alt

খেলা

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল

স্পেনকে বিদায় করে মরক্কো কোয়ার্টার ফাইনালে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২

স্পেনকে টাইব্রেকারে ৩-০ গোলে পরাজিত করে মরক্কো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে। মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচটি নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে কোন গোল না হলে ম্যাচটি টাইব্রেকারে নিস্পত্তি হয়। টাইব্রেকারে স্পেন চারটি শট মেরে একটি গোলও করতে পারেনি। অপর দিকে মরক্কো চারটির মধ্যে তিনটিতে গোল করে ম্যাচ জিতে নেয়। মরক্কোর গোলরক্ষক বোনো তিনটি শট বাচিয়ে দেন। স্পেনের একটি শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। স্পেনের গোলরক্ষক একটি শট বাচাতে সক্ষম হন।

মরক্কো মারে প্রথম শট এবং সহজেই গোল করেন সাবিরি। স্পেনের প্রথম শটে গোল করতে ব্যর্থ হন সারাবিয়া। তার শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। মরক্কোর জিয়াস করেন দ্বিতীয় শটে গোল। স্পেনের দ্বিতীয় শটে গোল করতে ব্যর্থ হন সোলের। তার শট বাচিয়ে দেন মরক্কোর গোলরক্ষক বোনো। মরক্কোর তৃতীয় শট মারেন বেনাউন, কিন্তু তার শট ধরে নেন স্পেনের গোলরক্ষক সিমন। বুসকুয়েটস স্পেনের চতুর্থ শটে গোল করতে ব্যর্থ হন। চতুর্থ শটে মরক্কোর আশরাফ হাকিমী গোল করলে ৩-০ গোলে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় আফ্রিকার দেশটির। বিদায় নেয় ফেবারিট স্পেন।

গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলোতে দারুন খেলে মরক্কো বুঝিয়ে দিয়েছিল যে তারা খুবই কঠিন প্রতিপক্ষ। স্পেনের বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে সে ধারা বজায় রাখতে সক্ষম হয়। ফেবারিট হিসেবে স্পেন মাঠে নামলেও খেলায় মরক্কো মোটেও পিছিয়ে ছিল না। স্পেনের সাথে সমানতালেই পাল্লা দিয়েছে মরক্কো। পুরো প্রথমার্ধে স্পেন মাত্র একবার মরক্কোর পোস্টে শট মারতে সক্ষম হয়েছিল। আশরাফ হাকিমীর নেতৃত্বাধীন রক্ষণভাগ বেশ ভালভাবেই রুখে দেয় স্পেনের আক্রমনগুলো।

মরক্কো চেষ্টা করে কাউন্টার অ্যাটাকে স্পেনের জালে বল পাঠাতে। গোল করতে তারা সমর্থ না হলেও স্পেনের শিবিরে ভয় ধরাতে পেরেছে বেশ কয়েকবার। স্পেন সাধারনত তিকি তাকা স্টাইলে খেলতে অভ্যস্থ। কিন্তু এ ম্যাচে মরক্কো তাদেরকে ওয়ান টাচ পাসে খেলার খুব একটা সুযোগ দেয় নি। ডিফেন্সিভ মিডডিল্ডার হিসেবে খেলা আমরাবাত দারুন খেলেছেন। তার দৃঢ়তার কারণে মিডফিল্ডে কর্তৃত্ব স্থাপন করতে পারেননি গাভি ও পেড্রি। আমরাবাত সুযোগ পেলেই স্পেনের আক্রমন নস্যাৎ করে দিয়েছেন। তিনি কোন ঝুকি না নিয়ে বল ক্লিয়ার করেছেন দ্রুত।

দ্বিতীয়ার্ধে স্পেন খেলার কৌশলে কিছুটা পরিবর্তন আনে। পরিবর্তন করে খেলোয়াড়ও। এর ফলে বল দখলের দিক থেকে তারা বেশ খানিকটা এগিয়ে যায়। অপর দিকে মরক্কো হয়ে যায় রক্ষণাত্মক। তারা পুরোপুরি কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর খেলতে থাকে। এর ফলে স্পেন আক্রমন করলেও পেনাল্টি বক্সের আশে পাশে তেমন ফাকা জায়গা পাচ্ছিল না স্পেন। খেলার একেবারে শেষ পর্যায়ে মরক্কোকে বেশ চেপে ধরেছিল স্পেন। সুযোগও তারা সৃষ্টি করেছিল। কিন্তু গোলরক্ষক বোনোর দৃঢ়তায় কোন গোল করতে পারেনি স্পেন। ফলে খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

অতিরিক্ত সময়ে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালায় স্পেন। মিডফিল্ডার জর্দি অ্যালবা এবং আক্রমণভাগের খেলোয়াড় দানি ওলমোকে তুলে মাঠে নামানো হয় আনসু ফাতি এবং বালদেকে। মরক্কো নিয়োজিত হয় রক্ষণ কাজে। বেশীরভাগ সময় বল ঘোরাফেরা করতে থাকে মরক্কোর পেনাল্টি বক্সের আশে পাশে। পেনাল্টি বক্সের কাছে খেলোয়াড় অনেক বেশী হওয়ায় শট নেয়ার মত জায়গা পাওয়াটা দুস্কর হয়ে যায় স্পেনের জন্য। কাউন্টার অ্যাটাকে ১০৩ মিনিটে গোলের সুবর্ন সুযোগ পেয়েছিল মরক্কো। রক্ষণভাগের ব্যর্থতায় গোলমুখে বল পেয়ে যান জিয়াস। কিন্তু তার নেয়া শট গোলরক্ষক উনাই সিমনের পায়ে লেগে প্রতিহত হয়। অতিরিক্ত সময়ের শেষ দিকে স্পেন একের পর এক আক্রমন করেও গোল করতে পারেনি। ম্যাচের বিজয়ী নির্ধারন হয় টাইব্রেকারে।

ছবি

দ্বিতীয় দফায় বাংলাদেশ ক্রিকেট কোচের দায়িত্বে হাথুরুসিংহে

ছবি

হাথুরুসিংহে নিউ সাউথ ওয়েলস ছাড়লেন কি বাংলাদেশের কোচ হতেই

ছবি

বিশ্বকাপের সময়কার আচরণের জন্য মেসি দু:খিত

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

দেশের মেয়ে স্বর্ণা জায়গা পেল বিশ্বকাপের সেরা দলে

ছবি

সোসিয়েদাদের সাথে ড্র করে আরো পিছিয়েছে রিয়াল

ছবি

শুরুতেই ব্যাট করবেন সৌম্য-নাসিররা

ছবি

শেষ মুহূর্তের গোলে জয় হাতছাড়া পিএসজির

ছবি

আক্রমণের ঝড় তুলেও জিততে পারল না রিয়াল

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

অনূর্ধ্ব-১৯ নারী বিশ্বকাপে ভারতের ঐতিহাসিক শিরোপা

ছবি

শান্তর প্রশংসায় জিম্বাবুয়াইন বার্ল

ছবি

জিরোনাকে হারিয়ে শীর্ষস্থান মজবুত করেছে বার্সেলোনা

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

জরিমানার কবলে সোহান, হারিস রউফকে সতর্ক

ছবি

প্যারাগুয়েকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল

ছবি

কলম্বিয়ার কাছে হেরে আর্জেন্টিনার বিদায়

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

নাথানের গোলে আর্সেনালকে হারালো ম্যানসিটি

ছবি

হারলো মাশরাফির সিলেট

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

অ্যাটলেটিকোকে হারিয়ে রিয়াল সেমিফাইনালে

ছবি

আইসিসির বর্ষসেরা ক্রিকেটার হলেন বাবর আজম

ছবি

এবারও আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার বাবর

ছবি

জিতেও সেমিফাইনালে খেলা হলো না বাংলাদেশের

ছবি

ডেম্বেলের গোলে বার্সেলোনা সেমিফাইনালে

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

নরসিংদীতে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মিরাজ

ছবি

‘ব্রাজিলের নতুন কোচের তালিকায় এনরিকে কেন?’

ছবি

ছুটছেন জোকোভিচ

ছবি

চাকরি হারালেন এভারটন কোচ ল্যাম্পার্ড

ছবি

টটেনহ্যামের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করলেন কেইন

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

জুনে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ

tab

খেলা

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল

স্পেনকে বিদায় করে মরক্কো কোয়ার্টার ফাইনালে

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২

স্পেনকে টাইব্রেকারে ৩-০ গোলে পরাজিত করে মরক্কো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে। মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচটি নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে কোন গোল না হলে ম্যাচটি টাইব্রেকারে নিস্পত্তি হয়। টাইব্রেকারে স্পেন চারটি শট মেরে একটি গোলও করতে পারেনি। অপর দিকে মরক্কো চারটির মধ্যে তিনটিতে গোল করে ম্যাচ জিতে নেয়। মরক্কোর গোলরক্ষক বোনো তিনটি শট বাচিয়ে দেন। স্পেনের একটি শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। স্পেনের গোলরক্ষক একটি শট বাচাতে সক্ষম হন।

মরক্কো মারে প্রথম শট এবং সহজেই গোল করেন সাবিরি। স্পেনের প্রথম শটে গোল করতে ব্যর্থ হন সারাবিয়া। তার শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। মরক্কোর জিয়াস করেন দ্বিতীয় শটে গোল। স্পেনের দ্বিতীয় শটে গোল করতে ব্যর্থ হন সোলের। তার শট বাচিয়ে দেন মরক্কোর গোলরক্ষক বোনো। মরক্কোর তৃতীয় শট মারেন বেনাউন, কিন্তু তার শট ধরে নেন স্পেনের গোলরক্ষক সিমন। বুসকুয়েটস স্পেনের চতুর্থ শটে গোল করতে ব্যর্থ হন। চতুর্থ শটে মরক্কোর আশরাফ হাকিমী গোল করলে ৩-০ গোলে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় আফ্রিকার দেশটির। বিদায় নেয় ফেবারিট স্পেন।

গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলোতে দারুন খেলে মরক্কো বুঝিয়ে দিয়েছিল যে তারা খুবই কঠিন প্রতিপক্ষ। স্পেনের বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে সে ধারা বজায় রাখতে সক্ষম হয়। ফেবারিট হিসেবে স্পেন মাঠে নামলেও খেলায় মরক্কো মোটেও পিছিয়ে ছিল না। স্পেনের সাথে সমানতালেই পাল্লা দিয়েছে মরক্কো। পুরো প্রথমার্ধে স্পেন মাত্র একবার মরক্কোর পোস্টে শট মারতে সক্ষম হয়েছিল। আশরাফ হাকিমীর নেতৃত্বাধীন রক্ষণভাগ বেশ ভালভাবেই রুখে দেয় স্পেনের আক্রমনগুলো।

মরক্কো চেষ্টা করে কাউন্টার অ্যাটাকে স্পেনের জালে বল পাঠাতে। গোল করতে তারা সমর্থ না হলেও স্পেনের শিবিরে ভয় ধরাতে পেরেছে বেশ কয়েকবার। স্পেন সাধারনত তিকি তাকা স্টাইলে খেলতে অভ্যস্থ। কিন্তু এ ম্যাচে মরক্কো তাদেরকে ওয়ান টাচ পাসে খেলার খুব একটা সুযোগ দেয় নি। ডিফেন্সিভ মিডডিল্ডার হিসেবে খেলা আমরাবাত দারুন খেলেছেন। তার দৃঢ়তার কারণে মিডফিল্ডে কর্তৃত্ব স্থাপন করতে পারেননি গাভি ও পেড্রি। আমরাবাত সুযোগ পেলেই স্পেনের আক্রমন নস্যাৎ করে দিয়েছেন। তিনি কোন ঝুকি না নিয়ে বল ক্লিয়ার করেছেন দ্রুত।

দ্বিতীয়ার্ধে স্পেন খেলার কৌশলে কিছুটা পরিবর্তন আনে। পরিবর্তন করে খেলোয়াড়ও। এর ফলে বল দখলের দিক থেকে তারা বেশ খানিকটা এগিয়ে যায়। অপর দিকে মরক্কো হয়ে যায় রক্ষণাত্মক। তারা পুরোপুরি কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর খেলতে থাকে। এর ফলে স্পেন আক্রমন করলেও পেনাল্টি বক্সের আশে পাশে তেমন ফাকা জায়গা পাচ্ছিল না স্পেন। খেলার একেবারে শেষ পর্যায়ে মরক্কোকে বেশ চেপে ধরেছিল স্পেন। সুযোগও তারা সৃষ্টি করেছিল। কিন্তু গোলরক্ষক বোনোর দৃঢ়তায় কোন গোল করতে পারেনি স্পেন। ফলে খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

অতিরিক্ত সময়ে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালায় স্পেন। মিডফিল্ডার জর্দি অ্যালবা এবং আক্রমণভাগের খেলোয়াড় দানি ওলমোকে তুলে মাঠে নামানো হয় আনসু ফাতি এবং বালদেকে। মরক্কো নিয়োজিত হয় রক্ষণ কাজে। বেশীরভাগ সময় বল ঘোরাফেরা করতে থাকে মরক্কোর পেনাল্টি বক্সের আশে পাশে। পেনাল্টি বক্সের কাছে খেলোয়াড় অনেক বেশী হওয়ায় শট নেয়ার মত জায়গা পাওয়াটা দুস্কর হয়ে যায় স্পেনের জন্য। কাউন্টার অ্যাটাকে ১০৩ মিনিটে গোলের সুবর্ন সুযোগ পেয়েছিল মরক্কো। রক্ষণভাগের ব্যর্থতায় গোলমুখে বল পেয়ে যান জিয়াস। কিন্তু তার নেয়া শট গোলরক্ষক উনাই সিমনের পায়ে লেগে প্রতিহত হয়। অতিরিক্ত সময়ের শেষ দিকে স্পেন একের পর এক আক্রমন করেও গোল করতে পারেনি। ম্যাচের বিজয়ী নির্ধারন হয় টাইব্রেকারে।

back to top