alt

শিক্ষা

ঢাবি ছাত্রীর আত্নহত্যার মূল তথ্য ফাঁস

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক : মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০
image

পাবনার ঈশ্বরদীতে নিজ বাসায় দড়িতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আত্মহত্যাকারী ছাত্রীর নাম ফারিহা তাবাসসুম রুম্পা। তিনি ইংরেজি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। রুম্পা থাকতেন শামসুন্নাহার হলে। তার বাবার নাম ফরিদ উদ্দীন মণ্ডল। তিনি একজন সরকারি চাকরিজীবী।

এতকিছুর পরও রুম্পা কেন আত্নহত্যা করলেন? নিহতের সহপাঠীদের ধারণা, পরিবারের চাপে সে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে রুম্পার সহপাঠী হাসনাত আবদুল্লাহ বলেন, সে খুবই মার্জিত, ভদ্র, মেধাবী এবং প্রচণ্ড রকমের ধার্মিক ছিল। আমরা চার বছর তার সাথে ক্লাস করেছি, অথচ মৃত্যুর আগেও কোনো সহপাঠী তার চেহারা দেখেনি। রুম্পার আত্মহত্যার খবর শুনে আমরা নিশ্চিত হতে পারছিলাম না, এই মেয়েটা আসলেই রুম্পা কিনা। কারণ কেউই তাকে দেখেনি।

হাসনাত আরও বলেন, ক্লাস সেভেন থেকে রুম্পার সাথে একটি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তার ভাই প্রচণ্ড বদমেজাজী হওয়ায় তিনি ওই ছেলেকে (রুম্পার বয়ফ্রেন্ড) মানতে পারেননি।

মূলত রুম্পার সাথে যে ছেলের সম্পর্ক ছিল সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের না হওয়ায় পরিবারের কেউই তাদের সম্পর্ক মেনে নেননি। হয়তো জোর করেই বিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। তাই রুম্পা আত্মহত্যা করেছে।

এদিকে রুম্পার মৃত্যুর খবর আগেই নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী।

তিনি বলেন, শুনেছি; এটা খুবই দুঃখজনক খবর। জানতে পেরেছি মৃত্যুর কারণ পারিবারিক। আমরা রুম্পার বিভাগের সাথে যোগাযোগ করে তার কিছু তথ্য বের করেছি। এগুলো আমরা পুলিশ বাহিনীর হাতে দিয়েছি। আমরা তাদের আহ্বান জানিয়েছি এ ঘটনায় কেউ যদি দোষী হয়, তাদেরও যেন আইনের আওতায় নিয়ে আসা হয়।

ইংরেজি বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক ড. নেভিন ফরিদা বলেন, আত্মহত্যার বিষয়টি শুনেছি। আত্নহত্যার ঘটনা জানার চেষ্টা করছি।

ছবি

৩০ জুন পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বৃদ্ধি

ছবি

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবীতে মানববন্ধন

ছবি

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ে পেছাচ্ছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা

স্বাস্থ্যবিধি মেনে এইচএসসি পরীক্ষা নেয়ার পরিকল্পনা

ছবি

শিক্ষা খাতে ২৫% বরাদ্দের দাবি ছাত্র ইউনিয়নের

ছবি

সিলেটে ভূমিকম্পে স্কুলভবনে ফাটল, পরিত্যক্ত ঘোষণা

ছবি

চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ করতে ২০ জুন পর্যন্ত আল্টিমেটাম

ছবি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ও প্রফেশনাল ভর্তি স্থগিত

ছবি

তালিকাভুক্ত কেন্দ্রকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নিতে হবে: শিক্ষা বোর্ড

ছবি

চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩২ প্রত্যাশীদের কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা

ছবি

বিএনবিসি নিয়ে ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের অসন্তোষ, লাগাতার আন্দোলনের হুশিয়ারি

ছবি

নীলক্ষেতে শিক্ষার্থীদের অবরোধ

ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব

ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ, চরম হতাশায় দিন কাটছে শিক্ষার্থীদের

ছবি

১৩ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নিতে মন্ত্রণালয়ের চিঠি

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা বাতিল চেয়ে রিট খারিজ

ছবি

ফের বাড়ল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

ছবি

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রশাসন

ছবি

দুই মাস পেছালো রাবির ভর্তি পরীক্ষা

ছবি

আবারও মাধ্যমিকের অ্যাসাইনমেন্ট শুরু হচ্ছে

এমবিবিএসে ভর্তির সময় বাড়লো ৭ জুন পর্যন্ত

ছবি

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বাংলা : রচনা

ছবি

বিসিএস প্রিলিমিনারি প্রস্তুতি

ছবি

স্বস্তিতে নেই রাবিতে অবৈধ নিয়োগপ্রাপ্তরা

ছবি

জাতীয় অধ্যাপক হলেন তিন বিশিষ্টজন

ছবি

এসএসসির ফরম পূরণে সময় বাড়ল ২৯ মে পর্যন্ত

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত

ছবি

ইবির সিন্ডিকেট সদস্য হলেন অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম

ছবি

৪২তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ

ছবি

জেনে রাখো : পৃথিবীর সবচেয়ে দীর্ঘ ও প্রধান নদী

ছবি

শিক্ষক নিবন্ধন প্রিলিমিনারি পরীক্ষার পরামর্শ

ছবি

শিক্ষার্থীদের শুধু পাঠ্যবই নয়, অন্য বইও পড়তে দিন: শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি : সাবজেক্ট নিয়ে হতাশা নয়

ছবি

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন, ৩১ জুলাই শুরু

ছবি

জামা-জুতা-ব্যাগ কিনতে টাকা পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা, তথ্য এন্ট্রি শুরু ৯ মে

tab

শিক্ষা

ঢাবি ছাত্রীর আত্নহত্যার মূল তথ্য ফাঁস

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক
image

মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

পাবনার ঈশ্বরদীতে নিজ বাসায় দড়িতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আত্মহত্যাকারী ছাত্রীর নাম ফারিহা তাবাসসুম রুম্পা। তিনি ইংরেজি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। রুম্পা থাকতেন শামসুন্নাহার হলে। তার বাবার নাম ফরিদ উদ্দীন মণ্ডল। তিনি একজন সরকারি চাকরিজীবী।

এতকিছুর পরও রুম্পা কেন আত্নহত্যা করলেন? নিহতের সহপাঠীদের ধারণা, পরিবারের চাপে সে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে রুম্পার সহপাঠী হাসনাত আবদুল্লাহ বলেন, সে খুবই মার্জিত, ভদ্র, মেধাবী এবং প্রচণ্ড রকমের ধার্মিক ছিল। আমরা চার বছর তার সাথে ক্লাস করেছি, অথচ মৃত্যুর আগেও কোনো সহপাঠী তার চেহারা দেখেনি। রুম্পার আত্মহত্যার খবর শুনে আমরা নিশ্চিত হতে পারছিলাম না, এই মেয়েটা আসলেই রুম্পা কিনা। কারণ কেউই তাকে দেখেনি।

হাসনাত আরও বলেন, ক্লাস সেভেন থেকে রুম্পার সাথে একটি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তার ভাই প্রচণ্ড বদমেজাজী হওয়ায় তিনি ওই ছেলেকে (রুম্পার বয়ফ্রেন্ড) মানতে পারেননি।

মূলত রুম্পার সাথে যে ছেলের সম্পর্ক ছিল সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের না হওয়ায় পরিবারের কেউই তাদের সম্পর্ক মেনে নেননি। হয়তো জোর করেই বিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। তাই রুম্পা আত্মহত্যা করেছে।

এদিকে রুম্পার মৃত্যুর খবর আগেই নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী।

তিনি বলেন, শুনেছি; এটা খুবই দুঃখজনক খবর। জানতে পেরেছি মৃত্যুর কারণ পারিবারিক। আমরা রুম্পার বিভাগের সাথে যোগাযোগ করে তার কিছু তথ্য বের করেছি। এগুলো আমরা পুলিশ বাহিনীর হাতে দিয়েছি। আমরা তাদের আহ্বান জানিয়েছি এ ঘটনায় কেউ যদি দোষী হয়, তাদেরও যেন আইনের আওতায় নিয়ে আসা হয়।

ইংরেজি বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক ড. নেভিন ফরিদা বলেন, আত্মহত্যার বিষয়টি শুনেছি। আত্নহত্যার ঘটনা জানার চেষ্টা করছি।

back to top