alt

বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্রে যুবলীগ নেতাকে অভ্যর্থনা মিল্কি হত্যার আসামি চঞ্চলের

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন চলতি মাসের শুরু থেকে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে রয়েছেন। সেপ্টেম্বরের শুরুতে ইসমাইল হোসেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে গেলে তাকে এয়ারপোর্টে অভ্যর্থনা জানান মিল্কি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রধান আসামি যুবলীগ মহানগর উত্তরের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেইসবুক পেইজে পোস্ট দেয়া বেশ কিছু ভিডিও ও স্থির ছবি গত কয়দিন ধরে রাজনীতিবিদদের আলোচনায় এসেছে।

এসব ছবি ও ভিডিওতে দেখা গেছে এয়ারপোর্টে ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেনকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানাচ্ছেন পুলিশের খাতায় পালাতক মিল্কি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল। প্রায় আট বছর আগে রাজধানীর গুলশানে ফিল্মি স্টাইলে খুন করা হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল হক খান মিল্কিকে।

২০১৩ সালের ২৯ জুলাই রাতে রাজধানীর গুলশানের শপার্স ওয়ার্ল্ডের সামনে ফিল্মি স্টাইলে রিয়াজুল হক খান মিল্কিকে পরিকল্পিতভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ হত্যাকান্ডের পর তার ছোটভাই মেজর রাশেদুল হক খান বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরও চার থেকে পাঁচজনকে আসামি করে গুলশান থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটির প্রথম তদন্তের দায়িত্ব পান র‌্যাবের সহকারী পুলিশ কাজেমুর রশিদ। ২০১৪ সালের ১৫ এপ্রিল ১১ জনকে অভিযুক্ত করে তিনি আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ওই চার্জশিটের বিরুদ্ধে নারাজি দেন মামলার বাদী। পরে আদালত মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য সিআইডিকে নির্দেশ দেন। সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার উত্তম কুমার বিশ্বাস অধিকতর তদন্তে আরও সাতজনকে অভিযুক্ত করে ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

মামলায় চার্জশিটভুক্ত ১৮ আসামি হলেন সাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল, আমিনুল ইসলাম ওরফে হাবিব, সোহেল মাহমুদ ওরফে সোহেল ভূঁইয়া, চুন্নু মিয়া, আরিফ ওরফে আরিফ হোসেন, সাহিদুল ইসলাম, ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ, জাহাঙ্গীর মন্ডল, ফাহিমা ইসলাম লোপা, রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, শরীফ উদ্দিন চৌধুরী ওরফে পাপ্পু, তুহিন রহমান ফাহিম, সৈয়দ মুজতবা আলী প্রকাশ রুমী, মোহাম্মদ রাশেদ মাহমুদ ওরফে আলী হোসেন রাশেদ ওরফে মাহমুদ, সাইদুল ইসলাম ওরফে নুরুজ্জামান, সুজন হাওলাদার, ডা. দেওয়ান মো. ফরিদউদ্দৌলা ওরফে পাপ্পু ও মামুন উর রশীদ। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের মধ্যে লোপাসহ ছয়জন বিভিন্ন সময় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আলোচিত এই মামলার বিচারকাজ এখনও সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। ৮ বছর আগে সংঘটিত এই চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার ১৮ আসামির মধ্যে চারজন পলাতক রয়েছেন। বাকি ১৪ জন আছেন জামিনে। মামলার শুরু থেকেই পলাতক চার আসামির মধ্যে অন্যতম প্রধান আসামি ঢাকা মহানগর যুবলীগের (উত্তর) তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে আছেন।

চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার বিচার চলছে ঢাকার পঞ্চম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে। এই মামলায় নিহত মিল্কির ছোট ভাই ও মামলার বাদী মেজর রাশেদুল হক খান এবং মিল্কির গাড়িচালক মারুফ রেজা সাগরসহ তিনজন সাক্ষ্য দিয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের মধ্যে লোপাসহ ছয়জন বিভিন্ন সময় আদালতে স্বীকারেক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আর হত্যাকান্ডের পর যুবলীগের (দক্ষিণ) যুগ্ম সম্পাদক এসএম জাহিদ সিদ্দিক তারেক ও চঞ্চলকে আওয়ামী যুবলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকান্ডের পর ২৯ জুলাই তারেককে উত্তরার ফরচুন হাসপাতাল থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরদিন ৩০ জুলাই র‌্যাবের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মারা যান তারেক।

পলাতক খুনের আসামির সঙ্গে নিজ দলের একজন সক্রিয় নেতা চলাফেরা করায় নেতাকর্মীরা অনেকেই বিব্রত বোধ করছেন। এ বিষয়ে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খানের সঙ্গে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

অচেনা হামলাকারীদের সঙ্গে ছিল মই হাতুড়ি পাথর

ছবি

সিলেটের পুলিশ সুপারের মায়ের মৃত্যু

ছবি

ঢামেকে নবজাতক মুমূর্ষ রোগীদের এনআইসিউতে ভর্তি করলেই আয়াদের দিতে হয় ঘুষ

ছবি

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে জনপ্রতিনিধিদের সতর্ক থাকতে হবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ছবি

সার্বিয়ার পররাষ্ট্র, বাণিজ্য ও শ্রমমন্ত্রীর সাথে ড. মোমেনের বৈঠক

ছবি

নারী,শিশু, প্রতিবন্ধীদের জন্য ঢামেকের বর্হিবিভাগে আধুনিক টয়লেট

ছবি

প্রতিমা বিসর্জনে হাজার-হাজার মানুষের ঢল

ছবি

চট্টগ্রামে প্রশাসনের অনুরোধে প্রতিমা বিসর্জন

ছবি

পূজামণ্ডপে হামলা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়: জাফরুল্লাহ চৌধুরী

ছবি

মাগুরায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ৪, আহত ২৫

সম্প্রীতির মিলনমেলা কক্সবাজার সৈকতে

ছবি

নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত

ছবি

শুভেচ্ছা সফরে যুক্তরাজ্যের রাজকীয় যুদ্ধজাহাজ এখন বাংলাদেশে

ছবি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে আবারও ফেরি চলাচল বন্ধ

ছবি

বায়তুল মোকাররম থেকে মিছিল, সংঘর্ষে উত্তপ্ত কাকরাইল

ছবি

বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

ছবি

সোনারগাঁয়ে সড়ক সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন-বিক্ষোভ

ছবি

কুবিতে সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে আহত ১০

ছবি

হাজীগঞ্জে ১৪৪ ধারা চলছে, পুলিশ–বিজিবির বাড়তি নিরাপত্তা

ছবি

পাবনায় ট্রাকচাপায় ৩ জন নিহত

ছবি

চোরের জন্য পেতে রাখা ফাঁদে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কৃষকের মৃত্যু

ছবি

দুই সন্তানকে মেরে মায়ের আত্মহত্যা

ছবি

আবারও ধর্মীয় উসকানি, সাম্প্রদায়িক হামলা, নিহত ৪

ছবি

সম্প্রীতির এক অনন্য নিদর্শন

সাম্প্রদায়িক অপচেষ্টা, দুর্বৃত্তদের শাস্তির দাবি

ছবি

রাজশাহীর ৩৫টি স্কুলে ‘মুজিব’ গ্রাফিক নভেল বিতরণ করলো বিকাশ

ছবি

গ্লাসগো, লন্ডন ও প্যারিস সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

ইউটিসি প্রোমো ক্যাম্পেইনের প্রথম দুই ব্যাচের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করলো কোকা-কোলা বাংলাদেশ

ছবি

ই-ক্যাবের সচেতনতামূলক প্রচারণা কর্মসূচী উদ্বোধন

ছবি

বিটিসিএল এবং বাংলাদেশ পুলিশের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত

ছবি

বজ্রপাত ঠেকাতে হাওরে হবে এক হাজার ছাউনি: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ছবি

দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ও ধর্মীয় সম্প্রতি অক্ষুন্ন রাখতে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর আহ্বান

অসুস্থ খালেদা জিয়া

ছবি

সিলেট ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন

ভারত থেকে আরও ১০ লাখ টিকা আসছে

ছবি

কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তায় অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ: এমপি শাওন

tab

বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্রে যুবলীগ নেতাকে অভ্যর্থনা মিল্কি হত্যার আসামি চঞ্চলের

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন চলতি মাসের শুরু থেকে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে রয়েছেন। সেপ্টেম্বরের শুরুতে ইসমাইল হোসেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে গেলে তাকে এয়ারপোর্টে অভ্যর্থনা জানান মিল্কি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রধান আসামি যুবলীগ মহানগর উত্তরের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেইসবুক পেইজে পোস্ট দেয়া বেশ কিছু ভিডিও ও স্থির ছবি গত কয়দিন ধরে রাজনীতিবিদদের আলোচনায় এসেছে।

এসব ছবি ও ভিডিওতে দেখা গেছে এয়ারপোর্টে ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেনকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানাচ্ছেন পুলিশের খাতায় পালাতক মিল্কি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল। প্রায় আট বছর আগে রাজধানীর গুলশানে ফিল্মি স্টাইলে খুন করা হয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল হক খান মিল্কিকে।

২০১৩ সালের ২৯ জুলাই রাতে রাজধানীর গুলশানের শপার্স ওয়ার্ল্ডের সামনে ফিল্মি স্টাইলে রিয়াজুল হক খান মিল্কিকে পরিকল্পিতভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ হত্যাকান্ডের পর তার ছোটভাই মেজর রাশেদুল হক খান বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরও চার থেকে পাঁচজনকে আসামি করে গুলশান থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটির প্রথম তদন্তের দায়িত্ব পান র‌্যাবের সহকারী পুলিশ কাজেমুর রশিদ। ২০১৪ সালের ১৫ এপ্রিল ১১ জনকে অভিযুক্ত করে তিনি আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ওই চার্জশিটের বিরুদ্ধে নারাজি দেন মামলার বাদী। পরে আদালত মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য সিআইডিকে নির্দেশ দেন। সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার উত্তম কুমার বিশ্বাস অধিকতর তদন্তে আরও সাতজনকে অভিযুক্ত করে ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

মামলায় চার্জশিটভুক্ত ১৮ আসামি হলেন সাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল, আমিনুল ইসলাম ওরফে হাবিব, সোহেল মাহমুদ ওরফে সোহেল ভূঁইয়া, চুন্নু মিয়া, আরিফ ওরফে আরিফ হোসেন, সাহিদুল ইসলাম, ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ, জাহাঙ্গীর মন্ডল, ফাহিমা ইসলাম লোপা, রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, শরীফ উদ্দিন চৌধুরী ওরফে পাপ্পু, তুহিন রহমান ফাহিম, সৈয়দ মুজতবা আলী প্রকাশ রুমী, মোহাম্মদ রাশেদ মাহমুদ ওরফে আলী হোসেন রাশেদ ওরফে মাহমুদ, সাইদুল ইসলাম ওরফে নুরুজ্জামান, সুজন হাওলাদার, ডা. দেওয়ান মো. ফরিদউদ্দৌলা ওরফে পাপ্পু ও মামুন উর রশীদ। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের মধ্যে লোপাসহ ছয়জন বিভিন্ন সময় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আলোচিত এই মামলার বিচারকাজ এখনও সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। ৮ বছর আগে সংঘটিত এই চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার ১৮ আসামির মধ্যে চারজন পলাতক রয়েছেন। বাকি ১৪ জন আছেন জামিনে। মামলার শুরু থেকেই পলাতক চার আসামির মধ্যে অন্যতম প্রধান আসামি ঢাকা মহানগর যুবলীগের (উত্তর) তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাখাওয়াত হোসেন চঞ্চল যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে আছেন।

চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার বিচার চলছে ঢাকার পঞ্চম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে। এই মামলায় নিহত মিল্কির ছোট ভাই ও মামলার বাদী মেজর রাশেদুল হক খান এবং মিল্কির গাড়িচালক মারুফ রেজা সাগরসহ তিনজন সাক্ষ্য দিয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের মধ্যে লোপাসহ ছয়জন বিভিন্ন সময় আদালতে স্বীকারেক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আর হত্যাকান্ডের পর যুবলীগের (দক্ষিণ) যুগ্ম সম্পাদক এসএম জাহিদ সিদ্দিক তারেক ও চঞ্চলকে আওয়ামী যুবলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকান্ডের পর ২৯ জুলাই তারেককে উত্তরার ফরচুন হাসপাতাল থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরদিন ৩০ জুলাই র‌্যাবের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মারা যান তারেক।

পলাতক খুনের আসামির সঙ্গে নিজ দলের একজন সক্রিয় নেতা চলাফেরা করায় নেতাকর্মীরা অনেকেই বিব্রত বোধ করছেন। এ বিষয়ে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খানের সঙ্গে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

back to top