alt

বাংলাদেশ

সখীপুরে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে ‘মাংস সমিতি’

প্রতিনিধি, সখীপুর(টাঙ্গাইল) : বুধবার, ১২ মে ২০২১
image

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে গরিবের ‘মাংস সমিতি’। মাসিক সঞ্চয় জমা করে সমিতির মাধ্যমে। এ মাংস পেয়ে ভালোভাবেই কাটবে ঈদ- এমনটাই প্রত্যাশা সমিতির সদস্যদের।

সমিতির সদস্য উপজেলার হামিদপুর গ্রামের অটোচালক শাহ আলম মিয়া বলেন, “আমরা গরিব মানুষ। ঈদে পোলাপানগো জামা কাপড় দিতেই সব টেকা শেষ। কোন মতে চিনি সেমাই কিনছি। মাংস কেনার টাকা পাবো কোথায়? কিন্তু সমিতি কইরা এইবার প্রায় ৬ কেজি গরুর মাংস পাবো। সেই মাংস পোলাপানরে খাওয়াইতে পারব।”

প্রতিমা বংকী গ্রামের আরফান আলী বলেন, মাংস সমিতির মাধ্যমে নিজেরা গরু কিনে এনে ভালো মাংস পাওয়া যায়। খরচও কম। তাছাড়া আমরা মাসিক হারে চাঁদা তুলি। এতে সদস্যদের টাকা দিতে কষ্টও কম হয়।

জানা যায়, উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় প্রায় ৫’শরও বেশি সমিতি গরিব, নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত মানুষের মাংসের চাহিদা পূরণ করবে। প্রতিটি মাংস সমিতির সদস্য সংখ্যা ৩০ থেকে ৬০ জন। সারাবছর প্রতিমাসে একটু একটু করে সঞ্চয় করে ঈদের দুই একদিন আগে পশু কিনে জবাই করে মাংস ভাগ করে নেন সমিতির সদস্যরা। এতে করে ঈদে বাড়তি আনন্দ পান এবং তাদের আর্থিক চাপও কমে যায়। উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম, পাড়া বা মহল্লায় ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে এ ধরনের মাংস বা গরু সমিতি গঠন করা হয়। শুরুতে শুধুমাত্র নিম্নবিত্ত মানুষেরা এ ধরনের সমিতি করলেও এখন মধ্যবিত্ত এবং উচ্চবিত্তরাও মাংস সমিতি করছেন। প্রতিবছর বাড়ছে মাংস সমিতির সংখ্যা। চৌরাস্তা গ্রামের মাংস সমিতি গঠনের মূল উদ্যোক্তা ইসমাইল হোসেন জানান, তাদের সমিতিতে সদস্য সংখ্যা ৫৩ জন। প্রত্যেকে মাসিক ২শ টাকা করে জমা দেয়। বছর ঘুরে সমিতিতে জমা হয় ১ লাখ ২৭ হাজার ৫০০ টাকা। এই টাকা দিয়ে গরু কিনে সদস্যদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়। প্রত্যেকের ভাগে পাঁচ কেজি করে মাংস পড়ে। তাদের এলাকাতেই এ ধরনের অন্তত দশটি সমিতি রয়েছে।

ছবি

দিনাজপুরে শনাক্তের হার ৩৬.৯৭ শতাংশ, ঢিলেঢালা লকডাউন চলছে সদরে

ছবি

করোনায় রাজশাহীতে আরও ১০ জনের মৃত্যু

ছবি

ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা যুবক গ্রেপ্তার

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও সাত দিন বাড়ল

বিভিন্ন ব্যাংকের ৩০০ কোটি টাকা লোপাটের ৫৪ মামলা, ১০টির বিচার শেষ

মুক্তি পেলেন অন্যের সাজা খাটা শিমু আক্তার

ছবি

সংক্রমণ বেড়েই চলেছে

ছবি

পরীমনিকে যেভাবে দেখা গেল বোট ক্লাবের সিসি ক্যামেরায়

ছবি

বেদখল হওয়া সরকারি জায়গা উদ্ধারে সরব গজারিয়া প্রশাসন

ছবি

চার লাখ টাকার জন্য পায়ের অপারেশন হচ্ছেনা বেরোবির মেধাবী শিক্ষার্থী লিমনের

ছবি

পরিচ্ছন্ন কর্মীদের জন্য দশতলা ভবন

ছবি

নরসিংদী’র বাতিঘর মনোহরদী শাখার বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

ছবি

ব্রীজ আছে রাস্তা নেই, দুভোর্গ চরমে

ছবি

আ’লীগ কার্যালয়ে নৃশংস বোমা হামলার ২০ বছর, বিচার হয়নি

ছবি

সিলেট নগরীর মােড়ে মােড়ে ট্রাফিক পুলিশের অভিযান

ছবি

৬৫ বছরের বৃদ্ধকে পিটিয়ে পা ভেঙে দেওয়ার ঘটনায় মামলা না নেওয়ার অভিযোগ

মোরেলগঞ্জে ১০ দোকান পুড়ে ছাই

সখীপুরে বিনা নোটিশে কৃষকের কলাবাগান কর্তন বনবিভাগের

বেনাপোল কাস্টম কর্তারাই চুরি করেন ২০ কেজি স্বর্ণ

তারাকান্দায় একযুগ পর সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

সাথিয়ায় চালক হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন নারীসহ গ্রেপ্তার ৫

খুলনায় গভীর রাতে ঘর থেকে ডেকে নারীকে হত্যা

ছবি

চাঁদপুরে মিনি পার্ক থেকে অজগরসহ বন্যপ্রাণী উদ্ধার

মেম্বারের বিরুদ্ধে সর. ঘর-ভাতা প্রদানে বাণিজ্যের অভিযোগ

ছবি

অপরিকল্পিত খাল খননে ধসে গেছে সড়ক, হুমকিতে শতাধিক বাড়ি

শরণখোলায় ছেলেকে বাঁচাতে ভ্যান চালক পিতার আকুতি

জাজিরায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৩ লঞ্চ মালিককে জরিমানা

কুড়িগ্রামে করোনা সচেতনতায় পৌরসভায় বিধি নিষেধ আরোপ

বাগেরহাটে করোনায় মৃত ৩ শনাক্ত ৭৬

রাজশাহীতে করোনার‘মৃত্যু মিছিলেযুক্ত’ আরও ১৩ প্রাণ

কী কারণে মা ও দুই সন্তানকে হত্যা ?

সিলেটে করােনাভাইরাসে ৭ জনের মৃত্যু

ছবি

শায়েস্তাগঞ্জে প্রাণ আরএফএল কোম্পানির এক শ্রমিকের করুণ মৃত্যু

ছবি

বদলগাছীতে নির্মাণ কাজের ৭ দিনের মধ্যে ভাঙতে শুরু করেছে সড়কের দুই পাড়

ছবি

২৪ ঘণ্টায় যশোরে ২০৪ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত ৫

ছবি

রাজশাহী মেডিকেলে করোনায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু

tab

বাংলাদেশ

সখীপুরে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে ‘মাংস সমিতি’

প্রতিনিধি, সখীপুর(টাঙ্গাইল)
image

বুধবার, ১২ মে ২০২১

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে গরিবের ‘মাংস সমিতি’। মাসিক সঞ্চয় জমা করে সমিতির মাধ্যমে। এ মাংস পেয়ে ভালোভাবেই কাটবে ঈদ- এমনটাই প্রত্যাশা সমিতির সদস্যদের।

সমিতির সদস্য উপজেলার হামিদপুর গ্রামের অটোচালক শাহ আলম মিয়া বলেন, “আমরা গরিব মানুষ। ঈদে পোলাপানগো জামা কাপড় দিতেই সব টেকা শেষ। কোন মতে চিনি সেমাই কিনছি। মাংস কেনার টাকা পাবো কোথায়? কিন্তু সমিতি কইরা এইবার প্রায় ৬ কেজি গরুর মাংস পাবো। সেই মাংস পোলাপানরে খাওয়াইতে পারব।”

প্রতিমা বংকী গ্রামের আরফান আলী বলেন, মাংস সমিতির মাধ্যমে নিজেরা গরু কিনে এনে ভালো মাংস পাওয়া যায়। খরচও কম। তাছাড়া আমরা মাসিক হারে চাঁদা তুলি। এতে সদস্যদের টাকা দিতে কষ্টও কম হয়।

জানা যায়, উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় প্রায় ৫’শরও বেশি সমিতি গরিব, নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত মানুষের মাংসের চাহিদা পূরণ করবে। প্রতিটি মাংস সমিতির সদস্য সংখ্যা ৩০ থেকে ৬০ জন। সারাবছর প্রতিমাসে একটু একটু করে সঞ্চয় করে ঈদের দুই একদিন আগে পশু কিনে জবাই করে মাংস ভাগ করে নেন সমিতির সদস্যরা। এতে করে ঈদে বাড়তি আনন্দ পান এবং তাদের আর্থিক চাপও কমে যায়। উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম, পাড়া বা মহল্লায় ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে এ ধরনের মাংস বা গরু সমিতি গঠন করা হয়। শুরুতে শুধুমাত্র নিম্নবিত্ত মানুষেরা এ ধরনের সমিতি করলেও এখন মধ্যবিত্ত এবং উচ্চবিত্তরাও মাংস সমিতি করছেন। প্রতিবছর বাড়ছে মাংস সমিতির সংখ্যা। চৌরাস্তা গ্রামের মাংস সমিতি গঠনের মূল উদ্যোক্তা ইসমাইল হোসেন জানান, তাদের সমিতিতে সদস্য সংখ্যা ৫৩ জন। প্রত্যেকে মাসিক ২শ টাকা করে জমা দেয়। বছর ঘুরে সমিতিতে জমা হয় ১ লাখ ২৭ হাজার ৫০০ টাকা। এই টাকা দিয়ে গরু কিনে সদস্যদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়। প্রত্যেকের ভাগে পাঁচ কেজি করে মাংস পড়ে। তাদের এলাকাতেই এ ধরনের অন্তত দশটি সমিতি রয়েছে।

back to top