক মুক্তিতে অবদান রাখবে পদ্মা সেতু

ছবি

৫৭০ কোটি টাকার মিডফিল্ডার কিনছেন গার্দিওলা

ছবি

পদ্মা সেতুর কর্মীদেরও ধন্যবাদ দিলেন তামিম

ছবি

২০২২ সালে লিটনের প্রথম হাজার রানের মাইলফলক

ছবি

গ্যাল্টিয়ারকে নিয়ে নিসের সাথে পিএসজির ঐকমত্য

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ মমিনুল

ছবি

মেসির ৩৫তম জন্মদিন : দুটি কঠিন চ্যালেঞ্জ সামনে

ছবি

লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু হবে ১৪ আগস্ট

ছবি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পথে ওয়ানডে-টি২০ দলের ৫ ক্রিকেটার

ছবি

হাত কেটে হাসপাতালে নেইমারের সহযোদ্ধা পাকুয়েটা

কাতার বিশ্বকাপে ফিফার কিছু নতুন নিয়ম

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

হাফ ডজন গোলে মালেশিয়াকে বিধ্বস্ত করলো বাংলাদেশ

ছবি

র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ব্রাজিল, সেরা তিনে আর্জেন্টিনা

ছবি

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে ৪ ধাপ পেছাল বাংলাদেশ

ছবি

ক্ষতিপূরণ দিতে চান রোনালদো

ছবি

বিশ্বকাপ আর্চারিতে ভালো শুরু রোমান-সাগরদের

ছবি

ম্যারাডোনার মৃত্যু : আটজনকে দাড়াতে হচ্ছে কাঠগড়ায়

ছবি

অবহেলায় মৃত্যু : ম্যারাডোনার চিকিৎসায় জড়িত আটজনকে দাঁড়াতে হবে কাঠগড়ায়

ছবি

ফ্রান্সের কোচ হওয়াই জিদানের লক্ষ্য

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

র‍্যাঙ্কিংয়ে সাকিবের বিশাল উত্থান

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

নেইমারের ব্যক্তিগত বিমানের জরুরী অবতরণ

ছবি

টেস্টে ‘নাম্বার থ্রি’ সংকট বাংলাদেশের, এখনও সেরা বাশার

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

বিদেশে ৬৪ টেস্টের ৫৪টিতেই বাংলাদেশের হার

ছবি

মেসির চিরন্তন স্বীকৃতির পরিকল্পনা বার্সেলোনার

ছবি

মার্সেলো এবং অ্যালভেজকে ভায়াদোলিদে চান রোনালদো

ছবি

অবসর রটনায় ক্ষুব্ধ এমবাপে

tab

খেলা

তারকা কোচদের কেউই পিএসজিতে যেতে চাচ্ছেন না!

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২

ক্লাব ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত কোচদের কেউই প্যারিস সেন্ট জার্মেইর দায়িত্ব নিতে রাজী না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ফরাসী ক্লাবটি সম্ভবত ক্রিস্টোফ গ্যাল্টিয়েরকেই তাদের প্রধান কোচের দায়িত্ব দিতে যাচ্ছে। নাইসের বর্তমান কোচ গ্যাল্টিয়েরের সাথে পিএসজির ডাইরেক্টর লুইস ক্যাম্পোস ইতোমধ্যেই যোগাযোগ করেছেন এবং তাদের মধ্যেকার আলোচনা অনেকদূর এগিয়েছে। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে বড় প্রকল্পের দায়িত্ব তার হাতেই দেয়ার ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্যাম্পোস। যদিও বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি।

গ্যাল্টিয়ের বড় কোন দলের দায়িত্ব পালন না করলেও লিলে এবং নাইসের কোচ হিসেবে সফল ছিলেন। সে সাফল্যের উপর ভিত্তি করেই গ্যাল্টিয়েরকে দায়িত্ব দিতে চায় পিএসজি। তাঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব দেয়ার আগে অন্তত দুটি কাজ করতে হবে পিএসজিকে। প্রথমত নাইসের সাথে একটি চুক্তি করে ছাড় করাতে হবে গ্যাল্টিয়েরকে এবং মরিসিও পচেত্তিনোকে লিখিতভাবে পদ থেকে সরিয়ে দিতে হবে। পচেত্তিনোকে লিখিতভাবে অব্যাহতি না দেয়া পর্যন্ত অন্য কাউকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতে পারবে না।

পিএসজি চেষ্টা করেছিল জিনেদিন জিদানকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতে। দুই পক্ষের মধ্যে এ নিয়ে অনেক আলোচনাও হয়েছে। জিদান কাতার পর্যন্ত গিয়েছিলেন আলোচনা করতে। কোচ হিসেবে আবার টাচ লাইনে ফেরার ইচ্ছাও ব্যক্ত করেছেন জিদান। তখন মনে হয়েছিল জিদানই হতে যাচ্ছেন পিএসজির কোচ। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে কোন ঘোষণা না এলেও বোঝা যাচ্ছে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা সফল হয়নি। জিদান চাইছেন ফ্রান্স জাতীয় দলের কোচ হতে। সে জন্য অবশ্য তাকে আসন্ন বিশ^কাপ শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। জাতীয় দলের বর্তমান কোচ দিদিয়ের দেশ্যম বিশ^কাপেও দলের দায়িত্বে থাকবেন।

জিদান ছাড়াও ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি, মার্সেলো গায়ার্দো এবং অ্যান্টনিও কোন্টের নাম শোনা গিয়েছিল কোচ হিসেবে। কিন্তু কেউই পিএসজির দায়িত্ব নিতে রাজী হননি। জানা গেছেন কোচ হিসেবে তারা যে স্বাধীনতা চান ক্লাব কর্তৃপক্ষ তা দিতে রাজী নয়। তাছাড়া দলের তারকা খেলোয়াড়রা কোচের নির্দেশনা খুব একটা মানেন না। খেলোয়াড়দের মধ্যে সুসম্পর্কও তেমন নেই, আছে গ্রুপিং। তাছাড়া এমবাপ্পের সাথে চুক্তির সময়ে দল গঠনে তার ভুমিকা থাকবে বলেও মেনে নিয়েছে পিএসজির মালিক। ফলে কোচকে মানতে হবে এমবাপ্পের নির্দেশনাও। এমন পরিস্থিতিতে কোচকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দিলে হয়তো দেখা যাবে অনেক তারকাই একাদশ থেকে ছিটকে যাবেন শৃঙ্খলা জনিত কারণে। কিন্তু পিএসজি কর্তৃপক্ষ তা মানতে রাজী নন। এ সব কারণেই ক্লাব ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত কোচরা দলের দায়িত্ব নিতে রাজী হচ্ছেন না। তাই গ্যাল্টিয়েরের মতো খুব স্বল্প পরিচিত কোচের উপরই নির্ভর করতে যাচ্ছে পিএসজি।

back to top