alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

ঘর পুড়িয়ে মাকে মারধর : ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

ভাবির মামলায় দেবর জেলে

জেলা বার্তা পরিবেশক, কিশোরগঞ্জ : বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

কিশোরগঞ্জে সম্পত্তির বিরোধে ভাই ও ভাবির ওপর হামলার ঘটনায় ভাবির দায়ের করা মামলায় দেবর এখন কারাগারে। ওই দেবর তার মাকে মারধর করে তাদের বসতঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় বৃদ্ধা মা বাদী হয়ে আরও একটি মামলা করেছেন। তাতে মেয়েকেও আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার লতিবাবাদ ইউনিয়নের মুসলিমপাড়া গ্রামের প্রয়াত আব্দুল হামিদের ছেলে আদালতের গাড়িচালক সাইফুল ইসলাম (৫০) ও তার স্ত্রী সরুফা খাতুনকে (৪৬) গত ২ জুলাই সরুফার দেবর সিরাজুল ইসলাম (৪৫) রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন এবং সরুফার শ্লীলতাহানি করেন। এ ঘটনায় সরুফা বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় সিরাজুলের বিরুদ্ধে পরদিন মামলা (নং ৩) করেন। পরে আদালত থেকে সিরাজুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হলে গত রোববার (২১ নভেম্বর) তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

এদিকে সাইফুল ও সিরাজুলের বিধবা মা হাসিনা খাতুন (৭৪) বাড়িতে সাইফুলের ঘরে বসবাস করতেন। গত ২৫ অক্টোবর বিকালে ছেলে সিরাজুল ও নিজের মেয়ে রেহেনা খাতুন (৪৮) তাদের মা হাসিনা খাতুনকে প্রচন্ড মারধর করেন। আহত অবস্থায় বৃদ্ধাকে শহরের জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। এরপর গত ১০ নভেম্বর গভীররাতে বৃদ্ধা হাসিনা খাতুন প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বাইরে গেলে তিনি ছেলে সিরাজুল ও মেয়ে রেহেনাসহ আরও কয়েকজনকে দলবদ্ধ দেখতে পান। এক পর্যায়ে তারা হাসিনার ঘরের বেড়ায় কেরোসিন ছিটিয়ে ঘরে আগুন ধরিয়ে দেন। ঘরটি সম্পূর্ণ ভষ্মীভূত হয়ে যায়। বৃদ্ধা হাসিনা ডাকচিৎকার দিলে তাকে ছোরা ধরে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় বৃদ্ধা হাসিনা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন। মঙ্গলবার রাতে সেটি মামলা হিসেবে রেকর্ড (নং ২৩) করা হয়েছে। মামলায় ছেলে সিরাজুল ও মেয়ে রেহেনাকে আসামী করেছেন।

কয়েক বছর আগে বড়ভাই সাইফুলের ১০ বছরের ছেলে স্কুলছাত্র সাখাওয়াত হোসেন শরীফকে (১০) সিরাজুল অপহরণ করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিলেন বলেও জানা গেছে। এদিন বিকালেই ডিবি পুলিশ ভিকটিমসহ জহিরুলকে শহর থেকে আটক করে। এরপর সদর মডেল থানায় মামলা দিয়ে জহিরুলকে কারাগারে পাঠানো হয়। এছাড়া মাদকসহ গ্রেপ্তার হয়েও সিরাজুল একাধিকবার কারাগারে গেছেন বলে জানা গেছে। এদিকে সদর থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিকও পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে দুই ভায়ের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে প্রচন্ড বিরোধ এবং সংঘাত চলে আসছে বলে জানিয়েছেন।

ছবি

জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

ছবি

কুয়েতে মানবপাচার মামলায় পাপুলের ৭ বছর কারাদণ্ড

ছবি

পুলিশের অপরাধ তদন্তে ‘স্বাধীন কমিশন’ কেন নয়: হাইকোর্টের রুল

ছবি

পিছিয়ে গেলো আবরার হত্যা মামলার রায়

ছবি

আবরার হত্যা : আদালতে ২২ আসামি

রাজশাহীতে বিভিন্ন অপরাধে আটক ১৯

সীতাকুন্ডে জমি বিবাদে দোকান-গাড়িতে আগুন, বাড়িতে হামলা

ছবি

আহসান কবীরের মৃত্যু: উত্তর সিটির সেই ময়লার গাড়ির চালক গ্রেপ্তার

ছবি

আবরার হত্যা মামলার রায় রোববার

ইউপি নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় নিহত ২

ছবি

বরাদ্দের চাল ও টাকা ঢুকেছে ইউপি চেয়ারম্যানের পকেটে

সোনারগাঁয়ে ২ প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ-গুলি : আহত ২০

হবিগঞ্জে নির্বাচনী সংঘর্ষ-ভাংচুর, আহত ১৫

ছবি

নাঈমের মৃত্যু: ডিএসসিসি’র গাড়ির চালক হারুন গ্রেপ্তার

ছবি

নাঈমের মৃত্যু: আসল চালকের খোঁজ মিলল বরখাস্তের পর

কুমিল্লায় জোড়া খুন আরও এক আসামি মাসুম গ্রেপ্তার

ছবি

পুলিশের সামনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী চাচার ওপর ভাতিজার বাহিনীর হামলা

ছবি

ইভ্যালির ৩৬ ব্যাংক হিসাবে ৩৮’শ কোটি টাকার লেনদেন

ছবি

জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে এবার পঞ্চগড়ে মামলা

আড়াইহাজারে স্বর্ণ দোকানে ভাঙচুর-লুট, হিন্দু পাড়ায় হামলার হুমকি : আতঙ্ক

শৈলকুপায় সংঘর্ষে আহত ২৫ আটক ৬

মুন্সীগঞ্জে অবাধে উৎপাদন হচ্ছে কারেন্ট জাল

ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা মামলায় সাবেক মেয়র পুত্রের যাবজ্জীবন

ব্রাহ্মণপাড়ায় নৌকা না পেয়ে আ’লীগ অফিস ভাংচুর

শ্রেণী পরিবর্তণ করে রেজিস্ট্রি এক দলিলেই সতের লাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকি!

চট্টগ্রামে প্রতারণার অভিযোগে কাস্টমসের ২ কর্তাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ছবি

পতাকা ইস্যু: পাকিস্তান দলের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন খারিজ

ছবি

কাউন্সিলর সোহেল হত্যা: ৯ নম্বর আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

গোপালগঞ্জে ইজিবাইক চালক হত্যা: ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ে ১০ শতাংশ কোটা বাতিল: হাইকোর্ট

ছবি

নটর ডেম শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা

ছবি

পতাকা নিয়ে অনুশীলন: পাকিস্তান দলের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

ছবি

ড্রেনে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু: ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট

ছবি

‘অসৎ উদ্দেশ্যে’ আসামিকে জামিন দিয়েছিলেন কামরুন্নাহার

ছবি

মহাসড়কে সন্ত্রাস-চাঁদাবাজি ও দূর্ঘটনা তথ্য জানাতে চালু হচ্ছে অ্যাপ

ছবি

শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের হুমকি: বাস চালক-সহকারী কারাগারে

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

ঘর পুড়িয়ে মাকে মারধর : ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

ভাবির মামলায় দেবর জেলে

জেলা বার্তা পরিবেশক, কিশোরগঞ্জ

বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

কিশোরগঞ্জে সম্পত্তির বিরোধে ভাই ও ভাবির ওপর হামলার ঘটনায় ভাবির দায়ের করা মামলায় দেবর এখন কারাগারে। ওই দেবর তার মাকে মারধর করে তাদের বসতঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় বৃদ্ধা মা বাদী হয়ে আরও একটি মামলা করেছেন। তাতে মেয়েকেও আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার লতিবাবাদ ইউনিয়নের মুসলিমপাড়া গ্রামের প্রয়াত আব্দুল হামিদের ছেলে আদালতের গাড়িচালক সাইফুল ইসলাম (৫০) ও তার স্ত্রী সরুফা খাতুনকে (৪৬) গত ২ জুলাই সরুফার দেবর সিরাজুল ইসলাম (৪৫) রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন এবং সরুফার শ্লীলতাহানি করেন। এ ঘটনায় সরুফা বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় সিরাজুলের বিরুদ্ধে পরদিন মামলা (নং ৩) করেন। পরে আদালত থেকে সিরাজুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হলে গত রোববার (২১ নভেম্বর) তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।

এদিকে সাইফুল ও সিরাজুলের বিধবা মা হাসিনা খাতুন (৭৪) বাড়িতে সাইফুলের ঘরে বসবাস করতেন। গত ২৫ অক্টোবর বিকালে ছেলে সিরাজুল ও নিজের মেয়ে রেহেনা খাতুন (৪৮) তাদের মা হাসিনা খাতুনকে প্রচন্ড মারধর করেন। আহত অবস্থায় বৃদ্ধাকে শহরের জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। এরপর গত ১০ নভেম্বর গভীররাতে বৃদ্ধা হাসিনা খাতুন প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বাইরে গেলে তিনি ছেলে সিরাজুল ও মেয়ে রেহেনাসহ আরও কয়েকজনকে দলবদ্ধ দেখতে পান। এক পর্যায়ে তারা হাসিনার ঘরের বেড়ায় কেরোসিন ছিটিয়ে ঘরে আগুন ধরিয়ে দেন। ঘরটি সম্পূর্ণ ভষ্মীভূত হয়ে যায়। বৃদ্ধা হাসিনা ডাকচিৎকার দিলে তাকে ছোরা ধরে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় বৃদ্ধা হাসিনা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন। মঙ্গলবার রাতে সেটি মামলা হিসেবে রেকর্ড (নং ২৩) করা হয়েছে। মামলায় ছেলে সিরাজুল ও মেয়ে রেহেনাকে আসামী করেছেন।

কয়েক বছর আগে বড়ভাই সাইফুলের ১০ বছরের ছেলে স্কুলছাত্র সাখাওয়াত হোসেন শরীফকে (১০) সিরাজুল অপহরণ করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিলেন বলেও জানা গেছে। এদিন বিকালেই ডিবি পুলিশ ভিকটিমসহ জহিরুলকে শহর থেকে আটক করে। এরপর সদর মডেল থানায় মামলা দিয়ে জহিরুলকে কারাগারে পাঠানো হয়। এছাড়া মাদকসহ গ্রেপ্তার হয়েও সিরাজুল একাধিকবার কারাগারে গেছেন বলে জানা গেছে। এদিকে সদর থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিকও পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে দুই ভায়ের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে প্রচন্ড বিরোধ এবং সংঘাত চলে আসছে বলে জানিয়েছেন।

back to top