alt

সারাদেশ

নোয়াখালীতে স্কুলছাত্রকে একসঙ্গে ৩ টিকা, তদন্তে কমিটি

প্রতিনিধি, নোয়াখালী: : শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার হাটপুকুরিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রকে ‘২ মিনিটের ব্যবধানে একই হাতে পরপর ৩ বার’ করোনার টিকা দেওয়ার অভিযোগ ওঠায় চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করেছে জেলা স্বাস্থ্য প্রশাসন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় তলার শীতাতপনিয়ন্ত্রণ কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. ইয়াছিন হোসেন ওরফে আরাফাত (১৪)। সে হাটপুকুরিয়া ঘাটলাবাগ ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের নেয়াজ আলী ব্যাপারীবাড়ির ইব্রাহীম খলিলের ছেলে। তবে সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মী ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

জেলার সিভিল সার্জন মাসুম ইফতেখার জানিয়েছেন, ওই শিক্ষার্থী তার বাসায় পর্যবেক্ষণে আছে, তার ভেতরে কোনো সমস্যা দেখা যায়নি। অভিযোগ খতিয়ে দেখতে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

হাটপুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ওই শিক্ষার্থী করোনাভাইরাসের টিকা নিতে গতকাল সকালে তার সহপাঠীদের সঙ্গে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যায়। উপজেলার মোট সাতটি স্কুলের শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয় সেখানে।

করোনার টিকা নিয়ে বেরিয়ে এসে সে অন্য শিক্ষার্থীদের কাছে দাবি করে, দায়িত্বরত স্বাস্থ্যকর্মী তার এক হাতে ‘তিনবার টিকা পুশ করেছে’।

হাটপুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হানিফ জানান, তার ছাত্র অভিযোগ করার পর বিষয়টি তারা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগকে জানান। তাৎক্ষণিকভাবে ওই কিশোরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় পর্যবেক্ষণে রাখার জন্য।

চাটখিলের উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোস্তাক আহমেদ বলেন, ওই কিশোরকে টিকা দিয়েছেন দিদার হোসেন নামের এক স্বাস্থ্যকর্মী। অভিযোগ ওঠায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিস (শোকজ) দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, যেটুকু ধারণা পাওয়া গেছে, ওই শিক্ষার্থীর অভিযোগ সঠিক নয়। তারপরও যেহেতু অভিযোগ উঠেছে, তাই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সিভিল সার্জন মাসুম ইফতেখার বলেন, অভিযোগ জানার পর টিকাদানকর্মীর সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, প্রথমবার টিকা দেওয়ার সময় ছেলেটি জোরে হাত নাড়ে, ফলে টিকার তরল অংশ পড়ে যায়। তখন টিকাদানকর্মী তাকে আরেকটি নতুন টিকা দেন।

তিনি বলেন, তিনটি টিকা দেওয়ার যে অভিযোগ শিক্ষার্থী করেছে, সেটি ঠিক নয়। স্বাভাবিক নিয়মে এমনটি হওয়ার সুযোগ খুবই কম।

ছবি

স্নাতক পরীক্ষার দাবিতে পরীক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ফরিদপুরে নবজাতকের হাড় ভাঙার ঘটনায় মামলা

প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের জন্য ই-স্পেশালিস্ট সেবায় ডিজিটাল হসপিটালের অংশীদারিত্ব

ভবদহে জলাবদ্ধতা নিরসনে ৬ দাবি

ছবি

৮০টি নৌপথই মৃতপ্রায় ঠেলে ঠেলে চলছে নৌযান

গণহত্যা দিবস এলেই হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয় : চসিক মেয়র

ছবি

অটোরিক্সার জন্য হত্যা, গ্রেফতার ৫

ছবি

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ৯ জেব্রার রহস্যজনক মৃত্যু

মাদ্রাসা ছাত্রকে ৪র্থ তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে

ছবি

চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তের হার ৩৬.৫৪, মৃত্যু ৩

ছবি

রাজশাহীতে শনাক্ত ৫৫ দশমিক ৭৮ শতাংশ

ছবি

সীমান্ত জেলাগুলো ফের সংক্রমণের হটস্পটে পরিণত হচ্ছে

নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টের রোগী বাড়ছে

ছবি

কালীগঞ্জে খালের পাড়ে পড়েছিল দুই মামলার প্রধান সাক্ষী পীর আলীর মরদেহ

ছবি

বিএসএমএমইউর ইউরোলজি বিভাগে বন্ধ লেজার মেশিন সচল

চাটখিল-সোনাইমুড়িতে প্রধান শিক্ষক নেই ৪৪ প্রাথমিকে

ছবি

শীতে জবুথবু সিরাজগঞ্জ

কর্তাদের যোগসাজশে অবৈধ গ্যাস সংযোগের হিড়িক

চকরিয়ায় সালিশ বৈঠকে হতাহত ৪

ছবি

বরুড়ায় ১৫০ করোনাযোদ্ধাকে সম্মাননা

ছবি

কক্সবাজারে কচ্ছপগতিতে চলছে সড়কের কাজ

ছবি

আলুর দাম কম দিশেহারা কৃষক

শেরপুরে কষ্টি পাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার

ছবি

বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ছবি

মাধবপুরে আর চোখে পড়ে না বকের সারি

ছবি

চাঁদপুরে নৌপথে ডাকাতি, পুলিশ সুপারের রহস্য উদঘাটনের আশ্বাস!

ছবি

বিএসএমএমইউতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৫ ইউনিট

ছবি

অপকর্মে লিপ্তদের পুলিশে ঠাঁই নেই: আইজিপি

‘সাংস্কৃতিক বিপ্লবে সাম্প্রদায়িকতা রুখতে হবে’

ছবি

সৈকতে ফের ভেসে এল ইরাবতি ডলফিন

৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত জাপানি মায়ের কাছে থাকবে দুই শিশু

সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যুর তদন্ত চায় ডিআরইউ

ছবি

নারায়ণগঞ্জে সোয়েটার কারখানা লে-অফ ঘোষণায় শ্রমিক বিক্ষোভ

দুই জেলায় করোনা শনাক্ত ৬০ শতাংশ

লাফিয়ে বাড়ছে করোনা হলুদ থেকে লাল জোনে রাজশাহী

ভূমি অবৈধ দখলরোধে আইন হচ্ছে : চিহ্নিত বাইশ অপরাধ

tab

সারাদেশ

নোয়াখালীতে স্কুলছাত্রকে একসঙ্গে ৩ টিকা, তদন্তে কমিটি

প্রতিনিধি, নোয়াখালী:

ছবি: সংগৃহীত

শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২২

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার হাটপুকুরিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রকে ‘২ মিনিটের ব্যবধানে একই হাতে পরপর ৩ বার’ করোনার টিকা দেওয়ার অভিযোগ ওঠায় চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করেছে জেলা স্বাস্থ্য প্রশাসন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় তলার শীতাতপনিয়ন্ত্রণ কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. ইয়াছিন হোসেন ওরফে আরাফাত (১৪)। সে হাটপুকুরিয়া ঘাটলাবাগ ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের নেয়াজ আলী ব্যাপারীবাড়ির ইব্রাহীম খলিলের ছেলে। তবে সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মী ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

জেলার সিভিল সার্জন মাসুম ইফতেখার জানিয়েছেন, ওই শিক্ষার্থী তার বাসায় পর্যবেক্ষণে আছে, তার ভেতরে কোনো সমস্যা দেখা যায়নি। অভিযোগ খতিয়ে দেখতে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

হাটপুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ওই শিক্ষার্থী করোনাভাইরাসের টিকা নিতে গতকাল সকালে তার সহপাঠীদের সঙ্গে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যায়। উপজেলার মোট সাতটি স্কুলের শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয় সেখানে।

করোনার টিকা নিয়ে বেরিয়ে এসে সে অন্য শিক্ষার্থীদের কাছে দাবি করে, দায়িত্বরত স্বাস্থ্যকর্মী তার এক হাতে ‘তিনবার টিকা পুশ করেছে’।

হাটপুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হানিফ জানান, তার ছাত্র অভিযোগ করার পর বিষয়টি তারা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগকে জানান। তাৎক্ষণিকভাবে ওই কিশোরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় পর্যবেক্ষণে রাখার জন্য।

চাটখিলের উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোস্তাক আহমেদ বলেন, ওই কিশোরকে টিকা দিয়েছেন দিদার হোসেন নামের এক স্বাস্থ্যকর্মী। অভিযোগ ওঠায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিস (শোকজ) দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, যেটুকু ধারণা পাওয়া গেছে, ওই শিক্ষার্থীর অভিযোগ সঠিক নয়। তারপরও যেহেতু অভিযোগ উঠেছে, তাই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সিভিল সার্জন মাসুম ইফতেখার বলেন, অভিযোগ জানার পর টিকাদানকর্মীর সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, প্রথমবার টিকা দেওয়ার সময় ছেলেটি জোরে হাত নাড়ে, ফলে টিকার তরল অংশ পড়ে যায়। তখন টিকাদানকর্মী তাকে আরেকটি নতুন টিকা দেন।

তিনি বলেন, তিনটি টিকা দেওয়ার যে অভিযোগ শিক্ষার্থী করেছে, সেটি ঠিক নয়। স্বাভাবিক নিয়মে এমনটি হওয়ার সুযোগ খুবই কম।

back to top