alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

পরিচয়ে টাকা, কাগজপত্র গ্রহণেও টাকা, পরে উধাও

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

তারা পরস্পর বন্ধু। গ্রেফতার নাজির একটি হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়। আর এই চক্রের মূলহোতা কামরুজ্জামান ভুয়া সেনা কর্মকর্তা। নাজির কৌশলে সাধারণ মানুষের সাথে চাকুরী দেয়ার মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তোলে। ভিকটিমের বিশ্বস্ততা অর্জনের পর সে (নাজির) তার বন্ধু কামরুজ্জামানকে সেনাবাহিনীর উধ্বৃতন কর্মকর্তা হিসেবে ভিকটিমের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।

পরে, কামরুজ্জামান ভিকটিমকে আশ্বস্থ করে, ইতোপূর্বে সে বহু লোককে সেনাবাহিনীতে চাকুরি দিয়েছে। তবে চাকুরী পেতে হলে সেনাবাহিনীর নিয়োগ বোর্ডে যারা থাকে তাদেরকে ৫ লক্ষ টাকা দিতে হবে। এভাবে প্রথমে সে একটি চুক্তিনামা করে টাকা নিজের কাছে নিয়ে নেই। তারপর প্রার্থীর নিকট থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদনপত্র গ্রহণ করে।

আজ সোমবার (১৩ সেপ্টোম্বর) বিকালে র‌্যাব-৩ এর সহকারী পরিচালক মিডিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীণা রাণী দাস এক বার্তায় এতথ্য জানান। রাজধানীর সূত্রাপুর ও গাজীপুর জেলার শ্রীপুর এলাকায় পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে নাজির হোসেন (৩২) ও কামরুজ্জামান (৩৩) নামের প্রতারক চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩।

এরপর আরেক ধাপে শুরু হয় প্রতারণা, চাকুরি প্রার্থীকে জানানো হয় আপনাকে (ভিকটিম) একটি পদের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। তবে নিয়োগ পত্র পেতে হলে আরও ২ লক্ষ টাকা দিতে হবে। এভাবে সে ধাপে ধাপে ভিকটিমের নিকট থেকে টাকা আদায় করতে থাকে। একপর্যায়ে ভিকটিমকে একটি ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়ে। পরে নিজেদের চলাচলের অবস্থা পরিবর্তন করে ফেলে। এভাবেই চক্রটি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে এভাবে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়।

তিনি জানান, র‌্যাব ৩ সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে জানতে পারে, প্রতারক চক্রের সদস্য নাজির হোসেন ও কামরুজ্জামান দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে মেস ওয়েটার ও সৈনিক পদে চাকুরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সাধারণ জনগণকে বিভিন্ন ভাবে প্রলুব্ধ করে ভূয়া নিয়োগপত্র প্রদানের মাধ্যমে মোটা অংকের অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে। গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে সূত্রাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ছবি

ভোলায় এ্যাসিড নিক্ষেপে ছাত্রী হত্যা মামলায় অপু’র আমৃত্যু যাবজ্জীবন

ছবি

রাজারবাগের পীরের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট

সাভারে বাসা ভাড়ার নামে শিশু অপহরণ

ছবি

কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার রাতারাতি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক!

গ্রাহকের কোটি টাকা হাতিয়ে উধাও স্বপ্ন সঞ্চয় সমবায়

বালিয়াকান্দিতে চাকরির নামে টাকা হাতিয়ে উল্টো মামলা!

ছবি

ইভ্যালির চেয়ারম্যান-এমডির বাসায় র‌্যাবের অভিযান

ছবি

রাজারবাগের পীরের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কিশোর গ্যাং-এর উত্থান

ছয় বছরে বিআরটিএ কর্মকর্তার সম্পদের পাহাড়, মামলা দুদকের

ছবি

বিমানের সাবেক ১৭ সিবিএ নেতার দুর্নীতির তদন্ত কেন নয়?

ছবি

শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এ্যাসাইনমেন্ট পরীক্ষার ফি আদায়ের অভিযোগ

বাসা ভাড়ার অভিনব কৌশলে শিশু অপহরণ, আটক: ১

ছবি

চাকরির আট বছরেই বিআরটিএ কর্মকর্তা ১২ কোটি টাকার মালিক

চাকরির প্রলোভনে যৌনপল্লীতে বিক্রি : চাচার বিরুদ্ধে মামলা

ছবি

শরীয়তপুরের ছামাদ মাস্টার হত্যায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড, ৯ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

আদালতে হাজিরা দিলেন পরীমণি

ফুলপুরে ১০ টাকা কেজি ধরের ৪৮ বস্তা চাল উদ্ধার

দুর্গাপুরে সাংবাদিকের ওপর হামলা : থানায় অভিযোগ

মান্দায় বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার, পুত্রবধূ আটক

শেরপুরে অপহৃত স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেপ্তার

ছবি

কম্পিউটার অপারেটরের চাকরি থেকে এখন ‘সাড়ে ৪০০ কোটি টাকার’ মালিক

উলিপুরে ন্যায্য মূল্যের চাল কালোবাজারে বিক্রির সময় আটক ২

প্রতিদিন অভিনব কৌশলে দেশে ইয়াবা আনা হচ্ছে

ছবি

জাপানি নারীকে সাবেক স্বামীর ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের নোটিশ

ছবি

আগামীকাল আদালতে হাজিরা দেবেন পরীমণি

জীবন বীমার এমডির নিয়োগ বাণিজ্যসহ সারাদেশে ১০ অভিযোগের তদন্তে দুদক

ছবি

বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা: দুদকের পাঁচ আবেদনে রায় ২৭ সেপ্টেম্বর

ছবি

জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি-সম্পাদকসহ ১১ জনের ব্যাংক হিসাব তলব

ছবি

এহসান গ্রুপের চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের ৭ দিনের রিমান্ড

ছবি

স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাড়িচালক মালেকের রায় ২০ সেপ্টেম্বর

২৫ মানবপাচার মামলার চার্জশিট

ছবি

রাগীবসহ তার চার ভাইয়ের ৭ দিনের রিমান্ড

অস্ট্রেলিয়াপ্রবাসী নারীর ফাঁদে পড়লেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী

ছবি

অর্থ পাচারকারীদের তথ্য হলফনামা করে দিতে বললেন: হাইকোর্ট

ছবি

প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষিত

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

পরিচয়ে টাকা, কাগজপত্র গ্রহণেও টাকা, পরে উধাও

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

তারা পরস্পর বন্ধু। গ্রেফতার নাজির একটি হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়। আর এই চক্রের মূলহোতা কামরুজ্জামান ভুয়া সেনা কর্মকর্তা। নাজির কৌশলে সাধারণ মানুষের সাথে চাকুরী দেয়ার মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তোলে। ভিকটিমের বিশ্বস্ততা অর্জনের পর সে (নাজির) তার বন্ধু কামরুজ্জামানকে সেনাবাহিনীর উধ্বৃতন কর্মকর্তা হিসেবে ভিকটিমের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়।

পরে, কামরুজ্জামান ভিকটিমকে আশ্বস্থ করে, ইতোপূর্বে সে বহু লোককে সেনাবাহিনীতে চাকুরি দিয়েছে। তবে চাকুরী পেতে হলে সেনাবাহিনীর নিয়োগ বোর্ডে যারা থাকে তাদেরকে ৫ লক্ষ টাকা দিতে হবে। এভাবে প্রথমে সে একটি চুক্তিনামা করে টাকা নিজের কাছে নিয়ে নেই। তারপর প্রার্থীর নিকট থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ আবেদনপত্র গ্রহণ করে।

আজ সোমবার (১৩ সেপ্টোম্বর) বিকালে র‌্যাব-৩ এর সহকারী পরিচালক মিডিয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীণা রাণী দাস এক বার্তায় এতথ্য জানান। রাজধানীর সূত্রাপুর ও গাজীপুর জেলার শ্রীপুর এলাকায় পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে নাজির হোসেন (৩২) ও কামরুজ্জামান (৩৩) নামের প্রতারক চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩।

এরপর আরেক ধাপে শুরু হয় প্রতারণা, চাকুরি প্রার্থীকে জানানো হয় আপনাকে (ভিকটিম) একটি পদের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। তবে নিয়োগ পত্র পেতে হলে আরও ২ লক্ষ টাকা দিতে হবে। এভাবে সে ধাপে ধাপে ভিকটিমের নিকট থেকে টাকা আদায় করতে থাকে। একপর্যায়ে ভিকটিমকে একটি ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়ে। পরে নিজেদের চলাচলের অবস্থা পরিবর্তন করে ফেলে। এভাবেই চক্রটি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে এভাবে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়।

তিনি জানান, র‌্যাব ৩ সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে জানতে পারে, প্রতারক চক্রের সদস্য নাজির হোসেন ও কামরুজ্জামান দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে মেস ওয়েটার ও সৈনিক পদে চাকুরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সাধারণ জনগণকে বিভিন্ন ভাবে প্রলুব্ধ করে ভূয়া নিয়োগপত্র প্রদানের মাধ্যমে মোটা অংকের অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে। গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে সূত্রাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

back to top