alt

সারাদেশ

বাগেরহাটের পূর্ব-সুন্দরবনে ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার

জেলা বার্তা পরিবেশক, খুলনা/ সাতক্ষীরা/বাগেরহাট : মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

https://sangbad.net.bd/images/2024/May/28May24/news/remal-1.jpg

ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনে হরিণসহ অনেক পশু-পাখি মারা গেছে-সংবাদ

ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সুন্দরবনের প্রাণ-বৈচিত্র্য। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণে কাজ শুরু করেছে সুন্দরবন বিভাগ। বনের বিভিন্ন স্থানে মিলছে বন্যপ্রাণির মরদেহ। ধীরে ধীরে স্পষ্ট হচ্ছে বনের ক্ষত। মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুর ৫টা পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী বনের বিভিন্ন স্থান থেকে ২৬টি হরিণের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ১৭টি হরিণ। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বন বিভাগের ২৫টি টহল ফাঁড়ি। লবণপানি ঢুকে নষ্ট হয়েছে কমপক্ষে ৮০টি মিষ্টিপানির পুকুর। সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাওলাদার আজাদ কবির বলেন, সুন্দরবনের বন্যপ্রাণীরা জলোচ্ছ্বাসের সঙ্গে অভ্যস্ত। সাধারণত জলোচ্ছ্বাস হলে বন্য প্রাণীরা উঁচু স্থান ও গাছে আশ্রয় নেয়। ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে বনের ভিতর অধিক উচ্চতায় জলোচ্ছ্বাস হয়েছে। ফলে বনের উঁচু স্থান তলিয়ে যাওয়ায় প্রাণীদের আশ্রয় নিতে সমস্যায় পড়তে হয়েছে। অধিক জলোচ্ছ্বাসের ফলে নিরাপদ আশ্রয় না যেতে পেরে হরিণগুলোর মৃত্যু হয়েছে। সুন্দরবন বিভাগের খুলনাঞ্চলের বন সংরক্ষক (সিএফ) মিহির কুমার দো বলেন, মঙ্গলবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী সুন্দরবনের কটকা ও দুবলা এলাকাসহ বনের বিভিন্ন স্থান থেকে মোট ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আহত অবস্থায় আরও ১৭টি হরিণ উদ্ধার করেছেন বনরক্ষীরা। তবে হরিণের পাশাপাশি আরও বন্যপ্রাণী মারা যেতে পারে। সেসব মৃত প্রাণীর খোঁজে বনরক্ষীরা তৎপর রয়েছে। তিনি আরও বলেন, বন বিভাগের টহল অফিসগুলোতে টিনের চালা, জানালা-দরজা, সোলার প্যানেল, ওয়ারলেস সিস্টেম ও অবকাঠামোর ক্ষতি হয়েছে। পূর্ব বন বিভাগের কটকা অভয়ারণ্যের অফিস ঘাটের জেটি ও পুকুর বঙ্গোপসাগর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। দুবলা, কটকা, কচিখালি, বগিসহ বিভিন্ন বন অফিসসহ ২৫টি টহল ফাঁড়ির রান্নাঘরসহ অবকাঠামোর টিনের চালা উড়িয়ে নিয়ে গেছে। সুন্দরবনের ৮০টি মিঠাপানির উৎস পুকুরে ৮-১০ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে লোনা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় বনকর্মীদের পাশাপাশি প্রাণীরাও সুপেয় পানির সংকটে পড়েছে।

https://sangbad.net.bd/images/2024/May/28May24/news/remal-2.jpg

সুন্দরবনে ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে উপড়ে গেছে অনেক গাছ-সংবাদ

বার বার ঘূর্ণিঝড় থেকে উপকূলীয় জনপদকে রক্ষা করছে সুন্দরবন

ঘূর্ণিঝড় রিমালের আঘাত ও ভারী বৃষ্টিপাতে উপকূলীয় জনপদ খুলনার কয়রা, পাইকগাছা ও দাকোপ উপজেলায় বাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি ঢুকছে প্লাবিত হয়েছে গ্রামের পর গ্রাম। অসংখ্য বাড়িঘর ও গাছপালা ভেঙে পড়েছে, তলিয়ে গেছে চিংড়ি ঘের; জমির ফসল। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাংলাদেশ অংশে ছয় হাজারের বেশি বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে দাঁড়িয়ে থাকা বিশ্বঐতিহ্য সুন্দরবন।

উপকূলবাসী মনে করছেন, বরাবরের মতো এবারও প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডব থেকে উপকূল রক্ষায় ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছে সুন্দরবন।

সুন্দরবনের কারণে এবারও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে কম হয়েছে বলে মনে করেন খুলনা আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আমিরুল আজাদ।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের যে বাতাসের বেগ, সেটি ছিল ৯০ থেকে ১২০ কিলোমিটার। এই গতিবেগের একটি ঘূর্ণিঝড় যখন ভূমিতে আঘাত হানে, তখন এটি ১২০ বা ১৩০ হতে পারে। সে ক্ষেত্রে এটি যখন উপকূলে আঘাত হেনেছে, তখন উপকূল এলাকায় ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাতাসের বেগ ছিল।

খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. নাজমুল হুসেইন খান জানান, খুলনার দাকোপ, কয়রা ও পাইকগাছা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বেড়িবাঁধ ভেঙে গেছে। ৬০টি পয়েন্টে বাঁধ ভেঙে ও উপচে জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে অসংখ্য গ্রাম। পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। বিধ্বস্ত হয়েছে প্রায় ৭৭ হাজার ৯০৪টি বাড়িঘর। ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৪ লাখ ৫২ হাজার ২০০ মানুষ। এছাড়া ফসলের মাঠ, ঘের-পুকুর লোনা পানিতে ভেসে গেছে। প্রায় ২৪৬ কোটি টাকার মৎস্যসম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় চলাকালে বটিয়াঘাটা উপজেলায় গাছ চাপা পড়ে লাল চাঁদ মোড়ল নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, খুলনায় এবার ১২ হাজার ৭৪৮ হেক্টর জমিতে ফসল আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে ১২ হাজার ৭১৫ হেক্টর জমির ফসল খেতে ছিল। যা ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়েছে।

সাতক্ষীরা সুন্দরবনে ক্ষয়ক্ষতি কোটি টাকা
ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সাতক্ষীরা রেঞ্জ পশ্চিম বনবিভাগের অবকাঠামোগত ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রিমালের আঘাতে সুন্দরবনে মিষ্টি পানির পুকুর, রিংবাঁধ ও জেটি জলোচ্ছ্বাসে ভেসে গেছে। এ তথ্য সংশ্লিষ্ট বনবিভাগের।

সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) একেএম ইকবাল হোসেন চৌধুরী ক্ষয়ক্ষতির বর্ণনা দিয়ে বলেন, সুন্দরবনে প্রাণী জগৎসহ বনজীবিদের মিষ্টি পানির চাহিদা মেটানোর জন্য ১৬টি পুকুর খনন করা হয়। ঝড়ের কারণে জলোচ্ছ্বাসে সমস্ত পুকুরগুলো লোনা পানিতে একাকার হয়ে গেছে। বনরক্ষী, পর্যটক ও বনজীবিদের উঠানামার জন্য ৮টি জেটি জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে। তাছাড়া বন বিভাগের নির্মিত অর্ধশতাধিক রিংবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ১ কোটি ৬ লখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জলোচ্ছ্বাসে নদীতে ভেসে আসা ৩টি হরিণ শাবক উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শেষে পুনরায় সুন্দরবনে অবমুক্ত করা হয়েছে তিনি জানান। তবে, রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনে গাছপালা কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তিনি জানাতে পারেননি।

ছবি

সুনামগঞ্জে ঈদের আনন্দ মলিন হয়ে গেছে আকস্মিক বন্যায়

ঈশ্বরগঞ্জে ঈদ আনন্দ উপভোগ করা হলনা চাচা ভাতিজার

সখীপুরে গৃহবধূ নিখোঁজের পর পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার

দুই ভাইয়ের চিরদিনের ছুটি

সিলেটে তিন নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে

ছবি

ঘড়ি ছাড়াই হাতের দিকে তাকিয়েই সময় বলে দেন ইয়াছিন!

নড়াইলে এবারও ঈদ করতে পারছেন না ২০০ পরিবার,আজাদ হত্যা মামলা নিয়ে উত্তেজনা

ছবি

রংপুরে ঈদ উপলক্ষে বরাদ্দ চাল কালোবাজারে বিক্রি,৪ হাজার কেজি ভিজিএফের চাল উদ্ধার

ছবি

রংপুরে ১৫ কিলোমিটার যানজট, যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ

ছবি

বরিশাল জেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীন ঘোষণা

ছবি

তিস্তার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, ডুবেছে ফসলি জমি

ছবি

ঈদের দিন ৩ বিভাগে ভারী বৃষ্টির আভাস

রাঙ্গামাটিতে বজ্রপাতে চারজনের মৃত্যু

চাঁদাবাজির অভিয়োগে ৫ পুলিশ সদস্য বরখাস্ত

ছবি

বাড়তি ভাড়ায় ফিটনেসবিহীন লঞ্চে দ্বিগুণ যাত্রী পারাপার

ছবি

জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে খুলে দেওয়া হলো বেনজীরের সাভানা পার্ক

ছবি

সেন্ট মার্টিনে ২৩০০ পরিবারকে চাল সহায়তা

ফরিদপুরে পুলিশের কাছে চাঁদা বন্ধের আবেদন বরলো ইউপি চেয়ারম্যান

সোনারগাঁয়ে গরু বিক্রেতাদের মেরে নগদ টাকা মোবাইল ও গরু ছিনতাই, আহত ৫

ছবি

দেশকে রক্ষার সক্ষমতা আছে: সেনাপ্রধান

ছবি

নাফনদীতে মায়ানমারের ৩টি জাহাজ, নেই কোনো বিস্ফোরণের শব্দ

ছবি

বরিশালে অটোরিকশা-ইজিবাইক মুখোমুখি সংঘর্ষে নারী নিহত

শেষ সময়ে ঈদে বাড়ি যেতে ঘরমুখো মানুষের ভিড় বেড়েছে সড়ক মহাসড়কে

ছবি

বনানীতে বাসের ধাক্কায় বাইকচালক নিহত

ছবি

কাভার্ডভ্যানের পেছনে লিচুবাহী ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ২

ছবি

সামিট-ওরিয়নের দুটিসহ রেন্টাল ৬ বিদ্যুৎকেন্দ্রের মেয়াদ ফের বাড়ছে

ছবি

ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি: র‌্যাবের অভিযানে ১০ জনকে গ্রেপ্তার

ফরিদপুরে পুকুর থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার

ছবি

নিত্যপণ্য নিয়ে কক্সবাজার থেকে সেন্টমার্টিন যাচ্ছে জাহাজ

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ আরসা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

ছবি

গাজীপুরে পুকুরে ডুবে দুই মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

বেতন-বোনাসের দাবিতে কুমিল্লায় শ্রমিক বিক্ষোভ, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ধীরগতি

ছবি

টাঙ্গাইলে মহাসড়‌কে ট্রাক উল্টে ১৫ কিলোমিটার যানজট

ছবি

মাদকের টাকার জন্য ছোট ভাইয়ের সঙ্গে ঝগড়া, নিজের বুকে ছুরি চালাল কিশোর

ছবি

দুম্বা পালন করে স্বাবলম্বী ভৈরবের সবুজ

আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে প্রথমবার জিরা আমদানি

tab

সারাদেশ

বাগেরহাটের পূর্ব-সুন্দরবনে ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার

জেলা বার্তা পরিবেশক, খুলনা/ সাতক্ষীরা/বাগেরহাট

মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

https://sangbad.net.bd/images/2024/May/28May24/news/remal-1.jpg

ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনে হরিণসহ অনেক পশু-পাখি মারা গেছে-সংবাদ

ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সুন্দরবনের প্রাণ-বৈচিত্র্য। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণে কাজ শুরু করেছে সুন্দরবন বিভাগ। বনের বিভিন্ন স্থানে মিলছে বন্যপ্রাণির মরদেহ। ধীরে ধীরে স্পষ্ট হচ্ছে বনের ক্ষত। মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুর ৫টা পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী বনের বিভিন্ন স্থান থেকে ২৬টি হরিণের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ১৭টি হরিণ। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বন বিভাগের ২৫টি টহল ফাঁড়ি। লবণপানি ঢুকে নষ্ট হয়েছে কমপক্ষে ৮০টি মিষ্টিপানির পুকুর। সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাওলাদার আজাদ কবির বলেন, সুন্দরবনের বন্যপ্রাণীরা জলোচ্ছ্বাসের সঙ্গে অভ্যস্ত। সাধারণত জলোচ্ছ্বাস হলে বন্য প্রাণীরা উঁচু স্থান ও গাছে আশ্রয় নেয়। ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে বনের ভিতর অধিক উচ্চতায় জলোচ্ছ্বাস হয়েছে। ফলে বনের উঁচু স্থান তলিয়ে যাওয়ায় প্রাণীদের আশ্রয় নিতে সমস্যায় পড়তে হয়েছে। অধিক জলোচ্ছ্বাসের ফলে নিরাপদ আশ্রয় না যেতে পেরে হরিণগুলোর মৃত্যু হয়েছে। সুন্দরবন বিভাগের খুলনাঞ্চলের বন সংরক্ষক (সিএফ) মিহির কুমার দো বলেন, মঙ্গলবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী সুন্দরবনের কটকা ও দুবলা এলাকাসহ বনের বিভিন্ন স্থান থেকে মোট ২৬টি মৃত হরিণ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আহত অবস্থায় আরও ১৭টি হরিণ উদ্ধার করেছেন বনরক্ষীরা। তবে হরিণের পাশাপাশি আরও বন্যপ্রাণী মারা যেতে পারে। সেসব মৃত প্রাণীর খোঁজে বনরক্ষীরা তৎপর রয়েছে। তিনি আরও বলেন, বন বিভাগের টহল অফিসগুলোতে টিনের চালা, জানালা-দরজা, সোলার প্যানেল, ওয়ারলেস সিস্টেম ও অবকাঠামোর ক্ষতি হয়েছে। পূর্ব বন বিভাগের কটকা অভয়ারণ্যের অফিস ঘাটের জেটি ও পুকুর বঙ্গোপসাগর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। দুবলা, কটকা, কচিখালি, বগিসহ বিভিন্ন বন অফিসসহ ২৫টি টহল ফাঁড়ির রান্নাঘরসহ অবকাঠামোর টিনের চালা উড়িয়ে নিয়ে গেছে। সুন্দরবনের ৮০টি মিঠাপানির উৎস পুকুরে ৮-১০ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে লোনা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় বনকর্মীদের পাশাপাশি প্রাণীরাও সুপেয় পানির সংকটে পড়েছে।

https://sangbad.net.bd/images/2024/May/28May24/news/remal-2.jpg

সুন্দরবনে ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে উপড়ে গেছে অনেক গাছ-সংবাদ

বার বার ঘূর্ণিঝড় থেকে উপকূলীয় জনপদকে রক্ষা করছে সুন্দরবন

ঘূর্ণিঝড় রিমালের আঘাত ও ভারী বৃষ্টিপাতে উপকূলীয় জনপদ খুলনার কয়রা, পাইকগাছা ও দাকোপ উপজেলায় বাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি ঢুকছে প্লাবিত হয়েছে গ্রামের পর গ্রাম। অসংখ্য বাড়িঘর ও গাছপালা ভেঙে পড়েছে, তলিয়ে গেছে চিংড়ি ঘের; জমির ফসল। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বাংলাদেশ অংশে ছয় হাজারের বেশি বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে দাঁড়িয়ে থাকা বিশ্বঐতিহ্য সুন্দরবন।

উপকূলবাসী মনে করছেন, বরাবরের মতো এবারও প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডব থেকে উপকূল রক্ষায় ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছে সুন্দরবন।

সুন্দরবনের কারণে এবারও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে কম হয়েছে বলে মনে করেন খুলনা আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আমিরুল আজাদ।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের যে বাতাসের বেগ, সেটি ছিল ৯০ থেকে ১২০ কিলোমিটার। এই গতিবেগের একটি ঘূর্ণিঝড় যখন ভূমিতে আঘাত হানে, তখন এটি ১২০ বা ১৩০ হতে পারে। সে ক্ষেত্রে এটি যখন উপকূলে আঘাত হেনেছে, তখন উপকূল এলাকায় ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাতাসের বেগ ছিল।

খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. নাজমুল হুসেইন খান জানান, খুলনার দাকোপ, কয়রা ও পাইকগাছা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বেড়িবাঁধ ভেঙে গেছে। ৬০টি পয়েন্টে বাঁধ ভেঙে ও উপচে জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে অসংখ্য গ্রাম। পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। বিধ্বস্ত হয়েছে প্রায় ৭৭ হাজার ৯০৪টি বাড়িঘর। ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৪ লাখ ৫২ হাজার ২০০ মানুষ। এছাড়া ফসলের মাঠ, ঘের-পুকুর লোনা পানিতে ভেসে গেছে। প্রায় ২৪৬ কোটি টাকার মৎস্যসম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় চলাকালে বটিয়াঘাটা উপজেলায় গাছ চাপা পড়ে লাল চাঁদ মোড়ল নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, খুলনায় এবার ১২ হাজার ৭৪৮ হেক্টর জমিতে ফসল আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে ১২ হাজার ৭১৫ হেক্টর জমির ফসল খেতে ছিল। যা ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়েছে।

সাতক্ষীরা সুন্দরবনে ক্ষয়ক্ষতি কোটি টাকা
ঘূর্ণিঝড় রিমালের তাণ্ডবে সাতক্ষীরা রেঞ্জ পশ্চিম বনবিভাগের অবকাঠামোগত ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রিমালের আঘাতে সুন্দরবনে মিষ্টি পানির পুকুর, রিংবাঁধ ও জেটি জলোচ্ছ্বাসে ভেসে গেছে। এ তথ্য সংশ্লিষ্ট বনবিভাগের।

সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) একেএম ইকবাল হোসেন চৌধুরী ক্ষয়ক্ষতির বর্ণনা দিয়ে বলেন, সুন্দরবনে প্রাণী জগৎসহ বনজীবিদের মিষ্টি পানির চাহিদা মেটানোর জন্য ১৬টি পুকুর খনন করা হয়। ঝড়ের কারণে জলোচ্ছ্বাসে সমস্ত পুকুরগুলো লোনা পানিতে একাকার হয়ে গেছে। বনরক্ষী, পর্যটক ও বনজীবিদের উঠানামার জন্য ৮টি জেটি জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে। তাছাড়া বন বিভাগের নির্মিত অর্ধশতাধিক রিংবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ১ কোটি ৬ লখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জলোচ্ছ্বাসে নদীতে ভেসে আসা ৩টি হরিণ শাবক উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শেষে পুনরায় সুন্দরবনে অবমুক্ত করা হয়েছে তিনি জানান। তবে, রিমালের তাণ্ডবে সুন্দরবনে গাছপালা কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তিনি জানাতে পারেননি।

back to top