alt

পাঠকের চিঠি

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত

: মঙ্গলবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২০

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির মৌসুমে ভর্তিযুদ্ধে অবতীর্ণ লাখো শিক্ষার্থীর হয়রানির প্রসঙ্গ প্রতি বছর সাধারণ আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। একজন শিক্ষার্থী যেকোন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাত্র একটি বিষয়ে ভর্তি হয়। অথচ তাকে অনিশ্চয়তা মাথায় নিয়ে দেশময় ঘুরে বেড়াতে হয় এক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আরেক বিশ্ববিদ্যালয়। এতে অর্থ ও সময় অপচয় হয়। বর্তমান পরিস্থিতিকে সামনে রেখে চলতি বছর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে গুচ্ছ পদ্ধতি প্রবর্তনে সরকার অনড় অবস্থান নিয়েছে।

দেশের ১৯টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েও ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কৃষিভিত্তিক ৭টি বিশ্ববিদ্যালয় গত বছর গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নিয়েছে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কথা চিন্তা করে সরাসরি ও সহজ উপায়ে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার মাধ্যম হলো গুচ্ছ পদ্ধতি।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার সবচেয়ে ভালো দিক হলো এতে কোন শিক্ষার্থী হয়রানির শিকার হবে না। প্রশ্নপত্র ফাঁস ও ভর্তি জলিয়াতি বন্ধে গুচ্ছ পদ্ধতি কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে অর্থাৎ সার্বিক বিবেচনায় এ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়ার বিষয়টি ইতিবাচক। তাই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্তটি সময়োপযোগী।

মারিয়া অনি

চিঠিপত্র : হাট-বাজারে ডিজিটাল ওজন স্কেল স্থাপন করুন

নারী জাগরণের অগ্রদূত

পরিবেশ রক্ষায় জলাভূমির গুরুত্ব

হাসপাতালের সামনে ডাস্টবিন কেন

আইল কাটার অপসংস্কৃতি বন্ধ হোক

নদী থাকুক নদীর মতো

ছবি

বইয়ের সঠিক মূল্য লিখুন

ছবি

আম শিল্প সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত

ছবি

স্কুলে ভর্তি লটারি প্রক্রিয়া হোক স্বচ্ছ

অর্থনীতিতে প্রান্তিক নারীর অবদানকে স্বীকৃতি দিতে হবে

শিক্ষাক্ষেত্রে অচল অবস্থার অবসান ঘটুক

আমার বাবা সনদবিহীন এক মুক্তিযোদ্ধা

ছবি

অসহায় বস্তিবাসীর পাশে দাঁড়ান

অনলাইন ক্লাস প্রসঙ্গে

ছবি

শীতার্তদের সহায়তায় এগিয়ে আসুন

নৌপথে অনিয়ম বন্ধ করুন

ভোলায় বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি মেডিকেল কলেজ চাই

সড়কে বিশৃঙ্খলার দায় কার

টেলিটকের দুর্দশা ঘুচবে কবে

অপ্রয়োজনে হর্ন নয়

ছবি

কীর্তিমানের মৃত্যু নাই

ছবি

দ্রব্যমূল্যে দুর্বিষহ জনজীবন

সেশন জট থেকে রক্ষা করুন

রাজধানীতে খেলার মাঠ চাই

বিশুদ্ধতার মানদন্ডে ‘রেল পানি’

দুর্ভোগের নাম সনদপত্র সত্যায়িত করণ

ছবি

নো মাস্ক নো সার্ভিস

ছবি

সবজির অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নজর দিন

লাগামহীন ডায়াগনস্টিক সেন্টার

সেলফিতে সতর্কতা প্রয়োজন

ছবি

বেপরোয়া মোটরবাইক নিয়ন্ত্রণ জরুরি

নৌপথে অনিয়ম বন্ধ করুন

পর্যটকদের সচেতন হতে হবে

ছবি

করোনা প্রতিরোধে মাস্কই শ্রেয়

ধর্মীয় উগ্রবাদ সামাজিক স্থিতিশীলতার জন্য হুমকি

tab

পাঠকের চিঠি

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত

মঙ্গলবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২০

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির মৌসুমে ভর্তিযুদ্ধে অবতীর্ণ লাখো শিক্ষার্থীর হয়রানির প্রসঙ্গ প্রতি বছর সাধারণ আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। একজন শিক্ষার্থী যেকোন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাত্র একটি বিষয়ে ভর্তি হয়। অথচ তাকে অনিশ্চয়তা মাথায় নিয়ে দেশময় ঘুরে বেড়াতে হয় এক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আরেক বিশ্ববিদ্যালয়। এতে অর্থ ও সময় অপচয় হয়। বর্তমান পরিস্থিতিকে সামনে রেখে চলতি বছর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে গুচ্ছ পদ্ধতি প্রবর্তনে সরকার অনড় অবস্থান নিয়েছে।

দেশের ১৯টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েও ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কৃষিভিত্তিক ৭টি বিশ্ববিদ্যালয় গত বছর গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নিয়েছে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কথা চিন্তা করে সরাসরি ও সহজ উপায়ে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার মাধ্যম হলো গুচ্ছ পদ্ধতি।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার সবচেয়ে ভালো দিক হলো এতে কোন শিক্ষার্থী হয়রানির শিকার হবে না। প্রশ্নপত্র ফাঁস ও ভর্তি জলিয়াতি বন্ধে গুচ্ছ পদ্ধতি কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে অর্থাৎ সার্বিক বিবেচনায় এ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়ার বিষয়টি ইতিবাচক। তাই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্তটি সময়োপযোগী।

মারিয়া অনি

back to top