alt

পাঠকের চিঠি

টেকসই উন্নয়নে সবুজ ব্যাংকিং

: মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

টেকসই উন্নয়নের যুগে এসে ব্যাংকগুলো আসলে পরিবেশ, গ্রিন হাউস ইফেক্ট, পরিবেশ দূষণ, প্রাকৃতিক সম্পদের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করার ব্যাপারে ভাবতে শুরু করেছে। এ ভাবনা থেকেই সবুজ ব্যাংকিং ধারণার ব্যাপক বিস্তার ঘটেছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ ব্যাংক পরিবেশগত ও সামাজিক ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়ন ও অর্থায়নের ব্যবস্থা করার মাধ্যমে এক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য নৈতিক ভূমিকা পালন করে।

সবুজ ব্যাংকিং হচ্ছে সামাজিক ও নৈতিক দায়বদ্ধতামূলক সচেতন ব্যাংকিং যেখানে প্রাকৃতিক সম্পদের ব্যবহার হবে কম এবং ব্যাংকিং কার্যক্রম হবে পরিবেশবান্ধব। সরকার সাধারণ মানুষকে সবুজ ব্যাংকিং অনুশীলন সম্পর্কে উৎসাহিত করতে পারে। সরকারের উচিত আমাদের পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে সবুজ ব্যাংকিং চর্চার ক্ষেত্রে উদ্যোগ গ্রহণ করা। ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক সবুজ ব্যাংকিংয়ের জন্য নীতিমালা সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করেছে। নির্দেশিকা অনুসারে, সমস্ত অপারেটিং ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে দেশে পরিবেশবান্ধব ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়। এছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংকের সবুজ ব্যাংকিং পলিসিতে, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিপর্যয়ের জন্য বিশেষ ফান্ডের ব্যবস্থা করতে হবে এবং এ ধরনের ফান্ডের জন্য অতিরিক্ত কোনো প্রিমিয়াম ধার্য করা যাবে না; এ বিষয়েও গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

ব্যাংক শুধুমাত্র একটি ফিন্যান্সিয়াল অর্গানাইজেশন হবে এ ধারণা থেকে বেরিয়ে এসে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে পরিবেশ ও মানুষকে বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষার জন্য সবুজ ব্যাংকিংয়ের বিকল্প নেই। সবুজ ব্যাংকিংয়ের অনুশীলন ব্যবসার মালিকদের তাদের ব্যবসা পরিবর্তন করে পরিবেশবান্ধব উদ্যোগ গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করবে, যা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য ভালো। সুতরাং বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে সবুজ ব্যাংকিংয়ের গুরুত্ব অপরিসীম।

তৌহিদা আফরোজ তানি

রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান কী

কুমিল্লায় কিশোর গ্যাং

ছবি

হাকালুকি হাওরের গুরুত্ব

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিচ্ছি কি?

চবির আলাওল হলে প্রভোস্ট চাই

গণিত ও ইংরেজিতে কেন এত দুর্বলতা

ছবি

যানজটে অপচয় হচ্ছে কর্মঘণ্টা

ছবি

প্লাস্টিক দূষণ প্রতিকার প্রসঙ্গে

কুষ্টিয়ায় শিক্ষক প্রশিক্ষণ মহাবিদ্যালয় চাই

এসআই ও সার্জেন্ট নিয়োগে বয়সসীমা বাড়ানো হোক

ছবি

স্কাউটে আছে আনন্দের জগৎ

সম্মাননা স্মারক কি শুধুই একটি শব্দ

মোবাইল আসক্তি

খেলাপি ঋণ আদায়ে পদক্ষেপ নিন

বই হোক প্রকৃত বন্ধু

ছবি

তীব্র তাপপ্রবাহে সচেতনতা জরুরি

ব্রিজ চাই

প্রসঙ্গ : পরিযায়ী পাখি

ছবি

পরিকল্পিতভাবে গাছ লাগাতে হবে

ছবি

গ্রামীণ এলাকায় বিদ্যুতের লোডশেডিং কমাতে হবে

কেন এত আত্মহত্যা

দুর্নীতি বন্ধ হবে কবে

ছবি

বজ্রপাত থেকে বাঁচতে চাই সচেতনতা

পিতা-মাতার স্থান হোক সন্তানের কাছে, বৃদ্ধাশ্রমে নয়

ছবি

ট্রেনের বিলম্বে যাত্রীদের দুর্ভোগ

অভিনব কৌশলে প্রতারণা

ট্রেনে ডাস্টবিনের ব্যবস্থা করা হোক

ঈদে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে তৎপর হতে হবে

পথশিশুদের পাশে দাঁড়ান

ছবি

অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধ হোক

ছবি

অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধে চাই সচেতনতা

ঈদযাত্রা হোক ভোগান্তিমুক্ত

আত্মহত্যা সমাধান নয়

বেকারত্ব দূর করতে ব্যবস্থা নিতে হবে

ছবি

মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ নগরবাসী

কোচিং ব্যবসা আর কত?

tab

পাঠকের চিঠি

টেকসই উন্নয়নে সবুজ ব্যাংকিং

মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

টেকসই উন্নয়নের যুগে এসে ব্যাংকগুলো আসলে পরিবেশ, গ্রিন হাউস ইফেক্ট, পরিবেশ দূষণ, প্রাকৃতিক সম্পদের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করার ব্যাপারে ভাবতে শুরু করেছে। এ ভাবনা থেকেই সবুজ ব্যাংকিং ধারণার ব্যাপক বিস্তার ঘটেছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ ব্যাংক পরিবেশগত ও সামাজিক ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়ন ও অর্থায়নের ব্যবস্থা করার মাধ্যমে এক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য নৈতিক ভূমিকা পালন করে।

সবুজ ব্যাংকিং হচ্ছে সামাজিক ও নৈতিক দায়বদ্ধতামূলক সচেতন ব্যাংকিং যেখানে প্রাকৃতিক সম্পদের ব্যবহার হবে কম এবং ব্যাংকিং কার্যক্রম হবে পরিবেশবান্ধব। সরকার সাধারণ মানুষকে সবুজ ব্যাংকিং অনুশীলন সম্পর্কে উৎসাহিত করতে পারে। সরকারের উচিত আমাদের পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে সবুজ ব্যাংকিং চর্চার ক্ষেত্রে উদ্যোগ গ্রহণ করা। ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক সবুজ ব্যাংকিংয়ের জন্য নীতিমালা সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করেছে। নির্দেশিকা অনুসারে, সমস্ত অপারেটিং ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে দেশে পরিবেশবান্ধব ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়। এছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংকের সবুজ ব্যাংকিং পলিসিতে, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিপর্যয়ের জন্য বিশেষ ফান্ডের ব্যবস্থা করতে হবে এবং এ ধরনের ফান্ডের জন্য অতিরিক্ত কোনো প্রিমিয়াম ধার্য করা যাবে না; এ বিষয়েও গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

ব্যাংক শুধুমাত্র একটি ফিন্যান্সিয়াল অর্গানাইজেশন হবে এ ধারণা থেকে বেরিয়ে এসে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে পরিবেশ ও মানুষকে বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষার জন্য সবুজ ব্যাংকিংয়ের বিকল্প নেই। সবুজ ব্যাংকিংয়ের অনুশীলন ব্যবসার মালিকদের তাদের ব্যবসা পরিবর্তন করে পরিবেশবান্ধব উদ্যোগ গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করবে, যা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য ভালো। সুতরাং বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে সবুজ ব্যাংকিংয়ের গুরুত্ব অপরিসীম।

তৌহিদা আফরোজ তানি

back to top