alt

রাজনীতি

ছাত্র-যুব পরিষদ ২০ নেতাদের পক্ষে আদালতে কথা বললেন জাফরুল্লাহ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ২০ নেতার পক্ষে আদালতে কথা বললেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

আজ (১৯ সেপ্টেম্বর) রবিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে ওই ২০ জনের জামিন আবেদনের শুনানি হয়।

তাদের জামিন দেওয়ায় আদালতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এই উদ্যোক্তা।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের অন্যতম কৌঁসুলি তাপস পাল বলেন, “জামিন হওয়ার পর জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিচারকের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে ছাত্র অধিকার পরিষদের সদস্যদের পক্ষে কথা বলেন।”

গত মার্চে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে কর্মসূচি থেকে সহিংসতার মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর নেতৃত্বাধীন ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ২০ নেতাকে।

তাদের মুক্তির দাবিতে নানা কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া জাফরুল্লাহ চৌধুরী জামিনের আদেশ দেওয়ায় বিচারককে ধন্যবাদ জানান।

বক্তব্যে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারাবরণের নানা ঘটনা তুলে ধরেন।

জাফরুল্লাহ বলেন, “ছাত্রদের অপরাধটা কী? পুলিশ মিথ্যা বলেছে, ছাত্রদের হাতে কোনো লাঠি ছিল না।

“একজন বিচারকের দায়িত্ব হচ্ছে, আমাদের কথা বলতে দেওয়া ও কথা শোনা। বিচারক আমার কথা শুনেছেন। ন্যায় কাজ করেছেন।”

জামিন শুনানি শুরুর আগেই নুরকে সঙ্গে নিয়ে আদালত প্রাঙ্গণে হাজির হন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

শুনানি শুরুর আগে তিনি রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে বলেন, “ছেলেরা দীর্ঘ ছয় মাস ধরে কারাগারে আছে। আপনারা তাদের জামিন দেন। পড়ালেখার অনেক ক্ষতি হচ্ছে তাদের। এসব ছাত্রের পরীক্ষা শুরু হয়েছে। আপনারা এসব বিবেচনায় জামিন দিয়েন।”

তখন তার এই বক্তব্য আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে তোলার পরামর্শ দেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী তাপস কুমার পাল।

ছাত্র-যুব পরিষদের নেতাদের জামিন আবেদনের মূল শুনানি করেন বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

জামিন পাওয়া ২০ জন হলেন- মো. ইউনুস, নাজমুল হাসান, নাহিদুল তারেক, মো. নাইম, আসাদুজ্জামান, আজহারুল ইসলাম, সোহেল মৃধা, মোস্তাক আহমেদ, আজিম হোসেন, মো. রুহুল ইসলাম সোহেল, আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জিশান, মো. সোহেল আহমদ, শেখ খায়রুল কবির, সবুজ হোসেন, গোলাম তানভীর, মো. হেমায়েত, ইসমাইল হোসেন, মো. রেজাউল করিম, মুনতাজুল ইসলাম ও কাজী বাহাউদ্দীন মনির।

ছবি

কারমাইকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা

যশোরে রাজাকার পরিবারের দুই সন্তান পেলেন আ.লীগের মনোনয়ন

ছবি

কুমিল্লার ঘটনা কিভাবে ঘটেছে বিএনপি নেতারাই ভালো জানেন: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

সন্দেহ ভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

মেয়র জাহাঙ্গীরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত ১৯ নভেম্বর

ছবি

আইসিইউতে থাকা রওশন এরশাদের অবস্থা উন্নতি

ছবি

সড়কে শৃঙ্খলা আনাই বড় চ্যালেঞ্জ: ওবায়দুল কাদের

নারায়ণগঞ্জে ১৬ ইউপিতে বাছাইয়ে বাদ পড়লেন ৪১ জন

ছবি

বিএনপি নেতারা নিজেদের অক্ষমতা আড়াল করতে পুরনো রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

কাদের মির্জার রাজনৈতিক ভাবে মৃত্যু হয়েছে -- খিজির হায়াত খান

ছবি

বিএনপি নিজেরাই রাজনৈতিকভাবে সাম্প্রদায়িক: ওবায়দুল কাদের

ছবি

সখীপুরে আ.লীগ মনোনীত চার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মতবিনিময়

ওবায়দুল কাদের মিথ্যুক, প্রতারক, বিশ্বাস ঘাতক, তার নেতার চরিত্র নেই : কাদের মির্জা

নোয়াখালীতে আলীগের সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশ

ছবি

আওয়ামী লীগ এই অপশক্তিকে মোকাবিলা করবে

ছবি

রাষ্ট্রবিরোধী দল নয়, বিরোধী দল চাই: এলজিআরডি মন্ত্রী

ছবি

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চান জিএম কাদের

ছবি

নারায়ণগঞ্জে ১৬ ইউপি চেয়ারম্যান পদে ৬৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

ছবি

যারা সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করে তারাই কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য ষড়যন্ত্র চলছে: জিএম কাদের

ভোটারের দ্বারে দ্বারে প্রার্থীরা,দিচ্ছেনপ্রতিশ্রুতি

ছবি

সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নাম্বার ওয়ান পৃষ্ঠপোষক বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

বিএনপির বক্তব্যই প্রমাণ করে কুমিল্লার ঘটনায় তাদের ইন্ধন রয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

নারায়ণগঞ্জে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নৌকা প্রার্থীর মিছিল

ছবি

রূপগঞ্জে আ’লীগে পাঁচ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল

ছবি

সরকার ‘কাচের ঘরে’ বসে ‘লম্বা লম্বা’ কথা বলছে: মির্জা আব্বাস

ছবি

সরকারি মহলের ইঙ্গিতেই সাম্প্রদায়িক হামলা: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপি সাম্প্রদায়িকতাকে উসকে দিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

মন্দিরে হামলা মামলায় মনোয়ন বাতিল নৌকার ২ ইউপি প্রার্থীর

ছবি

মানুষের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে নিতে কুমিল্লার ঘটনা ঘটানো হয়েছে : ফখরুল

ছবি

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় একটি মহল : কাদের

ছবি

মনোনয়নপত্র জমা দিলেন শেরিফা কাদের

ছবি

খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিতে হবে, এটাই জনগণের দাবি: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার চোরাগলি খোঁজে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

আওয়ামী লীগের পালানোর ইতিহাস নেই, কখনও পালাবে না: কৃষিমন্ত্রী

ছবি

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা দেশে সম্ভব না: মির্জা ফখরুল

tab

রাজনীতি

ছাত্র-যুব পরিষদ ২০ নেতাদের পক্ষে আদালতে কথা বললেন জাফরুল্লাহ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ২০ নেতার পক্ষে আদালতে কথা বললেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

আজ (১৯ সেপ্টেম্বর) রবিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে ওই ২০ জনের জামিন আবেদনের শুনানি হয়।

তাদের জামিন দেওয়ায় আদালতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এই উদ্যোক্তা।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের অন্যতম কৌঁসুলি তাপস পাল বলেন, “জামিন হওয়ার পর জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিচারকের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে ছাত্র অধিকার পরিষদের সদস্যদের পক্ষে কথা বলেন।”

গত মার্চে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে কর্মসূচি থেকে সহিংসতার মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর নেতৃত্বাধীন ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ২০ নেতাকে।

তাদের মুক্তির দাবিতে নানা কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া জাফরুল্লাহ চৌধুরী জামিনের আদেশ দেওয়ায় বিচারককে ধন্যবাদ জানান।

বক্তব্যে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারাবরণের নানা ঘটনা তুলে ধরেন।

জাফরুল্লাহ বলেন, “ছাত্রদের অপরাধটা কী? পুলিশ মিথ্যা বলেছে, ছাত্রদের হাতে কোনো লাঠি ছিল না।

“একজন বিচারকের দায়িত্ব হচ্ছে, আমাদের কথা বলতে দেওয়া ও কথা শোনা। বিচারক আমার কথা শুনেছেন। ন্যায় কাজ করেছেন।”

জামিন শুনানি শুরুর আগেই নুরকে সঙ্গে নিয়ে আদালত প্রাঙ্গণে হাজির হন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

শুনানি শুরুর আগে তিনি রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে বলেন, “ছেলেরা দীর্ঘ ছয় মাস ধরে কারাগারে আছে। আপনারা তাদের জামিন দেন। পড়ালেখার অনেক ক্ষতি হচ্ছে তাদের। এসব ছাত্রের পরীক্ষা শুরু হয়েছে। আপনারা এসব বিবেচনায় জামিন দিয়েন।”

তখন তার এই বক্তব্য আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে তোলার পরামর্শ দেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী তাপস কুমার পাল।

ছাত্র-যুব পরিষদের নেতাদের জামিন আবেদনের মূল শুনানি করেন বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

জামিন পাওয়া ২০ জন হলেন- মো. ইউনুস, নাজমুল হাসান, নাহিদুল তারেক, মো. নাইম, আসাদুজ্জামান, আজহারুল ইসলাম, সোহেল মৃধা, মোস্তাক আহমেদ, আজিম হোসেন, মো. রুহুল ইসলাম সোহেল, আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জিশান, মো. সোহেল আহমদ, শেখ খায়রুল কবির, সবুজ হোসেন, গোলাম তানভীর, মো. হেমায়েত, ইসমাইল হোসেন, মো. রেজাউল করিম, মুনতাজুল ইসলাম ও কাজী বাহাউদ্দীন মনির।

back to top