alt

সারাদেশ

হিটস্ট্রোকে ৪ জনের মৃত্যু

বাকী বিল্লাহ : বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

বিভিন্ন মাধ্যমে চলমান দাবদাহে হিটস্ট্রোকে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও বুধবারই (২৪ এপ্রিল) প্রথমবারের মতো এই অসুস্থতায় সারাদেশে চারজনের মৃত্যুর কথা জানালো মহাখালী স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তারা জানায়, ২৪ ঘণ্টায় হিটস্ট্রোকে রাজবাড়ী, হবিগঞ্জ ও খুলনায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে আরেকজনের মৃত্যু হয় চুয়াডাঙায়।

তা বাদেও হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত অনেককেই হাসপাতালে আনা হয়েছে এই কদিনে। চিকিৎসা শেষে তাদের একটি অংশ বাড়ি ফিরতে পেরেছে, অনেকেই রয়েছেন চিকিৎসাধীন।

হাসপাতালের দায়িত্বশীলরা জানান, গরমের সময় কাজ করতে গিয়ে শ্রমিক ও কৃষকরাই বেশি অসুস্থ হচ্ছেন।

হিটস্ট্রোকে মৃত্যুর খবর আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এছাড়া ঢাকা শিশু হাসপাতাল ও ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. জাহাঙ্গীর আলম সংবাদকে জানান, প্রচন্ড গরমে শিশুরা নিউমোনিয়া, জ্বর, সর্দি, কাশিতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। শিশু হাসপাতালে ৬শ’র বেশি শিশু ভর্তি আছে। তার মধ্যে ১শ’ শিশু নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে। এই শিশুদের আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে সব বেডেই শিশু ভর্তি আছে। আরও অনেককে বহির্বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এই গরমে শিশুদেরকে হালকা কাপড় পরাতে দিতে হবে। ঠান্ডা পানি বেশি না খাওয়াই ভালো। বাচ্চাদের ঘরে রাখাই ভালো। পানি জাতীয় তরল খাবার, ফলের রস খাওয়াতে হবে। নড়াইল সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবদুল গফ্ফার সংবাদকে মুঠোফোনে জানান, হিটস্ট্রোকে কৃষক ও শ্রমিকরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। তাদের মধ্যে কিছু কিছু শ্রমিককে হাসপাতাল পর্যন্ত যেতে হয়েছে। আর এখন গরমের কারণে ডায়রিয়া, পেটের পিড়া, জ্বর, সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে বেশি আসছে মানুষ। নড়াইল সদর হাসপাতালে ১শ’ বেডের জায়গায় রোগী ভর্তি আছে ৩৬৩ জন, যা রোগী আসে সবাইকে চিকিৎসা দেয়া হয়। আর যাদের অবস্থা মারাত্মক নয় তাদেরকে বহির্বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

গ্রাম-গঞ্জ থেকে এখন শহরে রোগীর সংখ্যা বেশি। অনেকেই আক্রান্ত হলে জেলা শহরে হাসপাতালে আসে। যার কারণে রোগীর চাপও বেশি। হাসপাতালের বেডের বাইরে খালি জায়গায় রোগী ভর্তি করা হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোজ্জামেল হক জানান, শিশুরা গরম জনিত রোগ জ্বর, সর্দি, কাশি, ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। এক বছর থেকে দেড় বছর ও ৭ থেকে ৮ বছর বয়সের শিশুরা হাসপাতালে বেশি চিকিৎসার জন্য যাচ্ছে। প্রতিদিন গড়ে ৪শ’র বেশি শিশু বঙ্গবন্ধু মেডিকেল ভার্সিটির শিশু বিভাগে চিকিৎসা নেয়। তার মধ্যে ভর্তি আছে ৫০ জনের বেশি।

এ বিশেষজ্ঞ বলেন, গরমজনিত কারণে শিশুদেরকে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করাতে হবে। তরল খাবার খাওয়াতে হবে। গরমের সময় বাইরে বের না হওয়াই ভালো। হালকা পানি দিয়ে শরীর মুচে দিতে হবে।

বিশেষজ্ঞ বলেছেন, প্রচন্ড গরমে ঝুঁকিতে’ শিশুরা। মাথা ঘোরা, অতিরিক্ত ঘাম হওয়া, বমি বমি ভাব, হালকা জ্বর, নাক দিয়ে রক্ত পড়া, মাংসপেশিতে টান, ডায়াপার পরার জায়গাগুলোতে ফুসকুড়িতে নজর রাখার পরামর্শ।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বাংলাদেশে শিশুরা ‘অতি উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে। অতি গরমে শিশুদের হিটস্ট্রোক, পানি শূন্যতাজনিত ডায়রিয়ার আক্রান্ত হচ্ছে। এখন দুর্বিষহ তাপপ্রবাহ বিরাজ করছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শিশু বা অন্তঃসত্ত্বার মধ্যে ‘হিটস্ট্রেস’ বা তাপমাত্রাজনিত সমস্যার উপসর্গ দেখা দেয়, তাহলে তাকে একটি ঠান্ডা বা ছায়া এবং পর্যাপ্ত বাতাস চলাচলের সুযোগ আছে, এমন জায়গায় নিয়ে যেতে হবে। ঠান্ডা জায়গায় নিয়ে ভেজা তোয়ালে দিয়ে শরীর মুছিয়ে বা গায়ে ঠান্ডা পানি দিতে হবে। তাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি বা খাওয়ার স্যালাইন পান করতে হবে।

হিটস্ট্রেসের (তাপমাত্রাজনিত অসুস্থতার) উপসর্গ তীব্র হলে, যেমন কোনো কিছুতে সাড়া না দিলে, অজ্ঞান হয়ে পড়লে, তীব্র জ্বর, হৃৎস্পন্দন বেড়ে গেলে, খিঁচুনি দেখা দিলে এবং অচেতন হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিতে হবে।

বুধবার রাতে মহাখালী ডায়রিয়া হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গরমজনিত কারণে সেখানে দিনে ৫শ’র বেশি রোগী চিকিৎসা করা হচ্ছে। এই সংখ্যা কখনো বাড়ে। আবার কখনো কমে। বুধবার পর্যন্ত শহরে তেমন রোগী বাড়ার তথ্য নেই।

জানা গেছে, সারাদেশে জেলা, সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে গরমজনিত রোগী বাড়ছে। তবে আক্রান্তদের মধ্যে শিশু ও বয়স্ক রোগী বেশি। দেশে ৬শ’র বেশি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র থাকলে ও ঝামেলা এড়াতে অনেকেই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে বাসাবাড়িতে থেকে ওষুধ সেবন করছেন। এরপরও মারাত্মকদের হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে। পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে।

সখীপুরে আগুনে পুড়ল ১১ দোকান, তিন কোটি টাকার ক্ষতি

ঘুমধুম সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে আহত ২ একজনের অবস্থা আশংকা জনক

সৌদি আরবে আরেক বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

ছবি

গাজীপুরে আগুন পুড়লো কলোনির ৭০টি ঘর

ছবি

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, পুড়েছে ৩ শতাধিক বসতি

ছবি

ঝিনাইদহে প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা

ছবি

বাঁশখালী ছনুয়া-কুতুবদিয়া জেটিঘাট এখন মরণ ফাঁদ

আখতারুজ্জামান, শিমুল-এরা কারা

ছবি

টানা তাপপ্রাবাহে ফলন তলানিতে, বাজারে চড়া দাম লিচুর

ছবি

ধনবাড়ীতে ডায়াবেটিক ধান চাষে মিলেছে সফলতা

ছবি

খাবারের প্যাকেট নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ১

ছবি

কুমারখালীর হাবাসপুর সরকারি বিদ্যালয় ৩ শিক্ষার্থীর বিপরীতে ৪ শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা থাকে অনুপস্থিত

ছবি

বরুড়ায় স্বেচ্ছাশ্রমে দেড় কিমি. রাস্তা তৈরি করছেন দেওড়া গ্রামবাসীরা

মতলবে ঋণের চাপে বিকাশ ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

ছবি

বেগমগঞ্জে আগ্নেয়াস্ত্রসহ ৪ ডাকাত গ্রেপ্তার

ছবি

সেই গৃহবধূর চুল কাটা ঘটনায় মামলা নথিভুক্ত

ছবি

কিরগিজস্তানের মাফিয়ার কবলে ইন্দুরকানীর যুবক

ছবি

সিরাজদিখানে বাইক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ২ স্কুলছাত্র নিহত

ছবি

রাজশাহীতে কলেজছাত্র অপহরণ, গ্রেপ্তার ৩

ছবি

মনোহরদীতে কমিউনিটি ক্লিনিকের সরকারি ওষুধ মিললো বাড়িতে

ছবি

গাইবান্ধায় কোরবানির জন্য প্রস্তুত দেড় লাখ পশু, দাম নিয়ে চিন্তিত খামারিরা

ভাতকুড়া-মুশুদ্দি ভাঙা সড়কটি সংস্কার দাবি

ছবি

বাগাতিপাড়ায় হেরোইনসহ নারী মাদককারবারি আটক

ছবি

১৪ ভরি স্বর্ণালংকার চুরি, বিদেশে পালানোর সময় দোকান কর্মচারী গ্রেপ্তার

ছবি

মোল্লাহাটে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

ছবি

ঠাকুরগাঁওয়ে ছেলের চুরির অপবাদে মাকে নির্যাতন, আদিবাসী গৃহবধূর মৃত্যু

ছবি

তালতলীতে চেয়াম্যান প্রার্থীর কর্মীকে মারধরের অভিযোগ

ছবি

লাখাইয়ে সরকারিভাবে ধান-চাল সংগ্রহ উদ্বোধন

ছবি

৩ জেলায় ভারতীয় নাগরিকসহ তিন মরদেহ উদ্ধার

ছবি

কালিগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু

ছবি

রূপগঞ্জে হাবিবুর রহমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

ছবি

নরসিংদীতে আধিপত্য বিস্তারে দুপক্ষের সংঘর্ষ, গুলি-টেঁটাবিদ্ধ ৭

ছবি

আরাকান আর্মির গুলিতে বাংলাদেশি জেলের পা বিচ্ছিন্ন

ছবি

গাজীপুরে তুরাগ কমিউটার ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত

সমুদ্র সৈকতে ভেসে এলো অজ্ঞাত নারীর মরদেহ

tab

সারাদেশ

হিটস্ট্রোকে ৪ জনের মৃত্যু

বাকী বিল্লাহ

বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

বিভিন্ন মাধ্যমে চলমান দাবদাহে হিটস্ট্রোকে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও বুধবারই (২৪ এপ্রিল) প্রথমবারের মতো এই অসুস্থতায় সারাদেশে চারজনের মৃত্যুর কথা জানালো মহাখালী স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তারা জানায়, ২৪ ঘণ্টায় হিটস্ট্রোকে রাজবাড়ী, হবিগঞ্জ ও খুলনায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে আরেকজনের মৃত্যু হয় চুয়াডাঙায়।

তা বাদেও হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত অনেককেই হাসপাতালে আনা হয়েছে এই কদিনে। চিকিৎসা শেষে তাদের একটি অংশ বাড়ি ফিরতে পেরেছে, অনেকেই রয়েছেন চিকিৎসাধীন।

হাসপাতালের দায়িত্বশীলরা জানান, গরমের সময় কাজ করতে গিয়ে শ্রমিক ও কৃষকরাই বেশি অসুস্থ হচ্ছেন।

হিটস্ট্রোকে মৃত্যুর খবর আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এছাড়া ঢাকা শিশু হাসপাতাল ও ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. জাহাঙ্গীর আলম সংবাদকে জানান, প্রচন্ড গরমে শিশুরা নিউমোনিয়া, জ্বর, সর্দি, কাশিতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। শিশু হাসপাতালে ৬শ’র বেশি শিশু ভর্তি আছে। তার মধ্যে ১শ’ শিশু নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে। এই শিশুদের আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে সব বেডেই শিশু ভর্তি আছে। আরও অনেককে বহির্বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এই গরমে শিশুদেরকে হালকা কাপড় পরাতে দিতে হবে। ঠান্ডা পানি বেশি না খাওয়াই ভালো। বাচ্চাদের ঘরে রাখাই ভালো। পানি জাতীয় তরল খাবার, ফলের রস খাওয়াতে হবে। নড়াইল সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবদুল গফ্ফার সংবাদকে মুঠোফোনে জানান, হিটস্ট্রোকে কৃষক ও শ্রমিকরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। তাদের মধ্যে কিছু কিছু শ্রমিককে হাসপাতাল পর্যন্ত যেতে হয়েছে। আর এখন গরমের কারণে ডায়রিয়া, পেটের পিড়া, জ্বর, সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে বেশি আসছে মানুষ। নড়াইল সদর হাসপাতালে ১শ’ বেডের জায়গায় রোগী ভর্তি আছে ৩৬৩ জন, যা রোগী আসে সবাইকে চিকিৎসা দেয়া হয়। আর যাদের অবস্থা মারাত্মক নয় তাদেরকে বহির্বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

গ্রাম-গঞ্জ থেকে এখন শহরে রোগীর সংখ্যা বেশি। অনেকেই আক্রান্ত হলে জেলা শহরে হাসপাতালে আসে। যার কারণে রোগীর চাপও বেশি। হাসপাতালের বেডের বাইরে খালি জায়গায় রোগী ভর্তি করা হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোজ্জামেল হক জানান, শিশুরা গরম জনিত রোগ জ্বর, সর্দি, কাশি, ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। এক বছর থেকে দেড় বছর ও ৭ থেকে ৮ বছর বয়সের শিশুরা হাসপাতালে বেশি চিকিৎসার জন্য যাচ্ছে। প্রতিদিন গড়ে ৪শ’র বেশি শিশু বঙ্গবন্ধু মেডিকেল ভার্সিটির শিশু বিভাগে চিকিৎসা নেয়। তার মধ্যে ভর্তি আছে ৫০ জনের বেশি।

এ বিশেষজ্ঞ বলেন, গরমজনিত কারণে শিশুদেরকে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করাতে হবে। তরল খাবার খাওয়াতে হবে। গরমের সময় বাইরে বের না হওয়াই ভালো। হালকা পানি দিয়ে শরীর মুচে দিতে হবে।

বিশেষজ্ঞ বলেছেন, প্রচন্ড গরমে ঝুঁকিতে’ শিশুরা। মাথা ঘোরা, অতিরিক্ত ঘাম হওয়া, বমি বমি ভাব, হালকা জ্বর, নাক দিয়ে রক্ত পড়া, মাংসপেশিতে টান, ডায়াপার পরার জায়গাগুলোতে ফুসকুড়িতে নজর রাখার পরামর্শ।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বাংলাদেশে শিশুরা ‘অতি উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে। অতি গরমে শিশুদের হিটস্ট্রোক, পানি শূন্যতাজনিত ডায়রিয়ার আক্রান্ত হচ্ছে। এখন দুর্বিষহ তাপপ্রবাহ বিরাজ করছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শিশু বা অন্তঃসত্ত্বার মধ্যে ‘হিটস্ট্রেস’ বা তাপমাত্রাজনিত সমস্যার উপসর্গ দেখা দেয়, তাহলে তাকে একটি ঠান্ডা বা ছায়া এবং পর্যাপ্ত বাতাস চলাচলের সুযোগ আছে, এমন জায়গায় নিয়ে যেতে হবে। ঠান্ডা জায়গায় নিয়ে ভেজা তোয়ালে দিয়ে শরীর মুছিয়ে বা গায়ে ঠান্ডা পানি দিতে হবে। তাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি বা খাওয়ার স্যালাইন পান করতে হবে।

হিটস্ট্রেসের (তাপমাত্রাজনিত অসুস্থতার) উপসর্গ তীব্র হলে, যেমন কোনো কিছুতে সাড়া না দিলে, অজ্ঞান হয়ে পড়লে, তীব্র জ্বর, হৃৎস্পন্দন বেড়ে গেলে, খিঁচুনি দেখা দিলে এবং অচেতন হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিতে হবে।

বুধবার রাতে মহাখালী ডায়রিয়া হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গরমজনিত কারণে সেখানে দিনে ৫শ’র বেশি রোগী চিকিৎসা করা হচ্ছে। এই সংখ্যা কখনো বাড়ে। আবার কখনো কমে। বুধবার পর্যন্ত শহরে তেমন রোগী বাড়ার তথ্য নেই।

জানা গেছে, সারাদেশে জেলা, সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে গরমজনিত রোগী বাড়ছে। তবে আক্রান্তদের মধ্যে শিশু ও বয়স্ক রোগী বেশি। দেশে ৬শ’র বেশি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র থাকলে ও ঝামেলা এড়াতে অনেকেই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে বাসাবাড়িতে থেকে ওষুধ সেবন করছেন। এরপরও মারাত্মকদের হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে। পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে।

back to top