alt

রাজনীতি

সরকার বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চলছে: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শুক্রবার, ১১ জুন ২০২১

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগের মধ্যেও বাগাড়ম্বর বক্তব্য দেওয়া ছাড়া সরকার জনকল্যাণে কোনো কাজ না করে বিএনপি এবং এর সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, করোনা মোকাবিলায় সব ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী সরকার আরো বেশি আগ্রাসী পথ অবলম্বন করে বিরোধী দলকে দমন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনে সরকার নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে সরকারের এই ফ্যাসিবাদী নিষ্ঠুর আচরণের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি। এই প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করতে গিয়েও বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সরকারের সাঁড়াশি আক্রমণে পড়তে হয়েছে। ২০২১ থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের এবং গ্রেফতারের হিড়িক শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম এর সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরীকে গত ২৮ মার্চ মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীকে গত পাঁচ বছর ধরে মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় গ্রেফতার করে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। যখনই তিনি আদালত থেকে জামিন লাভ করেন তখনই নতুন নতুন পুরনো বানোয়াট মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাবাস দীর্ঘায়িত করা হচ্ছে। এছাড়া চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, জয়পুরহাট, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নওগাঁসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতিদিনই গ্রেফতার, কারান্তরীণ করা হচ্ছে এবং এই প্রক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কেউ যাতে মুখ খুলতে না পারে সেজন্যই রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ওপর নির্যাতন চালানোকে লক্ষ্য হিসেবে ধরে নিয়েছে সরকার। নির্যাতন-নিপীড়ন, গুম-খুন ইত্যাদি সরকার বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চলছে: মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগের মধ্যেও বাগাড়ম্বর বক্তব্য দেওয়া ছাড়া সরকার জনকল্যাণে কোনো কাজ না করে বিএনপি এবং এর সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, করোনা মোকাবিলায় সব ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী সরকার আরো বেশি আগ্রাসী পথ অবলম্বন করে বিরোধী দলকে দমন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনে সরকার নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে সরকারের এই ফ্যাসিবাদী নিষ্ঠুর আচরণের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি। এই প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করতে গিয়েও বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সরকারের সাঁড়াশি আক্রমণে পড়তে হয়েছে। ২০২১ থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের এবং গ্রেফতারের হিড়িক শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম এর সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরীকে গত ২৮ মার্চ মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীকে গত পাঁচ বছর ধরে মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় গ্রেফতার করে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। যখনই তিনি আদালত থেকে জামিন লাভ করেন তখনই নতুন নতুন পুরনো বানোয়াট মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাবাস দীর্ঘায়িত করা হচ্ছে। এছাড়া চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, জয়পুরহাট, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নওগাঁসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতিদিনই গ্রেফতার, কারান্তরীণ করা হচ্ছে এবং এই প্রক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কেউ যাতে মুখ খুলতে না পারে সেজন্যই রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ওপর নির্যাতন চালানোকে লক্ষ্য হিসেবে ধরে নিয়েছে সরকার। নির্যাতন-নিপীড়ন, গুম-খুন ইত্যাদি অপকর্মের মাধ্যমে দেশকে এক ভয়াবহ অরাজকতার দিকে ঠেলে দিয়েছে তারা। এর মাধ্যমে দেশকে তারা কর্তৃত্ববাদী রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল অবিলম্বে নিপুণ রায় চৌধুরী, আসলাম চৌধুরীসহ দেশব্যাপী গ্রেফতারকৃত বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

অপকর্মের মাধ্যমে দেশকে এক ভয়াবহ অরাজকতার দিকে ঠেলে দিয়েছে তারা। এর মাধ্যমে দেশকে তারা কর্তৃত্ববাদী রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল অবিলম্বে নিপুণ রায় চৌধুরী, আসলাম চৌধুরীসহ দেশব্যাপী গ্রেফতারকৃত বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

ছবি

সার্চ কমিটির মাধ্যমেই নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে: ড. রাজ্জাক

ছবি

দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে বিএনপি ষড়যন্ত্র করছে: তাজুল ইসলাম

ছবি

মেগা প্রকল্প উদ্বোধন হলে বিএনপি নেতারা চোখে সর্ষে ফুল দেখবে: সেতুমন্ত্রী

ছবি

সরকার পুরো প্রশাসনকে দলীয়করণ করে ফেলেছে: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপির ঐক্যের শক্তি হাওয়ায় মিলিয়ে গেছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

বঙ্গবন্ধুর খুনি নূরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর দাবি তথ্য প্রতিমন্ত্রীর

ছবি

রাজশাহীতে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় জামিন পেলেন বিএনপির শীর্ষ তিন নেতা

ছবি

বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে দেশে বিরাজনীতিকরণ চলছে: জিএম কাদের

ছবি

দেশের উন্নয়ন করে সরকার ইতিহাস সৃষ্টি করেছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসংঘ সফরে কোনো অর্জন নেই: মির্জা ফখরুল

ছবি

আবার সহিংসতার করলে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে: বিএনপিকে কাদের

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর বেশির ভাগ সফরসঙ্গীই নিজ খরচে গেছেন: হাছান মাহমুদ

ছবি

প্রধানমন্ত্রী অসহায়দের পাশে আছেন: শিল্পমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচন নামের শব্দ নিয়ে আর কোনো আলোচনা নয়: গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

ছবি

বিএনপি সব সময় পেছনের দরজা পছন্দ করে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের কবর জাতীয় সংসদ চত্বরে থাকতে পারে না: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ছবি

ষড়যন্ত্র ও সমালোচনার পার্থক্য সরকাকে বুঝতে হবে: প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ছবি

বিএনপি তৃণমূল নেতাদের পরামর্শ সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেবেন শীর্ষ নেতৃত্ব

ছবি

বিএনপি দেশকে অস্থিতিশীল করে অগ্রযাত্রার গতি থামিয়ে দিতে চায়: ওবায়দুল কাদের

জনগণ চাইলে খালেদা জিয়াকে বিদেশ যেতে দেওয়া হবে: আইনমন্ত্রী

ছবি

মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর ‘ক্রাউন জুয়েল’ অর্জনে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

ছবি

গণতন্ত্রী পার্টির মাস্ক বিতরণ

ছবি

দেশের মানুষ ‘ভালো’ আছে বলে বিএনপি ‘ভালো’ নেই: ওবায়দুল কাদের

ছবি

আ.লীগ দেশ পরিচালনার সব ক্ষেত্রেই সম্পূর্ণ ব্যর্থ: মির্জা ফখরুল

ছবি

বাকশাল কৃষকের কল্যাণেই হয়েছিল: পরিকল্পনামন্ত্রী

মাদারীপুরের আ’লীগের ‘বিরোধ মেটাতে’ শাজাহান খানের ডাকে সাড়া দেননি কেউ

ছবি

খালেদা জিয়া কি জেলে না মুক্ত?

ছবি

আ.লীগ-বিএনপি ‘সংকটে’ জাপার ভবিষ্যত উজ্জ্বল: জিএম কাদের

ছবি

ভোটারদের নির্বাচন বিমুখতা, গণতন্ত্রের জন্য অশনিসংকেত: মাহবুব তালুকদার

ছবি

মেয়র তাহেরের ছেলে লক্ষ্মীপুরে ১০ যুবলীগ নেতা-কর্মীকে পেটালেন

ছবি

বর্তমানে দেশের কেউ ভালো নেই, শান্তিতে নেই: মির্জা ফখরুল

ছবি

স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

সরকার যে কারো ব্যাংক হিসাব তলব করতে পারে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচন কমিশনের ক্ষমতা সাধারণ মানুষের কাছে দৃশ্যমান নয়: জি এম কাদের

ছবি

সাংবাদিক নেতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠি অপ্রত্যাশি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

tab

রাজনীতি

সরকার বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চলছে: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শুক্রবার, ১১ জুন ২০২১

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগের মধ্যেও বাগাড়ম্বর বক্তব্য দেওয়া ছাড়া সরকার জনকল্যাণে কোনো কাজ না করে বিএনপি এবং এর সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, করোনা মোকাবিলায় সব ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী সরকার আরো বেশি আগ্রাসী পথ অবলম্বন করে বিরোধী দলকে দমন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনে সরকার নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে সরকারের এই ফ্যাসিবাদী নিষ্ঠুর আচরণের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি। এই প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করতে গিয়েও বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সরকারের সাঁড়াশি আক্রমণে পড়তে হয়েছে। ২০২১ থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের এবং গ্রেফতারের হিড়িক শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম এর সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরীকে গত ২৮ মার্চ মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীকে গত পাঁচ বছর ধরে মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় গ্রেফতার করে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। যখনই তিনি আদালত থেকে জামিন লাভ করেন তখনই নতুন নতুন পুরনো বানোয়াট মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাবাস দীর্ঘায়িত করা হচ্ছে। এছাড়া চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, জয়পুরহাট, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নওগাঁসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতিদিনই গ্রেফতার, কারান্তরীণ করা হচ্ছে এবং এই প্রক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কেউ যাতে মুখ খুলতে না পারে সেজন্যই রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ওপর নির্যাতন চালানোকে লক্ষ্য হিসেবে ধরে নিয়েছে সরকার। নির্যাতন-নিপীড়ন, গুম-খুন ইত্যাদি সরকার বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চলছে: মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা ভাইরাসের মহাদুর্যোগের মধ্যেও বাগাড়ম্বর বক্তব্য দেওয়া ছাড়া সরকার জনকল্যাণে কোনো কাজ না করে বিএনপি এবং এর সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর বেপরোয়া গতিতে জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, করোনা মোকাবিলায় সব ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী সরকার আরো বেশি আগ্রাসী পথ অবলম্বন করে বিরোধী দলকে দমন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনে সরকার নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে সরকারের এই ফ্যাসিবাদী নিষ্ঠুর আচরণের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি। এই প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করতে গিয়েও বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের সরকারের সাঁড়াশি আক্রমণে পড়তে হয়েছে। ২০২১ থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের এবং গ্রেফতারের হিড়িক শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম এর সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরীকে গত ২৮ মার্চ মিথ্যা অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীকে গত পাঁচ বছর ধরে মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় গ্রেফতার করে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। যখনই তিনি আদালত থেকে জামিন লাভ করেন তখনই নতুন নতুন পুরনো বানোয়াট মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাবাস দীর্ঘায়িত করা হচ্ছে। এছাড়া চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, জয়পুরহাট, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নওগাঁসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতিদিনই গ্রেফতার, কারান্তরীণ করা হচ্ছে এবং এই প্রক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কেউ যাতে মুখ খুলতে না পারে সেজন্যই রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ওপর নির্যাতন চালানোকে লক্ষ্য হিসেবে ধরে নিয়েছে সরকার। নির্যাতন-নিপীড়ন, গুম-খুন ইত্যাদি অপকর্মের মাধ্যমে দেশকে এক ভয়াবহ অরাজকতার দিকে ঠেলে দিয়েছে তারা। এর মাধ্যমে দেশকে তারা কর্তৃত্ববাদী রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল অবিলম্বে নিপুণ রায় চৌধুরী, আসলাম চৌধুরীসহ দেশব্যাপী গ্রেফতারকৃত বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

অপকর্মের মাধ্যমে দেশকে এক ভয়াবহ অরাজকতার দিকে ঠেলে দিয়েছে তারা। এর মাধ্যমে দেশকে তারা কর্তৃত্ববাদী রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

মহাসচিব মির্জা ফখরুল অবিলম্বে নিপুণ রায় চৌধুরী, আসলাম চৌধুরীসহ দেশব্যাপী গ্রেফতারকৃত বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

back to top