alt

জাতীয়

খতিয়ান নিয়ে এসি ল্যান্ডদের প্রতি জরুরী নির্দেশনা জারি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১

ভূমি জরিপের পর চূড়ান্তভাবে প্রকাশিত খতিয়ানে নানা ধরনের ভুল থাকলে তা সংশোধন করার জন্য এসি ল্যান্ডদের (সহকারী কমিশনার, ভূমি) প্রতি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা দিয়ে বৃহস্পতিবার পরিপত্র জারি করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

এতে বিস্তারিত ব্যাখ্যাসহ সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনা তুলে ধরা হয়েছে। এ সংশোধন ভূমি অফিসের ভাষায় ‘রেকর্ড সংশোধন’ নামে পরিচিত।

ভূমি সচিব মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত ৬ পৃষ্ঠার বিশদ পরিপত্রে খুঁটিনাটি সব বিষয়ে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা রয়েছে। যাতে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের কোনো সমস্যা না হয় সেজন্য প্রতিটি বিষয়ের সঙ্গে আইন ও বিধিবিধানের রেফারেন্স যুক্ত করা হয়েছে।

এর ফলে ভূমি অফিসের কেউ নয়ছয় বুঝিয়ে সেবাপ্রার্থীদের হয়রানি করার সুযোগ পাবে না। এ যাবতকালের সব ধরনের ফাঁকফোকর চিহ্নিত করে পরিপত্রে তা সুস্পষ্টভাবে বলা হয়েছে।

এতে রাজস্ব অফিসার কর্তৃক খতিয়ানের ভুল সংশোধন বিষয়ক কতিপয় আইন ও বিধি, খতিয়ানে কী ধরনের করণিক ভুল হতে পারে, খতিয়ানে প্রতারণামূলক অন্তর্ভুক্তি, প্রকৃত ভুল বা যথার্থ ভুল এবং ভুল সংশোধনের পদ্ধতি বিষয়ে গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে।

পরিপত্রে বলা হয়, জরিপ পরবর্তীকালে সেবাগ্রহীতাদের খতিয়ানের এ ধরনের ভুল যুক্তিসঙ্গত সময়ের মধ্যে সংশোধনে সেবা দিতে সরকার বদ্ধপরিকর। আইন ও বিধিতে সুষ্পষ্ট ধারণা না থাকায় সর্বশেষ জরিপে প্রস্তুত ও চূড়ান্তভাবে প্রকাশিত স্বতলিপি বা খতিয়ানে পরিদৃষ্ট ভুল সংশোধনের বিষয়ে এসি ল্যান্ড কর্তৃক জনগণকে প্রার্থিত প্রতিকার প্রদান করা হচ্ছে না মর্মে পরিলক্ষিত হচ্ছে, যা কাম্য নয়।

তাই খতিয়ানের করণিক ভুল, প্রতারণামূলক অন্তর্ভুক্তি এবং যথার্থ ভুল সংশোধন বিষয়ে আইন ও বিধিমালায় উল্লিখিত বিধান এবং জারিকৃত পরিপত্রের নির্দেশনা যথাযথভাবে অনুসরণের স্বার্থে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের এ বিষয়ে আরও সচেষ্ট হওয়ার পাশাপাশি সম্যক জ্ঞান থাকা প্রয়োজন বলে এতে উল্লেখ করা হয়েছে।

পরিপত্রে করণিক ভুলের বিষয়ে ৫টি নীতি অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। যেমন- করণিক ভুল এমন ভুল হিসাবে গণ্য হবে, যা প্রকৃতই সরল বিশ্বাসে ভুলক্রমে বা অসাবধানে হয়েছে বলে বোঝা যাবে, এরূপ ভুলের পেছনে কারও কোনো অসাধু উদ্দেশ্য ছিল- এমন কিছু প্রতিভাত হবে না।

এ ভুলের সঙ্গে অন্য কারও স্বত্ব স্বার্থের সংশ্লিষ্টতা থাকবে না এবং যা সংশোধন করলে অন্য কোনো ব্যক্তির স্বার্থ নষ্ট হবে না। যার নামে খতিয়ান সৃষ্টি করা হয়েছে সংশোধনের পর তার প্রকৃত প্রাপ্যতা অপেক্ষা ভূমির পরিমাণ কম বা বেশি হবে না। তবে সংশোধনের মাধ্যমে তার ভূমিস্বত্বের অস্পষ্টতা অবশ্যই দূর করতে হবে।

ছবি

কুইক রেন্টাল ৫টি বিদ্যুৎকেন্দ্রের মেয়াদ আরও দুই বছর বাড়ছে

ছবি

পরমাণুর শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে নবাগত রাষ্ট্রের জন্য মডেল বাংলাদেশ: স্থপতি ইয়াফেস ওসমান

ছবি

রূপপুর এনপিপি পরিচালনায় প্রয়োজন দক্ষ জনবল

ছবি

কোন সাংবাদিক অহেতুক হয়রানির শিকার হবেন না: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

একদিনে ডেঙ্গুতে নতুন আক্রান্ত ২৪৬ জন

ছবি

সহপাঠ : ঢাকায় ৯% বিদ্যালয়ে মেয়েদের পৃথক শৌচাগার নেই

ছবি

করোনা শনাক্তের হার ৪.৬৯, মৃত্যু ২৬

অর্থায়ন ও মায়ানমারের আগ্রহ নেই আটকে আছে ট্রান্স এশিয়ান রেলরুট

ছবি

করোনায় প্রায় ৪ মাস পর সর্বনিম্ন মৃত্যু ২৬

ছবি

ডেঙ্গুতে চব্বিশ ঘন্টায় আক্রান্ত আরও ২৭৫ জন

ছবি

বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদি আরব

ছবি

বাংলাদেশে নতুন প্রচলিত চায়না দুয়ারী জাল কেন বিপজ্জনক?

ছবি

জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

১৬০ ইউপি ও ৯ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

আজ দেশের ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচন

প্রতি মাসে ২ কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা: স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের

ছবি

তৃণমূল নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ : তথ্যমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন দেশের সেনা প্রধানদের সঙ্গে সাক্ষাৎ বাংলাদেশ সেনা প্রধানের

ছবি

জাতীয় ব্লকচেইন কৌশলপত্র নিয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত

দ্বিতীয়বার গিনেস বুকে নাম লেখালেন নাসিরনগরের পার্থ

ছবি

করোনায় মৃত্যু বেড়ে ৪৩, শনাক্তের হার ৫.৬২

ছবি

সরকার চাইলে আগামী নির্বাচনে সহযোগিতা করবে জাতিসংঘ

ছবি

ফোনে আড়িপাতা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট : আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

ছবি

‘শিক্ষার্থীরা মানলেও স্বাস্থ‌্যবিধি মানছেন না অভিভাবকরা’

ছবি

১৬১ ইউপি ও ৯ পৌরসভায় সোমবার ভোট

ছবি

ডেঙ্গুতে নতুন আক্রান্ত আরও ২৩২ জন

ছবি

করোনায় মৃত্যু-শনাক্তের হার নিম্নমুখী

ছবি

সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করে কেউ পার পাবে না: ডিএমপি

ছবি

১৫ দফা সুপারিশ নৌ যোগাযোগ খাতের উন্নয়নে

ছবি

দেশে সিনোফার্মের আরো ৫০ লাখ টিকা এল চীন থেকে

ছবি

বঙ্গবন্ধু ভাষণের দিনকে তৃতীয়বারের মতো ‘বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে’ ঘোষণা

ছবি

একদিনে ডেঙ্গু আক্রান্ত আরও ১৬৩ জন

ছবি

করোনায় আরও মৃত্যু ৩৮, শনাক্ত ১৯০৭

ছবি

সপ্তাহে দু’দিন হবে অষ্টম ও নবম শ্রেণির ক্লাস

ছবি

আজ একসঙ্গে ২১ নিয়োগ পরীক্ষা, চাকরিপ্রার্থীদের ক্ষোভ

ছবি

রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান খুঁজতে দৃঢ়-প্রতিজ্ঞ অস্ট্রেলিয়া: হাই কমিশনার

tab

জাতীয়

খতিয়ান নিয়ে এসি ল্যান্ডদের প্রতি জরুরী নির্দেশনা জারি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১

ভূমি জরিপের পর চূড়ান্তভাবে প্রকাশিত খতিয়ানে নানা ধরনের ভুল থাকলে তা সংশোধন করার জন্য এসি ল্যান্ডদের (সহকারী কমিশনার, ভূমি) প্রতি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা দিয়ে বৃহস্পতিবার পরিপত্র জারি করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

এতে বিস্তারিত ব্যাখ্যাসহ সুস্পষ্ট দিকনির্দেশনা তুলে ধরা হয়েছে। এ সংশোধন ভূমি অফিসের ভাষায় ‘রেকর্ড সংশোধন’ নামে পরিচিত।

ভূমি সচিব মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত ৬ পৃষ্ঠার বিশদ পরিপত্রে খুঁটিনাটি সব বিষয়ে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা রয়েছে। যাতে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের কোনো সমস্যা না হয় সেজন্য প্রতিটি বিষয়ের সঙ্গে আইন ও বিধিবিধানের রেফারেন্স যুক্ত করা হয়েছে।

এর ফলে ভূমি অফিসের কেউ নয়ছয় বুঝিয়ে সেবাপ্রার্থীদের হয়রানি করার সুযোগ পাবে না। এ যাবতকালের সব ধরনের ফাঁকফোকর চিহ্নিত করে পরিপত্রে তা সুস্পষ্টভাবে বলা হয়েছে।

এতে রাজস্ব অফিসার কর্তৃক খতিয়ানের ভুল সংশোধন বিষয়ক কতিপয় আইন ও বিধি, খতিয়ানে কী ধরনের করণিক ভুল হতে পারে, খতিয়ানে প্রতারণামূলক অন্তর্ভুক্তি, প্রকৃত ভুল বা যথার্থ ভুল এবং ভুল সংশোধনের পদ্ধতি বিষয়ে গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে।

পরিপত্রে বলা হয়, জরিপ পরবর্তীকালে সেবাগ্রহীতাদের খতিয়ানের এ ধরনের ভুল যুক্তিসঙ্গত সময়ের মধ্যে সংশোধনে সেবা দিতে সরকার বদ্ধপরিকর। আইন ও বিধিতে সুষ্পষ্ট ধারণা না থাকায় সর্বশেষ জরিপে প্রস্তুত ও চূড়ান্তভাবে প্রকাশিত স্বতলিপি বা খতিয়ানে পরিদৃষ্ট ভুল সংশোধনের বিষয়ে এসি ল্যান্ড কর্তৃক জনগণকে প্রার্থিত প্রতিকার প্রদান করা হচ্ছে না মর্মে পরিলক্ষিত হচ্ছে, যা কাম্য নয়।

তাই খতিয়ানের করণিক ভুল, প্রতারণামূলক অন্তর্ভুক্তি এবং যথার্থ ভুল সংশোধন বিষয়ে আইন ও বিধিমালায় উল্লিখিত বিধান এবং জারিকৃত পরিপত্রের নির্দেশনা যথাযথভাবে অনুসরণের স্বার্থে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের এ বিষয়ে আরও সচেষ্ট হওয়ার পাশাপাশি সম্যক জ্ঞান থাকা প্রয়োজন বলে এতে উল্লেখ করা হয়েছে।

পরিপত্রে করণিক ভুলের বিষয়ে ৫টি নীতি অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। যেমন- করণিক ভুল এমন ভুল হিসাবে গণ্য হবে, যা প্রকৃতই সরল বিশ্বাসে ভুলক্রমে বা অসাবধানে হয়েছে বলে বোঝা যাবে, এরূপ ভুলের পেছনে কারও কোনো অসাধু উদ্দেশ্য ছিল- এমন কিছু প্রতিভাত হবে না।

এ ভুলের সঙ্গে অন্য কারও স্বত্ব স্বার্থের সংশ্লিষ্টতা থাকবে না এবং যা সংশোধন করলে অন্য কোনো ব্যক্তির স্বার্থ নষ্ট হবে না। যার নামে খতিয়ান সৃষ্টি করা হয়েছে সংশোধনের পর তার প্রকৃত প্রাপ্যতা অপেক্ষা ভূমির পরিমাণ কম বা বেশি হবে না। তবে সংশোধনের মাধ্যমে তার ভূমিস্বত্বের অস্পষ্টতা অবশ্যই দূর করতে হবে।

back to top